০৯:৩১:১২ বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮

সর্বশেষ সংবাদ :

     • মাশরাফির বিকল্প হিসেবে যাকে পছন্দ রোডসের     • আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে যে গোপন কথা বললেন জেমস     • কেঁদে কেঁদে যা বললেন তিশা     • কোথায় আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার? বাবার মৃত্যুকালে ছেলে-মেয়েরা যেখানে ছিলেন…     • সেই দিন সুইমিংপুলে মুশফিকুরকে অনেকক্ষণ ধরে ডুবিয়ে রেখেছিলেন মাশরাফি! ভয় পেয়ে...     • হিমঘরে শুয়ে ছেলে-মেয়ের জন্য প্রহর গুনছেন আইয়ুব বাচ্চু     • আরেক অলরাউন্ডার খুঁজে পেলেন কোচ রোডস     • সেদিন আইয়ুব বাচ্চুর গান গেয়ে তাঁকেই তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন পেসার রুবেল!     • 'পরবর্তী জীবনেও বাচ্চুকেই স্বামী হিসেবে চাই'     • একমাত্র ছেলের জন্য সবার কাছে আইয়ুব বাচ্চুর অনুরোধটা কী ছিল?

বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ১২:৪৭:৪৬

নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে হেফাজতে ইসলাম

নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে হেফাজতে ইসলাম

মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম থেকে : একক আধিপত্য বিস্তার, একঘেয়ে সিদ্ধান্ত, কিছু নেতার রাজনীতিতে ‘জড়িয়ে পড়া-অতি জড়িয়ে পড়া’— ইত্যাদি বিতর্কের কারণে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন শীর্ষ নেতাদের অনেকে। ফলে এক সময়ের আলোচিত এ সংগঠনটি এক প্রকার নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে।

বড় বড় নেতারা নিষ্ক্রিয় হওয়ায় পরিণামে এখন বিভিন্ন ইস্যুতে প্রেসরিলিজ প্রদান ও শানে রেসেলাহ সম্মেলনের মধ্যে সীমাবদ্ধ রয়েছে তাদের কার্যক্রম। হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মাঈন উদ্দীন রুহীর দাবি কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে কোনো দূরত্ব নেই।

তিনি বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে মাঠপর্যায়ে কোনো কর্মসূচি দেওয়া হচ্ছে না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন আমরা শুধু শানে রেসেলাহ সম্মেলন ও ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে নিজেদের সক্রিয় রেখেছি। অনুকূল পরিবেশ এলে আবার ১৩ দফা দাবি নিয়ে মাঠপর্যায়ের কর্মসূচি দেওয়া হবে।

তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক নেতা বলেন, অনেক সিনিয়র নেতা এখন সংগঠনে আগের মতো গুরুত্ব পান না। অনেককে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে ডাকাও হয় না। তাই সিনিয়র নেতাদের অনেকের সঙ্গেই হেফাজতে দূরত্ব বেড়েছে। সিনিয়র নেতারা মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায় এখন হেফাজত আগের মতো কর্মসূচি দিতে পারছে না।

হেফাজতের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১৩ দফা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আলোচনায় আসে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। তাদের দাবির মুখে উচ্চ আদালত থেকে গ্রিক মূর্তি অপসারণ, পাঠ্যবই পরিবর্তন হয়। এ ছাড়া তাদের দাবির মুখে কিছু সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয় সরকার। দেশ বিদেশে আলোড়ন সৃষ্টিকারী সংগঠনটিতে এখন চলছে গৃহদাহ।

শীর্ষ নেতাদের মধ্যে একক আধিপত্য বিস্তার, নিজস্ব বলয় তৈরি, শীর্ষ নেতাদের কেউ কেউ একক ক্ষমতা বলে একঘেয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং কিছু কিছু নেতার ‘অতি রাজনীতি’তে অসন্তুষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটির অনেকেই। তাই শীর্ষ নেতাদের অনেকেই এখন সংগঠনের কোনো গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে অংশ গ্রহণ করেন না। এমনকি প্রতিষ্ঠাতাদের অনেকেই সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন না।

হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন মাওলানা আবদুল মালেক হালিম। তিনি এ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে তিনি সংগঠনের কোনো কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন না। হেফাজতের বর্তমান কমিটির সিনিয়র নায়েবে আমির মহিবুল্লাহ বাবুনগরী। তিনিও ছয় মাসের বেশি সময় ধরে অভ্যন্তরীণ কোনো বৈঠকে আসছেন না।

একই ভাবে দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয় রয়েছেন এমন নেতাদের মধ্যে রয়েছেন যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা সালাহউদ্দিন, নায়েবে আমির মো. ইদ্রিস, আবদুল হামিদ মধুপুরী, মুফতি ওয়াক্কাস, মাওলানা আকদুল কুদ্দুস, মাওলানা সাজেদুর রহমানসহ কমপক্ষে ২০ হেফাজতে ইসলাম নেতা। বিডি প্রতিদিন
এমটিনিউজ/এসএস



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


যে কারণে মানুষ সৃষ্টিতে কান্না করেছিল মাটি, জানলে আপনিও কাঁদবেন

যে-কারণে-মানুষ-সৃষ্টিতে-কান্না-করেছিল-মাটি-জানলে-আপনিও-কাঁদবেন

সৌদির আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত বিজয়ীর নাম ঘোষণা

সৌদির-আন্তর্জাতিক-কুরআন-প্রতিযোগিতার-চূড়ান্ত-বিজয়ীর-নাম-ঘোষণা

পাগলা মসজিদের দানবাক্সের সোয়া কোটি টাকা কী করা হবে?

পাগলা-মসজিদের-দানবাক্সের-সোয়া-কোটি-টাকা-কী-করা-হবে- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


মেজ সন্তানরা ব্যক্তিগত এবং কর্ম জীবনে বেশি সফলতা লাভ করেন

মেজ-সন্তানরা-ব্যক্তিগত-এবং-কর্ম-জীবনে-বেশি-সফলতা-লাভ-করেন

সৃষ্টিকর্তা বলে কেউ নেই: স্টিফেন হকিং

সৃষ্টিকর্তা-বলে-কেউ-নেই-স্টিফেন-হকিং

সৌদির অবরোধ কাতারে যেভাবে এনে দিল কৃষি বিপ্লব!

সৌদির-অবরোধ-কাতারে-যেভাবে-এনে-দিল-কৃষি-বিপ্লব- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


মুশফিক তেমন খেলোয়ার নয়, তার সাথে এটি হতে পারেনা: পাপন

২৫৬ বছর বাঁচলেন তিনি! কী খেয়ে বাঁচলেন মৃত্যুর আগে জানালেন

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সৌম্য সরকারের নেতৃত্বে ১২ সদস্যের দল ঘোষণা

যে ৫ কারণে সৌদিকে ভয় পায় পশ্চিমারা

পাঠকই লেখক


বিয়ে করে একজন গরীবের মেয়েকে বউ করে এনেছিলাম, তারপর...

বিয়ে-করে-একজন-গরীবের-মেয়েকে-বউ-করে-এনেছিলাম-তারপর

যদি ১৯৮৫-৯৫ সালের মধ্যে জন্মে থাকেন, তারা পড়ে আবেগাপ্লূত হয়ে যাবেন!

যদি-১৯৮৫-৯৫-সালের-মধ্যে-জন্মে-থাকেন-তারা-পড়ে-আবেগাপ্লূত-হয়ে-যাবেন-

এক লোক ঘরে ঢুকে দেখে স্ত্রী কান্নাকাটি করছে ,কারণ...

এক-লোক-ঘরে-ঢুকে-দেখে-স্ত্রী-কান্নাকাটি-করছে-কারণ পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ