০৪:২৯:৪২ বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ‘নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ’     • জরুরি সংবাদ সম্মেলনে যে ঘোষণা দিলেন কর্নেল অলি     • তবে ঘটনা অন্য যায়গায়, আর এতেই মুমিনুল টপকে গেলেন বিরাট কোহলিকেও     • শুধু দুর্দান্ত সেঞ্চুরিই নয়, মুমিনুল ছাড়িয়ে গেলেন তামিম ইকবালকেও     • ‘১৫ ডিসেম্বরের পর থেকে পুলিশের সঙ্গে মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী’     • সেনাকুঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা হলো মির্জা ফখরুলের     • বাংলাদেশ ব্যাংকে চাকরির বিজ্ঞপ্তি     • ভারত-পাকিস্তান নয়, এশিয়া কাপের সর্বোচ্চ দর্শক হয়েছে বাংলাদেশের ম্যাচে!     • আজ যাদেরকে নিয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ!     • ঐক্যফ্রন্টে নুরুল আমিন ব্যাপারীর বিকল্প ধারার ৯ আসন দাবি

বুধবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৮, ০২:২৪:১৯

যে ৫ কারণে সৌদিকে ভয় পায় পশ্চিমারা

যে ৫ কারণে সৌদিকে ভয় পায় পশ্চিমারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে আঙ্কারায় সৌদি দূতাবাসে হত্যার ঘটনায় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছে পশ্চিমা দেশগুলো। সাধারণত পশ্চিমারা যেসব কারণে বিভিন্ন দেশের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়ে থাকে সেই একই কারণে সৌদি আরবের ক্ষেত্রে কোনো ব্যবস্থা নিতে দেখা যাচ্ছে না।

পশ্চিমা দেশগুলো নানা কারণে সৌদি আরবকে ঘাটাতে চায় না। জামাল খাশোগির ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হুঁশিয়ারি দিলেও পাল্টা জবাব দিয়েছেন সৌদি যুবরাজ। যে ৫ কারণে সৌদিকে ভয় পায় পশ্চিমারা সেগুলো হচ্ছে;

তেলের সরবরাহ এবং দাম: বিশ্বে তেলের মওজুদের ১৮ শতাংশ হচ্ছে সৌদি আরবে। তারাই বিশ্বের সবচেয়ে বড় তেল রফতানিকারক দেশ। এটি সৌদি আরবকে বর্তমান বিশ্বে বিপুল ক্ষমতা এবং প্রভাব খাটানোর সুযোগ করে দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র এবং অন্যান্য দেশ সৌদি আরবের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিলে সৌদি আরব তাদের তেলের সরবরাহ কমিয়ে দিতে পারে। এর ফলে বিশ্ব বাজারে তেলের দাম বেড়ে যাবে, যদি না অন্যদেশগুলো তাদের উৎপাদন বাড়িয়ে তেলের সরবরাহ একই পর্যায়ে রাখতে পারে।

অস্ত্র ব্যবসা: ২০১৭ সালে অস্ত্র কেনায় যেসব দেশ সবচেয়ে বেশি অর্থ খরচ করেছে, তাতে সৌদি আরব ছিল তিন নম্বরে। সুইডেনের 'স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের' হিসেব এটা।

গত বছর কেবলমাত্র যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেই ১১ হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র কেনার চুক্তি করেছে সৌদি আরব। আগামী দশ বছরে এই অস্ত্র ক্রয়ের খরচ শেষ পর্যন্ত দাঁড়াতে পারে ৩৫ হাজার কোটি ডলার। হোয়াইট হাউজের ভাষায়, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এত বিশাল অংকের অস্ত্র কেনার চুক্তি আর কখনো হয়নি। শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং জার্মানিও বিরাট অংকের অস্ত্র ব্যবসা করছে সৌদি আরবের সঙ্গে।

নিরাপত্তা এবং সন্ত্রাসবাদ: পশ্চিমা দেশগুলো আরেকটি যুক্তি দেখায় যে সৌদি আরব মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তা ঠিক রাখা এবং সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গীবাদ দমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ইয়েমেনের যুদ্ধে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে যখন যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ উঠে তারপরও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে সৌদি আরবের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রাখার পক্ষে এই একই যুক্তি দিয়েছিলেন।

আঞ্চলিক জোট: মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের প্রভাব খর্ব করতে সৌদি আরব বহুদিন ধরেই যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একযোগে কাজ করছে। গত কয়েক দশক ধরেই সুন্নী সৌদি আরব এবং শিয়া ইরানের মধ্যে তীব্র দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলছে মধ্যপ্রাচ্যের নানা জায়গায়।

সিরিয়ার লড়াইয়ে সৌদি আরব সমর্থন দিচ্ছে সেই সব গোষ্ঠীকে, যারা প্রেসিডেন্ট আসাদকে উৎখাত করতে চায়। অন্যদিকে ইরান আবার রাশিয়ার সঙ্গে মিলে প্রেসিডেন্ট আসাদকে সাহায্য করছে এই যুদ্ধের মোড় তার পক্ষে ঘুরিয়ে দেয়ার জন্য।

যুক্তরাষ্ট্র কোন নিষেধাজ্ঞা জারি করলে সৌদি আরবের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক ভালো হবে এবং নতুন অস্ত্র চুক্তি তখন ইরানের সঙ্গে সৌদি সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হতে পারে এমনকী তাদের মধ্যে সমঝোতা পর্যন্ত হতে পারে।

বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ: সৌদি আরবের বাজারে যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানিগুলো তাদের ব্যবসা হারাতে পারে। বর্তমানে সৌদি আরবে মার্কিন পণ্য এবং সেবাখাত প্রায় ৪৬ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা করে। এই ব্যবসার বিরাট অংশ যুক্তরাষ্ট্রের অনুকুলে।

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য দফতরের হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় এক লাখ ৬৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান নির্ভর করছে এই বাণিজ্যের ওপর।

এ বছরেরই আগস্ট মাসে সৌদি আরব কানাডার সঙ্গে সব নতুন ব্যবসা বন্ধ করে দিয়েছিল। কারণ কানাডা এক বিবৃতিতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল সেদেশে নারী অধিকার এবং মানবাধিকারের পক্ষে কথা বলায় তাদের আটক করা হয়েছিল, তাদের যেন মুক্তি দেয়া হয়। সৌদি আরব তখন ক্ষিপ্ত হয়ে একে তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বলে বর্ণনা করে।

সৌদি আরব শুধু কানাডা থেকে শস্য আমদানিই বন্ধ করেনি। তারা সৌদি সরকারের বৃত্তি নিয়ে যে হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রী কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পড়তে গিয়েছিল তাদের সবাইকে ফিরে আসার নির্দেশ দেয়।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


আপনার যৌবনকে ধরে রাখতে মাত্র দু'টি ফল খান: মুফতি কাজী ইব্রাহীম

আপনার-যৌবনকে-ধরে-রাখতে-মাত্র-দু-টি-ফল-খান-মুফতি-কাজী-ইব্রাহীম

মসজিদটি মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কুরআনে বর্ণিত জান্নাতের আদলে নির্মিত

মসজিদটি-মুসলমানদের-পবিত্র-ধর্মগ্রন্থ-আল-কুরআনে-বর্ণিত-জান্নাতের-আদলে-নির্মিত

যে ব্যক্তি পরপর তিনবার জুমআ’র নামাজ ত্যাগ করল, তার পরিণতি…

যে-ব্যক্তি-পরপর-তিনবার-জুমআ’র-নামাজ-ত্যাগ-করল-তার-পরিণতি… ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


রহস্যময় কুয়োর তলায় বিস্ময়, উঠে এল প্রাচীন সৈন্যের দল!

রহস্যময়-কুয়োর-তলায়-বিস্ময়-উঠে-এল-প্রাচীন-সৈন্যের-দল-

এই গাছটি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের মহৌষধ! নিজে জানুন, অপরকে জানিয়ে দিন

এই-গাছটি-ডায়াবেটিস-নিয়ন্ত্রণের-মহৌষধ--নিজে-জানুন-অপরকে-জানিয়ে-দিন

মেয়েটি স্কুল থেকে ভ্রমণের জন্য একটা বৃদ্ধাশ্রমে গিয়ে খুঁজে পায় তার হারানো দাদীকে!

মেয়েটি-স্কুল-থেকে-ভ্রমণের-জন্য-একটা-বৃদ্ধাশ্রমে-গিয়ে-খুঁজে-পায়-তার-হারানো-দাদীকে- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


আপনার যৌবনকে ধরে রাখতে মাত্র দু'টি ফল খান: মুফতি কাজী ইব্রাহীম

কেমন হলো বাংলাদেশ দলের স্কোয়াড?

বিশাল সুখবরটি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করলেন পাপন

শেষমেশ যে আসন থেকে মাশরাফির মনোনয়ন ঘোষণা আ.লীগের

পাঠকই লেখক


নারী দৌড় দিলো পিছে পিছে কৃষক, পুরোহিত ও বাদশাহ দৌড় দিলো, দৌড়াতে দৌড়াতে...

নারী-দৌড়-দিলো-পিছে-পিছে-কৃষক-পুরোহিত-ও-বাদশাহ-দৌড়-দিলো-দৌড়াতে-দৌড়াতে

দুলাভাই ভয়ংকর

দুলাভাই-ভয়ংকর

বাসর রাত ও মায়াবতী

বাসর-রাত-ও-মায়াবতী পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ