০৩:২৪:৫৯ বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮


শুক্রবার, ০৫ অক্টোবর, ২০১৮, ১১:৩৩:৪৪

নবী করীম (সাঃ) বলেছেন, দুনিয়া মুমিনের জেলখানা ও কাফেরের জান্নাত

নবী করীম (সাঃ) বলেছেন, দুনিয়া মুমিনের জেলখানা ও কাফেরের জান্নাত

আমিন মুনশি: জীবনের উত্থান-পতন, দুঃখ, বেদনা, নিয়ে হতাশ হয়ে কোন লাভ নেই। কারণ জীবন থেকে দুঃখ-কষ্ট, বিপদ-মুসিবতকে আলাদা করা যায়না। আল্লাহ তায়ালার ঘোষণা- পৃথিবীতে আর তোমাদের জীবনে যে বিপদ আসে তা আমি ঘটানোর পূর্বেই লিখে রেখেছি। (৫৭-সূরা আল হাদীদ: আয়াত-২২)

সুতরাং জীবনের অর্থই হলো-সংগ্রাম, পরিশ্রম, কাজ আর দায়িত্বের এক মহা-সমাহার। তার মধ্যে সুখ হলো একটি ব্যতিক্রম বা একটি ক্ষণস্থায়ী পর্ব, যা বিক্ষিপ্তভাবে আসে আর যায়। কিন্তু এসবের মাঝেও মানুষ জীবনকে দারুণভাবে উপভোগ করতে চায়, অথচ আল্লাহ তাঁর বান্দাদের জন্য দুনিয়াকে স্থায়ী আবাস হওয়া পছন্দ করেন না। কারণ, তিনি বান্দার জন্য অনন্ত জীবনের উপভোগ্য নেয়ামত জান্নাত তৈরী করে রেখেছেন। দুনিয়ার জীবনে আল্লাহ নির্ধারিত পথে সফলতা অর্জন করে কেবল সে জান্নাত লাভ করা যাবে। অন্য কোন কিছুর বিনিময়ে নয়। এ পৃথিবী যদি পরীক্ষার স্থান না হতো, তবে এটা বিপদ-মসিবত, রোগ-বালাই ও দুঃখ-কষ্ট মুক্ত হতো।

আল্লাহ পাক বলেন, ধৈর্যশীল ছাড়া এ গুণ আর কারো ভাগ্যে জোটে না। এবং অতি ভাগ্যবান ছাড়া এ মর্যাদা আর কেউ লাভ করতে পারে না। (৪১:৩৫) আর তাই নবী করীম (সাঃ) বলেছেন, দুনিয়া মুমিনের জেলখানা ও কাফেরের জান্নাত। তিনি আরো বলেন-আল্লাহ যার কল্যাণ চান, তাকে তিনি নানান সংকট দ্বারা জর্জরিত করেন।

যুগে যুগে ঈমানের পরীক্ষায় মুত্তাকী, ও সিদ্দীকদের উপর জুলুম-নির্যাতন আর কারাবন্দী হওয়ার অসংখ্য উদাহরণ রয়েছে। চার খলিফা, চার ইমাম কেউ রেহাই পাননি। কিন্তু প্রতিটি অধ্যায়ে তারা ছিলেন আল্লাহর উপর তাওয়াক্কুলকারী এবং তাঁরই সাহায্যের মুখাপেক্ষী।

আজকের দিনে সত্যের পথের পথিকদেরও একই পথ অনুসরন করেই সামনে বাড়তে হবে। আল্লাহ বলেন, যারা ঘোষণা করেছে- ‘আল্লাহ আমাদের রব, অতপর তার ওপরে দৃঢ় ও স্থির থেকেছে নিশ্চিত তাদের কাছে ফেরেশতারা আসে এবং তাদের বলে, ভীত হয়ো না, দুঃখ করো না এবং সেই জান্নাতের সুসংবাদ শুনে খুশি হও তোমাদেরকে যার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে। (৪১:৩০)

আজ অনেক মুসলমানের নিকট আল্লাহ তায়ালার উপর তাওয়াক্কুল আর সাহায্য পাওয়ার শিক্ষা অনুপস্থিত। তাই আমরা কখনও অমুক, কখনও তমুকের সাহায্য-সহযোগিতার প্রত্যাশি হয়ে পড়ি। মনে রাখতে হবে, এই দুর্বলতাগুলোই আল্লাহর সাহায্য থেকে বঞ্চিত করছে আমাদের।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


যে কারণে মানুষ সৃষ্টিতে কান্না করেছিল মাটি, জানলে আপনিও কাঁদবেন

যে-কারণে-মানুষ-সৃষ্টিতে-কান্না-করেছিল-মাটি-জানলে-আপনিও-কাঁদবেন

সৌদির আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত বিজয়ীর নাম ঘোষণা

সৌদির-আন্তর্জাতিক-কুরআন-প্রতিযোগিতার-চূড়ান্ত-বিজয়ীর-নাম-ঘোষণা

পাগলা মসজিদের দানবাক্সের সোয়া কোটি টাকা কী করা হবে?

পাগলা-মসজিদের-দানবাক্সের-সোয়া-কোটি-টাকা-কী-করা-হবে- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


মেজ সন্তানরা ব্যক্তিগত এবং কর্ম জীবনে বেশি সফলতা লাভ করেন

মেজ-সন্তানরা-ব্যক্তিগত-এবং-কর্ম-জীবনে-বেশি-সফলতা-লাভ-করেন

সৃষ্টিকর্তা বলে কেউ নেই: স্টিফেন হকিং

সৃষ্টিকর্তা-বলে-কেউ-নেই-স্টিফেন-হকিং

সৌদির অবরোধ কাতারে যেভাবে এনে দিল কৃষি বিপ্লব!

সৌদির-অবরোধ-কাতারে-যেভাবে-এনে-দিল-কৃষি-বিপ্লব- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


২৫৬ বছর বাঁচলেন তিনি! কী খেয়ে বাঁচলেন মৃত্যুর আগে জানালেন

মুশফিক তেমন খেলোয়ার নয়, তার সাথে এটি হতে পারেনা: পাপন

শুভশ্রীকে নিয়ে একী করলেন রাজ!

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সৌম্য সরকারের নেতৃত্বে ১২ সদস্যের দল ঘোষণা

পাঠকই লেখক


যদি ১৯৮৫-৯৫ সালের মধ্যে জন্মে থাকেন, তারা পড়ে আবেগাপ্লূত হয়ে যাবেন!

যদি-১৯৮৫-৯৫-সালের-মধ্যে-জন্মে-থাকেন-তারা-পড়ে-আবেগাপ্লূত-হয়ে-যাবেন-

এক লোক ঘরে ঢুকে দেখে স্ত্রী কান্নাকাটি করছে ,কারণ...

এক-লোক-ঘরে-ঢুকে-দেখে-স্ত্রী-কান্নাকাটি-করছে-কারণ

এক গ্রামে ছিল তিন বোকা...

এক-গ্রামে-ছিল-তিন-বোকা পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ