০৩:০১:১১ রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮


বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ০৯:২৮:৫৫

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সারা দেশে প্রথম হওয়া ইশমাম যা বললেন

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সারা দেশে প্রথম হওয়া ইশমাম যা বললেন

আহমেদ মুসা রঞ্জু: খুলনার সরকারি আযমখান কমার্স কলেজের পেছনে ভাড়া বাড়িতে থাকেন অর্ণবরা। পিতা আব্দুস সোবহান বেসরকারি সংস্থা প্রশিকার সিনিয়র প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর। মা গৃহিনী। ছোট ভাই অর্কণ প্রতিবন্ধী। এমন এক পরিবারের ছেলে ইশমাম ইশমাম সাকীব অর্ণব। এ বছর মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সারা দেশে প্রথম হয়ে নিজেকে সমাসীন করেছেন অনন্য উচ্চতায়। খুলনার ফায়ার ব্রিগেড এলাকায় তার মুখোমুখি আহমেদ মুসা রঞ্জু

প্রশ্ন: মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় সারা দেশে প্রথম হওয়ার অনুভূতি কেমন?

ইশমাম: অসাধারণ ভাল লাগা কাজ করছে। বলে বোঝানো যাবে না। প্রথমদিন কোন কিছু ফিল (অনুভব) করিনি। পরবর্তীতে বন্ধু-বান্ধব ও আত্মীয়-স্বজনদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা পাওয়ার পর ভিন্ন এক ধরনের অনুভূতি কাজ করছে, যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়।

প্রশ্ন: পড়াশোনার ধরনটা কেমন ছিল?

ইশমাম: আমি বেশিক্ষণ পড়তাম না। প্রয়োজন অনুযায়ী পড়েছি। সময় হিসেব করে কখনও পড়িনি। যখন আমার মনে হতো সিলেবাসটি শেষ করতে হবে তখন সেটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত পড়তাম। সেটা ৪ ঘন্টা হোক কিংবা ১০ ঘন্টায় হোক। আমার মনে হয় সবারই সেটা করা উচিত।

প্রশ্ন: পড়াশোনার হাতেখড়ি কোথায়?

ইশমাম: আমার পড়াশোর হাতে খড়ি যশোরে। সেখানকার একটি স্কুলে প্লে-নার্সারি শেষ করেছি। এরপর কুষ্টিয়া তারপর খুলনার সেন্ট যোসেফস স্কুলে এসএসসি এবং মজিদ মেমোরিয়াল সিটি কলেজ থেকে এইচএসসি শেষ করেছি। খুলনা জিলা স্কুলে ভর্তি হওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আব্বু সরকারি চাকরি না করায় অফ টাইমে ভর্তি নেয়নি।

প্রশ্ন: আপনার এ সাফল্যের পেছনে কার অবদান বেশি বলে মনে করেন?

ইশমাম: আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই প্রথমে। এরপর বাবা মায়ের অবদান সবথেকে বেশি। এরপর সব শিক্ষকই আমার পথপ্রদর্শক হয়েছেন। সেই সব শিক্ষক যারা ছোটবলো থেকেই আমাকে শিখিয়েছেন, কোচিং সেন্টারের শিক্ষকদের প্রতিও আমি কৃতজ্ঞ। কাউকে খাটো করে দেখার সুযোগ নেই।

প্রশ্ন: আপনি ভবিষ্যতে কী হতে চান? ভবিষ্যত পরিকল্পনা কী?

ইশমাম: নিউরোলজিস্ট হওয়ার ইচ্ছা আছে। নিউরো বায়োলজিক্যাল যে ডিজ-অর্ডারগুলো আছে যেমন অটিজম টাইপের বা অন্য ধরনের অসহায় শিশুদের নিয়ে কাজ করতে চাই।

প্রশ্ন: এমন ইচ্ছা পোষনের পেছনে কারণ কী?

ইশমাম সাকীব: আমার ছোট ভাই স্পেশাল চাইল্ড (প্রতিবন্ধী) এজন্য আমি চাই এসব শিশুদের নিয়ে রিসার্চ হোক। বাংলাদেশের সোশ্যাল ইকোনমিক সেক্টরে অনেক অসহায় বিদেশে এসব শিশুর জন্য অনেক ফ্যাসিলিটি রয়েছে কিন্তু বাংলাদেশে এদেরকে বার্ডেন হিসেবে মনে করা হয়। আমি চাই এরাও স্বাভাবিক মানুষের মত স্বাভাবিক জীবনে আসুক, তারা যেন তাদের জীবন স্বাভাবিকভাবে পার করতে পারে। এসব অসহায় শিশুদের জন্য কিছু করতে চাই। আর আমার ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছার পেছনে এটাই বেশি প্রাধান্য পেয়েছে সবসময়। একসময় ইচ্ছে হতো ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার; কিন্তু সেখান থেকে ফিরে এসেছি আমার ছোট ভাইয়ের মত অন্যদের সেবা করার মানসিকতা নিয়েই।

প্রশ্ন: ভার্চুয়াল জগতে আপনার বিচরণ কেমন?

ইশমাম সাকীব অর্ণব: হ্যাঁ, ভার্চুয়াল জগতে ছিলাম কিন্তু পড়াশোনা বাদ দিয়ে নয়। আসক্ত হয়ে যাইনি। এ অর্থই হচ্ছে মানুষের সঙ্গে কানেক্ট থাকা। তবে এই থাকার অর্থ এমন নয় যে, নিজের পড়াশোনা নষ্ট করে হতে হবে।

প্রশ্ন: পড়াশোনার ক্ষেত্রে কোন বিষয়টিকে সবচেয়ে কঠিন ও কোন বিষয়টি সবচেয়ে সহজ মনে হয়?

ইশমাম সাকীব অর্ণব: যখন স্কুলে ছিলাম তখন বাংলাদেশের বিশ্ব পরিচয় নামক বিষয়টি কঠিন মনে হতো। অন্যদিকে সায়েন্সের সব বিষয়গুলোই পছন্দ হতো। সহজ বলব না, কিন্তু কঠিন মনে হতো না। আর কলেজে ওঠার পর থেকে এমন কোন কিছুকেই কঠিন মনে হতো না। বায়োলজি বিষয়টির প্রতি আকর্ষণটি বেশি ছিল।

ইশমামের আরও কিছু প্রতিভা

২০১৪ সালে জাতীয় গণিত অলিম্পিয়াডে বিভাগীয় পর্যায়ে প্রথম স্থান লাভ করে জাতীয় পর্যায়ে অংশ নেন ইশমাম সাকীব অর্ণব। ২০১৫ সালে ভাষা প্রতিযোগিতাতেও বিভাগীয় পর্যায়ে প্রথম হয়ে জাতীয় পর্যায়ে অংশ নেন। এছাড়াও ডিবেটিং করেছেন নিয়মিত।

যা কিছু প্রিয়

ইশমাম সাকীব অর্ণবের প্রিয় শখের মধ্যে রয়েছে বই পড়া, গান করা ও গান শোনা। প্রিয় খাবার হিসেবে বিরিয়ানী তার ভীষণ পছন্দ। গাঢ় লাল রঙ তার খুব পছন্দের।-যুগান্তর



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


যে দেশে কোন মসজিদ নেই, গোপনে নামাজ পড়েন মুসলমানেরা!

যে-দেশে-কোন-মসজিদ-নেই-গোপনে-নামাজ-পড়েন-মুসলমানেরা-

৩৭ বছর ধরে একটি মসজিদে ভুল কেবলায় নামাজ আদায় করছেন মুসল্লিরা!

৩৭-বছর-ধরে-একটি-মসজিদে-ভুল-কেবলায়-নামাজ-আদায়-করছেন-মুসল্লিরা-

সৃতি শক্তি বাড়াতে মহানবী (সা.) ৯টি কাজ করতে বলেছেন

সৃতি-শক্তি-বাড়াতে-মহানবী-সা-৯টি-কাজ-করতে-বলেছেন ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


পৃথিবীর সাংঘাতিক ও ভয়ংকর গুহা হ্যাংসন ডুং: যে গুহার কোনো শেষ প্রান্ত খুঁজে পাওয়া যায় নি!

পৃথিবীর-সাংঘাতিক-ও-ভয়ংকর-গুহা-হ্যাংসন-ডুং-যে-গুহার-কোনো-শেষ-প্রান্ত-খুঁজে-পাওয়া-যায়-নি-

শপিংমলের গোপন ক্যামেরা থেকে বাঁচতে হলে যা করতে হবে

শপিংমলের-গোপন-ক্যামেরা-থেকে-বাঁচতে-হলে-যা-করতে-হবে

আকাশ আলোকিত করতে এবার বানানো হচ্ছে কৃত্রিম চাঁদ!

আকাশ-আলোকিত-করতে-এবার-বানানো-হচ্ছে-কৃত্রিম-চাঁদ- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


যাকে কিনতে মোস্তাফিজ-ধনঞ্জয়াকে ছাড়ছে মুম্বাই

সৃতি শক্তি বাড়াতে মহানবী (সা.) ৯টি কাজ করতে বলেছেন

সর্বোচ্চ ২২ হাজার ভোট পেয়ে সর্বকালের সেরা নির্বাচিত মেসি

সবচেয়ে বড় পূজামণ্ডপে নাচলেন রিয়াজ-মিম

পাঠকই লেখক


জেল খাটছি পাঁচ বছর ধরে, তবুও মেয়ের কাছে আমি নিষ্পাপ পিতা

জেল-খাটছি-পাঁচ-বছর-ধরে-তবুও-মেয়ের-কাছে-আমি-নিষ্পাপ-পিতা

বিয়ে করে একজন গরীবের মেয়েকে বউ করে এনেছিলাম, তারপর...

বিয়ে-করে-একজন-গরীবের-মেয়েকে-বউ-করে-এনেছিলাম-তারপর

যদি ১৯৮৫-৯৫ সালের মধ্যে জন্মে থাকেন, তারা পড়ে আবেগাপ্লূত হয়ে যাবেন!

যদি-১৯৮৫-৯৫-সালের-মধ্যে-জন্মে-থাকেন-তারা-পড়ে-আবেগাপ্লূত-হয়ে-যাবেন- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ