০৩:২৭:৪২ বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ৪৪২ রানের বিশাল লিড বাংলাদেশের     • আজ দারুণ ঘটনা ঘটিয়ে দিলেন মাহামুদুল্লা     • পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীরা মুখোমুখি অবস্থানে     • এক নজরে দেখে নেওয়া যাক এই মুহূর্তে সেরা অলরাউন্ডারদের নিয়ে একাদশ      • ‘নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই, বলে দেয়া হোক’     • নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপির সংঘর্ষের কারণ জানা গেল     • নয়াপল্টনে বিএনপি অফিসের সামনে রণক্ষেত্র, পুলিশের গাড়িতে আগুন-ভাঙচুর     • নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপির ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে, জানুন সর্বশেষ পরিস্থিতি     • ব্রেকিং নিউজ: বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে টিয়ারশেল- লাঠিচার্জ, পুলিশের গাড়িতে আগুন     • যে দুই আসন পাচ্ছেন খালেদা জিয়ার দুই পুত্রবধূ!

শনিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০১৮, ১১:১৫:৫৪

এক গ্রামে ছিল তিন বোকা...

এক গ্রামে ছিল তিন বোকা...

এক গ্রামে ছিল তিন বোকা। তারা বোকা বলে বোকা, একেবারে বোকার হদ্দ। তাদের বাড়ির লোকজন একদিন তিন জনকেই এক সাথে গ্রাম থেকে বের করে দিল। বেচরা বোকা তিনজন গ্রামের বাইরে এসে একটা বড় ছাতিম তগাছের ছায়ায় এসে বসল।

তারপর তিন জন মিলে ঠিক করল তারা দূর দেশে চলে যাবে সেই মত তিন বোকা নদী-নালা-মাঠ পেরিয়ে নতুন এক গ্রামে গিয়ে হাজির হল। নতুন গ্রামে এসে তারা একটি বেশ বড় সড় বাড়ি দেখতে পেল। তিন বোকা খোঁজ নিয়ে জানতে পারল সেটা এক মাষ্টার মশাইয়ের বাড়ি।

মাষ্টারমশাই ঠিক তখনই স্কুল যাবার জন্য তৈরি হয়ে বেরোতে যাচ্ছিলেন। এমন সময় তিন বোকা তাঁর পায়ে পড়ে পা চেপে ধরল। মাষ্টারমশাই বললেন, ওরে ছাড় ছাড়, স্কুলের দেরি হয়ে যাচ্ছে। বোকা তিনজন তবু পা ছাড়ে না। বলল, মাষ্টারমশাই আমরা ভিন-গাঁ থেকে এসেছি।

আমাদের আপনি একটা ব্যবস্থা করে দিন। মাষ্টারমশাই বললেন, আচ্ছা আচ্ছা। সব ব্যবস্থা ফিরে এসে হবে। বাড়িতে মা রয়েছে। তোরা তার কাছ থেকে খাবার চেয়ে খেয়ে নিবি। তারপর বাড়িএ কিছু কাজকর্ম সেরে রাখবি। আমি ফিরে এসে তোদের ব্যবস্থা করব। এই বলে তিনি স্কুলের প্পথে হন্ হন্ করে হাঁটতে লাগলেন।

বোকা তিনজন বুড়িমায়ের কাছে পান্তা ভাত মুড়ি কাঁচা লঙ্কা মেখে পেট ভরে খেয়ে নিল। তারপর বলল, বলুন বুড়িমা কি কাজ করতে হবে? বূড়িমা বলল, যা তোরা নদীতে স্নান সেরে ঘানি থেকে তিন হাঁড়ি সরষের তেল নিয়ে আয়।

বোকারা সেই মত নদীতে স্নান সেরে তেল আনতে চলল। মাটির ছোট ছোট হাঁড়িতে তেল নিয়ে তারা বাড়ির পথে ফিরছে এমন সময় পথে দেখল একটা প্রকান্ড বট গাছ। সেই বট গাছের ছায়ায় বসে একটু জিরিয়ে নিতে তারা তেলের হাঁড়িগুলো মাটিতে রাখল।

তারপর জিরিয়ে টিরিয়ে যেই হাঁড়িগুলোর দিকে তাকিয়েছে অমনি দেখে তিনটি হাঁড়িতেই চোর ঢুকে বসে আছে। আসলে হাঁড়ির মধ্যে ছিল তেল আর ঐ তেলেই তারা নিজেদের ছায়া দেখতে পেয়েছে। নিজেদের ছায়াগুলোকে চোর ভেবে তারা দুম দাম করে লাঠি দিয়ে পিটাতে লাগল।

লাঠির ঘায়ে মাটির হাঁড়িতো ভাঙ্গলই সাথে সাথে তেলটাও গড়িয়ে পড়ল। অবশেষে তিন বোকা খালি হাতে বাড়ি ফিরে এল। মাষ্টারমশাই সন্ধ্যে বেলায় বাড়িতে ফিরে সব কথা শুনে বলল, কাল তোরা তিনজন বনে গিয়ে তিন বোঝা শুকনো কাঠ নিয়ে আসবি, এটা পারবি তো ? বোকারা অনেকখানি ঘাড় কাত করে খেয়ে দেয়ে শুয়ে পড়ল।

পরদিন মাষ্টারমশাই স্কুলে চলে গেলে বোকা তিনজনও বনের পথ ধরল। তারপর তিনজন তিনটি বেশ বড়সড় কাঠের বোঝা মাথায় চাপিয়ে বুড়িমার কাছে ফিরে এল। বুড়িমা তখন খোলা পাতে মুড়ি ভাজছিল। গরমে তার মেজাজ ছিল সপ্তমে।

আর ঠিক তখনই বোকা তিনজন চিৎকার জুড়ে দিল, কাঠ এনেছি, রাখবো কোথায় ? তিন বোকা একই কাথা বলায় বুড়িমা রেগে-মেগে বলল, কাঠ রাখার জায়গা পাচ্ছিস না ? আমার মাথায় রাখ। এই কথা শেষ হতেই বোকা তিনজন তিন বোঝা কাঠ বুড়িমার মাথায় ফেলে দিল আর তাতেই বুড়ি মারা গেল।

মাষ্টারমশাই ঘরে ফিরে দেখল অনর্থ হয়ে গেছে। কেন যে তিনি বোকাদের আশ্রয় দিলেন ? তারপর কান্না-কাটি থামিয়ে বোকাদের নির্দেশ দিলেন, যা তোরা মা-কে নিয়ে গিয়ে নদীতে সৎকার করে ফেল। এতে যদি তোদের কিছুটা পাপ কমে।

বোকারা তখন একটা তালপাতার চাটায়ের মধ্যে বুড়িমার দেহটা গুটিয়ে নদীতে নিয়ে চলল। যেতে যেতে কোনসময় বুড়ির দেহটা চাটাই থেকে বাইরে পড়ে গেছে তারা খেয়ালই করে নি। নদীতে পৌঁছে দেখল বুড়িমা নেই। কোথায় গেল ? বোকা তিন জন তখন ভাবল, বুড়িমা নিশ্চয়ই জ্যান্ত হয়ে কোথাও লুকিয়ে পড়ছে।

তাই তারা বুড়িকে ধরে নিয়ে আসতে আবার গ্রামের পথে পা বাড়াল। যেতে যেতে তারা অন্য একটি গ্রামে গিয়ে পৌঁছল। সেই গ্রামে একটি বুড়ি ঝাট দিয়ে উঠোন পরিষ্কার করছিল। বোকা তিনজন তাকে দেখতে পেয়ে হৈ হৈ করে এল। তারপর তাকে জোর করে ধরে নিয়ে গিয়ে সৎকার করে দিল।

সন্ধ্যায় বোকারা মাষ্টার মশাইয়ের কাছে এসে বলল, আজ আমাদের খুব পরিশ্রম গেছে। বুড়িমা তালপাতার চাটাই থেকে বেরিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল। আমরা তাকে জোর করে ধরে নিয়ে এসে সৎকার করে দিয়েছি।

মাষ্টারমশাই বোকাদের কথা শুনে তো একেবারে হাঁ হয়ে গেলেন। অনেক হয়েছে। এরা শুধু বোকা নয়, একেবারে বোকার হদ্দ। এদের কিছুইতেই ঘরে রাখা যাবে না। রাখলেই পদে পদে বিপদ। এই ভেবে তিনি তাদের তাড়িয়ে দিলেন। তিন বোকা আবার ভিন-গাঁয়ের পথে হাঁটতে লাগল।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ভোট একটি আমানত, অযোগ্য ব্যক্তিকে ভোট দেয়া কবিরা গুনাহ

ভোট-একটি-আমানত-অযোগ্য-ব্যক্তিকে-ভোট-দেয়া-কবিরা-গুনাহ

ইসলাম আমাকে অনেক ভুল থেকে রক্ষা করেছে: এ.আর রহমান

ইসলাম-আমাকে-অনেক-ভুল-থেকে-রক্ষা-করেছে-এ-আর-রহমান

কেউ মারা গেলে পাঁচ দিন বা তিন দিন চুলা জ্বালানো যায় না, কি বলে ইসলাম?

কেউ-মারা-গেলে-পাঁচ-দিন-বা-তিন-দিন-চুলা-জ্বালানো-যায়-না-কি-বলে-ইসলাম- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


চট্টগ্রামে পোয়া মাছটি বিক্রি হলো ১০ লাখ টাকায়!

চট্টগ্রামে-পোয়া-মাছটি-বিক্রি-হলো-১০-লাখ-টাকায়-

চাকরির সাক্ষাৎকারে যে তিনটি মিথ্যা কখনোই বলবেন না

চাকরির-সাক্ষাৎকারে-যে-তিনটি-মিথ্যা-কখনোই-বলবেন-না

স্মার্ট ফোন থাকলেও যে ৭ কারণে আপনার হাতে ঘড়ি পরা উচিৎ

স্মার্ট-ফোন-থাকলেও-যে-৭-কারণে-আপনার-হাতে-ঘড়ি-পরা-উচিৎ এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


জীবনের সেরা ঘটনা ঘটিয়ে দিলেন মিরাজ!

'ও আমার শরীরের প্রতিটা অংশ চেনে'

‘তুই তো সব জানিস, তাও খেলিস কেন?’

জাতীয় দলে চান্স পাওয়া আবু হায়দার রনির সঙ্গে ৬ বছরের প্রেমের সম্পর্ক

পাঠকই লেখক


দুলাভাই ভয়ংকর

দুলাভাই-ভয়ংকর

বাসর রাত ও মায়াবতী

বাসর-রাত-ও-মায়াবতী

মেয়েটি বৃদ্ধকে জিজ্ঞেস করলো, ডিম কত করে বিক্রি করছেন? তারপর ঘটল শিক্ষণীয় ব্যাপার!

মেয়েটি-বৃদ্ধকে-জিজ্ঞেস-করলো-ডিম-কত-করে-বিক্রি-করছেন--তারপর-ঘটল-শিক্ষণীয়-ব্যাপার- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ