দেশে ৯৫ ভাগ ক্লিনিকের আয়ের উৎস সিজারিয়ান অপারেশন

০৪:২৮:৫৩ বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • কবুল বলার আগেই পুলিশ দেখে বিয়ের মঞ্চ ছেড়ে পালালেন বর!     • দুই হাতের কব্জি কে'টে দিলো চেয়ারম্যানের সাঙ্গপাঙ্গরা     • সালমান শাহ'র জন্মদিনের কেক কেটে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি: শাকিব খান     • আফগান ম্যাচে খেলা হচ্ছে না ‘লেগি’ বিপ্লবের!     • অমর নায়ক সালমান শাহ উৎসব নিয়ে যা বললেন তার স্ত্রী সামিরা     • শেষ পর্যন্ত দুই পরিবর্তন নিয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ!     • সেই ঘটনার বছর তিনেক পর এখন সাকিবের সতীর্থ সেই আফিফ-বিপ্লব!     • বড় দুঃসংবাদ! হাসপাতালে টাইগার ক্রিকেটার আমিনুল, বাঁ-হাতে পড়েছে তিনটি সেলাই     • কে দলের সকল সদস্যকে সাহস জুগিয়েছেন? অবশেষে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ     • গেইল আন্দ্রে রাসেলের সাথে নিজেকে তুলনা করে যা সাফ জানিয়ে দিলেন মাহমুদুল্লাহ

রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯, ১১:০৭:১২

দেশে ৯৫ ভাগ ক্লিনিকের আয়ের উৎস সিজারিয়ান অপারেশন

দেশে ৯৫ ভাগ ক্লিনিকের আয়ের উৎস সিজারিয়ান অপারেশন

দেশে বেসরকারি ক্লিনিকে দিন দিন বাড়ছে সিজারিয়ান অপারেশন। ক্লিনিক মালিকদের অর্থলিপ্সা, সরকারি ব্যবস্থাপনা সুষ্ঠু না হওয়া এবং ডাক্তারদের নৈতিকতার ঘাটতিকে দায়ী করছেন গবেষকরা। আইসিডিডিআরবি'র এক গবেষণায় দেখা গেছে, বাংলাদেশে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর ওপর বড় রকমের অর্থনৈতিক চাপ তৈরি হচ্ছে। দেশের অনেক পরিবার তাদের আয়ের সবচেয়ে বড় অংশ খরচ করছে সন্তান প্রসবে। এদের মধ্যে কেউ কেউ ঋণ করে কিংবা সঞ্চয় ভেঙেও এই খরচ যোগাচ্ছেন।

ওই গবেষণা থেকে আরও জানা গেছে, সিজারিয়ানের ক্ষেত্রে গড়ে খরচ পড়ছে ২৫০ ডলার বা প্রায় ২১ হাজার টাকা। সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে যে খরচ প্রায় ৫ হাজার টাকা। আর বাড়িতে ডেলিভারি হলে সেটা মাত্র ১৪০০ টাকা।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) বিশ্বব্যাপী ১০ থেকে ১৫ শতাংশ প্রসব সিজারিয়ান বা সি-সেকশনে করানোর সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে এই হার প্রায় ৩ গুণ হয়ে গেছে। যা এখন প্রায় ৩১ শতাংশ।

প্রতিবেদনে এভাবে বাচ্চা প্রসবে খরচ বৃদ্ধিকে বাংলাদেশের ‘ইউনিভার্সাল হেলথ কেয়ার' অর্জনে বড় বাধা হয়ে দেখা দিতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। আইসিডিডিআরবি'র এই গবেষণা প্রতিবেদন আন্তর্জাতিক সাময়িকী দ্য ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব হেলথ প্লানিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট এ প্রকাশিত হয়েছে।
 
গবেষণা দলের প্রধান আইসিডিডিআরবি'র ডা. আবদুর রাজ্জাক সরকার বলেন, ধনীরা সিজারিয়ানের জন্য গড়ে ২৮০ ডলার খরচ করে। এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু যারা দরিদ্র তাদের খরচও ২০০ ডলারের কম নয়। যা তাদের জন্য বড় ধরনের অর্থনৈতিক চাপ।

শিক্ষিতদের মধ্যে সিজারিয়ানের হার বেশি
আইসিডিডিআরবি'র গবেষণায় উঠে এসেছে, ৩৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী মায়েরা অন্যদের তুলনায় বেশি খরচ করছেন। অন্যদিকে, শহুরে নারীদের মধ্যে যারা শিক্ষিত এবং জন্মদানের প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানেন তারাও এই বেশি খরচের পথই ধরছেন।

এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম কাজল ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, সিজারিয়ান বাড়ার প্রথম কারণটা কিন্তু অর্থনৈতিক। ৯৫ ভাগ ক্লিনিকের আয়ের উৎস সিজারিয়ান অপারেশন।

সিজারিয়ানের সংখ্যা কমানোর জন্য চিকিৎসকদের বিবেক জাগ্রত করার উপর গুরুত্ব দেন ডা. কাজল। তিনি বলেন, ‘চিকিৎসকদের বিবেক যদি না জাগে, এটা বন্ধ করা যাবে না৷ আর ক্লিনিকগুলোতে সিজারিয়ান অপারেশনগুলো মনিটরিংও করতে হবে। কেন করল, অন্য উপায় নিয়েছে কিনা, সেটা দেখতে হবে৷ মাসে সে কতগুলো সিজারিয়ান করল কোন ক্লিনিক ইত্যাদি।
সূত্র: সময়নিউজ.টিভি



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


নাম রাখার ব্যাপারে যে নির্দেশনা দিয়েছে ইসলাম

নাম-রাখার-ব্যাপারে-যে-নির্দেশনা-দিয়েছে-ইসলাম

মহান আল্লাহ তাআলা যেসব কাজে প্রতিযোগিতা করতে বলেছেন

মহান-আল্লাহ-তাআলা-যেসব-কাজে-প্রতিযোগিতা-করতে-বলেছেন

জেনে নিন, যাদের দোয়া কবুল হয়, অনেকের কেন হয় না?

জেনে-নিন-যাদের-দোয়া-কবুল-হয়-অনেকের-কেন-হয়-না- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


কঠোর মায়েদের সন্তানের ভবিষ্যত উজ্জ্বল হয় - গবেষণা বলছে

কঠোর-মায়েদের-সন্তানের-ভবিষ্যত-উজ্জ্বল-হয়-গবেষণা-বলছে

পর্যাপ্ত টাকা যোগাড় করতে না পেরে নিজের লিভার দিয়ে মেয়েকে বাঁচালেন মা

পর্যাপ্ত-টাকা-যোগাড়-করতে-না-পেরে-নিজের-লিভার-দিয়ে-মেয়েকে-বাঁচালেন-মা

৪০-৪৫ বছর ধরে কাচ চিবিয়ে খেয়ে দিব্যি বেঁচে আছেন এই ব্যক্তি

৪০-৪৫-বছর-ধরে-কাচ-চিবিয়ে-খেয়ে-দিব্যি-বেঁচে-আছেন-এই-ব্যক্তি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


একসঙ্গে ঘুমাচ্ছিল, দুই ভাইয়ের সেই ঘুমকে চিরনিদ্রায় পরিণত করলো বিষধর সাপ

ক্রিকেট বিশ্বে বেশি বেতন পাওয়া সবচেয়ে ধনী ১০ কোচ

বিসিবিতে ভাঙনের সুর, পদত্যাগ করলেন সাকিব-মুশফিকদের গুরু

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের মধ্যেই এ কি সিদ্ধান্ত শিখর ধাওয়ান ও রিশভ পান্ত

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ