মানবিক কারণে আমরা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী

১১:৫৯:০৪ সোমবার, ১৫ জুলাই ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • টমেটো ছাড়াই তৈরি হয় টমেটো সস, কারাদণ্ডের পাশাপাশি ২০ লাখ টাকা জরিমানা     • দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে ‘আল্লাহ’ লেখা কাগজ সংরক্ষণই করছেন এই বৃদ্ধ     • ভারতে মাদরাসা চত্বরে মন্দিরও গড়তে চাই: সালমা আনসারি     • সিরাজগঞ্জে বিয়ের গাড়িটিকে দুই কিলোমিটার হেঁচড়ে নিয়ে যায় ট্রেন, বর-কনেসহ নিহত ৯     • বিশ্বকাপে বাজে পারফরম্যান্স, বড় স্পন্সর হারাল ভারত!     • ভারতে হামলার ভয়ে মাদ্রাসার ভেতরেই মন্দির তৈরি করছেন মুসলিমরা!     • অত্যাচারিত সেই কৃষ্ণাঙ্গই লিখলেন শ্বেতাঙ্গ প্রভুদের গৌরবগাঁথা     • রংপুরের পল্লীনিবাসে প্রস্তুত এরশাদের কবর     • ম্যাচ হেরে মাঠের মধ্যেই কান্নায় ভেঙে পড়েন মার্টিন গাপটিল     • এরশাদের ৭৫ কোটি টাকার সম্পদ কে কতটা পেলেন!

সোমবার, ০৮ জুলাই, ২০১৯, ০৭:০৪:৫৮

মানবিক কারণে আমরা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী

মানবিক কারণে আমরা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক : মিয়ানমারের অস্থিতিশীল রাখাইন রাজ্যকে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করতে মার্কিন কংগ্রেসম্যান ব্রাড শেরম্যান এর প্রস্তাবের কড়া সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

এ ধরনের প্রস্তাব গর্হিত কাজ উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা যেখানেই হাত দিয়েছে সেখানেই আগুন জ্বলছে, জঙ্গিবাদের সৃষ্টি হয়েছে। এখানেও তাদের আগুন লাগানোর প্রচেষ্টা। এটা কখনও গ্রহণযোগ্য না। বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। 

সাম্প্রতিক চীন সফরের বিষয়ে দেশবাসীকে অবহিত করতে প্রধানমন্ত্রী এ সংবাদ সম্মেলন করেন। প্রশ্নোত্তর পর্বে একজন সাংবাদিক মার্কিন কংগ্রেসম্যানের প্রস্তাবের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের যে সীমানা, ৫৪ হাজার বর্গমাইল জায়গা আমরা তাতেই খুশি। অন্যের জায়গা আমাদের সঙ্গে যুক্ত করা এটি আমরা সম্পূর্ণ অস্বীকার করি।

তিনি বলেন, এটি আমরা চাই না। মিয়ানমার তার সার্বভৌমত্ব নিয়ে থাকবে। সেখানে বাংলাদেশের সঙ্গে তারা রাখাইন স্টেট জুড়ে দিতে চায় কেন? এই ধরনের কথা বলা অত্যন্ত গর্হিত কাজ, অন্যায় কাজ বলে আমি মনে করি। হতে পারে তারা খুব বড় দেশ। সেই দেশের একজন কংগ্রেসম্যান। কিন্তু তারা ভুলে গেছে তাদের অতীত। তাদের যখন গৃহযুদ্ধ লেগেই থাকত। সেই অতীততো তাদের ভুলে যাওয়া উচিত না। সেই অতীত ভবিষ্যতেও আসবে না সেটা তারা কিভাবে ভাবে। 

তিনি বলেন, রাখাইনে প্রতিনিয়ত সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এই ধরনের একটা গোলমেলে বিষয় আমাদের সঙ্গে যুক্ত করবো কেন? এটি আমরা কখনও করবো না। তছাড়া আমাদের প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমার। মিয়ানমারে ঘটনা ঘটছে। সেখানকার মানুষ যখন আশ্রয় চেয়েছে মানবিক কারণে আমরা তাদেরকে আশ্রয় দিয়েছি। আশ্রয় দেয়ার অর্থ এটা না যে একেবারে রাষ্ট্রের একটা অংশ নিয়ে আসব। এই মানসিকতা আমাদের নেই। এটা আমরা চাই না। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  প্রত্যেকটা দেশ তার সার্বভৌমত্ব নিয়ে থাকবে সেটাই আমি চাই। এটাও চাই- একথা না বলে বরং মিয়ানমার যাতে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিয়ে যায় এই কংগ্রেসম্যান যেন সেটাই করেন। সেটাই হবে মানবিক দিক। এভাবে একটা দেশের ভেতরে গোলমাল পাকানো কোনমতেই ঠিক না। যেখানে তারা হাত দিয়েছে সেখানেইতো আগুন জ্বলছে। সেখানে শান্তি আসেনি বরং জঙ্গিবাদ সৃষ্টি হয়েছে। অশান্তির সৃষ্টি হয়েছে। আমাদের এই অঞ্চলটা আমরা একটু শান্তিপূর্ণভাবে আগানোর চেষ্টা করছি। এখানেও তাদের আগুন লাগানোর প্রচেষ্টা। এটা কখনও গ্রহণযোগ্য না।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে ‘আল্লাহ’ লেখা কাগজ সংরক্ষণই করছেন এই বৃদ্ধ

দীর্ঘ-৫০-বছর-ধরে-‘আল্লাহ’-লেখা-কাগজ-সংরক্ষণই-করছেন-এই-বৃদ্ধ

মুসলমানরাই সবচেয়ে বেশি সুখী মানুষ: মনোবিজ্ঞানীদের গবেষণা

মুসলমানরাই-সবচেয়ে-বেশি-সুখী-মানুষ-মনোবিজ্ঞানীদের-গবেষণা

কোরানের যে জিনিসটা আমাকে সবচেয়ে বেশি ইমপ্রেসড করে সেটি হলো 'মৌমাছি' সংক্রান্ত আয়াতগুলি

কোরানের-যে-জিনিসটা-আমাকে-সবচেয়ে-বেশি-ইমপ্রেসড-করে-সেটি-হলো--মৌমাছি--সংক্রান্ত-আয়াতগুলি ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ফেসবুকে ঝড় তুলছে হবিগঞ্জের শিক্ষিত গরু!

ফেসবুকে-ঝড়-তুলছে-হবিগঞ্জের-শিক্ষিত-গরু-

একনাগাড়ে হাঁচি, ব্যবহার করুন ঘরোয়া এই টোটকা

একনাগাড়ে-হাঁচি-ব্যবহার-করুন-ঘরোয়া-এই-টোটকা

মাত্র ২০ বছর বয়সেই এই ছেলের আয় বছরে ২০ কোটি! জানেন কীভাবে?

মাত্র-২০-বছর-বয়সেই-এই-ছেলের-আয়-বছরে-২০-কোটি--জানেন-কীভাবে- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


সাকিবকে আমন্ত্রণ জানালো আইসিসি

বাংলাদেশের স্কুলে পড়াশোনা করেছেন মেসি!

পুরষ্কার নিতে এসে উইলিয়ামসনের কাছে ক্ষমা চেয়ে যা বললেন বেন স্টোকস

একটি কারণেই টুর্ণামেন্ট সেরার পুরষ্কার দেওয়া হলো না সাকিবকে

পাঠকই লেখক


কলাগাছের ভেলায় চড়ে বিয়ে করতে কনের বাড়িতে এলেন বর

কলাগাছের-ভেলায়-চড়ে-বিয়ে-করতে-কনের-বাড়িতে-এলেন-বর

এক প্যাকেট আঙুর, দাম ১১ লাখ টাকা!

এক-প্যাকেট-আঙুর-দাম-১১-লাখ-টাকা-

ছাত্রজীবনের দেনা শোধ করতে ৩০ বছর পর ভারতে আসলেন কেনিয়ার সাংসদ

ছাত্রজীবনের-দেনা-শোধ-করতে-৩০-বছর-পর-ভারতে-আসলেন-কেনিয়ার-সাংসদ পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ