শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১০:০৬:৩৬

লালমনিরহাটে মসজিদ নির্মাণে বাঁধা দিলো ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ, মুসল্লিদের ক্ষোভ

লালমনিরহাটে মসজিদ নির্মাণে বাঁধা দিলো ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ, মুসল্লিদের ক্ষোভ

নুরনবী সরকার : লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা দোলাপাড়া সীমান্তে কেরামতিয়া বড় মসজিদের দোতলা ভবন নির্মাণ কাজে বাঁধা দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ। শুক্রবার দুপুরে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে ওই মসজিদের জানালা নির্মাণ কাজে বাঁধা দেন ভারতের শিতলকুচি থানার অমিত ক্যাম্পের বিএসএফ’র টহল দল। এ ঘটনায় বাংলাদেশী লোকজনসহ মসজিদের নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, ওই উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের দোলাপাড়া সীমান্ত এলাকায় মোঘল আমলে কেরামতিয়া হজুর নামে এক দরবেশ বসবাস করতেন। তার সহযোগিতায় সেখানে ওই সময়ে একটি ছোট মসজিদও নির্মাণ হয়। মৃত্যুর পর মসজিদের পাশেই তার সমাধি দেয়া হয়েছে। পরে টিনশেট করে একটি বড় আকারের মসজিদ নির্মাণ হয়। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের সময় মসজিদ ও মাজারটি জিরোপয়েন্টে পড়ে যায়। কেরামতিয়া হুজুরের মাজার ও মোঘল আমলের মসজিদকে কেন্দ্র করে প্রতি শুক্রবার দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজার হাজার নারী ও পুরুষ নানা নিয়তে নামাজ পড়তে আসে। মসজিদটি পুণঃনির্মাণের কাজ শুরু হলে আন্তর্জাতিক সীমান্ত আইনের অজুহাতে মসজিদ নির্মাণে বাঁধা দেয় ভারতীয় বিএসএফ।

 ২০১১ সালে বাংলাদেশ ও ভারতের উচ্চ পর্যায়ে মসজিদের নকশা অনুমোদন হওয়ার পর ওই বছরের ২৯ এপ্রিল দোতলা মসজিদ নির্মানের কাজ শুরু হয়। কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে এ মসজিদ নির্মাণের কাজ এখনো চলছে। কয়েক দিন ধরে মসজিদের দোতলায় জানালায় গ্লাস লাগালো হচ্ছে। কিন্তু শুক্রবার দুপুরে ভারতীয় বিএসএফ ওই নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়।

ওই মসজিদে নামাজ পড়তে আসা আসাদুল ইসলাম জানান, জন্মের পর থেকেই দেখছি কেরামতিয়া হুজুরের মাজার ও মসজিদকে ঘিরে এখানে প্রতি শুক্রবার হাজার হাজার নারী ও পুরুষ আলদা আলদা ভাবে নামাজে সমাবেত হয়। কিন্তু দুই দেশের রাষ্ট্র পর্যায়ে নকশা অনুমোদন হওয়ার পরও শুক্রবার নিজে দেখলাম, ভারতীয় বিএসএফ বাংলাদেশে প্রবেশ করে নির্মাণ কাজে বাঁধা দিচ্ছে। ফলে নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় আমাদের নামাজ পড়তে সমস্যা হচ্ছে।’ মসজিদ কমিটির সম্পাদক আলিমুদ্দিন জানান, দুই দেশের মধ্যে নকশা অনুমোদন হওয়ার পর আমরা মসজিদ নির্মাণ কাজ শুরু করি। কিন্তু প্রায় সময় ভারতীয় বিএসএফ নানা অযুহাতে নির্মাণ কাজে বাঁধা দেয়। জানালায় রঙ্গিন গ্লাস লাগাতে বাঁধা দিলে আমরা সাদা গ্লাস লাগাতে শুরু করি। কিন্তু শুক্রবার সেই গ্লাস লাগাতেও বাঁধা দেয়া হয়।

প্রতি শুক্রবার এ মসজিদের দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজার হাজার নারী পুরুষ বিভিন্ন নিয়তে নামাজ পড়তে আসেন। ৬১-বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবির বড়খাতা কোম্পানী কমান্ডার সুবেদার ইব্রাহিম মোল্লা জানান, ভারতীয় বিএসএফ মসজিদের নির্মাণ কাজে বাঁধা দিলেও নির্মাণ কাজ বন্ধ নেই। ভারতীয় বিএসএফ আমাদের সাথে নিয়ে মসজিদের নির্মাণ কাজ ঘুরে দেখেছেন। এখন নির্মাণ কাজ চলছে পাশাপাশি এ বিষয়ে বিএসএফ’র সাথে আলোচনাও হচ্ছে। ৬১-বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি’র রংপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক লে: কর্ণেল শরিফুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনে একাধিক বার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। সূত্র: আমাদেরসময়.কম

Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ, টুইটার , ফেসবুক এবং সাবস্ক্রাইব করুন এমটিনিউজ২৪ ইউটিউব চ্যানেলে

aditimistry hot pornblogdir sunny leone ki blue film
indian nude videos hardcore-sex-videos s
sexy sunny farmhub hot and sexy movie
sword world rpg okhentai oh komarino
thick milf chaturb cum memes