প্রতি মাসে বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের উপহার দেন ইউএনও!

০৬:০৭:০৫ বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • দুঃখজনক হলেও সত্য প্রত্যেকটি অ্যাম্বাসির প্রোগ্রামে শাহেদকে দেখা যেত: সিদ্দিকী নাজমুল আলম     • স্বাস্থ্যখাতে অনিয়মের বিরু'দ্ধে শুদ্ধি অভি'যান শুরু হয়েছে: ওবায়দুল কাদের     • এবার বাংলাদেশেও নতুন রোগ শনা'ক্ত, মূলত করোনা ভাইরাসের ফলেই এই রোগের সৃষ্টি     • করোনা শেষ হতে না হতেই আরেক বিপ'দে চীন. পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা     • ফিলিস্তিনে পুরনায় শুরু হলো মসজিদভিত্তিক কোরআন শিক্ষা     • করোনায় মৃ'ত্যু; আবারো ঢাকাকে ছাড়ালো চট্টগ্রাম     • ধরেই যেন আমরা চোর হয়ে যাচ্ছি : সংসদে প্রধানমন্ত্রী     • গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে আক্রা'ন্ত ৩৩৬০, মৃ'ত্যু ৪১     • চ'রম বিব্র'তকর প'রিস্থিতি, বাংলাদেশিদের এড়িয়ে চলছে ইতালীয়রা     • দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়লেন মোহামেদ সালাহ

বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২০, ০৯:৫১:১৬

প্রতি মাসে বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের উপহার দেন ইউএনও!

প্রতি মাসে বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের উপহার দেন ইউএনও!

মোসাইদ রাহাত , সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি  সুনামগঞ্জ: তাকে দেখলেই আনন্দে মন ভরে যায় খুদে শিক্ষার্থীদের। কোনো কোনো শিক্ষার্থী দৌড়ে তার কাছে ছুটে আসে। পরম মমতায় এসব খুদে শিক্ষার্থীকে কাছে টেনে নেন, কখনও আদর করে দেন তিনি। সেই সঙ্গে এসব শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেন বিভিন্ন ধরনের উপহার। এতে আনন্দে আত্মহারা খুদে শিক্ষার্থীরা।

এসব খুদে শিক্ষার্থীর এমনই একজন প্রিয় মানুষ ‘রুমা ম্যাডাম’। ম্যাডাম ডাকলেও তার কাছ থেকে মায়ের মতো আদর-সোহাগ পায় খুদে শিক্ষার্থীরা। সেই সঙ্গে পায় নানা উপহার। তাদের প্রিয় রুমা ম্যাডাম সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসেবে কর্মরত। বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ধরনের উপহার কিনে দেন তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হাওরাঞ্চলের শিশুদের শিক্ষার প্রতি উদ্বুদ্ধ করতে এবং শিক্ষার আলো সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে ব্যতিক্রমী কাজ করছেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন নাহার রুমা। শিশুদের বিদ্যালয়মুখী ও পড়াশোনায় মনোযোগী করতে নানা ধরনের উপহার দেন তিনি। প্রতি মাসে নিজের বেতনের টাকায় সদর উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেন স্কুলব্যাগ, স্কুলড্রেস, খাতা-কলম, ছাতা, রঙ পেন্সিল, ডায়েরি, টুথ ব্রাশ, নেইল কাটার ও চকলেট।

এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার লক্ষ্মণশ্রী ইউনিয়নের পুরান লক্ষ্মণশ্রী গুচ্ছগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য উপহার সামগ্রী নিয়ে যান ইয়াসমিন নাহার রুমা। এ সময় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে স্কুলব্যাগ, খাতা-কলম, রঙ পেন্সিল, ডায়েরি, টুথব্রাশ, নেইল কাটার এবং চকলেট তুলে দেন তিনি। ইউএনওর কাছ থেকে এসব উপহার পেয়ে আনন্দে আত্মহারা খুদে শিক্ষার্থীরা। সেই সঙ্গে প্রিয় রুমা ম্যাডামকে ধন্যবাদ দেয়ার পাশাপাশি মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করবে বলে জানিয়েছে তারা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, হাওরাঞ্চলের বেশিরভাগ শিক্ষার্থী ইংরেজিতে দুর্বল। অনেক শিক্ষার্থী ইংরেজিতে ফেল করে। বিভিন্ন বিদ্যালয় পরিদর্শন করে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর নিজ উদ্যোগে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব চালু করেন ইউএনও ইয়াসমিন নাহার রুমা। এতে বিনে পয়সায় শিক্ষার্থীদের ইংরেজি পড়ানো হয়। ইউএনওর তত্ত্বাবধানে এটি পরিচালিত হয়। প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের ইংরেজিভীতি দূরীকরণে দারুণ সহায়তা করছে ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব।

লক্ষ্মণশ্রী গুচ্ছগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান তালুকদার বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় মনোযোগী করতে ইউএনও রুমা যেসব উদ্যোগ নিয়েছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়। এমন প্রশংসনীয় উদ্যোগ এর আগে আমি দেখিনি। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় মনোযোগী করতে ইউএনও রুমার মতো সবাই যদি এগিয়ে আসে তাহলে সুনামগঞ্জে যেসব অবহেলিত বিদ্যালয় রয়েছে সেগুলোর শিক্ষার্থীরা ভালো ফল করবে। সেই সঙ্গে সুনামগঞ্জে শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাবে।

এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ইয়াসমিন নাহার রুমা বলেন, সুনামগঞ্জে আসার পর থেকেই শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নের পরিকল্পনা ছিল আমার। আমি চাই হাওরাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা পড়াশোনায় মনোযোগী হোক। শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাক। কারণ পড়াশোনার বিকল্প নেই। আমি সুনামগঞ্জে এসে সবার আগে দেখতে পাই এখানের শিক্ষার্থীরা ইংরেজিকে ভয় পায়। অনেকেই ইংরেজি বিষয়ে ফেল করে। এজন্য প্রথমেই নিজ উদ্যোগে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব চালু করি। এটিতে বিনে পয়সায় শিক্ষার্থীদের ইংরেজি পড়ানো হয়। এটি সবার জন্য উন্মুক্ত। প্রতি শুক্রবার প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের ইংরেজি বিষয় পড়ানো হয়। সেই সঙ্গে ইংরেজিতে কথা বলা শেখানো হয়।

ইউএনও রুমা বলেন, আমার প্রথম কাজ সুনামগঞ্জের অবহেলিত বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করা। কারণ বিদ্যালয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী নিশ্চিত করা না গেলে আমাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। এজন্য বেতনের টাকায় শিক্ষার্থীদের নানা ধরনের উপহার দিয়ে বিদ্যালয়মুখী হওয়ার চেষ্টা করছি। এটি অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, খুদে শিক্ষার্থীদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা ছাড়া সুশিক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব নয়। প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের নেইল কাটার, টুথপেস্ট ও টুথব্রাশজাতীয় উপহার দেয়া হয়। এতে ছোট থেকেই একটা শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে বেড়ে উঠবে তারা। পাশাপাশি প্রত্যেক ক্লাসে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হওয়া শিক্ষার্থীকে পুরস্কার হিসেবে স্কুলব্যাগ, ড্রেস, খাতা-কলম ও রঙ পেন্সিল দেই। এছাড়া প্রথম শ্রেণি থেকে শুরু করে পঞ্চম শ্রেণির সব শিক্ষার্থীকে ডায়েরি দেয়া হয়।

ইউএনও রুমা বলেন, দায়িত্ববোধ ও ভালোবাসা থেকে এসব কাজ করছি আমি। তবে এটা শুধু আমার একার কাজ নয়। আমি চাই সুনামগঞ্জের সবাই শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করুক। এজন্য যদি কোনো সহায়তা প্রয়োজন হয় অবশ্যই করব।-জাগো নিউজ



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


করোনার অবসরে পূর্ণ কোরআন মুখস্ত করলেন গৃহিণী নাসমা

করোনার-অবসরে-পূর্ণ-কোরআন-মুখস্ত-করলেন-গৃহিণী-নাসমা

কোরআন ছাড়া এক পা এগোনো মানুষের জন্য মঙ্গলজনক নয়

কোরআন-ছাড়া-এক-পা-এগোনো-মানুষের-জন্য-মঙ্গলজনক-নয়

কাবা শরিফ চত্বরে সালাতুল কুসুফ আদায়

কাবা-শরিফ-চত্বরে-সালাতুল-কুসুফ-আদায় ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ইরানের যেসব দর্শনীয় স্থান দেখে বিশ্বের পর্যটকেরা মুগ্ধ হন

ইরানের-যেসব-দর্শনীয়-স্থান-দেখে-বিশ্বের-পর্যটকেরা-মুগ্ধ-হন

জানেন কি, বাড়িতে করোনা নিয়ে আসতে পারে জুতাও! জেনে নিন বাঁচার উপায়

জানেন-কি-বাড়িতে-করোনা-নিয়ে-আসতে-পারে-জুতাও--জেনে-নিন-বাঁচার-উপায়

দুটি পাথরে ভাগ্য বদল, শ্রমিক থেকে এক দিনেই ৩০ কোটি টাকার মালিক!

দুটি-পাথরে-ভাগ্য-বদল-শ্রমিক-থেকে-এক-দিনেই-৩০-কোটি-টাকার-মালিক- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


জীবনের প্রথম গান গেয়ে কত টাকা পেয়েছিলেন এন্ড্রু কিশোর? জেনে নিন!

বাসা খালি, সংকটে রাজধানীর আড়াই লাখ বাড়িওয়ালা!

যেভাবে বাবা-মায়ের দেয়া নাম বাদ দিয়ে হলেন এন্ড্রু কিশোর

একদিনেই 'অ্যাভেঞ্জার্স'কে পেছনে ফেলে রেকর্ড গড়লো সুশান্তের শেষ ছবির ট্রেলার

বিচিত্র জগৎ


বিশ্বের প্রথম গোল্ডেন হোটেল, টয়লেট থেকে শুরু করে সবকিছুই সোনায় মোড়া!

বিশ্বের-প্রথম-গোল্ডেন-হোটেল-টয়লেট-থেকে-শুরু-করে-সবকিছুই-সোনায়-মোড়া-

নিজেকে নারী বলেই জানতেন অথচ তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন আসলে পুরুষ!

নিজেকে-নারী-বলেই-জানতেন-অথচ-তিরিশ-বছর-পর-জানা-গেল-তারা-দু’বোন-আসলে-পুরুষ-

সন্তানদের মৃত্যু দেখে বেঁচে থাকার ইচ্ছেটুকুই হারিয়ে ফেলল এক মা হাঁস!

সন্তানদের-মৃত্যু-দেখে-বেঁচে-থাকার-ইচ্ছেটুকুই-হারিয়ে-ফেলল-এক-মা-হাঁস- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ