বেরিয়ে এলো সুনামগঞ্জে হিন্দু গ্রামে হামলার আসল রহস্য!

১১:২৭:৪৩ শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

সর্বশেষ সংবাদ :

     • হাসপাতালে বাবার আকুতি ‘আল্লাহ, পরিবারের সদস্যদের বাঁচিয়ে দেন’     • দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নিয়ে নারীকে মারধর, ভিডিও ভাইরাল     • আখক্ষেতে ঢুকে বাবা দেখলেন, তার মেয়েকে ধর্ষণ করছে ২ কিশোর!     • পাকিস্তান করল এক লজ্জার ইতিহাস, তাও আবার জিম্বাবুয়ের সঙ্গে!     • গণপরিবহন কবে থেকে চলবে? যা জানালেন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন     • সীমান্তের কবুতর ঘিরে রহস্য, মামলা দিয়ে জেলে পাঠাল ভারত     • মেয়র আরিফের বাসায় আগুন, অল্পের জন্য রক্ষা     • করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে টাকার বিনিময়ে ৫০০ হাতিকে হত্যার অনুমতি!     • ঘর থেকে কিশোরীকে 'চুরি', রাতভর ধর্ষণ, সকালে বিয়ে!     • ২৮ এপ্রিলের পর থাকছে না লকডাউন

শুক্রবার, ১৯ মার্চ, ২০২১, ০৮:২৩:১৮

বেরিয়ে এলো সুনামগঞ্জে হিন্দু গ্রামে হামলার আসল রহস্য!

বেরিয়ে এলো সুনামগঞ্জে হিন্দু গ্রামে হামলার আসল রহস্য!

সুনামগঞ্জ থেকে : সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় হবিবপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁওয়ে হিন্দুদের বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় বেরিয়ে আসছে নেপথ্যে থাকা অনেক অজানা তথ্য। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনার সঙ্গে মামুনুল হকবিরোধী ফেসবুক স্ট্যাটাসের কোনো সম্পর্ক নেই।

বরং জলমহাল নিয়ে পূর্ববিরোধের জের ধরে ঝুমন দাশ আপনের ফেসবুক স্ট্যাটাসকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেই এ ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটানো হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী অসীম চক্রবর্তী ও দীপক দাস জানান, হামলার মূল নেতৃত্বে ছিলেন দিরাই উপজেলার নাচনী গ্রামের বর্তমান ইউপি সদস্য সরমঙ্গল ইউনিয়ন যুবলীগের ওয়ার্ড সভাপতি শহীদুল ইসলাম স্বাধীন ও একই গ্রামের পক্কন মিয়া। 

তারা জানান, স্বাধীন মেম্বার ও পক্কন মিয়ার নেতৃত্বে মাইকে ঘোষণা দিয়ে তারা লোকজনকে সংগঠিত করে গ্রামে তাণ্ডব চালায়। সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নাচনী গ্রামের স্বাধীন মেম্বার স্থানীয় বরাম হাওরের কুচাখাই বিলের ইজারাদার। জলমহাল নিয়ে স্বাধীনের সঙ্গে কিছুদিন ধরে ফেসবুকে কটূক্তির দায়ে গ্রেফতারকৃত যুবক ঝুমন দাশসহ নোয়াগাঁওয়ের কিছু লোকের বিরোধ চলছিল। 

জলমহালে অবৈধভাবে মৎস্য আহরণ ও জলমহালের পানি শুকানোর ফলে চাষাবাদে সেচের পানির সংকটের ব্যাপারে নোয়াগাঁওয়ের হরিপদ দাশ ও মুক্তিযোদ্ধা জগদীশ দন্দ্র দাস শাল্লা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্বাধীন মেম্বারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত ৮ জানুয়ারি সরেজমিন কুচাখাই বিলে গিয়ে অবৈধ শ্যালোমেশিনসহ মাছ ধরার বিভিন্ন উপকরণ জব্দ করে জলমহালের পানি ছেড়ে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল মোক্তাদির হোসেন। এ সময় বাঁধ কাটার কাজ করেন নোয়াগাঁও গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা অকিল চন্দ্র দাসের ছেলে অমর চন্দ্র দাস ও পানি ছেড়ে দেয়ার দৃশ্য ফেসবুকে প্রচার করেন একই গ্রামের ঝুমন দাশ। 

এ ঘটনায় স্বাধীন মেম্বার নোয়াগাঁও হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলেন বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। ঝুমন দাসের এ ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে হেফাজতের অনুসারী ও তার নিজস্ব লোকদের দিয়ে বুধবার নোয়াগাঁও গ্রামে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ করেন গ্রামের অনেক ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার। ভুক্তভোগীদের দাবি, মামুনুল হকের অনুসারীদের উসকে দিয়ে নিজের শরীরের ঝাল মেটাতে হিন্দুদের বাড়িতে তাণ্ডব চালান স্বাধীন ও তার অনুসারীরা।

ক্ষতিগ্রস্ত মুক্তিযোদ্ধা অকিল চন্দ্র দাশ বলেন, আমি ঘরে ছিলাম। আমার ঘরের দরজা ভেঙে সব কিছু তছনছ করে টাকা-পয়সা ও মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেটসহ অনেক কিছু নিয়ে গেছে। মুক্তিযোদ্ধা বলার পরও তারা আমারে রেহাই দেয়নি। হামলা করেছে শত শত মানুষ। আমি শুধু পক্কন মিয়া ও স্বাধীন মেম্বারকে চিনতে পেরেছি। স্বাধীন মিয়ার সঙ্গে আমাদের বিরোধ ছিল। ওসি ও ইউএনও সাহেব যখন বাঁধভাঙার অনুমতি দিলেন তখন আমার ছেলে অমর চন্দ্র দাশ বাঁধ কাটে। এ কারণেই সে আমার ঘরে বেশি ভাংচুর করেছে। এ ঘটনায় স্বাধীন মেম্বারের বিচারের দাবি করেন তিনি।

এদিকে নোয়াগাঁও মাঠে এ ন্যক্কারজনক ঘটনার সঙ্গে জড়িত নাটেরগুরু স্বাধীনসহ সব অপরাধীর গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন। ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায়  মামলা দায়েরের পর ২২ জনকে  গ্রেফতার করলেও নাটেরগুরু স্বাধীন মেম্বার ও পক্কন মিয়া অধরা থাকায় এলাকায় চাপা ক্ষোভ ও শঙ্কা বিরাজ করছে। 

তবে পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সবাইকে আশ্বস্ত করে বলেন, স্বাধীন ও তার পেছনে যারা জড়িত আছে সবাইকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে। কেউ রেহাই পাবে না। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি সদস্য সহিদুল ইসলাম স্বাধীন বলেন, আমি হামলার সঙ্গে জড়িত নই। নোয়াগাঁও গ্রামবাসীর সঙ্গে জলমহাল নিয়ে আমার বিরোধ রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার শাল্লা থানায় বসা হয়েছে। সেই আক্রোশ থেকেই তারা আমাকে ফাঁসানোর জন্য আমার নাম বলছে।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


এ বছর সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা, সর্বোচ্চ ২৩১০

এ-বছর-সর্বনিম্ন-ফিতরা-৭০-টাকা-সর্বোচ্চ-২৩১০

হিন্দু ধর্ম ছেড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন জাবি শিক্ষার্থী

হিন্দু-ধর্ম-ছেড়ে-ইসলাম-ধর্ম-গ্রহণ-করলেন-জাবি-শিক্ষার্থী

ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধে লড়ছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম মুসলিম নারী মেয়র

ইসলামবিদ্বেষের-বিরুদ্ধে-লড়ছেন-যুক্তরাষ্ট্রের-প্রথম-মুসলিম-নারী-মেয়র ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


সাবধান, লিংকে ক্লিক করলেই ফোন হ্যাকারের দখলে!

সাবধান-লিংকে-ক্লিক-করলেই-ফোন-হ্যাকারের-দখলে-

বিশ্বের সবচেয়ে সুখী ৫টি দেশের তালিকা

বিশ্বের-সবচেয়ে-সুখী-৫টি-দেশের-তালিকা

ঢাকার নামকরা স্কুলের ‘অংকের যাদুকর’ খেতাব পাওয়া সেই শিক্ষকের এখন দিন কাটে পথে পথে!

ঢাকার-নামকরা-স্কুলের-‘অংকের-যাদুকর’-খেতাব-পাওয়া-সেই-শিক্ষকের-এখন-দিন-কাটে-পথে-পথে- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


এখন আর কেউ বলতে পারবেন না, মুমিনুল দেশের বাইরে পারেন না

যতবার ৯০ ততবারই নাভার্স তামিম ইকবাল!

সবাইকে নিয়ে আমি জেলে যাবো বিনিময়ে লকডাউন তুলে নিন : বাবুনগরী

সাবধান, লিংকে ক্লিক করলেই ফোন হ্যাকারের দখলে!

বিচিত্র জগৎ


এক ভূমিকম্পে বন্ধ হওয়া শতবর্ষী ঘড়ি আরেক ভূমিকম্পে চালু!

এক-ভূমিকম্পে-বন্ধ-হওয়া-শতবর্ষী-ঘড়ি-আরেক-ভূমিকম্পে-চালু-

বেতনসহ ছুটি আদায় করতে একই স্ত্রীকে ৪ বার বিয়ে, ৩ বার ডিভোর্স!

বেতনসহ-ছুটি-আদায়-করতে-একই-স্ত্রীকে-৪-বার-বিয়ে-৩-বার-ডিভোর্স-

‘স্বামীর আত্মহত্যার’ সময় ছবি তুললেন স্ত্রী!

‘স্বামীর-আত্মহত্যার’-সময়-ছবি-তুললেন-স্ত্রী- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ