বিক্ষোভের মুখে হোয়াইট হাউসে মাটির নিচে বাঙ্কারে লুকিয়ে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

০২:২১:৫৭ রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • অমিতাভ বচ্চনের পর এবার করোনায় আক্রা'ন্ত হলেন অভিষেক বচ্চনও     • ‘আমি তৈরি তুমি এসো, ভালোবেসে গ্রহণ কর’, লিখে নারীর আ'ত্মহ'ত্যা     • কবরস্থান থেকে ভেসে আসছে, ‘আমি বেঁচে আছি, সাহায্য করুন’     • ছাদ থেকে পড়ে মায়ের মৃত্যু হলেও অলৌকিকভাবে বেঁচে গেল কোলে থাকা এক বছরের শিশু     • বিশ্বকে হতবাক করলো করোনার এই আবিস্কার     • অমিতাভ বচ্চন করোনায় আক্রা'ন্ত      • বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জা'লিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির     • খবরটি ভিত্তিহীন: মাশরাফী     • চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. শিরীণ আখতারসহ তাঁর পরিবারের পাঁচ সদস্য করোনায় আক্রা'ন্ত     • এবার সাহেদের স্ত্রী সাদিয়াকে নিয়ে গোপন তথ্য ফাঁস

মঙ্গলবার, ০২ জুন, ২০২০, ১২:৪১:৩১

বিক্ষোভের মুখে হোয়াইট হাউসে মাটির নিচে বাঙ্কারে লুকিয়ে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

বিক্ষোভের মুখে হোয়াইট হাউসে মাটির নিচে বাঙ্কারে লুকিয়ে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আমেরিকার মিনিয়াপোলিসে পুলিশের নির্ম'মতার শি'কার হয়ে আফ্রিকান-আমেকিান জর্জ ফ্লয়েডের মৃ'ত্যুতে আমেরিকার চল্লিশটি শহরে যেভাবে বিক্ষো'ভ ছড়িয়ে পড়েছে তাতে প্রশাসনের মধ্যে উদ্বে'গ বাড়ছে। জানা যাচ্ছে যে শুক্রবার রাতে বিক্ষো'ভের পর এমনকী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে নিরা'পত্তামূলক ব্যবস্থা হিসাবে গোয়ে'ন্দা দপ্তর থেকে কিছুক্ষণের জন্য হোয়াইট হাউসের কাছে মাটির নিচের একটি বাঙ্কারে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেসময় হোয়াইট হাউসের বাইরে শত শত লোক জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবা'দে বিক্ষো'ভ জানাচ্ছিল। তারা পাথর ছুঁ'ড়ছিল এবং পুলিশের দেয়া প্রতিব'ন্ধকতা সরানোর চেষ্টা করছিল। হোয়াইট হাউসের কাছে বিক্ষো'ভকারীরা একটি ঐতিহাসিক গির্জায় আ'গুন দিলে ওয়াশিংটন ডিসির পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে। আমেরিকার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে জানা যাচ্ছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে প্রায় এক ঘণ্টা ওই বাঙ্কারে লু'কিয়ে রাখা হয়। 

তবে ট্রাম্পের স্ত্রী ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প এবং তাদের ১৪ বছরের ছেলে ব্যারনকেও বাঙ্কারে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল কি না তা স্পষ্ট নয়। এই বাঙ্কার তৈরি করা হয় কোনরকম সন্ত্রা'সী হা'মলার সময় প্রেসিডেন্টকে জরু'রিকালীন ব্যবস্থা হিসাবে সরিয়ে নেবার লক্ষ্যে। সাধারণত বড় কোনো সন্ত্রাসী হা'মলার সময় হোয়াইট হাউজের পূর্ব উইংয়ের নীচে প্রেসিডেন্ট এবং প্রশাসনের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সুর'ক্ষার জন্য এই বাঙ্কার ব্যবহৃত হয়। 

নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে পরপর তিন রাত্রি ধরে বাইরে সহিং'স বিক্ষো'ভের প্রেক্ষাপটে হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং প্রেসিডেন্টের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে এক ধরনের অস্থিরতা-উত্তে'জনা বিরাজ করছে। রোববার রাতেও হোয়াইট হাউসের কাছে লাফায়েত স্কোয়ারে পুলিশের সাথে কয়েকশ বিক্ষো'ভকারীর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে হোয়াইট হাউসের বাইরে যে বিক্ষো'ভ হয়েছে তাতে নাইন-ইলেভেন হা'মলার পর প্রথমবারের মত আমেরিকান প্রেসিডেন্টের বাসভবনের জন্য সর্বোচ্চ সত'র্কতা জারি করা হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের ঘনিষ্ঠ একজন রিপাবলিকান সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্কাই নিউজকে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের বাইরে বিক্ষো'ভের দৃশ্য ট্রাম্পকে বিচলিত করে দিয়েছে। ট্রাম্পকে তড়িঘড়ি বাঙ্কারে সরিয়ে নেবার জন্য গোয়ে'ন্দা দপ্তরের এই আক'স্মিক পদক্ষেপ থেকে হোয়াইট হাউসের ভেতর অস্বস্তির বিষয়টি পরিস্কার হয়েছে। গোটা সপ্তাহান্ত জুড়ে বিক্ষো'ভকারীদের শ্লো'গান শোনা গেছে হোয়াইট হাউসের বাইরে। এবং বিক্ষো'ভকারীদের দমন করতে আইনশৃঙ্খলা র'ক্ষাকারী বাহিনীকে হিমশিম খেতে হয়েছে।

কে এই জর্জ ফ্লয়েড : যে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু নিয়ে উত্তা'ল আমেরিকা, সেই জর্জ ফ্লয়েডের ওপর পুলিশি নির্ম'মতার ভাই'রাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায় নিঃশ্বাস নেবার জন্য হাঁস'ফাঁস করছেন তিনি। তাকে মাটিতে শুইয়ে তার গলা নিজের হাঁটু দিয়ে চে'পে ধ'রেছেন একজন শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসার। জর্জ ফ্লয়েড বারবার বলেছেন, "আমার দম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।"

জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুতে ব্যা'পক প্রতিবা'দের পর শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসারের বিরু'দ্ধে এখন হ'ত্যার মামলা আনা হয়েছে। কিন্তু কে এই কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান যার মৃ'ত্যুর ঘটনায় আমেরিকা জুড়ে ব্যা'পক বিক্ষো'ভ শুরু হয়েছে। টেক্সাসের হুস্টনে বড় হয়ে ওঠেন জর্জ ফ্লয়েড শহরের কৃষ্ণাঙ্গ অধ্যুষিত এলাকায়। তার ৪৬ বছরের জীবন ছিল ভাল-মন্দের সংমিশ্রণ। খেলাধূলায় আগ্রহ ছিল জর্জের। তরুণ বয়সে হুস্টনে আমেরিকান ফুটবল খেলোয়াড় হিসাবে বেশ নামডাক হয়েছিল তার। 

১৯৯২ সালে টেক্সাস স্টেট চ্যাম্পিয়ানশিপে রানার্স আপ হয়েছিল তার স্কুলের দল- ইয়েটস হাই স্কুল লায়ন্স। ১৯৯০এর দশকে হুস্টনে হিপহপ সঙ্গীত গোষ্ঠির সদস্য হিসাবেও তিনি বেশ পরিচিত হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু দারিদ্র, বর্ণবৈ'ষম্য, এবং অর্থনৈতিক অসাম্য তার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। সামাজিক ব'ঞ্চনার শি'কার বহু আফ্রিকান আমেরিকান তরুণের মত জর্জ ফ্লয়েডও জড়িয়ে পড়েন গোষ্ঠি সহিং'সতা, এবং আফ্রিকান আমেরিকান গোষ্ঠির বাসস্থানের সং'ক'ট নিয়ে নানা সামাজিক আন্দোলনে।

তার ছেলেবেলার বন্ধুরা বলেছেন বিশাল দীর্ঘদেহী ছিলেন জর্জ ফ্লয়েড। ছয় ফুট ছয় ইঞ্চি উচ্চতার জর্জ একজন প্রতিভাবান অ্যাথলেট ছিলেন। তার বন্ধুরা বলেছেন আমেরিকান ফুটবল আর বাস্কেটবলে তিনি তুখোড় ও দক্ষ খেলোয়াড় ছিলেন। তার এক বাল্যবন্ধু জনাথান ভিল বলেছেন, "এত লম্বা কাউকে আমি দেখিনি। ১২ বছর বয়সে জর্জ ছয় ফুট দুই ইঞ্চি লম্বা ছিল।" তার বর্ণনায় জর্জ ছিলেন, "দৈত্যকায় নরম মনের মানুষ।"

সিএনএন বলছে জর্জ ফ্লয়েড যখন পরে ফ্লোরিডা স্টেট কলেজে পড়তে যান, তখন ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৫ তিনি স্কুলের বাস্কেটবল দলে ফ্লোরিডা রাজ্যের তরুণ টিমে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। পরে তিনি আবার ফিরে যান হুস্টনে তার স্কুলের শেষ বছরে, এরপর টেক্সাস এ অ্যান্ড এম ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হলেও তিনি ডিগ্রি কোর্স শেষ করেননি। এসময় জর্জ অ'পরা'ধ জগতের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। চু'রি এবং অবৈ'ধ মা'দক রাখার অভিযোগে বেশ কয়েকবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২০০৭ সালে সশ'স্ত্র ডাকাতির অভিযোগে তার বিরু'দ্ধে মামলা হয় এবং তাকে পাঁচ বছরের জন্য কারাভোগ করতে হয়।

তবে জেল থেকে ছাড়া পাবার পর জর্জ নিজের জীবন শো'ধরাতে চেষ্টা করছিলেন। স্থানীয় এক গির্জার মাধ্যমে সামাজিক কাজে নিজেকে জড়ান তিনি। ২০১৭ সালে তিনি তরুণদের সহিং'সতা ব'ন্ধের ডাক দিয়ে একটি ভিডিও তৈরি করেন, যে ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হয়। তিনি তরুণদের উদ্দেশ্যে বলেন সহিং'সতা ছেড়ে দিয়ে "ঘরে ফিরে এসো", জানিয়েছেন তার সহপাঠী ও বন্ধু ক্রিস্টোফার হ্যারিস।

"মি. ফ্লয়েড আবার নতুন করে জীবন গড়ে তোলার, নতুন করে বাঁচার সংগ্রাম শুরু করেছিলেন, তার প্রচেষ্টা নিয়ে তিনি খুশি ছিলেন," আমেরিকার মিডিয়ায় বলেন মি. হ্যারিস। স্যালভেশন আর্মির একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানে তিনি নিরা'পত্তা গার্ডের কাজ নিয়েছিলেন। পরে লরি চালকের কাজ নেন এবং একটি পানশালায় নিরা'পত্তা কর্মীর কাজ করেন। সেখানে সবাই তাকে ডা'কত 'বিগ ফ্লয়েড' বা দীর্ঘদেহী ফ্লয়েড নামে।

কিন্তু করোনা ভাইরাস মহামা'রি শুরু হবার পর পানশালা ব'ন্ধ হয়ে যাবার ফলে বহু আমেরিকানের মত জর্জ ফ্লয়েডকেও ছাঁ'টাই করা হয়। যেদিন তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে, যেদিন পুলিশের অত্যা'চারের কারণে তাকে প্রাণ দিতে হয়, সেদিন পুলিশের অভিযো'গ ছিল জর্জ ফ্লয়েড বিশ ডলারের একটা জাল নোট ব্যবহার করে সিগারেট কেনার চেষ্টা করছিলেন। সূত্র : বিবিসি বাংলা।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


সূরা ফাতেহা সব রোগের মহাওষুধ

সূরা-ফাতেহা-সব-রোগের-মহাওষুধ

করোনার অবসরে পূর্ণ কোরআন মুখস্ত করলেন গৃহিণী নাসমা

করোনার-অবসরে-পূর্ণ-কোরআন-মুখস্ত-করলেন-গৃহিণী-নাসমা

কোরআন ছাড়া এক পা এগোনো মানুষের জন্য মঙ্গলজনক নয়

কোরআন-ছাড়া-এক-পা-এগোনো-মানুষের-জন্য-মঙ্গলজনক-নয় ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


আমের গুণের শেষ নেই, নির্ভয়ে খান এই শর্তগুলো মেনে

আমের-গুণের-শেষ-নেই-নির্ভয়ে-খান-এই-শর্তগুলো-মেনে

ইরানের যেসব দর্শনীয় স্থান দেখে বিশ্বের পর্যটকেরা মুগ্ধ হন

ইরানের-যেসব-দর্শনীয়-স্থান-দেখে-বিশ্বের-পর্যটকেরা-মুগ্ধ-হন

জানেন কি, বাড়িতে করোনা নিয়ে আসতে পারে জুতাও! জেনে নিন বাঁচার উপায়

জানেন-কি-বাড়িতে-করোনা-নিয়ে-আসতে-পারে-জুতাও--জেনে-নিন-বাঁচার-উপায় এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


আগামী বছরের জুনে এশিয়া কাপ!

দাঁত-ঠোঁট অবিকল মানুষের মতো দেখতে অদ্ভুত মাছ!

আমের গুণের শেষ নেই, নির্ভয়ে খান এই শর্তগুলো মেনে

চাচি-ভাতিজার প্রেম! বিয়ে করে জঙ্গলে ঢুকে ঘটালেন ভ'য়ঙ্কর ঘটনা!

বিচিত্র জগৎ


দাঁত-ঠোঁট অবিকল মানুষের মতো দেখতে অদ্ভুত মাছ!

দাঁত-ঠোঁট-অবিকল-মানুষের-মতো-দেখতে-অদ্ভুত-মাছ-

বিশ্বের প্রথম গোল্ডেন হোটেল, টয়লেট থেকে শুরু করে সবকিছুই সোনায় মোড়া!

বিশ্বের-প্রথম-গোল্ডেন-হোটেল-টয়লেট-থেকে-শুরু-করে-সবকিছুই-সোনায়-মোড়া-

নিজেকে নারী বলেই জানতেন অথচ তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন আসলে পুরুষ!

নিজেকে-নারী-বলেই-জানতেন-অথচ-তিরিশ-বছর-পর-জানা-গেল-তারা-দু’বোন-আসলে-পুরুষ- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ