মিয়ানমারের ক্ষমতা দখলকারী জেনারেল মিন অং লাইং শুরু থেকে রহস্যময়ী ব্যক্তিত্ব!

০৪:৪৮:৩৮ রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১

সর্বশেষ সংবাদ :

     • 'এই দুনিয়া আমার জন্য নয়, আম্মু আমাকে মাফ করে দিয়েন'     • গোমতী নদীর তীরে ১৩০০-১৫০০ বছর আগের পুরাকীর্তির সন্ধান!     • মাঝ আকাশে বিড়ালের আক্রমণে বিপাকে যাত্রীভর্তি বিমান!     • ধারাবাহিক সরকার গঠন করে মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী     • আজ রাতের মধ্যে পৃথিবীর কাছ ঘেঁষে বেরিয়ে যাচ্ছে অ্যাপোফিস, সংস্পর্শে আসলেই বিপদ!     • বিজেপির ভয়ে উল্লেখযোগ্য হারে মুসলমান প্রার্থী কমালেন মমতা ব্যানার্জী!     • নবীর প্রেম নবীর সুন্নত অন্তরে লালন পোষণ করতে হবে: ফয়জুল করিম     • 'আল্লাহ এবং রসূলের (সা.) বিরুদ্ধে কটূক্তিসহ কুফুরি বক্তব্যের মাধ্যমে জাতিকে ঈমানহারা করছে তাহেরী'     • মিয়ানমারে সেনাদের রুখতে নারীদের 'লুঙ্গি ব্যারিকেড'     • তৃতীয় বিয়ে করতে মনের মতো পাত্র খুঁজছেন মুনমুন

সোমবার, ০১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ১১:২৯:১০

মিয়ানমারের ক্ষমতা দখলকারী জেনারেল মিন অং লাইং শুরু থেকে রহস্যময়ী ব্যক্তিত্ব!

মিয়ানমারের ক্ষমতা দখলকারী জেনারেল মিন অং লাইং শুরু থেকে রহস্যময়ী ব্যক্তিত্ব!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি জেনারেল মিন অং লাইং-এর সাক্ষাৎকার পাওয়া খুব কঠিন। বিবিসির সংবাদদাতা জোনাহ ফিশার ২০১৫ সালে তার একটি বিরল সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন। তিনি জানাচ্ছেন, সেই সাক্ষাৎকার চেয়ে প্রথম চিঠি পাঠানোর পর তার জবাব এসেছিল এক মাস পর। 

তার পর গভীর রাতে নেপিডোর জনশূন্য রাস্তায়, কফি শপে, বা কার পার্কে এক রহস্যময় ব্যক্তির সাথে সাক্ষাৎ, ইউএসবি স্টিক হস্তান্তর -এরকম বিচিত্র সব ঘটনার পর সেই সাক্ষাৎকার মিলেছিল। "একেক সময় মনে হচ্ছিল যেন আমি একজন মাদক বিক্রেতা", লিখেছেন জোনাহ ফিশার। সেই সাক্ষাৎকারের জন্য তার সাথে জেনারেলের কোন ইমেইল বিনিময় হয়নি, সেই রহস্যময় লোকটির ফোন নম্বর বা এমনকি তার পদবী কি? তাও কখনো তিনি জানতে পারেননি।

তারপরও মুখোমুখি সাক্ষাতে মিন অং লাইংকে একজন আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের লোক বলেই মনে হয়েছিল জোনাহ ফিশারের। 'জনগণের সাথে সরাসরি যোগাযোগ রাখার জন্য' তখন তার একটি ফেসবুক পাতাও ছিল - যার দেখাশোনা করতেন তার সহযোগীরা। তবে সেই সাক্ষাৎকারে তিনি হাসিমাখা মুখেই যে বার্তা দিয়েছিলেন, তা ছিল স্পষ্ট এবং কঠোর।

মিয়ানমারের রাজনীতির ওপর সামরিক বাহিনীর শক্ত নিয়ন্ত্রণ খুব শিগগীর কমানোর কোন ইচ্ছে যে তার নেই - তা তিনি পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন। মিয়ানমারে সক্রিয় বহু জাতিগত বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সাথে যুদ্ধবিরতি বা শান্তি চুক্তি না হওয়া পর্যন্ত জনগণকে অপেক্ষা করতে হবে, বলেছিলেন তিনি। "এটা পাঁচ বা ১০ বছরও লাগতে পারে - আমি ঠিক বলতে পারছি না" - বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন তিনি।

তিনি কি মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট হতে চান? প্রশ্ন করেছিলেন জোনাহ ফিশার। "যদি জনগণ আমাকে এই দায়িত্ব পালন করতে বলে, তখন আমি সিদ্ধান্ত নেবো" - জবাব দিয়েছিলেন জেনারেল মিন অং লাইং। মিন অং লাইংএর বয়স এখন ৬৪। সামরিক বাহিনীর প্রধানের পদ থেকে তার অবসরে যাবার কথা ছিল ২০১৬ সালে কিন্তু তিনি সেই মেয়াদ আরো পাঁচ বছর বাড়িয়ে নিয়েছেন। তার এই পদক্ষেপ অনেককে অবাক করেছিল।

সৈনিক জীবনের শুরুতে একজন ক্যাডেট হিসেবে তিনি খুব চোখে পড়ার মত কেউ ছিলেন না। ইয়াঙ্গন বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৭২ থেকে '৭৪ সাল পর্যন্ত আইন পড়েছিলেন মিন অং লাইং। "তিনি ছিলেন স্বল্পভাষী এবং সাধারণত নিজেকে আড়ালে রাখতেই পছন্দ করতেন" - ২০১৬ সালে তার এক সহপাঠী বলেছিলেন বার্তা সংস্থা রয়টারকে।

তিনি যখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র - তখন মিয়ানমারে রাজনৈতিক তৎপরতা খুব ব্যাপক ছিল। কিন্তু মিন অং লাইং এসব থেকে দূরে থাকতেন। অন্য ছাত্ররা যখন বিক্ষোভে যোগ দিচ্ছে, তখন তিনি প্রতিবছর ডিফেন্স সার্ভিসেস একাডেমি নামে সামরিক বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেবার জন্য চেষ্টা করছিলেন। তিন দফা চেষ্টার পর তিনি সফল হন ১৯৭৪ সালে।

তার এক সহপাঠী রয়টার্সকে বলেছিলেন, ক্যাডেট হিসেবে তিনি ছিলেন গড়পড়তা ধরনের। "তার প্রমোশন হচ্ছিল ধীর গতিতে - তবে নিয়মিতভাবে" বলেন তিনি। তবে যখন অফিসার কোরের মাঝারি স্তর ছাড়িয়ে মিন অং লাইং আরো ওপরে উঠে গেলেন - তখন বেশ বিস্মিত হয়েছিলেন এই সহপাঠী। তিনি সামরিক বাহিনীর প্রধান হন ২০১১ সালে - ঠিক সেই সময়টায় যখন গণতন্ত্রের পথে মিয়ানমারের যাত্রা শুরু হয়েছিল।

ইয়াঙ্গনের কূটনীতিকদের উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা রয়টার জানাচ্ছে, ২০১৬ সালে যখন অং সান সুচির দল প্রথমবার ক্ষমতায় আসে, তখন মিন অং লাইং একজন স্বল্পভাষী সৈনিক থেকে নিজেকে একজন রাজনীতিবিদ ও পরিচিত ব্যক্তিত্বে পরিণত করেন। তার বিভিন্ন কর্মকাণ্ড, সম্মানিত অতিথিদের সাথে সাক্ষাৎ, বৌদ্ধ আশ্রমে সফর - ইত্যাদি ফলাও করে প্রচার হতো তার ফেসবুক পাতায়। তার ফলোয়ারের সংখ্যা ছিল কয়েক লক্ষ।

কিন্তু ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে সামরিক বাহিনীর অভিযান শুরু হলে সেই পাতাটি বন্ধ করে দেয়া হয়। ওই অভিযানের ফলে সাত লক্ষেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলিম পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। জাতিসংঘের তদন্তকারীরা ওই অভিযানের সময় গণহত্যা, গণধর্ষণ, ব্যাপক অগ্নিসংযোগ ঘটেছে বলে অভিযোগ আনেন। মিন অং লাইংসহ চারজন সামরিক নেতার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক আদালতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

কূটনীতিক ও পর্যবেক্ষকরা রয়টারকে বলেছেন যে জেনারেল মিন অং লাইং বিভিন্ন দেশে সংঘটিত রাজনৈতিক পটপরিবর্তনকে পর্যবেক্ষণ করেছেন এবং লিবিয়া বা অন্য কিছু মধ্যপ্রাচ্যের দেশের মত পরিস্থিতি যেন মিয়ানমারে না হয়, তার প্রয়োজনীয়তার ওপর তিনি গুরুত্ব দিতেন। মিয়ানমারের পার্লামেন্টে সেনাবাহিনীর ২৫ শতাংশ আসন এবং অং সান সুচির প্রেসিডেন্ট হবার ওপর সাংবিধানিক নিষেধাজ্ঞা - এগুলো পরিবর্তন করার কোন ইচ্ছা তার আছে - এমন কোন ইঙ্গিত কখনো দেননি মিন অং লাইং। সূত্র : বিবিসি



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


সবাই করোনা ভ্যাকসিন নিন এবং নিরাপদে থাকুন: মিজানুর রহমান আজহারী

সবাই-করোনা-ভ্যাকসিন-নিন-এবং-নিরাপদে-থাকুন-মিজানুর-রহমান-আজহারী

জুমআর নামাজ চার শ্রেণির মানুষ ছাড়া প্রত্যেক মুসলমানের উপর ফরজ

জুমআর-নামাজ-চার-শ্রেণির-মানুষ-ছাড়া-প্রত্যেক-মুসলমানের-উপর-ফরজ

গান-বাদ্য ও আতশবাজির পরিবর্তে বিয়েতে কুরআন তেলাওয়াতের আয়োজন করে ব্যাপক প্রশংসিত বাবা

গান-বাদ্য-ও-আতশবাজির-পরিবর্তে-বিয়েতে-কুরআন-তেলাওয়াতের-আয়োজন-করে-ব্যাপক-প্রশংসিত-বাবা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


১২ তলা থেকে ছিটকে পড়া শিশুর প্রাণ বাঁচালেন ডেলিভারি বয়, রোমহর্ষক ভিডিও ভাইরাল!

১২-তলা-থেকে-ছিটকে-পড়া-শিশুর-প্রাণ-বাঁচালেন-ডেলিভারি-বয়-রোমহর্ষক-ভিডিও-ভাইরাল-

এই দুই যমজ বোনের জীবনে যা ঘটেছে তা বিশ্বে প্রথম

এই-দুই-যমজ-বোনের-জীবনে-যা-ঘটেছে-তা-বিশ্বে-প্রথম

মঙ্গল থেকে তথ্য আসা শুরু, এসেছে হালকা বাতাসের শব্দ

মঙ্গল-থেকে-তথ্য-আসা-শুরু-এসেছে-হালকা-বাতাসের-শব্দ এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


খেলা শেষ, হেরে গেল নিউজিল্যান্ড

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সেই চেষ্টা রুখে দিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

দুর্দান্ত খেলে ভারতকে বড় টার্গেট দিল পাইলট-সুজনরা

গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের খেলা নিয়ে মাশরাফির বার্তা

বিচিত্র জগৎ


সৌন্দর্য বজায় রাখতে প্রতিদিন কুকুরের মূত্রপান মার্কিন তরুণীর

সৌন্দর্য-বজায়-রাখতে-প্রতিদিন-কুকুরের-মূত্রপান-মার্কিন-তরুণীর

নিজেদের জঞ্জাল ও আবর্জনা সৌরজগতে ফেলছে ভিনগ্রহের প্রাণীরা!

নিজেদের-জঞ্জাল-ও-আবর্জনা-সৌরজগতে-ফেলছে-ভিনগ্রহের-প্রাণীরা-

পৃথিবীর গতি বাড়ছে, ২৪ ঘণ্টার আগেই শেষ হচ্ছে দিন!

পৃথিবীর-গতি-বাড়ছে-২৪-ঘণ্টার-আগেই-শেষ-হচ্ছে-দিন- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ