রবিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২২, ০৩:০৬:২০

মুসলিম হওয়ার কারণে বরখাস্ত, ভয়াবহ অভিযোগ বৃটেনের প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রীর

মুসলিম হওয়ার কারণে বরখাস্ত, ভয়াবহ অভিযোগ বৃটেনের প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রীর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বৃটেনের সাবেক মন্ত্রী নুসরাত গণি দাবি করেছেন তাকে ২০২০ সালে বরখাস্ত করা হয়েছে শুধু মুসলিম হওয়ার কারণে। এক্ষেত্রে কারণ হিসেবে তার ধর্মীয় বিশ্বাসকে উত্থাপন করেছিলেন সরকারি হুইপ। কনজার্ভেটিভ দলের এই নেত্রীর এমন দাবির জবাব দিয়েছেন দলের চিফ হুইপ মার্ক স্পেন্সার। 

তিনি বলেছেন, নুসরাত গণি তাকে ইঙ্গিত করে কথা বলেছেন। তিনি যে অভিযোগ এনেছেন তা পুরোপুরি মিথ্যা এবং তিনি এমন মন্তব্যকে মানহানিকর বলে মনে করেন। অন্যদিকে নুসরাত গণির অভিযোগ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন ক্যাবিনেট মন্ত্রী নাদিম জাহাবি। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

বৃটেনের পরিবহন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োগ করা হয়েছিল নুসরাত গণিকে। এর মধ্য দিয়ে তিনিই বৃটেনে প্রথম কোনো মুসলিম নারী মন্ত্রীর পদে আসীন হয়েছিলেন। ওয়েল্ডেন থেকে নির্বাচিত এমপি নুসরাত। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ২০২০ সালে তার মন্ত্রীপরিষদ রদবদল করেন। এ সময়ই পদ হারান নুসরাত। 

সানডে টাইমস বলেছে, মিস নুসরাত বলেছেন, বরখাস্তের কারণ সম্পর্কে তিনি সরকারের হুইপের কাছে একটি ব্যাখ্যা চেয়েছিলেন রদবদল নিয়ে আলোচনার সময়। তিনি নাকি তাকে বলেছেন, তিনি মুসলিম। এ বিষয়টি উত্থাপিত হয়েছে। তিনি তাকে বলেছিলেন, নুসরাত একজন মুসলিম নারী। এটা অন্য সহকর্মীদের অস্বস্তির কারণ হয়ে উঠেছে। তাকে বলা হয়েছিল, এ নিয়ে তিনি অশান্ত হলে তাতে তার ক্যারিয়ার ও সুনাম ধ্বংস হতে পারে। এ জন্য তিনি বিষয়টি এড়িয়ে গিয়েছিলেন।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ