সালমান শাহ : আসলে ঠিক কী ঘটেছিল ২৩ বছর আগের সেই শুক্রবারে?

০৩:৩৬:৪৭ শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • গোপনে শিখর ধাওয়ানের বিশেষ মুহুর্তের ভিডিও ধারণ করে অনলাইনে পোস্ট!     • অভিযান চলবে, কাউকে ছাড় দেয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     • এবার রাশিয়ার দ্বারস্থ তালেবান     • মা হলেন নুসরাত হ'ত্যার আসামি কারাবন্দি কামরুন নাহার মনি     • ‘পাকিস্তান সফরে না আসলে পিএসএলে নিষিদ্ধ শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটরা’      • স্মৃতিচারণ করে বিদায় বেলায় মাশরাফিকে যে পরামর্শ দিয়ে গেলেন মাসাকাদজা     • বাজারে নতুন স্মার্ট সিলিং ফ্যান, বাতাস দেয়ার সঙ্গে তাড়াবে মশা!     • অপরাধী যেই হোক ছাড় পাবে না: শেখ সেলিম     • ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট একজন কাঠুরিয়া, ভারতের প্রেসিডেন্ট একজন চা বিক্রেতা: ওমর ফারুক চৌধুরী     • জব্দ করা টাকা লাখো-কোটি বেকারদের কর্মসংস্থানে ব্যয় করার প্রস্তাব রাশেদা রওনকের

শুক্রবার, ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৭:১৮:৪২

সালমান শাহ : আসলে ঠিক কী ঘটেছিল ২৩ বছর আগের সেই শুক্রবারে?

সালমান শাহ : আসলে ঠিক কী ঘটেছিল ২৩ বছর আগের সেই শুক্রবারে?

বিনোদন ডেস্ক : সেদিনও ছিল আজকের মতো ছুটির দিন, শুক্রবার। আজ থেকে ঠিক ২৩ বছর আগে। ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর, ওই দিন শরতের সকালে সমকালীন ঢাকাই চলচ্চিত্র অঙ্গনে সব থেকে বড় শূন্যতা তৈরি করে বিদায় নিয়েছেন সালমান শাহ। 

যার পারিবারিক নাম শহীদ চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার ইমন। ১৯৭১ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মা নীলা চৌধুরী। সালমন ছিলেন পরিবারের বড় ছেলে।

এসেছিলেন ১৯৭১ সালে, চলে গেলেন ১৯৯৬ সালে। মাত্র ২৫ বছর। গড় আয়ুরও তুলনায় একেবারেই নগণ্য বয়স। এত অল্প সময়ে কেন চলে গেলেন তিনি, কেন চলে যেতে হলো, সে রহস্য এখনো উন্মোচিত হয়নি। চলছে বিচার। আসলে কী ঘটেছিল সেদিন, তা এখনো রহস্যের ভেতর আছে, তবে সেদিনের ঘটনাগুলো বিভিন্ন সময়ে নিকটজনদের বয়ানে পাওয়া যায়।

চিত্রনায়ক সালমান শাহ তখন থাকতেন রাজধানী ঢাকার নিউ ইস্কাটন রোডের ইস্কাটন প্লাজার একটি ফ্ল্যাটে। সেদিন সকাল সাতটায় বাবা কমর উদ্দিন চৌধুরী ছেলে শাহরিয়ার চৌধুরী ইমনের সঙ্গে দেখা করতে ইস্কাটনের বাসায় যান। কিন্তু ছেলের দেখা না পেয়ে তিনি ফিরে আসেন। 

সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সেদিনের ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী বলেন, বাসার নিচে দারোয়ান সালমান শাহর বাবাকে তার ছেলের বাসায় যেতে দিচ্ছিলেন না। নীলা চৌধুরীর বর্ণনা ছিল এ রকম, ‘বলেছে স্যার এখন তো ওপরে যেতে পারবেন না। কিছু প্রবলেম আছে। আগে ম্যাডামকে (সালমান শাহর স্ত্রীকে) জিজ্ঞেস করতে হবে। একপর্যায়ে উনি (সালমান শাহর বাবা) জোর করে ওপরে গেছেন। 

কলবেল দেওয়ার পর দরজা খুলল সামিরা (সালমান শাহর স্ত্রী)। উনি (সালমান শাহর বাবা) সামিরাকে বললেন, “ইমনের (সালমান শাহর ডাকনাম) সঙ্গে কাজ আছে, ইনকাম ট্যাক্সের সই করাতে হবে। ওকে ডাকো।” তখন সামিরা বলল, “ও তো ঘুমে।” তখন উনি বললেন, “ঠিক আছে আমি বেডরুমে গিয়ে সই করিয়ে আনি।” কিন্তু যেতে দেয়নি। আমার হাজব্যান্ড ঘণ্টা দেড়েক বসে ছিল ওখানে।’

বেলা এগারোটার দিকে একটি ফোন আসে সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরীর বাসায়। ওই টেলিফোনে বলা হলো, সালমান শাহকে দেখতে হলে তখনই যেতে হবে। টেলিফোন পেয়ে নীলা চৌধুরী দ্রুত ছেলে সালমান শাহর বাসার দিকে রওনা হয়েছিলেন। তবে সালমানের ইস্কাটনের বাসায় গিয়ে ছেলে সালমান শাহকে বিছানার ওপর দেখতে পান নীলা চৌধুরী। 

এ বিষয়ে তার বক্তব্য ছিল, ‘খাটের মধ্যে যেদিকে মাথা দেওয়ার কথা, সেদিকে পা। আর যেদিকে পা দেওয়ার কথা সেদিকে মাথা। পাশেই সামিরার (সালমান শাহর স্ত্রী) এক আত্মীয়ের একটি পারলার ছিল। সে পারলারের কিছু মেয়ে ইমনের হাতে-পায়ে সরিষার তেল দিচ্ছে। আমি তো ভাবছি ফিট হয়ে গেছে। আমি দেখলাম, আমার ছেলের হাত–পায়ের নখগুলো নীল। তখন আমি আমার হাজব্যান্ডকে বলেছি, আমার ছেলে তো মরে যাচ্ছে।’

ইস্কাটনের বাসা থেকে সালমান শাহকে হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানকার চিকিৎসকেরা তাকে মৃ'ত ঘোষণা করেন। এরপর ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে বলা হয়, সালমান শাহ আত্মহ'ত্যা করেছেন। তবে বিষয়টি এখনো বিচারাধীন। সালমানের মৃ'ত্যুর সঠিক কারণ জানতে না পারায় তার ভক্তদের মধ্যে তৈরি হয় নানা প্রশ্নের।

বরাবরই পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, সালমান শাহকে হ'ত্যা করা হয়েছে। নীলা চৌধুরীর অভিযোগ ছিল, তারা হ'ত্যা মামলা করতে গেলে পুলিশ সেটিকে অ'পমৃ'ত্যুর মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে। পুলিশ বলেছিল, অ'পমৃ'ত্যুর মামলা তদন্তের সময় যদি বেরিয়ে আসে যে এটি হ'ত্যাকাণ্ড, তাহলে সেটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে হ'ত্যা মামলায় মোড় নেবে।

আগের দিন বৃহস্পতিবার যা ঘটেছিল

৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ‘প্রেমপিয়াসী’ ছবির ডাবিং করতে এফডিসিতে গিয়েছিলেন সালমান শাহ। সেখানে ডাবিংয়ের জন্য আগে থেকেই উপস্থিত ছিলেন এ ছবির নায়িকা শাবনূর। এফডিসিতে পৌঁছানোর কিছুক্ষণ পর সালমান বাবাকে ফোন করে বলেন, তার স্ত্রী সামিরাকে নিয়ে এফডিসির সাউন্ড কমপ্লেক্সে আসার জন্য। ফোন পাওয়ার পরপরই সালমানের বাবা সামিরাকে নিয়ে এফডিসি আসেন। 

শ্বশুরের সঙ্গে সাউন্ড কমপ্লেক্সে এসে সামিরা দেখতে পান, সালমান ও শাবনূর ডাবিং রুমে খুনসুটি করছেন। ওই সময়ের বিনোদন বেশ কিছু বিনোদন পাক্ষিক পত্রিকা এবং সালমানকে নিয়ে লেখা একাধিক গ্রন্থে লেখা হয়েছে, সালমানকে শাবনূরের সঙ্গে খুনসুটি করতে দেখে রেগে যান সামিরা। সালমানের বাবা চলে যাওয়ার পর সামিরাও দ্রুত গাড়িতে ওঠেন। 

‘অবস্থা জটিল’ বিষয়টি বুঝতে পেরে একই গাড়িতে ওঠেন সালমান শাহ ও চিত্রপরিচালক বাদল খন্দকার। কিন্তু গাড়িতে বসে সালমানের সঙ্গে কথা বলেননি সামিরা। তাকে বোঝাতে থাকেন বাদল খন্দকার। গাড়ি এফডিসির গেট পর্যন্ত গেলে সালমান প্রধান ফটকের সামনে নেমে যান। তার সঙ্গে বাদল খন্দকারও নেমে পড়েন। এরপর সেখানে কিছুক্ষণ আড্ডা দেন। এরপর ডাবিং রুমে ফিরে গেলেও সেদিন আর ডাবিং হয়নি। 

পরে রাত ১১টার দিকে নিউ ইস্কাটন রোডের ইস্কাটন প্লাজার বি-১১ নম্বর ফ্ল্যাটে সালমানকে পৌঁছে দিয়ে বিদায় নেন বাদল খন্দকার। বাসায় ফেরার পর রাতের ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন রকমের বক্তব্য পাওয়া যায় সে সময়ের পত্রিকাগুলোতে। তবে সেসব বক্তব্য প্রত্যক্ষদর্শী কারও বয়ানে ধারণ করা নেই। 

এক সাক্ষাৎকার চলচ্চিত্র পরিচালক বাদল খন্দকার জানান, তিনি পরদিন সকালেই সালমানের বাসায় গিয়েছিলেন। বাদল খন্দকার বলেন, ছবির কাজের শিডিউল নিতে তিনি সকালে সেখানে গেলে বাসার নিচে দারোয়ানেরা তখন বলাবলি করছিলেন, সালমান রাতেই ফাঁস দিয়ে মারা গেছেন।

চলচ্চিত্র পরিচালক শাহ আলম বলেন, শেষের দিকে অনেক মানসিক চাপে ছিলেন সালমান শাহ। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েন এবং প্রযোজকদের সঙ্গে বোঝাপড়ার ঘাটতি তৈরি হয়েছিল। কিছুদিন নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সমিতির কাছে।



খেলাধুলার খবর »
খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


জুমআর দিনের যে ১টি আমলে হাজার হাজার বছরের নামাজ-রোজার সাওয়াব মেলে

জুমআর-দিনের-যে-১টি-আমলে-হাজার-হাজার-বছরের-নামাজ-রোজার-সাওয়াব-মেলে

নাম রাখার ব্যাপারে যে নির্দেশনা দিয়েছে ইসলাম

নাম-রাখার-ব্যাপারে-যে-নির্দেশনা-দিয়েছে-ইসলাম

মহান আল্লাহ তাআলা যেসব কাজে প্রতিযোগিতা করতে বলেছেন

মহান-আল্লাহ-তাআলা-যেসব-কাজে-প্রতিযোগিতা-করতে-বলেছেন ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


বাজারে নতুন স্মার্ট সিলিং ফ্যান, বাতাস দেয়ার সঙ্গে তাড়াবে মশা!

বাজারে-নতুন-স্মার্ট-সিলিং-ফ্যান-বাতাস-দেয়ার-সঙ্গে-তাড়াবে-মশা-

আপন মা নারাজ, পুত্রবধূকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শাশুড়ি

আপন-মা-নারাজ-পুত্রবধূকে-বাঁচাতে-নিজের-কিডনি-দিয়ে-দৃষ্টান্ত-স্থাপন-করলেন-শাশুড়ি

৪ বছর প্রেম শেষে ৩০০ বছর বয়সী জলদস্যু ভূতকে বিয়ে!

৪-বছর-প্রেম-শেষে-৩০০-বছর-বয়সী-জলদস্যু-ভূতকে-বিয়ে- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ম্যাচের আগের দিন হোটেল ভাড়াও দিতে পারছে না জিম্বাবুয়ে!

অবিশ্বাস্য ব্যাটিং! ২৩ চার, ২৮ ছক্কায় ৪০৮ রান!

আবার গ্লাস ভাঙলে, ওরা আমাকে মেরেই ফেলবে: রশিদ খান

আফগানদের বিপক্ষে বাদ লেগ স্পিনার বিপ্লব! কপাল খুলল যার

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ