বুধবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২৩, ০১:০৩:৫৯

পাঠান বিতর্কের মধ্যে বিজেপি নেতাদের কড়া বার্তা মোদির

পাঠান বিতর্কের মধ্যে বিজেপি নেতাদের কড়া বার্তা মোদির

বিনোদন ডেস্ক: পাঠান ছবি নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। অনেকে এখনও ছবিটি বয়কট করার দাবি তুলছেন। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি নেতাদের কোনও সিনেমা না দেখে অপ্রত্যাশিত মন্তব্য করতে বারণ করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

তিনি কোনও নির্দিষ্ট ছবির নাম নিয়ে ওই কথা বলেননি। তবে ১৭ জানুয়ারি দিল্লিতে বিজেপির সর্বভারতীয় একজিকিউটিভ মিটিংয়ে দলীয় নেতাদের বিষয়টি নিয়ে সুস্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। পাঠান বিতর্কের মধ্যে বিজেপি নেতাদের কড়া বার্তা মোদির।

টাইমস নাওয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী তিনি বলেছেন, "দলের সব নেতারাই কাজ করেন। তবে কেউ কেউ কোনও সিনেমা নিয়ে কিছু মন্তব্য করে দিচ্ছে। যার জেরে অনেক বিভ্রাট ঘটছে।" 

গত ১২ ডিসেম্বর পাঠান ছবির বেশরম রং মুক্তি পাওয়ার পর নরোত্তম মিশ্র এবং রাম কদমের মতো নেতারা চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করেছিলেন। যার জেরে দেশে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল।

বিজেপি বিধায়ক রাম কদম বলেছিলেন, "কোনও সিনেমা হিন্দুত্বের উপর আঘাত হানলে তা বরদাস্ত করা হবে না। হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি এবং সাধুসন্তরাও বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করছেন।" সরাসরি দীপিকাকে খোঁচা দিয়ে তিনি বলেন, "জেএনইউধারীরা গেরুয়া বসনধারীদের অপমান করছেন। বিষয়টি মেনে নেওয়া হবে না।"

এমনকী তার রাজ্যে পাঠান ছবিটি মুক্তি পাবে না, সেই কথাও জানিয়ে দিয়েছিলেন বিধায়ক। পাঠান ছবিটিকে হিন্দুবিরোধী আখ্যা দিয়েছিলেন তিনি। সাধ্বী প্রজ্ঞা বলেছিলেন, "গেরুয়া রঙের অপমান মেনে নেওয়া হবে না। আমরাও যোগ্য জবাব দেব।" 

পদ্ম সমর্থকদের বার্তা দিয়ে বলেন, "ওদের পেটে লাথি মারুন। সিনেমা দেখবেন না। ব্যবসা না হলে ওরা দেশ ছাড়তে বাধ্য হবে।" অন্যদিকে, মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র দীপিকা পাড়ুকোনের গেরুয়া মনোকিনি পরা নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন। 

এই বিজেপি নেতা পাঠান ছবির গান থেকে নির্দিষ্ট দৃশ্য বাদ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। যদি তার কথা অনুযায়ী যশরাজ ফিল্মস ওই কাজ না করে, তাহলে মধ্যপ্রদেশে ছবিটিকে বয়কট করা হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছিলেন পদ্ম শিবিরের নেতা। 

পরে মধ্যপ্রদেশের বিধানসভার স্পিকার গিরিশ গৌতম বিষয়টি বিয়ে শাহরুখ খানকে কটাক্ষ করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, "শাহরুখ খানের উচিত নিজের মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে এই সিনেমাটি দেখা।" তার প্রশ্ন ছিল, "এই কাজটা উনি করতে পারবেন তো?"

এই পরিস্থিতিতে কোনও ছবি না দেখে তা নিয়ে মতামত না জাহির করার পরামর্শ দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। বিষয়টিকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। তার কথায়, "দলের কিছু নেতা মনে করছেন, মোদি এলেই জিতে যাব।" 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এই মানসিকতা নিয়ে কাজ করা উচিত নয়। ২০২৪ সালের নির্বাচনের আগে মাত্র ৪০০ দিন রয়েছে। সাধারণ মানুষের মধ্যে গিয়ে আমরা কী কাজ করেছি সেই বার্তা দিন। মানুষ আমাদের ভোট দিয়েছে, সেই কারণেই আমরা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করতে পেরেছি। সেই কথা বলুন।”

Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ, টুইটার , ফেসবুক এবং সাবস্ক্রাইব করুন এমটিনিউজ২৪ ইউটিউব চ্যানেলে

aditimistry hot pornblogdir sunny leone ki blue film
indian nude videos hardcore-sex-videos s
sexy sunny farmhub hot and sexy movie
sword world rpg okhentai oh komarino
thick milf chaturb cum memes