সাহসী এই আব্দুল আজিজ না থাকলে, ক্রাইস্টচার্চে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তো

১১:০৪:২৪ সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • 'মুসলমান হিসাবে আমাদের উচিৎ নামাজ পড়া ও অন্যকে সাহায্য করা'     • চোখের পানি ধরে রাখতে পারলাম না: একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে     • মুখ দিয়ে পাতা উল্টিয়ে ৪ বছরে কোরআনে হাফেজ হলেন পঙ্গু তারিক     • ‘তোমরা মন-ভাঙ্গা হয়ো না, হীনবল হয়ো না, তোমরাই বিজয়ী হবে যদি তোমরা মুমিন হও'     • রাফির গায়ে কেরোসিন ঢেলে ম্যাচের কাঠি ঠুকে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল সাইফুর     • বেরিয়ে আসছে একের পর এক লাশ, নিহত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯০ জনে     • শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ১ রানে জয় পেল ব্যাঙ্গালুরু!     • শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ১ রানে জয় পেল ব্যাঙ্গালুরু!     • শবে বরাতের রাতে চোখের জলে কবর ভেজাচ্ছে স্বজনেরা     • মিরাবাজারে তুলা ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ আগুন

রবিবার, ১৭ মার্চ, ২০১৯, ০৯:৩১:৪২

সাহসী এই আব্দুল আজিজ না থাকলে, ক্রাইস্টচার্চে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তো

সাহসী এই আব্দুল আজিজ না থাকলে, ক্রাইস্টচার্চে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তো

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : সুঠাম দেহের প্রায় ৬ ফুট উচ্চতার মানুষটির চোখে-মুখে আতঙ্কের ছাপ স্পষ্ট। ঘটনাটা বর্ণনা করতে গিয়ে থেকে থেকেই শিউরে উঠছিলেন তিনি। কী ভাবে চোখের সামনে নিথর হয়ে পড়ে ছিল মানুষগুলো, চারপাশটা রক্তে ভেসে যাচ্ছিল, তারই বর্ণনা দিচ্ছিলেন ক্রাইস্টচার্চের লিনউড মসজিদে হামলার প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুল আজিজ। 

হামলাকারীর বিরুদ্ধে চোখে চোখ রেখে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। আর তার জন্যই সে দিন বেঁচে গিয়েছিল বহু প্রাণ। শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নুর ও লিনউড মসজিদে হামলা চালায় অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ব্রেন্টন ট্যারান্ট। নির্বিচারে গুলি চালিয়ে হত্যা করে ৫০ জনকে। 

ব্রেন্টন প্রথম হামলাটা চালিয়েছিল আল নুর মসজিদে। সেখানে ৪১ জনকে গুলি করে মারে। এর পর লিনউড মসজিদে হানা দেয় সে। লিনউড মসজিদে তখন বহু মানুষ নামাজে ব্যস্ত ছিলেন। তাদের মধ্যেই ছিলেন বছর আটচল্লিশের আফগান শরণার্থী আব্দুল আজিজ।

চার ছেলেকেও সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। আব্দুল জানান, নামাজ চলাকালীন হঠাত্ই বাজি ফাটার মতো আওয়াজ শুনতে পান। আওয়াজটা আসছিল মসজিদের বাইরে থেকে। কী হয়েছে দেখার জন্য মসজিদের বাইরে বেরিয়ে আসেন। তার হাতে ছিল ক্রেডিট কার্ড প্রসেসিংয়ের একটা ছোট মেশিন।

আজিজ বলেন, “বাইরে বেরিয়েই দেখি একটা সশস্ত্র লোক সেনা পোশাকে এগিয়ে আসছে মসজিদের দিকে। প্রথমে একটু ধন্দে পড়েছিলাম। বুঝতে পারছিলাম না লোকটার উদ্দেশ্যটা কী। তবে বুঝতে বেশি সময় লাগেনি।” 

যতক্ষণে তার উপলব্ধি হয়েছিল, তত ক্ষণে ব্রেন্টন মসজিদের অনেকটাই কাছে চলে এসেছিল। ওকে এখনই থামানো দরকার। না হলে বড় ক্ষতি হয়ে যাবে! আব্দুল বলেন, এ কথা ভেবেই আততায়ীর দিকে হাতে থাকা মেশিনটা ছুড়ে মারি। আমার দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করি। আব্দুলের দিকে তাকিয়েই তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে ব্রেন্টন। কিন্তু সেটা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

আজিজ বলেন, “হামলাকারীর সঙ্গে যখন লুকোচুরি খেলা চলছিল, সে সময়ই মসজিদের ভিতর থেকে ছেলেরা চিত্কার করে বলছিল বাবা ভিতরে চলে এসো। কিন্তু উপায় ছিল না।”

এ গাড়ি ও গাড়ির পিছনে লুকোচুরি খেলতে খেলতে আব্দুল পৌঁছে যান ব্রেন্টনের গাড়ির কাছে। সেখানেই ব্রেন্টনের ব্যবহার করা একটা ফাঁকা শটগান পড়েছিল। এক মুহূর্ত না ভেবে সেটাকেই হাতে তুলে নেন আব্দুল। বন্দুকটা হামলাকারীকে দেখিয়ে চিত্কার করে বলতে থাকেন, ‘এ দিকে আয়’। মসজিদের ভিতরে থাকা তার ছেলেদের এবং বাকি মানুষগুলোকে বাঁচাতেই এই কৌশলটা নিতে হয়েছিল বলে জানান আব্দুল। 

তিনি বলেন, “আমার হাতে বন্দুক দেখে জানি না কী মনে হল, হামলাকারী নিজের বন্দুকটা মাটিতে ফেলে দিল। যেই না মাটিতে বন্দুকটা ফেলেছে সে এক মুহূর্ত সময় নষ্ট না করে তাকে তাড়া করতে শুরু করি আমার হাতে ধরা বন্দুকটা নিয়ে। আমার হাতে বন্দুকটা দেখে হামলাকারী ভয় পেয়ে গিয়েছিল।” 

আব্দুলের তাড়া খেয়ে গাড়ি নিয়ে পালায় ব্রেন্টন। কিন্তু মসজিদে ফিরে এসে যে ভয়ানক দৃশ্যটা দেখতে হবে কল্পনা করতে পারেননি আব্দুল। তার ছেলেরা হামলায় বেঁচে গিয়েছে ঠিকই। কিন্তু তত ক্ষণে সাত জনের মৃত্যু হয়েছিল। ওই দৃশ্য দেখে প্রচন্ড মুষড়ে পড়েছিলেন তিনি। বলেন, “বহু মানুষই হামলাকারীকে বন্দুকবাজ বলছে। কিন্তু মানুষ কখনও কাউকে আঘাত করতে পারে না। ও মানুষ নয়। ও ভীরু, কাপুরুষ।”

আব্দুল বরাতজোরে বেঁচে গিয়েছেন। কিন্তু সে ভাগ্য হয়নি পাকিস্তানের অ্যাবটাবাদ থেকে আসা নইম রশিদের। আল নুর মসজিদে ছেলে তালহার সঙ্গে ছিলেন নইম। ব্রেন্টন যখন হামলা চালায় মসজিদে, অন্য মানুষগুলোকে বাঁচাতে তাকে জাপটে ধরেছিলেন। 

বন্দুক না নামানো পর্যন্ত তাকে চেপে ধরে রাখেন। কিন্তু ব্রেন্টনের গুলিতে গুরুতর জখম হন তিনি। পরে হাসপাতালে মারা যান। তাঁর ছেলে তালহাও হামলাকারীর গুলিতে নিহত হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, নইম যদি ওই সময় হামলাকারীকে আটকে না দিত তা হলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ত। 



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


শবে বরাতের রাতটি ফজিলতময় এবং এ রাতে আল্লাহ তায়ালা তাঁর বান্দাদেরকে ক্ষমা করেন

শবে-বরাতের-রাতটি-ফজিলতময়-এবং-এ-রাতে-আল্লাহ-তায়ালা-তাঁর-বান্দাদেরকে-ক্ষমা-করেন

দুইশ্রেণির মানুষ শবে বরাতের বিশেষ ক্ষমা থেকে বঞ্চিত

দুইশ্রেণির-মানুষ-শবে-বরাতের-বিশেষ-ক্ষমা-থেকে-বঞ্চিত

আল-কুরআন বিশ্ব মানবের জন্য এক জীবন্ত ‘মুজিজা’

আল-কুরআন-বিশ্ব-মানবের-জন্য-এক-জীবন্ত-‘মুজিজা’ ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


মানুষের দ্রুত রাগের রহস্য

মানুষের-দ্রুত-রাগের-রহস্য

রেস্তোরাঁর পরিচারিকা মার্কিন প্রেসিডেন্টের মেয়ে!

রেস্তোরাঁর-পরিচারিকা-মার্কিন-প্রেসিডেন্টের-মেয়ে-

বোরখা পরিয়ে স্বামীকে রেস্তোরাঁয় নিয়ে গেলেন এই তরুণী, কারণ জানলে চমকে উঠবেন!

বোরখা-পরিয়ে-স্বামীকে-রেস্তোরাঁয়-নিয়ে-গেলেন-এই-তরুণী-কারণ-জানলে-চমকে-উঠবেন- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


শোকের ছায়া নেমে এলো ক্রিকেট অঙ্গনে

ঠাকুরগাঁওয়ে শূন্যের ওপর ঘুরলেন বিস্ময়কর নারী!

মিরাজকে বিয়ের দাবিতে এক কলেজছাত্রীর অবস্থান ধর্মঘট

দুইশ্রেণির মানুষ শবে বরাতের বিশেষ ক্ষমা থেকে বঞ্চিত

পাঠকই লেখক


মায়ের কঙ্কাল জড়িয়ে ধরে তিন মাস ধরে কাঁদছে একটি বিড়ালছানা!

মায়ের-কঙ্কাল-জড়িয়ে-ধরে-তিন-মাস-ধরে-কাঁদছে-একটি-বিড়ালছানা-

১৯ বছরের সাহসী মেয়ের কারণেই নতুন জীবন পেলেন বাবা!

১৯-বছরের-সাহসী-মেয়ের-কারণেই-নতুন-জীবন-পেলেন-বাবা-

পোষ্য পাখির আক্রমণে মালিক নিহত!

পোষ্য-পাখির-আক্রমণে-মালিক-নিহত- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ