০৫:৪৯:২৬ মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • সানিয়া মির্জার ছেলেকে নিয়ে চিন্তিত বীণা মালিক! সোশ্যাল মিডিয়ায় তর্ক-যুদ্ধ     • সৌরভের পর সাকিব, দুই বাঙালিই টন্টনে রূপকথার নায়ক     • অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে আত্মবিশ্বাসী টাইগারভক্তরা, ভারতকে নিয়ে 'পুরানো সন্দেহ'     • কাতারকে অনৈতিকভাবে বিশ্বকাপ পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার প্লাতিনি     • ‘Alhamdulillah couldn’t be more proud! All praises to almighty Allah!!!’: শিশির     • তিন নম্বর পজিশনে কোহলির থেকেও সেরা সাকিব     • সাবাশ বাংলাদেশ, এভাবেই খেলতে থাকো: সৌরভ গাঙ্গুলি     • যে কারণে চশমা থেকে দূরে থাকতে পরামর্শ দিচ্ছেন অমিতাভ বচ্চন     • টাইগারদের জয় নিয়ে যা বলল ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার     • দুর্দান্ত পারফম্যান্সের পিছনের রহস্য জানালেন সাকিব

সোমবার, ১০ জুন, ২০১৯, ০৮:০৯:০২

দিনের আলোতে অবিশ্বাস্য এক ঘটনা, অলৌকিকভাবে দাঁড়িয়ে গেল ঝড়ে উপড়ে পরা বটগাছ!

দিনের আলোতে অবিশ্বাস্য এক ঘটনা, অলৌকিকভাবে দাঁড়িয়ে গেল ঝড়ে উপড়ে পরা বটগাছ!

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক: দিনের আলোতে অবিশ্বাস্য এক ঘটনা ঘটেছে নওগাঁর রাণীনগর উপজেলায়। ঝড়ে উপড়ে পরা একটি বট গাছ কাটার সময় অলৌকিকভাবে অবিকল দাড়িয়ে গেছে বটগাছটি। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার একডালা ইউনিয়নের যাত্রাপুর গ্রামে। ঘটনার পর থেকে প্রতি দিনই উৎসক জনতা গাছটি একনজর দেখার জন্য ছুটে আসছেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের মৃত যদু প্রামানিক ছোট বেলা থেকেই জ্বিনের প্রতি আশক্ত ছিলেন। মাঝে মধ্যেই তার উপর ভর করতো জ্বিন। প্রায় অর্ধশত বছর আগে জ্বিনে ভর করা অবস্থায় যদু প্রামানিক ছোট একটি বট গাছ নিয়ে এসে রোপন করেন। ধীরে ধীরে বড় হতে থাকলে জ্বিন বা মাদারের গাছ হিসেবে পরিচিতি পায় বটগাছটি। জ্বিন বা মাদারের স্বরণে প্রতি বছর সেখানে মাদারের পালা গানের আসরও বসে। এছাড়া দুর দুরান্তরের লোকজন নানা রোগ বালাইয়ে আক্রান্ত ব্যধি দূর করতে ওই গাছে মানত করতো। অনেকের দাবি এই গাছে মানত করে অনেক লোকজন রোগ থেকে মুক্তিও পেয়েছে।

গত মাসে সারাদেশে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ে গাছটি উপড়ে পার্শ্বে একটি পাকা ভবনের উপর পরে। এতে ওই ভবনের সিরি রুম এবং ছাদের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্তু হয়। কিন্তু গাছটি উপড়ে গেলেও মাদারের ভয়ে কেউ ডাল পালা পর্যন্ত কাটতে সাহস পায়নি। ফলে এক মাসেরও বেশী সময় ধরে গাছটি ওই অবস্থায় পরে থাকে। এর পর গাছ কাটা লেবার নিয়ে এসে গাছের ডাল পালা কাটতে থাকে। গাছের মাথার অংশ কাটার সময় হঠাৎ করেই গাছটি অবিশ্বাস্যভাবে অবিকল পূর্বের ন্যায় দাড়িয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শিরা জানান, পরে থাকা গাছের উপর একজন লেবার দাড়িয়ে কাজ করছিল। কিন্তু গাছ দাড়িয়ে গেলেও লোকটি গাছ থেকে পরেও যায়নি এমনকি তার এতটুকু ক্ষতিও হয়নি। ঘটনা জানাজানি হবার পর থেকেই প্রতিদিনই উৎসক জনতা ছুটে আসছেন গাছটি এক নজর দেখার জন্য।

তবে অনেকে মনে করছেন, গাছটি উপড়ে যাবার সময় ডাল পালার কারণে মাথার অংশ অনেক ভারী ছিল। সেগুলো কেটে দিলে গোরার অংশ ভারী হওয়ায় গাছটি হয়তো দাড়িয়ে গেছে। তবে একদম আগের ন্যায় অবিকল দাড়িয়ে যাওয়া, গাছের শিকর, গোড়ালি মিলে যাওয়াটাও অস্বাভাবিক বলে মনে করছেন তারা।

গাছের পাশের বাড়ীর সুফিয়া বেওয়া (৫৫) জানান, বিয়ের পর থেকে তিনি এই গাছ দেখছেন, গাছের পার্শ্বে টয়লেট ছিল তাদের। রাত-বিরাত পর্যন্ত সেখানে চলা চল করলেও কোন আলামত দেখতে পাননি তারা। তবে সেখানে লোকজন মানত করতো, প্রতিবছর মাদারের পালা গান বসে বলে জানান তিনি।

ওই গ্রামের বৃদ্ধ হেকমত আলী (৬০) জানান, গাছটি অবিকল দাড়িয়ে যাওয়াটা একদম অস্বাভাবিক এবং অলৌকিক। গাছের তদারকিকারী ও মাদারের পালা গানের আয়োজক সুরজান বেওয়া (৭৫) ও পুটি বেওয়া (৬২) জানান, ওই গাছে মাদার বাস করে। প্রতি বছরই গাছের নিচে মাদার স্বরণে পালা গান করতে হয়, না করলে অনেক সমস্যা হয়।

তারা যুক্তি দিয়ে বলেন, একশত জন লোক এসেও গাছটি খাড়া করতে পারবে না। যদিও পারে তাহলে অবিকল দাড়িয়ে রাখার ক্ষমতা নেই। তাদের পূর্ণ বিশ্বাস, গাছটি মাদারই দ্বার করে রেখেছে। তবে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বলছেন এগুলো কুসংস্কার। আধুনিক যুগে এসব ধ্যান-ধারণার কোন ভিত্তি নেই।



খেলাধুলার খবর »
খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


দীর্ঘ ১৮০ বছর অপেক্ষার পর মসজিদে নামাজ পড়ার অনুমতি পেল গ্রিসের মুসল্লিরা

দীর্ঘ-১৮০-বছর-অপেক্ষার-পর-মসজিদে-নামাজ-পড়ার-অনুমতি-পেল-গ্রিসের-মুসল্লিরা

যে দোয়াটি পড়লে ৭০ টি বিপদ থেকে মুক্তি পাবেন, সর্বনিম্নটি হলো দারিদ্রতা

যে-দোয়াটি-পড়লে-৭০-টি-বিপদ-থেকে-মুক্তি-পাবেন-সর্বনিম্নটি-হলো-দারিদ্রতা

ঘোর বিপদে সবাই মুখ ফিরিয়ে নিলেও, মহান আল্লাহপাক ফিরিয়ে নেননা

ঘোর-বিপদে-সবাই-মুখ-ফিরিয়ে-নিলেও-মহান-আল্লাহপাক-ফিরিয়ে-নেননা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


৯২ বছর বয়সেও সাইকেল চালিয়ে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন বৃদ্ধা

৯২-বছর-বয়সেও-সাইকেল-চালিয়ে-স্বাস্থ্যসেবা-দিচ্ছেন-বৃদ্ধা

যে কারণে টয়লেটের ফ্ল্যাশে রয়েছে '২ বাটন'

যে-কারণে-টয়লেটের-ফ্ল্যাশে-রয়েছে--২-বাটন-

ক্যান্সারের মতো রোগকেও প্রতিরোধ করে সফেদা

ক্যান্সারের-মতো-রোগকেও-প্রতিরোধ-করে-সফেদা এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ছক্কার হ্যাটট্রিক করে ইতিহাস তৈরি করলেন লিটন দাস

দুর্দান্ত জয়ের পরই সুখবর পেল বাংলাদেশ

সাকিব নয়, ম্যাচ জয়ের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে যার নাম বললেন মাশরাফি

নাটোরে আম গাছে জাম, উৎসুক জনতার ভিড়

পাঠকই লেখক


নাড়ীর নীড়ে

নাড়ীর-নীড়ে

বিলাসবহুল বিএমডব্লিউ গাড়ির তেল কিনতে রাতের আধাঁরে হাঁস-মুরগি চুরি!

বিলাসবহুল-বিএমডব্লিউ-গাড়ির-তেল-কিনতে-রাতের-আধাঁরে-হাঁস-মুরগি-চুরি-

ভারত ক্রিকেটের ‘আসল প্রতিপক্ষ’ বাংলাদেশ!

ভারত-ক্রিকেটের-‘আসল-প্রতিপক্ষ’-বাংলাদেশ- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ