যেভাবে ফুটপাতের শিশু থেকে ফোর্বসের তালিকায় স্থান করে নিলেন এই তরুণ উদ্যোক্তা

০৭:০১:৩৯ শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • করোনা ফাইরাসের কারণে দুই মাসে চীনের ক্ষ'তি প্রায় ১৬ লক্ষ কোটি টাকা     • বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহারা থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী     • শহিদদের স্মরণে মাশরাফির শহরে এক লাখ মোমবাতি প্রজ্জ্বলন     • শাকিব খান, অন্তত জলিল, সোহেল রানা ও ফারুককে নিয়ে মঞ্চে জায়েদ-মিশা     • পশ্চিমবঙ্গের যে অঞ্চলে বিয়ের আগে যৌ'নতা বাধ্যতামূলক     • সেঞ্চুরিয়ান অরভিনকে ফেরালেন নাঈম, দিন শেষে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ..     • ১ রানে ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ     • ৩ বছর ধরে ভাই কোমায়, অভাবের তা'ড়নায় বোনের আত্মহ'ত্যা     • ভারতকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার পর নিউজিল্যান্ডের লিড     • আয়ুষ্মানের সমকামী বলিউড মুভি নিয়ে উচ্ছ্বসিত ডোনাল্ড ট্রাম্প

শনিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৯, ০৭:৫৪:১৬

যেভাবে ফুটপাতের শিশু থেকে ফোর্বসের তালিকায় স্থান করে নিলেন এই তরুণ উদ্যোক্তা

যেভাবে ফুটপাতের শিশু থেকে ফোর্বসের তালিকায় স্থান করে নিলেন এই তরুণ উদ্যোক্তা

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : ক্ষুধা মেটাতে অন্যের ফেলে যাওয়া খাবার খেতে হতো তাকে। মাথার ওপর ছাদ না থাকায় রাস্তায় কাটাতে হয়েছে বহু রাত। সেই রাস্তা থেকেই ভিকি রায় উঠে এসেছেন বিশ্ববিখ্যাত মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের তালিকায়। 

এশিয়া মহাদেশের ৩০ বছরের কম বয়সী তরুণ উদ্যোক্তাদের একটি তালিকা তৈরি করে ফোর্বস। রাস্তা থেকে উঠে এসে সেই তালিকাতেই নাম তুলেছেন ভিকি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ খবর দেওয়া হয়েছে।

এনডিটিভি বলছে, মুম্বাইভিত্তিক জনপ্রিয় ফেসবুক পেজ ‘হিউম্যানস অব বোম্বে’তে উঠে এসেছে ভিকির এই বিস্ময়কর উত্থানের গল্প। সুন্দর ভবিষ্যতের আশায় মাত্র ১১ বছর বয়সে ঘর ছেড়ে পালিয়ে দিল্লিতে চলে এসেছিলেন তিনি। 

ভিকি নিজেই শুনিয়েছেন সে কথা, ‘তিন বছর বয়সে আমার মা–বাবা আমাকে দাদুর কাছে রেখে যান। কিন্তু দাদু আমাকে প্রায়ই মারধর করতেন। প্রায়ই শুনতাম, সুন্দর ভবিষ্যতের আশায় অনেক মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহরে চলে আসেন। সেই কারণে ১১ বছর বয়সে দাদুর থেকে অর্থ চুরি করে ট্রেনে উঠে দিল্লি চলে আসি।’

দিল্লিতে ভিকির চেনাজানা কেউ ছিল না, ছিল না কোনো আত্মীয়স্বজন। যে কারণে রাস্তায়ই রাত কাটাতে হতো তাকে, খাবারের জন্য চেয়ে থাকতে হতো অন্যের দিকে। 

ভিকি বলেছেন, ‘দিল্লিতে এসে আমি অকূলপাথারে পড়ে যাই। বেঁচে থাকার জন্য আমাকে ট্রেনে পানি বিক্রি করতে হতো, প্রায়ই ফুটপাতে রাত কাটাতে হতো। একটি বাসায় থালা-বাসন ধোয়ার কাজ করতাম। সারা দিন হাড়ভাঙা খাটুনির পর রাতে কোনো খাবারও দিত না। লোকে খেয়ে যাওয়ার পর যা অবশিষ্ট থাকত, সেগুলোই খেতে হতো আমাকে।’

কিন্তু এই দুঃসময় বেশি দিন স্থায়ী হয়নি ভিকির। একটি বেসরকারি সংস্থার সহায়তায় জীবন পাল্টাতে শুরু করে ভিকির, ‘এত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে থাকতে হতো, প্রায়ই অসুস্থ হয়ে যেতাম আমি। একবার চিকিৎসার জন্য এক চিকিৎসকের কাছে যাই। আমার অবস্থা দেখে উনি আমাকে একটি এনজিওর সন্ধান দেন। ফুটপাতের পরিত্যক্ত শিশুদের পুনর্বাসন নিয়ে কাজ করত সংস্থাটি। ওখানে গিয়ে আমার জীবন পাল্টাতে শুরু করে। তিনবার খাবার পেতে শুরু করি, নতুন কাপড় পেতে শুরু করি। তারা আমাকে স্কুলেও ভর্তি করে।’

তবে ভিকির জীবন সত্যিকার অর্থেই পাল্টাতে শুরু করে এক আলোকচিত্রীর সংস্পর্শে আসার পর থেকে। ভিকি শুনিয়েছেন তার আলোকচিত্রী হয়ে ওঠার গল্প, ‘একবার এক ব্রিটিশ আলোকচিত্রী আমাদের এনজিওতে আসেন। তার কাজ দেখে আমি মুগ্ধ হই। রাস্তার মানুষের জীবন আমাকে এমনভাবে টানতে শুরু করে, যা আগে কখনো হয়নি। তখন থেকেই রাস্তার মানুষের দুর্দশার চিত্র আমি আমার ছবির মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলতে চেষ্টা করি।’

এনজিও থেকেই একটি ক্যামেরা পান ভিকি। সেই ক্যামেরা নিয়েই শুরু হয় তার নতুন জীবনে পথচলা। তিনি বলেন, যখন আমার বয়স ১৮ হলো, এনজিও থেকে ৪৯৯ রুপি দিয়ে একটি ক্যামেরা কিনে দেওয়া হলো আমাকে। স্থানীয় একজন আলোকচিত্রীর অধীনে প্রশিক্ষণ নেওয়ার সুযোগও করে দেওয়া হয়। তিনিই আমার প্রথম প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করে দেন।

ভিকি বলেন, এরপর থেকেই আমার জীবন পাল্টে যায়। লোকে আমার ছবি কিনতে শুরু করে, আর আমি বিশ্বজুড়ে ঘুরে বেড়াতে শুরু করি! আমাকে নিউইয়র্ক, লন্ডন, দক্ষিণ আফ্রিকা এমনকি সান ফ্রান্সিসকো থেকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়। আমি কখনোই ভাবিনি, আমার ভাগ্য এভাবে পরিবর্তিত হবে।

ভিকির অর্জনের বাকি ছিল আরও। ২০১৪ সালে ‘এমআইটি মিডিয়া ফেলোশিপ’ পান ভিকি। আর ২০১৬ সালে জায়গা করে নেন ফোর্বসের ‘এশিয়া থার্টি আন্ডার থার্টি’ তালিকায়। নিজের জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে অন্য তরুণদের পরামর্শও দিয়েছেন ভিকি। হাল না ছেড়ে নিজের স্বপ্নকে তাড়া করার পরামর্শই দিলেন।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


দৈনন্দিন জীবনে ‘ইনশা আল্লাহ’ বলার গুরুত্ব ও তাৎপর্য এবং না বলার পরিণাম

দৈনন্দিন-জীবনে-‘ইনশা-আল্লাহ’-বলার-গুরুত্ব-ও-তাৎপর্য-এবং-না-বলার-পরিণাম

জীবনের শেষ সময়ে এসে পবিত্র ধর্ম ইসলাম গ্রহণ করলেন ৯২ বছরের বৃদ্ধা

জীবনের-শেষ-সময়ে-এসে-পবিত্র-ধর্ম-ইসলাম-গ্রহণ-করলেন-৯২-বছরের-বৃদ্ধা

মানুষের চোখে ফেরেশতাদের দেখা কি সম্ভব?

মানুষের-চোখে-ফেরেশতাদের-দেখা-কি-সম্ভব- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


২০ বছরের গবেষণায় বিচিবিহীন সুস্বাদু লিচুর জাত উদ্ভাবন করল এক কৃষক!

২০-বছরের-গবেষণায়-বিচিবিহীন-সুস্বাদু-লিচুর-জাত-উদ্ভাবন-করল-এক-কৃষক-

রিক্সায় যাত্রী নিয়ে যাচ্ছে রোবট কুকুর!

রিক্সায়-যাত্রী-নিয়ে-যাচ্ছে-রোবট-কুকুর-

পাইলস সমস্যার চিরস্থায়ী সমাধান লাউ শাক!

পাইলস-সমস্যার-চিরস্থায়ী-সমাধান-লাউ-শাক- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


অবশেষে বড় দায়িত্ব নিয়ে দলে আশরাফুল!

ভারতের ১৫ কোটি মুসলমান ১০০ কোটি হিন্দুকে শাসন করার শক্তি রাখে: ওয়ারিস পাঠান

আমার দেশে ইসলামের কোনো ঠাঁই নেই: স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী

গাড়িতে উঠলেই বমি হওয়ার কারণ ও প্রতিকারের উপায়

বিচিত্র জগৎ


যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হলে অবশ্যই ম্যাট্রিকে ফেল করতে হবে!

যে-বিশ্ববিদ্যালয়ে-ভর্তি-হতে-হলে-অবশ্যই-ম্যাট্রিকে-ফেল-করতে-হবে-

আবারো বিয়ের পিঁড়িতে ৬ ভাইবোন, বাসর সাজালেন নাতি-নাতনিরা

আবারো-বিয়ের-পিঁড়িতে-৬-ভাইবোন-বাসর-সাজালেন-নাতি-নাতনিরা

চারবার আবেদন করেও ব্যাংক ঋণ না পেয়ে কিনলেন লটারি, ১৪ কোটি টাকা জিতলেন দিনমজুর

চারবার-আবেদন-করেও-ব্যাংক-ঋণ-না-পেয়ে-কিনলেন-লটারি-১৪-কোটি-টাকা-জিতলেন-দিনমজুর বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ