কারো কাছে হাত পাতেন না, শত বছর বয়সেও দোকানদারি করে সংসার চালান আবুল কাসেম

০১:১৪:৩৭ রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • রশিদ খানের বিপক্ষে সাকিবের এমন ফর্মের ব্যাপারে যা বললো হায়দ্রাবাদ     • ফাইনাল ম্যাচে ও থাকলে দলের জন্য ভালো হতো : মোসাদ্দেক     • বোলিংয়ে তান্ডব দেখানোর পরে এবার যা বললেন আফিফ     • ম্যাচ জিতে এবার যাকে প্রশংসায় ভাসালেন সাকিব     • ফাইনাল ম্যাচে অনিশ্চিত রশিদ খান     • রশিদ খান, মুজিব উর রহমানদের ঘূর্ণি যেন বুঝে উঠতেই পারছিল না বাংলাদেশ!     • রশিদ খানকে আমরা কখনোই ভয় পায়নি: মোসাদ্দেক     • সাকিবকে অভিনন্দন জানাল আইপিএলের দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ     • ৪৫০০+ রান ও ৩৫০+ উইকেট নেওয়ার এলিট ক্লাবে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে নাম লেখালেন বিশ্বসেরা সাকিব     • আসলে কি এই ম্যাচে আমাদের টার্নিং পয়েন্ট ছিলো আফিফের ওভারটি: সাকিব

সোমবার, ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৪:২৭:৪৭

কারো কাছে হাত পাতেন না, শত বছর বয়সেও দোকানদারি করে সংসার চালান আবুল কাসেম

কারো কাছে হাত পাতেন না, শত বছর বয়সেও দোকানদারি করে সংসার চালান আবুল কাসেম

রাজশাহী থেকে : বার্ধক্যের কাছে হার মানেননি আবুল কাসেম। জীবন যুদ্ধে তিনি অপরাজিত সৈনিক। রাজশাহীর জেলার বাগমারা উপজেলার হামিরকুৎসা ইউনিয়নের আলোকনগর গ্রামের শত বছর বয়সী এই বৃদ্ধ এখনও বাড়ি সংলগ্ন হামিরকুৎসা বাজারে একটি ছোট দোকান চালিয়ে সংসার চালান। 

স্থানীয় বাজারের ব্যবসায়ী ও প্রতিবেশিরা জানান, আবুল কাসেমের বয়স একশ’র কাছাকাছি হবে। সংসারে এক স্ত্রী ছাড়া আবুল কাসেমের আর কেউ নেই। চার মেয়েকে অনেক আগেই বিয়ে দিয়েছেন। তার অনেক নাতি নাতনীরও বিয়ে হয়েছে। তবে তাদের আর দেখভাল করতে হয়না আবুল কাসেমকে।

বাজারের ব্যবসায়ী মঞ্জুর রহমান জানান, আবুল কাসেম খুব সকালে এসে দোকান খুলে। তার দোকান সংলগ্ন হামিরকুৎসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হওয়ায় ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরাই তার দোকানে বেশি কেনাকাটা করে থাকে। বিস্কুট, চকোলেট, কেক, পাপর, চানাচুর, বাদাম ও আচার সহ নানাবিধ মুখরোচক খাবার রয়েছে আবুল কাসেমের দোকানে।

সকাল পেরিয়ে দুপুর হয়ে যায় দোকানের বেচাকেনা নিয়েই ব্যস্ত থাকেন আবুল কাসেম। বাড়িতে স্ত্রী অসুস্থ থাকায় দুপুরে কিছু সময়ের জন্য দোকান বন্ধ করে তাকে খাবারের জন্য বাড়িতে যেতে হয়।

বাজারের আরেক ব্যবসায়ী আইনাল হক জানান, খুব ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন মানুষ আবুল কাসেম। কারো কাছে হাত পাতা বা সাহায্য নেওয়া তিনি পছন্দ করেন না। তিনি নিজেই রোজগার করেন। আবুল কাসেমের পুজি অনেক কম। তার উপর অনেকে বাকি নিয়ে তা আর পরিশোধ না করায় তিনি মনে মনে খুব কষ্ট পান। তার মতে কেউ যদি তার ব্যবসায় কিছু পুজি দিয়ে সাহায্য করে তবে তিনি (আবুল কাসেম) আরো ভালো ভাবে জীবন যাপন করতে পারবেন।

আবুল কাসেম জানান, অন্যের কাছে হাত পাততে লজ্জা করে। দীর্ঘদিন এই দোকানের আয় থেকেই কোন রকমে জীবন চলে যাচ্ছে। এখন আর চোখে দেখে টাকা চিনতে পারি না। এ কারণে অনেকে আমাকে মাঝে মধ্যে ঠকায়। ব্যবসার অবস্থা এখন আর ভাল না। দোকানে ঠিকমত মালামাল তুলতে পারি না। তাই বেচাকেনাও কম। এসব কথা বলার ফাঁকে তিনি এই সংবাদদাতা ও উপস্থিত লোকজনের কাছে বলেন, আমার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন আমাকে ঈমানের সাথে পরপারে নিয়ে যান।

আলোক নগর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ রাশেদুল হক বলেন, আবুল কাসেমকে দেখে পথচারীসহ অনেকেই অভিভূত হয়ে পড়েন। বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ী ও স্থানীয় লোকজন আবুল কাসেমের চলাফেরা দেখে অনুপ্রাণিত হন। অনেকেই আবুল কাসেমের কাছে বসে দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধ ও ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে গল্প শুনে। সূত্র: ইত্তেফাক



খেলাধুলার খবর »
খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


জুমআর দিনের যে ১টি আমলে হাজার হাজার বছরের নামাজ-রোজার সাওয়াব মেলে

জুমআর-দিনের-যে-১টি-আমলে-হাজার-হাজার-বছরের-নামাজ-রোজার-সাওয়াব-মেলে

নাম রাখার ব্যাপারে যে নির্দেশনা দিয়েছে ইসলাম

নাম-রাখার-ব্যাপারে-যে-নির্দেশনা-দিয়েছে-ইসলাম

মহান আল্লাহ তাআলা যেসব কাজে প্রতিযোগিতা করতে বলেছেন

মহান-আল্লাহ-তাআলা-যেসব-কাজে-প্রতিযোগিতা-করতে-বলেছেন ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


চিনে নিন এই ব্যক্তিকে, যিনি ১০০ স্ত্রীর স্বামী ও ৫০০ সন্তানের বাবা!

চিনে-নিন-এই-ব্যক্তিকে-যিনি-১০০-স্ত্রীর-স্বামী-ও-৫০০-সন্তানের-বাবা-

আপন মা নারাজ, পুত্রবধূকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শাশুড়ি

আপন-মা-নারাজ-পুত্রবধূকে-বাঁচাতে-নিজের-কিডনি-দিয়ে-দৃষ্টান্ত-স্থাপন-করলেন-শাশুড়ি

বাজারে নতুন স্মার্ট সিলিং ফ্যান, বাতাস দেয়ার সঙ্গে তাড়াবে মশা!

বাজারে-নতুন-স্মার্ট-সিলিং-ফ্যান-বাতাস-দেয়ার-সঙ্গে-তাড়াবে-মশা- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


অবিশ্বাস্য ব্যাটিং! ২৩ চার, ২৮ ছক্কায় ৪০৮ রান!

পিকনিকের নাম করে নয়নের সঙ্গে কুয়াকাটায় গিয়ে হোটেলে রাত কাটিয়েছিলেন মিন্নি

আফগানদের বিপক্ষে বাদ লেগ স্পিনার বিপ্লব! কপাল খুলল যার

কবর থেকে উত্তোলন করা ৫০ বছর আগের অক্ষত লা'শ, কাপড়টি এখনও ধবধবে সাদা

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ