গরিবদের মাঝে সব অর্থ দান করে মাকে নিয়ে এক কামরার ঘরে থাকেন নানা পাটেকর!

০৭:২১:২৫ বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • তেল ও গ্যাসের নতুন খনির সন্ধান পেল পাকিস্তান     • করোনা মো'কাবিলায় বাংলাদেশকে ১০ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দেবে জাপান     • অবশেষে ফাহিম সালেহর সেই হ'ত্যাকারী চিহ্নিত, যেকােন সময় গ্রে'প্তার     • প্র'তারণা সফল করতে নিজের মাকেও যেভাবে জড়ালেন শাহেদ     • আমার কাছে দেশ আগে: মোস্তাফিজ     • করোনামুক্ত হয়ে দেশ আবারও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাবে: প্রধানমন্ত্রী     • ডিবি অফিসে সাবরিনা-আরিফ মুখোমুখি হয়ে একে অপরের যে দোষের কথা বলে দিলেন     • বাংলাদেশি আবু তালেব কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে খতিব নিযুক্ত     • কেউ আজান বন্ধ করতে পারবে না: এরদোগান     • ঈদে পোশাক শ্রমিকদের জন্য সুখবর

শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ০৪:৩৪:১৫

গরিবদের মাঝে সব অর্থ দান করে মাকে নিয়ে এক কামরার ঘরে থাকেন নানা পাটেকর!

গরিবদের মাঝে সব অর্থ দান করে মাকে নিয়ে এক কামরার ঘরে থাকেন নানা পাটেকর!

বিনোদন ডেস্ক : অত্যন্ত মধ্যবিত্ত জীবনযাপন, বিলাসিতার একেবারেই ধার ধারেন না। এমনকি, জনপ্রিয় এই অভিনেতা যা উপার্জন করেন তার সিংহ ভাগটাই বিলিয়ে দেন গরিব-দুঃস্থদের মধ্যে। 

মাকে নিয়ে অত্যন্ত সাধারণ জীবন কাটান তিনি। তিনি নানা পাটেকর। বলিউডে অভিনয়ের জন্য তিনি ঠিক যতটা জনপ্রিয়, তার চেয়েও কয়েক গুণ বেশি লোকপ্রিয় তার এই উদার মনোভাবের জন্য। তারকারা উপার্জন তো অনেক বেশি করেন, কিন্তু তাদের মধ্যে হাতে গোনা কয়েক জনই এই ঔদার্য দেখাতে পারেন। নানা তাদেরই অন্যতম।

১৯৫১ সালে আরব সাগরের তীরে ভারতের মহারাষ্ট্রের রায়গড়ে জন্ম নানা পাটেকরের। বাবা গজানন পাটেকর এক জন কাপড়ের ব্যবসায়ী ছিলেন। মা নির্মলা পাটেকর সংসার সামলাতেন। নানা পাটেকরের আসল নাম বিশ্বনাথ পাটেকর।

ছোট থেকেই অভিনয়ের প্রতি তার আগ্রহ ছিল। কিন্তু সংসারের অর্থনৈতিক অবস্থা ভাল না হওয়ায় কখনও তিনি নিজের স্বপ্ন পূরণের জন্য বাবা-মাকে জোর দেননি। বরং মাত্র ১৩ বছর বয়স থেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি রোজগার করতে শুরু করেন।

ওই বয়সেই তিনি ফিল্মের পোস্টার আঁকার কাজ শুরু করেন। পোস্টার পিছু ৩৫ টাকা পেতেন। একটা সময় রাস্তার জেব্রা ক্রসিং রং করেও উপার্জন করেছেন তিনি। শোনা যায়, ছোটবেলায় নানা পাটেকর ভীষণ দুষ্টু ছিলেন। ছেলেকে সামলাতে না পেরে বিরক্ত হয়ে এক বার তার মা তাকে খালার বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু কয়েক দিন পরেই ব্যাগ গুছিয়ে নানাকে বাড়িতে ফিরিয়ে দিয়ে গিয়েছিলেন মাসি।

মাসির অভিযোগ ছিল, তুতো ভাইবোনদের খারাপ বুদ্ধি দিতেন নানা। কলেজে পড়ার সময় নাটকের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতেন। তার পর বেশ কিছু বিজ্ঞাপন এজেন্সির সঙ্গেও কাজ করেছেন তিনি। কলেজের সহপাঠী নীলকান্তি পাটেকরকে বিয়ে করেন নানা। তখন নানার বয়স ২৭।

নানার কেরিয়ার এবং ব্যক্তিগত জীবন— দুটোই অনেক চড়াই-উতরাইয়ের মধ্যে দিয়ে এগিয়েছে। বিয়ের এক বছর পর তার বাবার মৃত্যু হয়। নানা নিজের প্রথম সন্তানকেও ওই সময় হারিয়েছেন। দ্বিতীয় সন্তানের নাম মলহর পাটেকর। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে স্ত্রীর থেকে আলাদা থাকেন নানা।

মুম্বাইয়ে একটা ৭৫০ বর্গ ফুটের এক কামরার ফ্ল্যাটে তিনি মায়ের সঙ্গে থাকেন। অত্যন্ত সাদামাটা জীবন কাটান। তার এই ছোট ফ্ল্যাটে প্রয়োজনীয় আসবাব ছাড়া আর প্রায় কিছুই নেই। ১৯৭৮ সালে ‘গমন’ ছবিতে ডেবিউ করেন তিনি। 

তার অভিনয় এত প্রশংসিত হয়েছিল যে, এর পর প্রচুর ফিল্মের অফার আসতে শুরু করে। ‘প্রহার’ ছবির জন্য তিনি তিন বছরের জন্য সেনা ট্রেনিং নিয়েছিলেন। এরপর তাকে ভারতীয় সেনার ক্যাপ্টেন মর্যাদা দেওয়া হয়েছল। কথিত আছে, কার্গিল যুদ্ধেও নাকি তাকে কিছু দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

১৯৭৮ সাল থেকে তিনি যা উপার্জন করেছেন তার ৯০ শতাংশই গরিবদের মধ্যে বিলিয়ে দিয়েছেন। অনেক সময় এমনও হয়েছে, ফিল্মে কাজ করার পুরো পারিশ্রমিকটাই কোনও এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে দিয়ে দিয়েছেন।

২০১৫ সালে নানা নিজের সংস্থা ‘নাম ফাউন্ডেশন’ গড়ে তোলেন। মহারাষ্ট্রের খরা কবলিত এলাকায় কাজ করে তার অসরকারি সংস্থা। ২০১৫ সালে বিদর্ভ, লাতুর অঞ্চলের ১৭৫টি চাষি পরিবারকে ১৫ হাজার টাকা করে চেক দিয়েছিলেন তিনি।

বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের জন্য মহারাষ্ট্রে ৫০০টি ঘর তৈরি করার কথাও ঘোষণা করেছেন তিনি। খুব তাড়াতাড়ি কাজ শুরু হবে। নানা পটেকর কেন গরিবদের জন্য এত কাজ করছেন? 

না, রাজনীতিতে আসার কোনও ইচ্ছাই তার নেই। শিবসেনার অফার তিনি আগেই ফিরিয়ে দিয়েছেন। নানা জানিয়েছেন, এগুলো তার মনকে শান্ত রাখে। মানুষের উপকারের মধ্যেই আত্মতৃপ্তি ঘটে তার। সূত্র : এবিপি



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


সূরা ফাতেহা সব রোগের মহাওষুধ

সূরা-ফাতেহা-সব-রোগের-মহাওষুধ

করোনার অবসরে পূর্ণ কোরআন মুখস্ত করলেন গৃহিণী নাসমা

করোনার-অবসরে-পূর্ণ-কোরআন-মুখস্ত-করলেন-গৃহিণী-নাসমা

কোরআন ছাড়া এক পা এগোনো মানুষের জন্য মঙ্গলজনক নয়

কোরআন-ছাড়া-এক-পা-এগোনো-মানুষের-জন্য-মঙ্গলজনক-নয় ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


জমি বিক্রি করে একমাত্র সন্তান ঢাকায়, বৃষ্টিতে ভিজে ভিক্ষা করেন মা!

জমি-বিক্রি-করে-একমাত্র-সন্তান-ঢাকায়-বৃষ্টিতে-ভিজে-ভিক্ষা-করেন-মা-

আমের গুণের শেষ নেই, নির্ভয়ে খান এই শর্তগুলো মেনে

আমের-গুণের-শেষ-নেই-নির্ভয়ে-খান-এই-শর্তগুলো-মেনে

ইরানের যেসব দর্শনীয় স্থান দেখে বিশ্বের পর্যটকেরা মুগ্ধ হন

ইরানের-যেসব-দর্শনীয়-স্থান-দেখে-বিশ্বের-পর্যটকেরা-মুগ্ধ-হন এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


জমি বিক্রি করে একমাত্র সন্তান ঢাকায়, বৃষ্টিতে ভিজে ভিক্ষা করেন মা!

সুখবর, করোনামুক্ত হলেন মাশরাফি

নাম নেই সাকিব আল হাসানের

ভারতে পা'লানোর শেষ মু'হুর্তে শাখরা বাজারের কয়েকটি অচেনা কুকুর বা'ধা দেয় শাহেদকে

বিচিত্র জগৎ


দাঁত-ঠোঁট অবিকল মানুষের মতো দেখতে অদ্ভুত মাছ!

দাঁত-ঠোঁট-অবিকল-মানুষের-মতো-দেখতে-অদ্ভুত-মাছ-

বিশ্বের প্রথম গোল্ডেন হোটেল, টয়লেট থেকে শুরু করে সবকিছুই সোনায় মোড়া!

বিশ্বের-প্রথম-গোল্ডেন-হোটেল-টয়লেট-থেকে-শুরু-করে-সবকিছুই-সোনায়-মোড়া-

নিজেকে নারী বলেই জানতেন অথচ তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন আসলে পুরুষ!

নিজেকে-নারী-বলেই-জানতেন-অথচ-তিরিশ-বছর-পর-জানা-গেল-তারা-দু’বোন-আসলে-পুরুষ- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ