শনিবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২২, ০১:২৯:০৪

মাত্র এক টাকায় চা, ভিড় উপচে পড়ে এই মহিলার দোকানে

মাত্র এক টাকায় চা, ভিড় উপচে পড়ে এই মহিলার দোকানে

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : দিনের পর দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী থেকে শুরু করে পণ্যের দাম বেড়ে চলেছে। রোজকার জীবনে স্বাচ্ছন্দ্যে সংসার চালানোটাই মুশকিল হয়ে উঠেছে অনেকের কাছে। সেই চড়া দামের বাজারে দাঁড়িয়ে বছরের পর বছর মাত্র ১ টাকায় চা বিক্রি করছেন এক চা বিক্রেতা। হ্যাঁ, আশ্চর্য মনে হলেও এটাই সত্যি। ঘটনাটি পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলায়।

গত ২০ বছর ধরে কল্যাণীর বিদ্যাসাগর কলোনি এলাকায় ১ টাকায় চা বিক্রি করছেন চা বিক্রেতা ঊষারানি দাস। বয়স্ক এই চা বিক্রেতার বাড়িতে রয়েছেন স্বামী, দুই ছেলে ও তাদের স্ত্রী। বিদ্যাসাগর কলোনির এক কোণে ছোট টালির কুঁড়েঘরের মত একটি দোকান তৈরি করেছেন তিনি। সেখানেই মাত্র ১ টাকায় চা বিক্রি করে চলেছেন। জিনিসের দাম বাড়লেও ঊষারানি দেবী তার চায়ের দাম বাড়াননি। 

বলা ভালো, দাম বাড়াতে চাননি। তার কথায়, সততার সঙ্গে এক টাকাতেই সকলকে চা খাইয়ে যা উপার্জন হবে তাতেই সংসার চলবে।’ দিনে এই ১ টাকার চা বিক্রি করে তার লাভ হয় মাত্র ১৫০-২০০ টাকা। ১৯৯০ সাল থেকে চায়ের দোকান চালাচ্ছেন তিনি। প্রথমে চায়ের দাম ছিল ৩০-৪০ পয়সা। তবে গত ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ১ টাকায় বিক্রি করছেন। দিনে দুবেলাই দোকান খোলা হয়। কমতি নেই ক্রেতাদের। চায়ের দাম ১ টাকা হওয়ায় দূর দূর থেকেও অনেক চা প্রেমীরা এখানে আসেন। 

পাশাপাশি, এলাকার গরীব মানুষ যাদের দিনে দুবেলা ৫ টাকা খরচ করে চা খাওয়ার সামর্থ্য নেই তাদেরও এই চায়ের দোকানে এসেই সুরাহা মেলে। এক ক্রেতা জানিয়েছেন, অন্য দোকানে গেলে চা বিস্কুট খেতে হলে অন্তত ৮-১০ টাকা খরচ করতে হয়। কিন্তু এখানে ১ টাকার চা আর ২ টাকার বিস্কুট পাওয়া যায়। তাই এই দোকানে আসা।’ এমনকি, ৪-৫ টাকার চায়ের তুলনায় ১ টাকার চায়ের পরিমাণও বেশি থাকে বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ