রবিবার, ০৮ মে, ২০২২, ১০:১৯:৪৫

সুখী হতে চাইলে স্ত্রীর কাছে লুকান ৪টি বিষয়!

সুখী হতে চাইলে স্ত্রীর কাছে লুকান ৪টি বিষয়!

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক: জীবনে সুখী হতে কে না চায়। সুখ তো আর এমনি এমনি আসে না। আপনা বিয়ে হয়েছে, এবার নতুন জীবন শুরু। সুখের সন্ধানে আপনার এখন নিরন্তর চেষ্টা। তবে সুখী হতে চাইলে স্ত্রীর কাছে লুকান ৪টি বিষয়। তা না হলে সমস্যা কমার বদলে বাড়তে পারে।

এবার বিয়ের পর নিজের স্ত্রীয়ের সামনে অপর নারীর প্রশংসা, স্ত্রীর ড্রেসিং সেন্স নিয়ে প্রশ্ন, বারবার প্রাক্তনের কথা বললে তো সমস্যা দেখা দিতেই পারে। তাই এই কথা একেবারে নয়।

একটি সম্পর্ক থাকলে একে অপরের উপর বিশ্বাস থাকা খুবই জরুরি। এবার নিজেদের মধ্যে বিশ্বাস ঠিকমতো না থাকলে দেখা দিতে পারে অনেক সমস্যা। তখন সম্পর্কের বুনিয়াদি পর্যায়তেই দেখা দেয় জটিলতা। বিশেষত বিয়ের পর প্রতিটি মানুষকে থাকতে হবে সতর্ক। তবেই সমস্যা থেকে দূরে থাকা হয় সম্ভব।

১. সম্পর্ক: এবার বিয়ে হল জীবনের একটি ব্যস্ত পথ। এই রাস্তায় প্রতিদিনই কিছু না কিছু ঘটে চলেছে। এবার আপনার ভুলভ্রান্তির কারণে অনেক সমস্যাই এই রাস্তায় হতে পারে। তাই বিয়ের পর প্রতিটি পদক্ষেপ ফেলার আগে মানুষকে অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হয়। তবে এরপরও ভুল হয়। আর সেই ভুলের খেসারত দিতে হয় সম্পর্ককে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, একটি সম্পর্কে থাকার সময় দুটি মানুষকে একে অপরের উপর একটু বেশি নির্ভরশীল হতে হয়। এই মানুষগুলির বোঝাপড়ার উপর দাঁড়িয়েই গড়ে ওঠে সম্পর্কের পথ। আর এই বোঝাপড়া তৈরি হয়, একে অপরের উপর থাকা ভালোবাসা, সততার উপর। তবেই একটি সম্পর্ক এগিয়ে যেতে পারে।

তবে সম্পর্কের সব জায়গায় কিন্তু বেশি সৎ হলে সমস্যা কমার বদলে বাড়তে পারে। কিছু এমন কথা এক্ষেত্রে অবশ্যই রয়েছে যা অন্যদের একেবারেই বলা উচিত নয়। এই বিষয়টি প্রতিটি মানুষকে অবশ্যই বুঝে নিতে হবে। এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক কোন বিষয়গুলি স্ত্রীকে (Wife) বলা ঠিক হবে না-

২. ​বারবার পুরনো সম্পর্ক নিয়ে কথা বলা:  আপনার প্রাক্তনের (Ex) সম্পর্কে কয়েকটি কথা নিশ্চয়ই বলে দিতে পারেন। কিন্তু কথায় কথায় প্রাক্তনের প্রসঙ্গে তোলা ঠিক হবে না। 

আপনার স্ত্রী পুরনো সম্পর্কের কথা নিশ্চয়ই একবার বললেই বুঝতে পারেন। কিন্তু বারবার সেই প্রসঙ্গ তুলতে থাকলে তাঁর ভালো লাগবে না নিশ্চয়ই। এবার এই কথা বারবার বললে তিনি আপনাকে জাজ করতে পারেন। 

তাঁর মনে হতে পারে যে আপনি তাঁকে একেবারেই পছন্দ করছেন না। এই কারণেই বারবার প্রাক্তনের কথা বলছেন। তাই এই বিষয়টি লুকিয়ে রাখাই হল মঙ্গল।

৩. ​অন্য মহিলার প্রশংসা তাঁর সামনে নয়:  কাউকে দেখতে ভালো লাগলে তাঁর প্রশংসা করতেই পারেন। তবে পুরুষ হলেই আপনার স্ত্রীর সামনে প্রশংসা করুন। 

একজন নারীকে দেখতে ভালো লাগছে বললে স্ত্রীর পিলে চমকে যাবে। তিনি ভাবতে পারেন যে আপনি তাঁকে একেবারেই পছন্দ করছেন না। এমনকী আপনাদের সম্পর্ক নিয়েও তাঁর মাথায় ঘুরতে পারে নানা প্রশ্ন। আর আপনার সম্পর্কের জন্য এই বিষয়গুলি একেবারেই ঠিক নয়। তাই এই বিষয়টি নিয়ে সতর্ক হয়ে যাওয়াই হল মঙ্গল।

​৪. স্ত্রীর ড্রেসিং সেন্স নিয়ে কথা বলা:  সবাই নিজের নিজের মতো করে বড় হয়েছেন। তাঁদের পছন্দও ভিন্ন ভিন্ন। এবার আপনার সঙ্গে স্ত্রীর পছন্দের সঙ্গে আপনার মতের মিল নাই হতে পারে। 

কিন্তু তাই নিয়ে স্ত্রীকে অপমান করতে যাবেন না। কারণ মহিলারা সবসময়ই নিজের ড্রেসিং সেন্স নিয়ে একটু বেশিই গর্ব করে থাকেন। এবার আপনি তাঁর গর্বে আঘাত হানলে তো সমস্যা দেখা দিতেই পারে। বরং আপনি একটু সচেতন হয়ে এই বিষয়টিকে সামলে নিন। তবেই সমস্যার হয়ে যাবে সমাধান।

অন্য কোনও মানুষের সঙ্গে স্ত্রীর তুলনা করা একেবারেই ঠিক না। আসলে এই পৃথিবীতে প্রতিটি মানুষ নিজের নিজের মতো করে আলাদা। তাঁরা একে অপরকে ভিন্নভাবে দেখতে চান। 

এই পরিস্থিতিতে আপনি যদি তাঁর সঙ্গে কথায় কথায় অন্য মানুষের তুলনা শুরু করেন, তবে সমস্যা দেখা দেওয়া খুবই স্বাভাবিক। এক্ষেত্রে তিনি আপনাকে আর ঠিকভাবে কিছু বলতে যাবেন না। এমনকী আপনার সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রেও তাঁর মধ্যে প্রশ্ন আসতে পারে।

আসলে এখনকার মহিলারা হল স্বাধীন মানুষ। তাঁরা চাকরি করেন। নিজেই করেন উপার্জন। এবার এই মানুষগুলিকে বারবার কথা শোনালে রাগ তো হবেই। তাই এই পন্থা ছাড়ুন।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ, এমটিনিউজ২৪ টুইটার , এমটিনিউজ২৪ ফেসবুক এবং সাবস্ক্রাইব করুন এমটিনিউজ২৪ ইউটিউব চ্যানেলে