পরীক্ষার্থীকে চড়-থাপ্পড় মারলেন ইউএনও, ৫ ছাত্রী অজ্ঞান

০৮:৫১:২৯ রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ঘুম না আসলে যে দোয়া পড়তে বলেছেন প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম     • ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে ধরা পড়া সবাই এক সময় যুবদল-বিএনপি অথবা জামায়াত-শিবির করত: এইচ টি ইমাম     • তারেক রহমান আয়ের উৎস দেখিয়েছেন ক্যাসিনো: ড. হাছান মাহমুদ     • বড় চমক দিয়ে আফগানদের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণা করল বাংলাদেশ     • ভারতীয় অধিনায়ক কোহলিকে টপকে যাওয়ার সুযোগ মাহমুদউল্লাহর     • এমনকি কাউকে ভিডিও করতে আর ছবি তুলতেও নিষেধ করে দেন তামিম ইকবাল     • অনুশীলনে ফিরলেন তামিম ইকবাল     • সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের শরীরে ক্যানসার ধরা পড়েছে, কেমোথেরাপি শুরু     • পাতি নেতাদের দাপটে দেশে থাকা যাচ্ছে না: মির্জা ফখরুল     • বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলবেন না ধোনি!

সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ০৬:৫০:৫১

পরীক্ষার্থীকে চড়-থাপ্পড় মারলেন ইউএনও, ৫ ছাত্রী অজ্ঞান

পরীক্ষার্থীকে চড়-থাপ্পড় মারলেন ইউএনও, ৫ ছাত্রী অজ্ঞান

রাাঙ্গামাটি: রাাঙ্গামাটির লংগদুতে শনিবার এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে পরীক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোসাদ্দেক মেহ্দী ইমামের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আতঙ্কে পাঁচ ছাত্রী জ্ঞান হারালে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) গণিত পরীক্ষা চলাকালে সকাল ১১টার দিকে লংগদু বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনে যান ইউএনও। এ সময় কেন্দ্রের ৬নং কক্ষে প্রবেশ করে জুনায়েদ ইসলাম পেয়ার নামের এক ছাত্র অন্যদের খাতা দেখানোয় তাকে চড় মারতে শুরু করেন এবং ওই ছাত্রের খাতা কেড়ে নেন ইউএনও।

একপর্যায়ে ওই শিক্ষার্থীকে শার্টের কলার ধরে টেনে বাইরে এনে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন এবং গালাগাল ও চিৎকার করে বলেন, তাকে বহিষ্কার করে দেবেন। একথা শুনে শুভ নামের অন্য এক শিক্ষার্থী পেয়ারকে ইউএনও’র কাছে ক্ষমা চাইতে বললে তাকেও চার/পাঁচটি চড় মারেন ইউএনও।

এ সময় দায়িত্বরত কক্ষ পরিদর্শক শিক্ষকরা অসহায়ের মতো দাঁড়িয়ে ছিলেন। এক শিক্ষিকা বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে কান্নাকাটি করেন বলে জানিয়েছেন তারই এক সহকর্মী।

ভুক্তভোগী পেয়ার বলেন, সামান্য কারণে আমাকে ১৫/২০টা চড় মেরেছেন এবং খাতাও কেড়ে নিয়েছেন ইউএনও। আমি ঘটনার পর আধাঘণ্টা কিছু লিখতেই পারিনি। আমার পরীক্ষাও খারাপ হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কক্ষ পরিদর্শক ও শিক্ষক বলেন, আমার দীর্ঘদিন পরীক্ষায় দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতায় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এমন খারাপ আচরণ করতে কোনো কর্মকর্তাকে দেখিনি। উনার (ইউএনও) এমন রূঢ় আচরণের কোনো প্রতিবাদই করতে পারিনি আমরা।

এ খবর লংগদু সরকারি উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের পরীক্ষার্থীরা শুনলে তারাও আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। আতঙ্কে পাঁচ ছাত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তাদের লংগদু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রাবেতা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

একইদিনে লংগদু সরকারি উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রেও এক পরীক্ষার্থীকে চড় মারার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে দায়িত্বরত শিক্ষকরা ছাত্রকে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার কর জানিয়েছেন, ইউএনও সবাইকে ধমক দিয়েছেন।

ভুক্তভোগী ইসমাঈল হোসেন নামের এক পরীক্ষার্থী জানায়, শুধু গণিত পরীক্ষাই নয়, ১ ফেব্রুয়ারি বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষার দিনও তাকে এবং তার পাশের ছাত্রকে চড় মেরেছেন ইউএনও এবং গালাগাল করে বলেন, তোর মতো এমন ছাত্র লাগবে না।

শাহীনা আক্তার নামে এক অভিভাবক বলেন, ছেলে-মেয়েরা ভুল করতেই পারে। তাই বলে এভাবে সবার সামনে মারধর করে ঠিক করেননি ইউএনও।

অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘উনি (ইউএনও) যত বড় অফিসার হোক না কেন, আমাদের সন্তানদের গায়ে হাত তোলার অধিকার নাই। সরকার যেখানে শ্রেণিকক্ষেই ছাত্রদের মারতে নিষেধ করেছেন, সেখানে এমন আচরণ কোনোভাবেই কাম্য নয়।

এ বিষয়ে লংগদু বালিকা বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব ও প্রধান শিক্ষক রবিরঞ্জন চাকমা বলেন, শিক্ষার্থীকে চড় মারার বিষয়টি জানি না। তবে ইউএনও স্যার রাগারাগি করেছেন এটা শুনেছি।

চড় মারার কারণ জানতে চাইলে ইউএনও মোসাদ্দেক মেহ্দী ইমাম বলেন, মারধর করা হয়নি। শুধু ধমক দেয়া হয়েছে। অসুবিধা নেই, এগুলো ঠিক হয়ে যাবে।
এমটিনিউজ২৪.কম/টিটি/পিএস



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


অবাক ঘটনা মেহেরপুরে, বিয়ে করতে কনে গেলেন বরের বাড়ি!

অবাক-ঘটনা-মেহেরপুরে-বিয়ে-করতে-কনে-গেলেন-বরের-বাড়ি-

চিনে নিন এই ব্যক্তিকে, যিনি ১০০ স্ত্রীর স্বামী ও ৫০০ সন্তানের বাবা!

চিনে-নিন-এই-ব্যক্তিকে-যিনি-১০০-স্ত্রীর-স্বামী-ও-৫০০-সন্তানের-বাবা-

আপন মা নারাজ, পুত্রবধূকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শাশুড়ি

আপন-মা-নারাজ-পুত্রবধূকে-বাঁচাতে-নিজের-কিডনি-দিয়ে-দৃষ্টান্ত-স্থাপন-করলেন-শাশুড়ি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ম্যাচ জিতে এবার যাকে প্রশংসায় ভাসালেন সাকিব

ফাইনাল ম্যাচে ও থাকলে দলের জন্য ভালো হতো : মোসাদ্দেক

আমাদের মদিনার আদলে দেশ চালানোর সময় এসেছে: শহীদ আফ্রিদি

আফগান বাহিনীর বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশে পরিবর্তন

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ