থাই বারোমাসি আমাচাষে রীতিমতো বিপ্লব ঘটালেন আবুল কাশেম!

০২:১৮:১৯ মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • নেত্রকোনায় যেভাবে প্রাণে বেঁচে গেলেন ছেলেধরা সন্দেহে আটক পাগলি রুপালী!     • আমি সত্যিকার অর্থেই সাকিবকে নিয়ে কথা বলতে চাই না : তামিম     • নিজেদের মাঠেই বাংলাদেশের কাছে পাত্তাই পেল না ইংল্যান্ড     • দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক গ্রেফতার     • কুমিল্লায় শ্রেণিকক্ষে হাসতে হাসতে হঠাৎ অজ্ঞান ২৫ ছাত্রী, স্কুলে আত'ঙ্কের সৃষ্টি     • মা শিশু তুবাকে ছেড়ে চলে গেছেন, কিন্তু অবুঝ শিশু জানেনা মা কোথায়?     • প্রিয়া সাহা, আপনি দারুণ একটি ভুল করেছেন     • চাষের জমিতে ৬০ লাখ টাকার ‘হীরক খণ্ড’ কুড়িয়ে পেলেন কৃষক!     • বিপিএলে নতুন দলে মুশফিকুর রহিম     • আগামীকাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ

শুক্রবার, ২৬ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:৫৮:৫৪

থাই বারোমাসি আমাচাষে রীতিমতো বিপ্লব ঘটালেন আবুল কাশেম!

থাই বারোমাসি আমাচাষে রীতিমতো বিপ্লব ঘটালেন আবুল কাশেম!

জেলা প্রতিনিধি  চুয়াডাঙ্গা : থাই বারোমাসি আমাচাষে রীতিমতো বিপ্লব ঘটিয়েছেন চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার তেতুলিয়া গ্রমের নার্সারি মালিক আবুল কাশেম। অসময়ে আম উৎপাদন ভালো হওয়ায় তার দেখাদেখি ব্যাপক উৎসাহ নিয়ে এ এলাকার অন্য কৃষকরাও এখন আমচাষে ঝুঁকছেন।

বারোমাসি আম চাষ করে আবুল কাশেম কৃষকদের চাষাবাদ সম্পর্কে চিরায়ত চিন্তাধারাও বদলে দিয়েছেন। গাছে বারো মাস ধরে বলে এই আমের নাম রাখা হয়েছে বারোমাসি। আবুল কাশেম এ বছর ২০ বিঘা বাগান থেকে প্রায় ১৬ লাখ টাকার আম বিক্রি করেছেন। আগামীতে এর পরিমাণ আরও বাড়বে বলে আশা করছেন আবুল কাশেম। এছাড়া আমের পাশাপাশি তিনি এ বছর আড়াই লাখ বারোমাসি আমের চারা ৫ কোটি টাকায় বিক্রি করবেন বলেও দাবি করেন।

আবুল কাশেম জানান, ৩২ বছর আগে ১১ বিঘা জমি বর্গা নিয়ে তাতে নার্সারি তৈরি করেন তিনি। নার্সারি থেকে ফলজ, বনজ এবং ঔষধী গাছের চারা বিক্রি করে যা আয় হতো তা দিয়ে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে কোনো রকমে তার সংসার চলতো। জীবন সংগ্রামে জয়ী হওয়ার জন্য তিনি ৮ বছর আগে আম চাষের পরিকল্পনা করেন। ঠিক ওই সময় তার এক আত্মীয় নূর ইসলাম থাইল্যান্ডে যান ব্যবসায়ীক সফরে। সেখানে তাদেরকে একটি আম বাগান পরিদর্শন করানো হয় এবং ওই বাগান থেকে পাকা আম পেড়ে খেতে দেয়া হয়।

সুমিষ্ট ওই আম খেয়ে ভালো লেগে যায় নূর ইসলামের। তিনি বাগান থেকে আমগাছের একটি ডগা ভেঙে ব্যাগে নেন। দেশে ফিরে ওই ডগাটি নার্সারি মালিক আবুল কাশেমকে দেন চারা তৈরির জন্য। সেই ডগা থেকেই চারা তৈরি করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন আবুল কাশেম।

পরের বছরই ওই গাছে ৮-১০টি আম ধরে। একে একে তিন বার আম ধরে গাছটিতে। পাকা আম খেতে অত্যন্ত সুমিষ্ট হওয়ায় আবুল কাশেম উদ্বুদ্ধ হয়ে ওই চারা থেকে আবার কলম চারা তৈরি শুরু করেন।

নিজেদের ভাগ্য বদলের পাশাপাশি এলাকার কৃষকদের জন্য কিছু করার মানসিকতা নিয়ে আবুল কাশেম ২০১৪ সালের মাঝামাঝি সময়ে ওই থাই জাতের বারোমাসি কলম চারা দিয়ে উপজেলার বাঁকা গ্রামের মাঠে ৬ বিঘা এবং তেতুলিয়া গ্রামের মাঠে ১৪ বিঘা আমবাগান গড়ে তোলেন। ২ হাজার গাছ রয়েছে তার বাগানে। এছাড়া তার নার্সারিতে বিক্রির জন্য রয়েছে প্রায় আড়াই লাখ বারোমাসি আমের চারা।

গত বুধবার আবুল কাশেমের আম বাগানে গিয়ে দেখা যায়, বাগানের প্রাই প্রতিটি আম গাছে থোকাই থোকাই মুকুল ধরেছে। আবার কোনোটাতে আমের গুটিও রয়েছে।

আবুল কাশেম জানান, ভালোভাবে জমি কর্তন ও সার প্রয়োগের মাধ্যমে জমিকে আম চাষের উপযোগী করে তুলে প্রতি বিঘায় ১শ’ টি করে চারা রোপন করা হয়। চারা রোপনের ২ মাসের মধ্যেই গাছে মুকুল আসতে শুরু করে এবং ৪ মাসের মধ্যেই আম পূর্ণ পরিপক্ক হয়ে ওঠে। বছরে ৩ দফায় প্রতিটি আম গাছে ৩০ কেজি পর্যন্ত আম পাওয়া যায়।

তিনি জানান, বর্তমানে প্রতি কেজি আম পাইকারি ৩শ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। জমি তৈরি থেকে আম সংগ্রহ পর্যন্ত প্রতিবিঘা জমিতে ৩০ হাজার টাকা খরচ হয়। আর প্রতি বিঘা জমিতে ৯০ হাজার টাকার আম বিক্রি করা সম্ভব। যা সমস্ত খরচ বাদ দিয়ে প্রতি বিঘা জমিতে লাভ হয় ৫০ হাজার টাকা।

চলতি বছরে ইতোমধ্যেই তিনি ১৬ লাখ টাকার আম বিক্রি করেছেন এবং প্রায় ৫ কোটি টাকার আমের চারা বিক্রি করতে পারবেন বলে আশা করছেন। প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন যায়গা থেকে আমচাষিরা আমের চারা কিনতে ভিড় করছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ জানান, জাতটি আমাদের দেশে নতুন। আবুল কাশেমই এটি তৈরি করেছেন। এটি দ্রুত সম্প্রসারণযোগ্য একটি জাত। এ আম খেতে অত্যন্ত সুমিষ্ট। এ আম চাষে কৃষকরা লাভবান হবেন।-জাগো নিউজ

 



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ট্রাকের ইঞ্জিনে পাখির বাসা, ডিম ফোটার অপেক্ষায় দেড় মাস ট্রাক চালাননি চালক

ট্রাকের-ইঞ্জিনে-পাখির-বাসা-ডিম-ফোটার-অপেক্ষায়-দেড়-মাস-ট্রাক-চালাননি-চালক

বন্যায় ডুবে গেছে জঙ্গল, লোকালয়ে ঢুকে ঘরের বিছানায় শুয়ে থাকল বাঘ

বন্যায়-ডুবে-গেছে-জঙ্গল-লোকালয়ে-ঢুকে-ঘরের-বিছানায়-শুয়ে-থাকল-বাঘ

একনাগাড়ে হাঁচি, ব্যবহার করুন ঘরোয়া এই টোটকা

একনাগাড়ে-হাঁচি-ব্যবহার-করুন-ঘরোয়া-এই-টোটকা এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


প্রিয়া সাহাকে আর দেশে ঢুকতে দেয়া হবে না : ইসলামী আন্দোলন

এই একটি কারণেই সাকিবকে অধিনায়কত্ব দেওয়া হচ্ছে না

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে প্রিয়া সাহা যা বলেছেন, কমই বলেছেন : তসলিমা নাসরিন

অবশেষে ফাইনালের সেই 'বিতর্কিত' সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুললেন ধর্মসেনা!

পাঠকই লেখক


হঠাৎ ঘুমিয়ে পড়ছে পুরো গ্রামের মানুষ, ঘুম ভাঙছে তিন-চার দিন পর!

হঠাৎ-ঘুমিয়ে-পড়ছে-পুরো-গ্রামের-মানুষ-ঘুম-ভাঙছে-তিন-চার-দিন-পর-

ঘটনাটি হাস্যকর এবং উদ্ভট হলেও, চাঁদে জমি বিক্রি করে যিনি কামাচ্ছেন হাজার হাজার ডলার

ঘটনাটি-হাস্যকর-এবং-উদ্ভট-হলেও-চাঁদে-জমি-বিক্রি-করে-যিনি-কামাচ্ছেন-হাজার-হাজার-ডলার

স্ত্রীর তালাকের নোটিশ পেয়ে খুশিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন এক স্বামী!

স্ত্রীর-তালাকের-নোটিশ-পেয়ে-খুশিতে-দুধ-দিয়ে-গোসল-করলেন-এক-স্বামী- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ