৯১ বছর ধরে কবরের পাশে অবিরাম কোরআন তেলাওয়াত, একদিনের জন্যও তা বন্ধ হয়নি!

০২:০৩:৫৭ সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • জন্মদিনে পার্টি দিয়ে করোনায় মৃ'ত ব্যবসায়ী, পুরো শহরজুড়ে আত'ঙ্ক     • টিকটক নি'ষিদ্ধ হতেই আত্মহ'ত্যা করলেন টিকটক তারকা সন্ধ্যা     • পরীক্ষা ছাড়াই কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পাসের সিদ্ধান্ত: পদক্ষেপ রাজস্থান সরকারের     • বাংলাদেশিদের বাঁশের পি'টুনিতে ৩ বিএসএফ সদস্য আহ'ত: দাবি ভারতীয় গণমাধ্যমের     • সামরিক শক্তিতে আরও ভ'য়ঙ্কর হয়ে উঠল তুরস্ক, বিধ্ব'সী ক্ষেপণা'স্ত্র 'আটমাকা' ২২০ কিলোমিটার দূরেও সফল     • ‘আমাগো আল্লাহ ছাড়া কেউ নাই’     • সৌদি প্রবাসীদের জন্য দারুণ সুখবর; বিনামূল্যে ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা দিল সৌদি সরকার     • সুখবর, আসছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিশাল কার্যক্রম     • পাকিস্তানি হিন্দু শরণার্থীদের মুখে হাসি ফোটালেন শিখর ধাওয়ান     • কোয়ারেন্টিন শেষে ২১৯ প্রবাসীকে পাঠানো হলো কারাগারে

বৃহস্পতিবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৯, ১২:৫২:৪৫

৯১ বছর ধরে কবরের পাশে অবিরাম কোরআন তেলাওয়াত, একদিনের জন্যও তা বন্ধ হয়নি!

৯১ বছর ধরে কবরের পাশে অবিরাম কোরআন তেলাওয়াত, একদিনের জন্যও তা বন্ধ হয়নি!

টাঙ্গাইল: কবরের পাশে কোরআন তেলাওয়াত চলছে। বিষয়টি কোনো অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে নয়। এ ধারাবাহিকতা চলছে ৯১ বছর ধরে। একদিনের জন্যও তা বন্ধ হয়নি। প্রাকৃতিক দুর্যোগ, যুদ্ধ বিগ্রহ, রাজনৈতিক অস্থিরতা অনেক কিছুই হয়েছে এই নয় দশকে। কিন্তু থামেনি এই কোরআন পাঠ।

দীর্ঘদিন ধরে অবিরাম কোরআন তেলাওয়াত হচ্ছে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে। সেখানে নবাব নওয়াব আলী চৌধুরীর বাড়িতে মসজিদ চত্বরে তার (নওয়াব আলী চৌধুরী) কবরের পাশে চলছে এই তেলাওয়াত। ধনবাড়ীর নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী ১৮৬৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম। তিনি অবিভক্ত বাংলার প্রথম মুসলিম মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

উইকিপিডিয়ায় জানা যায়, ১৯১১ সালের ২৯ আগস্ট ঢাকার কার্জন হলে ল্যান্সলট হেয়ারের বিদায় এবং চার্লস বেইলির যোগদান উপলক্ষে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পৃথক দুইটি মানপত্রে নবাব সলিমুল্লাহ ও নওয়াব আলী চৌধুরী ঢাকায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি জানান।

১৯১৭ সালের ৭ মার্চ ইম্পেরিয়াল কাউন্সিলের সভায় তিনি ঢাকায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি উপস্থাপন করেন। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাকালে অর্থাভাব দেখা দিলে তিনি নিজ জমিদারির একাংশ বন্ধক রেখে এককালীন ৩৫ হাজার টাকা দেন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর শিক্ষার্থীদের বৃত্তি বাবদ ১৬ হাজার টাকার একটি তহবিল নওয়াব আলী চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয়ে দেন। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিনেট ভবনের নাম ‘সৈয়দ নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন’ নামকরণ করেন। নওয়াব আলী চৌধুরী ১৯২৯ সালের ১৭ এপ্রিল ৬৫ বছর বয়সে মৃ’ত্যুবরণ করেন।

ধনবাড়ী মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মওলানা মুফতি ইদ্রিস হোসাইন জানান, মৃত্যুর আগেই নওয়াব আলী চৌধুরী মসজিদের কাছে তার কবরের জায়গা নির্ধারণ করেন।

প্রতিদিন চারজন হাফেজ কোরআন পাঠের দায়িত্বে থাকেন। তারা পালাক্রমে তেলাওয়াত করেন। এদেরই একজন হাফেজ মো. আব্দুস সামাদ।

তিনি জানান, সকাল ছয়টা থেকে সাড়ে আটটা, সাড়ে আটটা থেকে বেলা ১১টা, বেলা ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা, দুপুর দেড়টা থেকে বিকেল চারটা এবং বিকেল চারটা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা। এভাবে আবার রাতের পালাও শুরু হয়। একেক শিফটে (পালা) একেকজন কোরআন পাঠের দায়িত্ব থাকেন। বর্তমানে হাফেজ আব্দুস সামাদ ছাড়াও মো. কামরুজ্জামান, আবু হানিফ ও হেদায়েত হোসেন নিয়মিত কোরআন পাঠে নিয়োজিত রয়েছেন।

এরা কেউ অসুস্থ হলে অথবা ছুটিতে বাড়িতে গেলে মসজিদের পাশেই হিফজখানা থেকে ছাত্রদের দিয়ে শূন্যস্থান পূরণ করা হয়। তেলাওয়াতকারীরা এখানে কোরআন তেলাওয়াতের পাশাপাশি হিফজখানায় শিক্ষকতা করেন। আর সেখান থেকেই তাদের সম্মানী দেওয়া হয়।

সরেজমিন ধনবাড়ী গিয়ে দেখা যায়, নওয়াব আলীর কবরের পাশে একজন কোরআন পাঠ করছেন। দৃষ্টি নন্দন এই মসজিদটি দেখতে বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ আসছেন। মসজিদের পাশাপাশি তারা দেখে যান অবিরাম কোরআন পাঠ।

ধনবাড়ী এলাকার মুক্তাদির ছিন্টু জানান, দীর্ঘদিন ধরে টানা কোরআন পাঠ চলছে। এটি দেখতে অনেক মানুষ আসেন।

ওই এলাকার প্রবীণ ব্যক্তি অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা খন্দকার জহিরুল ইসলাম জানান, তিনি ছোটবেলা থেকেই এই কোরআন পাঠ দেখে আসছেন। এটি কোনোদিন বন্ধ হয়নি। নবাব নওয়াব আলীর ১৯০৩ সালে তার সব সম্পত্তি ‘নওয়াব আলী খোদা বক্স ধনবাড়ী ওয়াক্ফ এস্টেট’ নামে ওয়াক্ফ করে দেন।

এই এস্টেটের অন্যতম কর্নধার নওয়াব আলী চৌধুরীর নাতনি জামাই আকবর উদ্দিন আহমেদ জানান, নবাব নওয়াব আলী চৌধুরীর ইচ্ছে অনুযায়ী এই কোরআন পাঠ চলছে। এটি ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে। -তথ্যসূত্র: ফেসবুক থেকে সংগৃহীত।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ইরানের যেসব দর্শনীয় স্থান দেখে বিশ্বের পর্যটকেরা মুগ্ধ হন

ইরানের-যেসব-দর্শনীয়-স্থান-দেখে-বিশ্বের-পর্যটকেরা-মুগ্ধ-হন

জানেন কি, বাড়িতে করোনা নিয়ে আসতে পারে জুতাও! জেনে নিন বাঁচার উপায়

জানেন-কি-বাড়িতে-করোনা-নিয়ে-আসতে-পারে-জুতাও--জেনে-নিন-বাঁচার-উপায়

দুটি পাথরে ভাগ্য বদল, শ্রমিক থেকে এক দিনেই ৩০ কোটি টাকার মালিক!

দুটি-পাথরে-ভাগ্য-বদল-শ্রমিক-থেকে-এক-দিনেই-৩০-কোটি-টাকার-মালিক- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


সুখবর, ২৪ জন মানুষের শরীরে করোনার টিকা দিয়ে সফলতা

করোনার অবসরে পূর্ণ কোরআন মুখস্ত করলেন গৃহিণী নাসমা

বিশ্বের প্রথম গোল্ডেন হোটেল, টয়লেট থেকে শুরু করে সবকিছুই সোনায় মোড়া!

মাশরাফির আবারো করোনা পজিটিভ

বিচিত্র জগৎ


বিশ্বের প্রথম গোল্ডেন হোটেল, টয়লেট থেকে শুরু করে সবকিছুই সোনায় মোড়া!

বিশ্বের-প্রথম-গোল্ডেন-হোটেল-টয়লেট-থেকে-শুরু-করে-সবকিছুই-সোনায়-মোড়া-

নিজেকে নারী বলেই জানতেন অথচ তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন আসলে পুরুষ!

নিজেকে-নারী-বলেই-জানতেন-অথচ-তিরিশ-বছর-পর-জানা-গেল-তারা-দু’বোন-আসলে-পুরুষ-

সন্তানদের মৃত্যু দেখে বেঁচে থাকার ইচ্ছেটুকুই হারিয়ে ফেলল এক মা হাঁস!

সন্তানদের-মৃত্যু-দেখে-বেঁচে-থাকার-ইচ্ছেটুকুই-হারিয়ে-ফেলল-এক-মা-হাঁস- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ