শারীরিক সম্পর্কে বাঁধা দেওয়ায় বিয়ে না করে প্রেমিকাকে ফেলে পালিয়ে গেল প্রেমিক!

১২:৫২:৪৯ বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • স্বামীর লা'শ গাছে, স্ত্রীর লা'শ পুকুরে     • অভিষেকেই চমক দেয়া বিপ্লবকে নিয়ে যা বললেন সাকিব     • বাবার সঙ্গে জীবনে প্রথম তাজমহল দেখে উচ্ছ্বসিত কাজল আগারওয়াল     • দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে আজ সেই লেগ স্পিনার পেল বাংলাদেশ     • ম্যাচসেরা হয়ে সাফল্যের পেছনের গল্প শোনালেন মাহমুদউল্লাহ     • জয়-লেখককে প্রধানমন্ত্রীর বার্তা, রুদ্ধদ্বার বৈঠকে চার কেন্দ্রীয় নেতা     • অভিষেকেই বিশ্বকে চমকে দিলেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব     • আজ জয়ের পর আফগানদের দেখে নেওয়ার হু'মকি সাকিবের      • ভালো ব্যাটিংয়ের পর বোলার ও ফিল্ডাররা দুর্দান্ত ছিল : সাকিব      • বাংলাদেশও দেখিয়ে দিলো লেগ স্পিনারের ভেলকি!

সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ০১:১৭:১৮

শারীরিক সম্পর্কে বাঁধা দেওয়ায় বিয়ে না করে প্রেমিকাকে ফেলে পালিয়ে গেল প্রেমিক!

শারীরিক সম্পর্কে বাঁধা দেওয়ায় বিয়ে না করে প্রেমিকাকে ফেলে পালিয়ে গেল প্রেমিক!

লালমনিরহাট থেকে : তিন বছর ধরে চলছে তাদের প্রেমের সম্পর্ক। এরই মাঝে প্রেমিকার অভিভাবক আঁচ করতে পেরে মেয়ের অন্যত্র বিয়ের ব্যবস্হা করে, কিন্তু সেইসব বিয়ে ভেঙ্গে দেয় প্রেমিক সাখাওয়াত হোসেন। 

বিয়ে ভেঙ্গে দিলেও নিজে বিয়ে করতে গড়িমসি দেখিয়ে উল্টো শারীরিক সম্পর্কে অধিক আগ্রহ প্রকাশ করে, আর সেই সম্পর্কে বাঁধা দেওয়ায় প্রেমিকাকে ফেলে পালিয়ে গিয়েছে প্রেমিক। আর উপয়ান্তর না দেখে গত ৬ দিন ধরে প্রেমিকের বাড়ীতে অনশনে বসেছে স্কুল ছাত্রী নার্গিস আক্তার।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান ইউনিয়নের শেখ সুন্দর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। গত সোমবার (১৮ আগস্ট) থেকে শনিবার (২৪ আগস্ট) বিকেল পর্যন্ত অনশনে রয়েছে ওই স্কুলছাত্রী। সে দোয়ানী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সূত্র ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার সানিয়াজান ইউনিয়নের শেখ সুন্দর গ্রামের ওই ছাত্রীর সঙ্গে একই এলাকার বদিউজ্জামানের কলেজ পড়ুয়া ছেলে সাখাওয়াত হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক হয়। তিন বছর ধরে চলছে তাদের প্রেমের সম্পর্ক।

এরপর সাখাওয়াত স্কুলছাত্রীকে তার বাড়িতে আসতে বলে। কথামতো স্কুলছাত্রী ১৮ আগস্ট সাখাওয়াতের বাড়িতে আসে। এ সময় সাখাওয়াত তাকে বিয়ে না করেই তার সঙ্গে দৈহিক মিলনের চেষ্টা করে। তখন স্কুলছাত্রী চিৎকার করলে সাখাওয়াত পালিয়ে যায়। সেদিন থেকে বিয়ের দাবিতে সাখাওয়াতের বাড়িতে অনশন শুরু করে ওই স্কুলছাত্রী।

ওই দিন রাতে স্থানীয়রা বিষয়টি মীমাংসা করতে গ্রাম্য সালিশে বসে। ওই সালিশে দেড় লাখ টাকা যৌতুক ঠিক করলে সাখাওয়াত তার প্রেমিকাকে বিয়ে করতে রাজি হয়। স্কুলছাত্রীর বাবা যৌতুকের পাঁচ হাজার টাকা সালিশ বৈঠকের মাধ্যমেই ছেলেপক্ষকে দেয়।

তবে ঘটনার সাতদিন অতিবাহিত হলেও মেয়েটিকে বিয়ে করেনি সাখাওয়াত, উল্টো বাসা ছেড়ে পালিয়ে যায়। এদিকে ঘটনা জানাজানির পর এলাকার কিছু যুবক বদিউজ্জামানের বাড়িতে ভাঙচুর চালিয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে সাখাওয়াতের পরিবার। এ ঘটনায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আ. গফুর ও ইউপি সদস্য সরেজমিনে দেখে গেছেন।

স্কুলছাত্রীর ভাষ্য, অষ্টম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় সাখাওয়াতের সঙ্গে আমার প্রেম হয়। গত তিন বছর ধরে চলছে আমাদের প্রেমের সম্পর্ক। আমাকে বিয়ে করবে বলে পরপর তিনবার আমার বিয়ে ভেঙে দেয় সাখাওয়াত। ১৮ আগস্ট বাড়িতে ডেকে দৈহিক মিলনের চেষ্টা করা হয়। তখন আমি চিৎকার করলে সাখাওয়াত পালিয়ে যায়। 

উপায় না পেয়ে সেদিন থেকে বিয়ের দাবিতে সাখাওয়াতের বাড়িতে অনশন করছি আমি। সেই সঙ্গে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। হাতীবান্ধা থানার ওসি ওমর ফারুক বলেন, এ বিষয়ে ওই ছাত্রীর বাবা থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে সানিয়াজান ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে গেছি, বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেছি। কোনোপক্ষ এগিয়ে না আসায় বিষয়টি সমাধান করা যায়নি। তাই এখনো অনশন করছে ওই ছাত্রী।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


কঠোর মায়েদের সন্তানের ভবিষ্যত উজ্জ্বল হয় - গবেষণা বলছে

কঠোর-মায়েদের-সন্তানের-ভবিষ্যত-উজ্জ্বল-হয়-গবেষণা-বলছে

পর্যাপ্ত টাকা যোগাড় করতে না পেরে নিজের লিভার দিয়ে মেয়েকে বাঁচালেন মা

পর্যাপ্ত-টাকা-যোগাড়-করতে-না-পেরে-নিজের-লিভার-দিয়ে-মেয়েকে-বাঁচালেন-মা

৪০-৪৫ বছর ধরে কাচ চিবিয়ে খেয়ে দিব্যি বেঁচে আছেন এই ব্যক্তি

৪০-৪৫-বছর-ধরে-কাচ-চিবিয়ে-খেয়ে-দিব্যি-বেঁচে-আছেন-এই-ব্যক্তি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


কি রোগ সেটা ডাক্তার শোনার আগেই আয়া এসে রোগীর কাপড় খুলে নেয়

ভারতের বিপক্ষে পাঁচটি ওয়ানডে এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ!

একসঙ্গে ঘুমাচ্ছিল, দুই ভাইয়ের সেই ঘুমকে চিরনিদ্রায় পরিণত করলো বিষধর সাপ

ক্রিকেট বিশ্বে বেশি বেতন পাওয়া সবচেয়ে ধনী ১০ কোচ

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ