মিন্নিকে নিয়েই ব্যস্ত পুলিশ, ওদিকে ৪ আসামি এখনও অধরা!

১১:৩৭:০৩ বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • বাংলাদেশও দেখিয়ে দিলো লেগ স্পিনারের ভেলকি!     • ম্যাচ হেরে শুধুমাত্র বাংলাদেশের মাহমুদুল্লাহ'র প্রশংসা করলেন মাসাকাদজা     • টি-টোয়েন্টিতে মুস্তাফিজের ফিফটি     • রাজধানীর আরও দুই ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান, খবর পেয়ে সবাই ক্লাব ছেড়ে পালিয়েছে     • দারুণ জয়ে বিশাল অবদান তরুণ টাইগার বিপ্লবের আগুন ঝড়া বোলিং তাণ্ডব      • তাণ্ডব চালিয়ে মাহমুদউল্লাহ ম্যাচসেরা নির্বাচিত      • জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ     • বাড়ির পাশ দিয়ে প্রেমিকের লা'শ নিয়ে যাওয়া দেখে প্রেমিকার আ'ত্মহ'ত্যা!     • শিশু মিমিকে গ'ণধ'র্ষণের পর হ'ত্যার দায়ে দুইজনকে ফাঁ'সিতে ঝুলিয়ে মৃ'ত্যুদ'ণ্ড কার্যকরের নির্দেশ     • পরপর ৬ উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের পথে টাইগাররা!

সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ০৫:১৭:৩৫

মিন্নিকে নিয়েই ব্যস্ত পুলিশ, ওদিকে ৪ আসামি এখনও অধরা!

মিন্নিকে নিয়েই ব্যস্ত পুলিশ, ওদিকে ৪ আসামি এখনও অধরা!

বরগুনা থেকে : বরগুনা সদরে রাস্তায় ফেলে রিফাত শরীফকে প্রকা'শ্যে কু'পিয়ে হ'ত্যার ৬০ দিন পূর্ণ হলো আজ। গত ২৬ জুন নৃ'শং'স এ হ'ত্যাকা'ণ্ডের ঘটনায় দেশব্যাপী তো'লপাড় সৃষ্টি হলেও এ মামলার এজাহারভুক্ত চার আসামিকে এখনও গ্রে'ফতার করতে পারেনি পুলিশ।

গ্রে'ফতার করা হয়েছে রিফাত হ'ত্যার প্রধান সাক্ষী ও তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে। মামলার প্রধান সাক্ষীকে গ্রে'ফতার ও জবানবন্দি নিয়ে সমালোচনা হলেও তাকে নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছে পুলিশ। অন্য আসামিরা অধরাই থেকে যাচ্ছে দিনের পর দিন।

রিফাত হ'ত্যা মামলার প্রধান আসামি সাব্বির আহমেদ ওরফে নয়ন বন্ড ব'ন্দুকযু'দ্ধে নিহ'ত হয়েছেন। একাধিক পক্ষের দাবি, নয়ন ব'ন্দুকযু'দ্ধে নিহ'ত হননি, তাকে খু'ন করা হয়েছে। একটি প্রভাবশালী মহলকে বাঁ'চাতে নয়নকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, একই উদ্দেশে গ্রে'ফতার করা হয়েছে রিফাতের স্ত্রী মিন্নিকেও। এখনও স্পষ্ট হয়নি রিফাত হ'ত্যার রহস্যজট। স্পষ্ট হয়নি হ'ত্যাকাণ্ডের নেপথ্য কারণ। এক ধরনের ধোঁয়াশায় কেটে গেছে ৬০ দিন।

নয়ন বন্ড গ্রুপের সঙ্গে যুক্ত এবং এই হ'ত্যাকা'ণ্ডে সম্পৃক্ততা রয়েছে এমন কয়েকজনকে সিসিটিভি ফুটেজে শনাক্ত করা হলেও তাদের আইনের আওতায় আনেনি পুলিশ। হ'ত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে গ্রেফতারের পর তাকে ঘিরেই ছিল পুলিশের সব তৎপরতা। 

মিন্নির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নিয়ে পুলিশ প্রশাসনের ‘কার্যসিদ্ধি’ মনোভাবের কারণে অন্য আসামিদের গ্রেফতারের বিষয়টি অনেকটাই চাপা পড়ে গেছে। এখন রিফাত হ'ত্যার সব দায় যেন মিন্নির ঘাড়ে চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা চলছে। নিম্ন আদালত ও হাইকোর্টে বারবার আবেদন করা সত্ত্বেও তার জামিন হচ্ছে না।

২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে কু'পিয়ে হ'ত্যা করা হয় রিফাত শরীফকে। ওই ঘটনার দুটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওতে দেখা যায়, নয়ন বন্ড ও রিফাত ফরাজী তাকে রা'ম দা দিয়ে কো'পাচ্ছে।

ঘটনার দিন থেকেই নি'খোঁজ হয় এ দুই যুবক। এর ছয় দিন পর ২ জুলাই নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে কথিত ব'ন্দুকযু'দ্ধে নিহ'ত হয়। ওই দিন রাতেই রিফাত ফরাজীকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ। রিফাত হ'ত্যার পর দিন তার বাবা আবদুল হালিম শরীফ বরগুনা থানায় ১২ জনকে আসামি করে মামলা করেন। 

এ ছাড়া সন্দেহভাজন অজ্ঞাতনামা আরও চার-পাঁচজনকে আ'সামি করা হয়। মামলার এজাহারভুক্ত ১২ আসামিসহ এ পর্যন্ত ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জনই স্বী'কারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এজাহারভুক্ত চার আসামি এখনও অধরা।

মামলার এজাহারভুক্ত ৫নং আসামি মুছা বন্ড, ৭নং আসামি মুহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, ৮নং আসামি রায়হান ও ১০নং আসামি মোহাম্মদ রিফাত হাওলাদার এখনও রয়েছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। এ ছাড়া সিসিটিভি ফুটেজে শনাক্ত নাইম ও বন্ড গ্রুপের অন্য কয়েকজনকে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শনাক্ত করার পরও তাদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এজাহারভুক্ত চার আসামিকে গ্রেফতার করতে না পারার বিষয়ে রিফাত হ'ত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বরগুনা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হুমায়ুন কবির বলেন, এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের তৎপরতা শুরু থেকেই অব্যাহত ছিল। বাকিদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

রিফাত হ'ত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে গ্রেফতার এবং রি'মান্ডে গিয়ে তার স্বী'কারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর থেকে মামলা ভিন্ন দিকে মোড় নেয়। ১৬ জুলাই সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বরগুনার মাইঠা এলাকার বাবার বাসা থেকে মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তার বক্তব্য রেকর্ড করতে বরগুনা পুলিশলাইনসে নিয়ে যায় পুলিশ। 

এর পর দীর্ঘ ১০ ঘণ্টার জি'জ্ঞাসাবাদ শেষে রাত ৯টায় মিন্নিকে রিফাত শরীফ হ'ত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। পর দিন আদালতে হাজির করে রি'মান্ড ও স্বী'কারোক্তমূলক জবানবন্দি নেয় পুলিশ। মিন্নির জামিনের আবেদনের বিপরীতে তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহের জন্যই পুলিশের আগ্রহ ছিল বেশি।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


কঠোর মায়েদের সন্তানের ভবিষ্যত উজ্জ্বল হয় - গবেষণা বলছে

কঠোর-মায়েদের-সন্তানের-ভবিষ্যত-উজ্জ্বল-হয়-গবেষণা-বলছে

পর্যাপ্ত টাকা যোগাড় করতে না পেরে নিজের লিভার দিয়ে মেয়েকে বাঁচালেন মা

পর্যাপ্ত-টাকা-যোগাড়-করতে-না-পেরে-নিজের-লিভার-দিয়ে-মেয়েকে-বাঁচালেন-মা

৪০-৪৫ বছর ধরে কাচ চিবিয়ে খেয়ে দিব্যি বেঁচে আছেন এই ব্যক্তি

৪০-৪৫-বছর-ধরে-কাচ-চিবিয়ে-খেয়ে-দিব্যি-বেঁচে-আছেন-এই-ব্যক্তি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


কি রোগ সেটা ডাক্তার শোনার আগেই আয়া এসে রোগীর কাপড় খুলে নেয়

ফাঁসির রায় শুনে হাসলেন আসামি, আর কাঁদলেন বাদী

ভারতের বিপক্ষে পাঁচটি ওয়ানডে এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ!

একসঙ্গে ঘুমাচ্ছিল, দুই ভাইয়ের সেই ঘুমকে চিরনিদ্রায় পরিণত করলো বিষধর সাপ

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ