বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুটি, পশুর লোমে ভরে যাচ্ছে তাসফিয়ার শরীর

১১:৪৯:৫১ বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • বাংলাদেশও দেখিয়ে দিলো লেগ স্পিনারের ভেলকি!     • ম্যাচ হেরে শুধুমাত্র বাংলাদেশের মাহমুদুল্লাহ'র প্রশংসা করলেন মাসাকাদজা     • টি-টোয়েন্টিতে মুস্তাফিজের ফিফটি     • রাজধানীর আরও দুই ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান, খবর পেয়ে সবাই ক্লাব ছেড়ে পালিয়েছে     • দারুণ জয়ে বিশাল অবদান তরুণ টাইগার বিপ্লবের আগুন ঝড়া বোলিং তাণ্ডব      • তাণ্ডব চালিয়ে মাহমুদউল্লাহ ম্যাচসেরা নির্বাচিত      • জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ     • বাড়ির পাশ দিয়ে প্রেমিকের লা'শ নিয়ে যাওয়া দেখে প্রেমিকার আ'ত্মহ'ত্যা!     • শিশু মিমিকে গ'ণধ'র্ষণের পর হ'ত্যার দায়ে দুইজনকে ফাঁ'সিতে ঝুলিয়ে মৃ'ত্যুদ'ণ্ড কার্যকরের নির্দেশ     • পরপর ৬ উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের পথে টাইগাররা!

বুধবার, ২৮ আগস্ট, ২০১৯, ০৫:১৬:৫৫

বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুটি, পশুর লোমে ভরে যাচ্ছে তাসফিয়ার শরীর

বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুটি, পশুর লোমে ভরে যাচ্ছে তাসফিয়ার শরীর

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে : বিরল রোগে আক্রান্ত তাসফিয়া। জন্মের পর থেকে পিঠে দেখা দেয় টিউমার। আস্তে আস্তে তা বড় হতে থাকে। সেই সঙ্গে গজিয়েছে পশুর মতো লোম। পুরো শরীরজুড়ে এর বিস্তৃতি ঘটেছে।

চার বছরের ছোট শিশুটি অসহ্য যন্ত্রণায় কাটছে প্রতিটি রাত। কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে বাধ্য হয়ে সে রাতেও কয়েকবার গোসল করে চেষ্টা করে যন্ত্রণা নির্বারণের। বিরল এই রোগে আক্রান্ত হওয়ায় এর চিকিৎসা পদ্ধতিও জানা নেই চিকিৎসকদের। রোগ মুক্তির আশায় পরিবারটির শেষ ভরসা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ।

চিকিৎসকরা বলছেন, এটি একটি বিরল রোগ। এখন পর্যন্ত দেশের কোথাও এমন রোগীর সন্ধান মেলেনি। তাদের মতে, রোগটির নাম দৈত্যাকৃতি জন্মগত লোমশ মোল (Gaint Congential Melanocytic Nevus) ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল পৌর এলাকার গোডাউনপাড়ার নির্মাণ শ্রমিক মাসুদুজ্জামান মামুনের চার বছরের শিশুকন্যা তাসফিয়া জাহান মুনিরা। দিনমজুর বাবার সাধ্য অনুযায়ী চিকিৎসার পরও মেলেনি রোগ মুক্তি, ক্রমেই এ রোগ শিশুটিকে ঠেলে দিচ্ছে মৃত্যুর দিকে।

নাচোল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. সুলতানা পাপিয়া জানান, রোগটি আসলে বিরল, আমরা কয়েকটি বিষয় মাথায় রেখে চিকিৎসা করছি। ধারণার ওপরই চলেছে চিকিৎসা প্রক্রিয়া। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর হয়তো বলা যাবে।

বিষেশজ্ঞ চিকিৎকরা টিম গঠন করে তাসফিয়ার চিকিৎসা করতে হবে। আমরা সেই প্রক্রিয়া অনুসরণ করেই তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছি। তাসফিয়ার মা তানজিলা খাতুন জানান, জন্মের পর থেকে এ রোগ। দিন দিন বাড়ছে, আমাদের সাধ্যমতো আমরা চিকিৎসা করেছি; কিন্তু কোনোভাবেই অসুখটি কমেছে না; বরং বাড়ছে।

রাতে তার শরীরে টিউমারের অংশটি আগুনের মতো গরম হয়ে যায়। আর তখন তার শরীরের যন্ত্রণা আরও বেড়ে যায়। তার শরীরে লোমের জন্য কেউ তার সঙ্গে মিশে না। তাকে নিয়ে খেলতে সংকোচ বোধ করে, এই কষ্ট সহ্য হচ্ছে না।

বাবা মাসুদুজ্জামান মামুন জানান, চিকিৎসকরা বলছেন- এ রোগের চিকিৎসা তাদের জানা নেই। আমি দিনমজুর তার পরও বিভিন্ন জায়গায় চিকিৎসা করিয়েছি; কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। এখন প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার আবেদন এ ধরনের বিষয়ে তিনি অনেক উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন। আমার মেয়ে চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়ার জন্য তার কাছে বিনীত আবেদন করছি।

স্থানীয় সমাজকর্মী ও সাংবাদিক সাকিল রেজাসহ কয়েকজন জানান, রাজশাহীর ডাক্তারা বলেছেন- এখানে তাসফিয়ার চিকিৎসা সম্ভব নয়। কারণ তারা রোগটি সঠিকভাবে শনাক্ত করতে পারছেন না। এর জন্য বিশেষজ্ঞ টিমের প্রয়োজন কিংবা দেশের বাইরে নিয়ে তাকে চিকিৎসা করা প্রয়োজন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, বুধবার আমরা টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারাও রোগটি চিহ্নিত করতে পারছেন না। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত পৌঁছাতে পারিনি।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


কঠোর মায়েদের সন্তানের ভবিষ্যত উজ্জ্বল হয় - গবেষণা বলছে

কঠোর-মায়েদের-সন্তানের-ভবিষ্যত-উজ্জ্বল-হয়-গবেষণা-বলছে

পর্যাপ্ত টাকা যোগাড় করতে না পেরে নিজের লিভার দিয়ে মেয়েকে বাঁচালেন মা

পর্যাপ্ত-টাকা-যোগাড়-করতে-না-পেরে-নিজের-লিভার-দিয়ে-মেয়েকে-বাঁচালেন-মা

৪০-৪৫ বছর ধরে কাচ চিবিয়ে খেয়ে দিব্যি বেঁচে আছেন এই ব্যক্তি

৪০-৪৫-বছর-ধরে-কাচ-চিবিয়ে-খেয়ে-দিব্যি-বেঁচে-আছেন-এই-ব্যক্তি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


কি রোগ সেটা ডাক্তার শোনার আগেই আয়া এসে রোগীর কাপড় খুলে নেয়

ফাঁসির রায় শুনে হাসলেন আসামি, আর কাঁদলেন বাদী

ভারতের বিপক্ষে পাঁচটি ওয়ানডে এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ!

একসঙ্গে ঘুমাচ্ছিল, দুই ভাইয়ের সেই ঘুমকে চিরনিদ্রায় পরিণত করলো বিষধর সাপ

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ