সুন্দরী জুঁইয়ের প্রতারণার ফাঁদে পড়ে সর্বস্বান্ত দুই স্বামী

০৮:১৫:০১ শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • মেডিকেলে চান্স পেলেন রাস্তার খুপরিতে থাকা হতদরিদ্র পরিবারের একমাত্র কন্যা মাহফুজা     • কারাগারের উচ্চ নিরাপত্তার ভেতরে থেকেও কারাগারে বসেই সাড়ে ৮ কোটি টাকা চুরি!     • প্রথম থেকেই শিরোপা জেতার লক্ষ্য নিয়ে খেলেছি: শান্ত     • চাচার লোভ আছে আমার সম্পত্তিতে : এরশাদপুত্র এরিক     • পরীক্ষায় শূন্য পাওয়া সারাফিনা এখন পদার্থ বিজ্ঞানের সেরা গবেষক     • ২১ বছর বয়সেই ভারতের বিচারপতি হয়ে নজির গড়তে চলেছেন প্রতাপ সিংহ!     • মাঝ আকাশে হঠাৎ যাত্রীবাহী বিমানে আ'গু'ন ও কালো ধোঁয়া!     • এক কোটি টাকায় আল্লু অর্জুনের সঙ্গে খোলামেলা হতে রাজি হলেন কাজল     • মদিনায় মৃত্যু: এই যুবকের শেষ ইচ্ছা ছিল হজ পালন ও মদিনা জিয়ারত     • ইসলাম নিয়ে সেই ষড়যন্ত্রেরই একটি অংশ বাবরি মসজিদ ভেঙে মন্দির নির্মাণ : চরমোনাই পীর

রবিবার, ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৪:২০:১৯

সুন্দরী জুঁইয়ের প্রতারণার ফাঁদে পড়ে সর্বস্বান্ত দুই স্বামী

সুন্দরী জুঁইয়ের প্রতারণার ফাঁদে পড়ে সর্বস্বান্ত দুই স্বামী

খুলনা থেকে : খুলনায় ফারহানা নাসরিন জুঁই নামে এক সুন্দরী তরুণীর প্রতারণায় আপন ভাই ও দুই স্বামী সর্বস্বান্ত হয়েছেন। প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে সহোদর ও দুই স্বামীর ১ কোটি ৬২ লাখ টাকা আত্মসাতের চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। এ অভিযোগে তার বিরুদ্ধে খুলনার আদালতে মামলা করা হয়েছে। 

মামলাটি তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) খুলনায় পাঠানো হয়েছে। এর আগে ৩রা সেপ্টেম্বর খুলনার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নালিশি মামলার আমলি আদালতে (দৌলতপুর থানা) মামলাটি দায়ের করেন ওই যুবতীর বড় ভাই মোস্তফা ফয়সাল। তিনি নগরীর গোয়ালখালী মেইন রোড এলাকার এসএম বাবর আলীর ছেলে। এছাড়াও মামলায় একাধিক পুরুষের সঙ্গে জুই’র অনৈতিক সম্পর্কের তথ্যও তুলে ধরা হয়েছে।

আদালতের সূত্র জানান, বাদীপক্ষে সিনিয়র আইনজীবী আব্দুল মালেক আদালতে মামলাটি দাখিল করেছেন। শুনানি শেষে মহানগর হাকিম মো. শাহীদুল ইসলাম মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআই খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বরাবর প্রেরণের নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে আগামী ১৫ই অক্টোবর মামলার পরবর্তী দিন ধার্যসহ তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দিয়েছেন। 

এজাহারে বাদী মোস্তফা ফয়সাল উল্লেখ করেন, তিনি ২০১২ সালে সরকারিভাবে চাকরি পেয়ে দক্ষিণ কোরিয়ায় যান। যাওয়ার প্রাক্কালে তার বোন ফারহানা নাসনির জুই বিদেশ থেকে অর্জিত অর্থ তার নামে প্রেরণ করতে বিভিন্নভাবে ফয়সালকে উদ্বুদ্ধ করেন। এমনকি বলেন, ‘বাবা ও মায়ের নামে টাকা পাঠালে তারা সব টাকা খরচ করে ফেলবে, দেশে ফিরে কিছুই পাবে না।’ 

এ ধরনের কথায় বিশ্বাস স্থাপন করে তিনি ২০১২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত চার বছরে বিভিন্ন সময়ে ইসলামী ব্যাংক দৌলতপুর শাখায় জুই’র নিজস্ব ব্যাংক হিসেবে ৬০ লাখ টাকা পাঠান। ২০১৬ সালে দেশে ফিরে তিনি জুই’র কাছে নিজের প্রেরিত টাকা ফেরত চান। কিন্তু সে আজকাল করে বিভিন্ন টালবাহানা শুরু করে। বিষয়টি নিয়ে পরিবারে অশান্তি তৈরি হয়। এ নিয়ে পারিবারিকভাবে একাধিকবার আলোচনা হলেও নানা অজুহাতে সে সময় ক্ষেপণ করে।

সর্বশেষ গত ৩১শে আগস্ট টাকা ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও সে রাখেনি। উপরন্তু ওইদিন সে টাকা ফেরত দিতে অস্বীকার করে। বাদী আরও উল্লেখ করেন, ২০০৬ সালে আয়ারল্যান্ড প্রবাসী জিয়াউর রহমানের সঙ্গে ফারহানা নাসরিন জুই’র প্রথম বিয়ে হয়। বিয়ের মাত্র তিন মাসের মধ্যেই জমি কেনার কথা বলে জুই তার কাছ থেকে তিন দফায় ১৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়।

এরই মধ্যে সে মো. ইমরান নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তার সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানতে পেরে স্বামী জিয়াউর রহমান আয়ারল্যান্ডেই স্ট্রোকে মারা যান। পরবর্তীতে ২০০৭ সালের ১১ই অক্টোবর ঢাকার ব্যবসায়ী মো. হুমায়ুন কবিরকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে বিয়ে করে জুই। বিয়ের পর তার কাছ থেকে বিভিন্ন মালামাল ও স্বর্ণালঙ্কারসহ ৮৪ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। আর্থিক বিষয় নিয়ে এক পর্যায়ে পারিবারিক দ্ব'ন্দ্ব তৈরি হয়। 

বিপুল অংকের এ অর্থ-সম্পদ স্থায়ীভাবে আ'ত্মসাতের উদ্দেশে জুই স্বামী হুমায়ুন কবিরের সাক্ষর জাল করে ২০০৮ সালের ২০শে ফেব্রুয়ারি একটি ভুয়া খোলা তালাকনামা তৈরি করে। ওই ঘটনায় স্বামী হুমায়ুন কবির স্ত্রী ফারহানা নাসরিন জুইসহ কয়েকজনকে আসামি করে খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে মামলা করেন। ওই মামলায় জুইসহ আসামিরা এক মাস কারাবাস করেন। মামলাটি বর্তমানে চলমান রয়েছে। 

এছাড়া জুই তার স্বামী হুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধেও যৌতুক ও নারী নি'র্যা'তনসহ একাধিক মামলা এবং হুমায়ুন কবিরও তার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেন। বাদী মোস্তফা ফয়সাল অভিযোগ করেন, তার এবং দুই ভগ্নিপতির বিপুল অংকের টাকা আত্মসাৎ করেই ক্ষান্ত হয়নি জুই। সে জহিরুল ইসলাম জনি, সাইফুল ইসলাম সাকিল, সায়মন ও মোস্তাফিজসহ আরো একাধিক পুরুষের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে। 

বিভিন্ন সময় সে তাদের বাসায় ডেকে আনে। এসব অপকর্মের প্রতিবাদ করার কারণে সে তার ওপর ক্ষি'প্ত হয়ে বিদেশ থেকে পাঠানো টাকা তো ফেরত দিচ্ছে না। উপরন্তু বহিরাগত সন্ত্রা'সীদের দিয়ে তার ক্ষতি করার ষ'ড়য'ন্ত্র করছে। এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ না নেয়া হলে বরগুনার মিন্নির মতো ভয়াবহ ঘটনা ঘটার আ'শ'ঙ্কা থেকে তিনি আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন। সূত্র : মানবজমিন ও জাগো নিউজ



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


চাকরি ছেড়ে ফ্ল্যাট বিক্রি করে সিঙ্গাড়া বিক্রি, ৪ বছরে কোটিপতি দম্পতি!

চাকরি-ছেড়ে-ফ্ল্যাট-বিক্রি-করে-সিঙ্গাড়া-বিক্রি-৪-বছরে-কোটিপতি-দম্পতি-

ভ্যানচালক ছেলেটি আজ বিসিএস ক্যাডার সরকারি চিকিৎসক

ভ্যানচালক-ছেলেটি-আজ-বিসিএস-ক্যাডার-সরকারি-চিকিৎসক

মাটির নিচে নয়, গাছের ডগায় হয় মিসরীয় পেঁয়াজ!

মাটির-নিচে-নয়-গাছের-ডগায়-হয়-মিসরীয়-পেঁয়াজ- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


পোলার্ডকে গাড়ি থেকে নামিয়ে তার ব্যাগপত্রও ফেলে দিলেন রোহিত শর্মা!

বিয়ের শপিং করতে কলকাতায় গেলেন মাশরাফি

যেসব খাবার খেলে দ্রুত লম্বা হবে শিশু

ইডেনের দিবা-রাত্রির টেস্টে ইতিহাস গড়লেন আল-আমিন

পাঠকই লেখক


নিজের বিয়েতে কনে এলেন কফিনে শুয়ে!

নিজের-বিয়েতে-কনে-এলেন-কফিনে-শুয়ে-

শেষ পর্যন্ত দোকানে বিক্রি হচ্ছে গোবরের কেক!

শেষ-পর্যন্ত-দোকানে-বিক্রি-হচ্ছে-গোবরের-কেক-

গাছে ধরে মিসরের পেঁয়াজ!

গাছে-ধরে-মিসরের-পেঁয়াজ- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ