জমি-জমা ভাগ হওয়ায় মায়ের যত্ন নিতে রাজি নন ছেলে মেয়েরা, বৃদ্ধা মাকে বেঁধে রাখলেন গোয়াল ঘরে!

০৬:০৭:০৩ বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • মা হারানো সেই শিশু মাহিমার দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম     • ১০ হাজার আমগাছ কেটে ফেলল দুর্বৃত্তদল!     • যাত্রীবাহী বাস উদ্ধারে ময়লা পানিতে নেমে পড়লেন ওসি     • ৬৭১ বস্তা সরকারি চালসহ ২ জনকে আটক      • আমার সবচেয়ে বড় ক্ষতি করেছেন হুমায়ূন আহমেদ: নায়ক রিয়াজ     • সাকিবকে দেখতে না পেয়ে হতাশ স্টেডিয়ামের সিকিউরিটি গার্ড!     • শিশিরের কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট ম্যাচের সময় পরিবর্তন     • মুসলিম নারীর জমি ফিরিয়ে দিতে গির্জা ভাঙার নির্দেশ দিল ইউরোপীয় আদালত     • বাবরি মসজিদ রায় নিয়ে স্ট্যাটাস, রাজ্যের ৯০ মুসলিম গ্রেফতার     • কেরানীগঞ্জে নানা কেমিকেল মিশিয়ে বড় পাতিলে চুলায় তৈরি হচ্ছিল ‘জনসন বেবি লোশন’

বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:১২:৫৬

জমি-জমা ভাগ হওয়ায় মায়ের যত্ন নিতে রাজি নন ছেলে মেয়েরা, বৃদ্ধা মাকে বেঁধে রাখলেন গোয়াল ঘরে!

 জমি-জমা ভাগ হওয়ায় মায়ের যত্ন নিতে রাজি নন ছেলে মেয়েরা, বৃদ্ধা মাকে বেঁধে রাখলেন গোয়াল ঘরে!

বরগুনা: পরম যত্নে সন্তানদের লালন-পালন করা বৃদ্ধা মায়ের ঠিকানা হয়েছে এখন গোয়ালঘরে। এমনকি মানসিক রোগী আখ্যা দিয়ে কোমড়ে শিকল পরিয়ে বেঁধেও রেখেছেন ছেলেরা। এমন অমানবিক ঘটনা ঘটেছে বরগুনা সদর উপজেলার গৌরিচন্না ইউনিয়নের চরধুপতি এলাকায়।

স্থানীয়রা জানান, গত ৫ মাস ধরে মা খবিরুন্নেসাকে (৭৫) গোয়ালঘরে বিছনা পেতে গরু বাঁধার রশি দিয়ে বেঁধে রাখেন তার দুই ছেলে। একদিন রশি খুলে তিনি মেয়ের বাড়িতে যাওয়ার পথে ফের তাকে ছেলেরা ধরে এনে একই স্থানে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখেন। শিকল বাঁধা অবস্থায় প্রায় ৫ মাস তিনি গোয়ালঘরেই জীবন-যাপন করছেন। বয়সের কারণে কানে একটু কম শুনলেও খবিরুন্নেসাকে তারা স্বাভাবিক হিসেবেই জানেন। মূলত জমি-জমা ভাগ হওয়ায় পর ছেলেদের কেউ বৃদ্ধা মায়ের যত্ন নিতে রাজি নন। যে কারণে তাকে অযত্ন অবহেলায় গোয়ালঘরে ফেলে রাখা হয়েছে। যাতে কোথাও যেতে না পারেন সে কারণে কোমড়ে লোহার শিকল পরিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে। ওই গোয়ালঘরেই দিনে একবার তাকে খাবার দেয়া হয়।

প্রতিবেশী হুমায়ুন কবীর জানান, খবিরুন্নেসা দুই ছেলে ও তিন মেয়ের জননী। দুই বছর আগে স্বামী আবদুল হামিদ খান মারা যাওয়ার পর তার সহায়-সম্পত্তি ছেলেমেয়েরা ভাগ করে নেন। মা খবিরুন্নেসার ভরণপোষণ নিয়ে ছেলেদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে বৈঠকে আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীদের সহায়তায় উভয়ে অর্ধেক ভরণপোষণের ভার বহন করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু ছেলেদের কেউই ঠিকমত মায়ের যত্ন নেননি। ছেলেদের অযত্ন অবহেলার শিকার হয়ে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েন তিনি। এছাড়াও রোগে শোকে কাতর খবিরুন্নেসার শারীরিক অবস্থারও অবনতি হতে থাকে। একপর্যায়ে ছেলেরা মাকে গোয়ালঘরে বিছানা পেতে সেখানে ফেলে রেখে মাত্র এক বেলা খাবার দিচ্ছেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ওই বাড়িতে গিয়ে বৃদ্ধা খবিরুন্নেসাকে অন্ধকারাচ্ছন্ন একটি গোয়াল ঘরের বিছানায় শিকলে বাঁধা অবস্থায় দেখা যায়। স্যাঁতস্যাঁতে ও নোংরা একটি বিছানায় বসে তিনি নাতি-নাতনিদের ডাকছিলেন। শিকলে বাঁধা থাকায় তিনি বিছানা ছেড়ে নামতেও পারছিলেন না। এমনকি মশার উপদ্রব থেকে রক্ষা পেতে মশারীরও কোনো ব্যবস্থা নেই।

এ সময় ছেলেদের ব্যাপারে জানতে চাইলে খবিরুন্নেসা বলেন, ‘আপনারা কারা বাবা, মোর পোলারা ভালো, হ্যারা মোরো ঠিকমতো খাওন-দাওন দেয়। মোর পোলাগো যেন কোনো সমস্যা না অয় বাবা।’

নানাভাবে জানতে চাইলেও ছেলেদের ব্যাপারে কোনো অভিযোগ করেননি তিনি। খবিরুন্নেসা বারবারই বলছিলেন, ‘আমার পোলারা আপনাগো দোয়ায় মোরে ঠিকমতো খাওন-দাওন দেয়, হ্যারা অনেক ভালো।’

ছোট ছেলে বাচ্চুকে এ সময় ঘরে পাওয়া যায়। বাচ্চু জানান, তিনি মায়ের ঠিকমতোই ভরণপোষণ দিচ্ছেন। গোয়ালঘরে কেন রাখলেন- জানতে চাইলে বাচ্চু বলেন, ‘মায়ের মাথায় সমস্যা, আমি বাহিরে কাজে ব্যস্ত থাকি। মা কোথায় কখন চলে যায় তাই বেঁধে রেখেছি।’

বড় ছেলে বাদলের ঘরে গিয়ে দেখা যায়, দামি সব আসবাবপত্র। বাদলকে বাড়িতে না পেলেও তার স্ত্রী বেবির সঙ্গে কথা হয়। বেবি বলেন, শাশুড়ি মানসিক রোগী। সে কারণে তাকে ছেলেরা বেঁধে রেখেছেন।

নির্মম এ ঘটনার খবর পেয়ে বুধবার সকালে বরগুনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওই বাড়িতে গিয়ে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করেন। এ সময় তাকে পরিধেয় বস্ত্র ও নগদ অর্থ প্রদান করে মেয়ে তাসলিমার জিম্মায় দেয়া হয়।

এ বিষয়ে গৌরিচন্না ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তানভীর হোসেন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে বৃদ্ধা খবিরুন্নেসাকে যথাসাধ্য সহায়তা দেয়া হবে। এছাড়াও তার ভরণপোষণ যাতে নিশ্চিত করা হয় সে ব্যাপারে ছেলেদের ডেকে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি ওই বৃদ্ধাকে নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছেন বলেও জানান।

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেন বলেন, বিষয়টি চরম অমানবিক। এটি সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় ছাড়া কিছু না। আমরা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বৃদ্ধা খবিরুন্নেসাকে উদ্ধার করে মেয়ে তাসলিমার জিম্মায় দিয়ে ছেলেদের ভরণপোষণ নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছি। এর ব্যত্যয় ঘটলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


পরীক্ষার চাপ কমাতে শিক্ষার্থীদের ‘কবরে শুয়ে থাকার’ পরামর্শ!

পরীক্ষার-চাপ-কমাতে-শিক্ষার্থীদের-‘কবরে-শুয়ে-থাকার’-পরামর্শ-

লিপস্টিক ব্যবহার করতে গিয়ে সচরাচর যে ভুলগুলো করে বসে নারীরা

লিপস্টিক-ব্যবহার-করতে-গিয়ে-সচরাচর-যে-ভুলগুলো-করে-বসে-নারীরা

খুব সহজে দ্রুত কোটি টাকার মালিক হতে চাইলে করুন এই চার ব্যবসা!

খুব-সহজে-দ্রুত-কোটি-টাকার-মালিক-হতে-চাইলে-করুন-এই-চার-ব্যবসা- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত শিশুটির পরিবারের সন্ধান মিলছে না

ভারতে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে আইসিসি থেকে সুসংবাদ পেলেন নাঈম

বালিশের নীচে এক কোয়া রসুন রাখুন, ফল পান ম্যাজিকের মতো!

কী হয়েছে ওর, বুঝে আসছে না, দরকার হলে ব্রেক: পাপন

পাঠকই লেখক


এক কাঁকড়ার দাম ৩৯ লাখ টাকা!

এক-কাঁকড়ার-দাম-৩৯-লাখ-টাকা-

সন্তানের আকুল কান্না মৃত্যুর জগত থেকে ফিরিয়ে এনেছে এক মৃত মাকে!

সন্তানের-আকুল-কান্না-মৃত্যুর-জগত-থেকে-ফিরিয়ে-এনেছে-এক-মৃত-মাকে-

বৃষ্টির জন্য আস্ত কৃত্রিম পাহাড় বানাচ্ছে আমিরাত!

বৃষ্টির-জন্য-আস্ত-কৃত্রিম-পাহাড়-বানাচ্ছে-আমিরাত- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ