শখের বশে সেই যে শুরু আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে

০৩:২২:০২ শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • হাবিবুল বাশারের মা আর নেই     • লাঞ্ছিত সেই বৃদ্ধদের বাড়ি নির্মাণ করে দিবেন ইউএনও     • করোনাভাইরাস: স্কটল্যান্ডে গণকবরের প্রস্তুতি!     • লাঞ্ছিত করা সেই বয়স্কদের দুঃখ প্রকাশ করার নির্দেশ     • আসন্ন গরমে বাংলাদেশ-ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ায় করোনার আগ্রাসন কমে আসবে!     • রিকশাচালক বললেন স্যার বের হইনি, ওসি বললেন বাজার নিয়ে এসেছি     • বিষয়টি দেখে ভ'য় পেয়ে যান বৃদ্ধ, হাতজোড় করে ক্ষমা চাওয়া বৃদ্ধকে বুকে টেনে নিলেন ডিসি     • ব্রেকিং- গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি     • ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ করোনায় আ'ক্রা'ন্ত     • করোনাভাইরাস: মসজিদের মুসল্লিদের লাঠিপেটা ভারতীয় পুলিশ

বুধবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১১:৪৯:০১

শখের বশে সেই যে শুরু আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে

 শখের বশে সেই যে শুরু আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে

শেরপুর (বগুড়া) : বগুড়ার শেরপুর উপজেলার প্রান্তিক গ্রামে ঘুরে খামারিদের বাড়িতে গিয়ে উৎসাহ উদ্দিপনা বৃদ্ধি করছেন শেরপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদের প্রধান কর্মকর্তা ডা. আমির হামজা। তারই ধারাবাহিকতায় উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের খোট্টাপাড়া গ্রামের আলহাজ্ব নুরুল ইসলামের ছেলে এগ্রিকালচার ডিপ্লোমা ডিগ্রিধারী মাইনুল ইসলাম পলাশের গরুর খামারে এখন সফলতার আলো এভাবেই গ্রামে গ্রামে ঘুরে সরেজমিনে পরিদর্শন করেন।

২০১৪ সালের মাঝামাঝি ৫ লাখ টাকা মূলধনের মাধ্যমে ৭ টি গর্ভবতী গাভী নিয়ে মাইনুল ইসলাম পলাশ শখের বশে শুরু করেন তার গাভীর খামার। এগ্রিকালচার ডিপ্লোমা ডিগ্রিধারী পলাশ জানান, ছোটবেলা থেকেই গবাদিপশু লালন-পালনের প্রতি তার আলাদা টান ছিল, ডিপ্লোমা পাশ করার পর যখন চাকরি হচ্ছিল না, তখনই সিদ্ধান্ত নেন গাভীর খামার করার। খামার শুরু করার ৬ মাসের ব্যবধানে গাভীগুলো বাচ্চা দেয় এবং গরুর সংখ্যা বেড়ে বাচ্চা সহ হয় ১৪ টি। সেই যে শুরু আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। দুধ আর বাছুর মিলে পলাশের খামারে সফলতার আলো পৌঁছে যায় দ্রুতই।

শেরপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের কারীগরি সহায়তায় বর্তমানে পলাশের খামারে মোট গাভী এবং বাছুরের সংখ্যা ৫০ টি। এর মধ্যে ২৮ টি গর্ভবতী গাভী, ১০টি দুধের গাভী এবং ১২টি বাছুর রয়েছে, যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৫০-৬০ লাখ টাকা। খামারি পলাশ জানান, তিনি বর্তমানে ৪০-৪৫ টাকা দরে দৈনিক ১০০ লিঃ দুধ বিক্রি করছেন। গর্ভবতী গাভীগুলো বাচ্চা দিলে দুধের উৎপাদন দৈনিক প্রায় ২০০লিটার হবে। গাভীগুলো দেখাশুনার জন্য ৩ জন লোক তার খামারে নিয়মিত কাজ করছেন। খর এবং কাচা ঘাস নিজের জমির হওয়ায় গরুর দানাদার খাদ্য এবং শ্রমিকদের মজুরি বাবদ তার মাসিক খরচ হয় গড়ে ৭৫ হাজার টাকা। দুধ বিক্রি করে মাসিক আয় হয় প্রায় ১ লাখ টাকা।

পলাশ জানান, তার খামারের মূল আয় আসে মূলত ষাড় বাছুর বিক্রি এবং গর্ভবতী গাভী বিক্রি করার মাধ্যমে। ভালো জাতের হওয়ায় প্রতিটি ৬-৭ মাস বয়সী বাছুর বিক্রি করেন গড়ে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা। তিনি আরও জানান, বর্তমানে এই খামার থেকে প্রতি বছর তার আয় হচ্ছে প্রায় আট লাখ টাকা। পলাশের ইচ্ছা সফলতার এই ধারা অব্যাহত থাকলে তিনি তার খামারে ১০০টি গাভী লালন-পালন করবেন।

পরিদর্শনের সময় প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: আমির হামজা বলেন, আমরা সবসময়ই খামারীদের পাশে আছি। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা- কর্মচারীরা সবসময়ই খামারীদের প্রয়োজন অনুযায়ী খামার গুলো পরিদর্শণ করছে যদিও আমার দায়িত্বের অতিরিক্ত এই কাজ তার পরও জনগনের সার্থে সাথে আমরাও আছি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আমির হামজার সহযোগী সম্প্রতি যোগদান করা এনএটিপি, এলডিডিপি প্রকল্পের দুই জন কর্মকর্তা ডাঃ মিজবাহ এবং সানজিদা হকসহ উপ-সহকারী প্রানিসম্পদ অফিসার লাভলু, এলএসপি নুরুল হকসহ খামারিরা। প্রাণিসম্পদক কর্মকর্তা ডা: আমির হামজা আরো বলেন, শিক্ষিত যুবকরা যদি বসে না থেকে মাইনুল ইসলাম পলাশের মত খামার করে পরিচর্যা করে তাহলে তারাও যেমন লাভবান হবে দেশও উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


করোনাভাইরাস নিয়ে যত ভুল ধারণা, জবাব দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনাভাইরাস-নিয়ে-যত-ভুল-ধারণা-জবাব-দিল-বিশ্ব-স্বাস্থ্য-সংস্থা

মোবাইল ফোনে ৯ দিন বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস!

মোবাইল-ফোনে-৯-দিন-বেঁচে-থাকতে-পারে-করোনাভাইরাস-

করোনা সংক্র'মণ ঠেকাতে বাইরে থেকে ঘরে ফিরেই যা যা করতে হবে

করোনা-সংক্র-মণ-ঠেকাতে-বাইরে-থেকে-ঘরে-ফিরেই-যা-যা-করতে-হবে এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


২৪ ঘন্টায় দেশে মা'রা যাননি কেউ, সুস্থ হয়ে উঠলেন ১১ জন

এবার করোনাভাইরাসে আক্রা'ন্ত হওয়ার নতুন আরেক উপসর্গ

অবশেষে খোঁজ মিলল সেই মাছ বিক্রেতা নারীর যিনি প্রথম বিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়ান!

করোনাভাইরাস: সারাদেশে একযোগে আযানের ধ্বনি

বিচিত্র জগৎ


মহিলার এক হাঁচিতেই নষ্ট হলো ২৬ লাখ টাকার খাবার!

মহিলার-এক-হাঁচিতেই-নষ্ট-হলো-২৬-লাখ-টাকার-খাবার-

২০০০ বছর আগেই করোনাভাইরাসের কথা বলেছিল তুর্কি ক্যালেন্ডার!

২০০০-বছর-আগেই-করোনাভাইরাসের-কথা-বলেছিল-তুর্কি-ক্যালেন্ডার-

নারী থেকে পুরুষ হওয়া সেলিমকে দেখতে এলাকাবাসীর ভিড়

নারী-থেকে-পুরুষ-হওয়া-সেলিমকে-দেখতে-এলাকাবাসীর-ভিড় বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ