‘ক্বছর’ সালাত আদায় প্রসঙ্গে মহানবী (সা.) যা বলেছেন

১০:০১:৫৭ রবিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • সুচির পোস্টে চীনা প্রেসিডেন্টকে 'মল ভর্তি গর্ত' বলে দুঃখ প্রকাশ!     • ইউক্যালিপটাস গাছের জন্য অস্ট্রেলিয়ায় ভ'য়াব'হ দাবানল!     • ভারতে খুলে দেওয়া হলো ১৭০ বছর পুরানো মসজিদের দরজা     • প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর অন্তর'ঙ্গ মুহুর্তে দেখে ফেলেছিল স্বামী, তারপরই মর্মা'ন্তিক পরি'ণতি!     • এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসায় পূর্ণ সহায়তা দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ     • যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যু'দ্ধ শুরু হলে ইরান ধ্বং'স হয়ে হবে : ডোনাল্ড ট্রাম্প     • ইরানের পাশে দাঁড়িয়ে ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানিকে ক'ড়া হুঁশি'য়ারি দিল রাশিয়া     • 'পাকিস্তানপ্রেমী' বাঙালিদের তোপের মুখে পড়েছেন মুশফিক     • আমার মেয়ে আর তার বর রাজপরিবারকে ধ্বংস করছে : মেগানের বাবা থমাস     • ঢাকা ছাড়ার আগে যে বাংলাদেশি অলরাউন্ডারের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ বলে জানিয়ে গেলেন আন্দ্রে রাসেল

রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫, ০৮:২৫:৫০

‘ক্বছর’ সালাত আদায় প্রসঙ্গে মহানবী (সা.) যা বলেছেন

‘ক্বছর’ সালাত আদায় প্রসঙ্গে মহানবী (সা.) যা বলেছেন

ইসলাম ডেস্ক: মূলত সফর অথবা ভীতির সময়ে ছালাতে ‘ক্বছর’ করার অনুমতি রয়েছে। যেমন মহান আল্লাহ তা’য়ালা বলেন-

وَإِذَا ضَرَبْتُمْ فِي الْأَرْضِ فَلَيْسَ عَلَيْكُمْ جُنَاحٌ أَنْ تَقْصُرُوْا مِنَ الصَّلاَةِ إِنْ خِفْتُمْ أَن يَّفْتِنَكُمُ الَّذِيْنَ كَفَرُوْا إِنَّ الْكَافِرِيْنَ كَانُوا لَكُمْ عَدُوًّا مُبِِيْنًا- (النساء )-
অর্থ : ‘যখন তোমরা সফর কর, তখন তোমাদের ছালাতে ‘ক্বছর’ করায় কোন দোষ নেই। যদি তোমরা আশংকা কর যে, কাফেররা তোমাদেরকে উত্যক্ত করবে। নিশ্চয়ই কাফেররা তোমাদের প্রকাশ্য শত্রু’ (নিসা ৪/১০১)।

‘ক্বছর’ অর্থ কমানো। পারিভাষিক অর্থে : চার রাক‘আত বিশিষ্ট ছালাত দু’রাক‘আত করে পড়াকে ‘ক্বছর’ বলে। মক্কা বিজয়ের সফরে রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) ক্বছরের সাথে ছালাত আদায় করেন। শান্তিপূর্ণ সফরে ক্বছর করতে হবে কি-না এ সম্পর্কে ওমর ফারূক (রাঃ)-এর এক প্রশ্নের জবাবে রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, صَدَقَةٌ تَصَدَّقَ اللهُ بِهَا عَلَيْكُمْ فَاقْبَلُوْا صَدَقَتَهُ-‘আল্লাহ এটিকে তোমাদের জন্য ছাদাক্বা (উপঢৌকন) হিসাবে প্রদান করেছেন। অতএব তোমরা তা গ্রহণ কর’। সফর অবশ্যই আল্লাহ্র প্রতি আনুগত্যের সফর হ’তে হবে, গোনাহের সফর নয়’।

সফরের দূরত্ব (مسافة السفر) :
সফরের দূরত্বের ব্যাপারে বিদ্বানগণের মধ্যে এক মাইল হ’তে ৪৮ মাইলের বিশ প্রকার বক্তব্য রয়েছে। পবিত্র কুরআনে দূরত্বের কোন ব্যাখ্যা নেই। কেবল সফরের কথা আছে। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) থেকেও এর কোন সীমা নির্দেশ করা হয়নি। অতএব সফর হিসাবে গণ্য করা যায়, এরূপ সফরে বের হ’লে নিজ বাসস্থান থেকে বেরিয়ে কিছুদূর গেলেই ‘ক্বছর’ করা যায়। কোন কোন বিদ্বানের নিকটে সফরের নিয়ত করলে ঘর থেকেই ‘ক্বছর’ শুরু করা যায়। তবে ইবনুল মুনযির বলেন যে, সফরের উদ্দেশ্যে রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) মদীনা শহর ছেড়ে বের হয়ে যাওয়ার পূর্বে ‘ক্বছর’ করেছেন বলে আমি জানতে পারিনি’। তিনি বলেন, বিদ্বানগণ একমত হয়েছেন যে, সফরের নিয়তে বের হয়ে নিজ গ্রাম (বা মহল্লার) বাড়ীসমূহ অতিক্রম করলেই তিনি ক্বছর করতে পারেন।
আমরা মনে করি যে, মতভেদ এড়ানোর জন্য ঘর থেকেই দু’ওয়াক্তের ফরয ছালাত ক্বছর ও সুন্নাত ছাড়াই পৃথক দুই এক্বামতের মাধ্যমে জমা করে সফরে বের হওয়া ভাল। তাবূকের অভিযানে রাসূল (ছাঃ) ও ছাহাবীগণ এটা করেছিলেন।

আব্দুল্লাহ ইবনে আববাস (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) ১৯ দিন (মক্কা বিজয় অথবা তাবূক অভিযানে) অবস্থানকালে ‘ক্বছর’ করেছেন। আমরাও তাই করি। তার বেশী হ’লে পুরা করি। যদি কারু সফরের মেয়াদ নির্দিষ্ট থাকে, তথাপি তিনি ‘ক্বছর’ করবেন, যতক্ষণ না তিনি সেখানে স্থায়ী বসবাসের সংকল্প করেন। সিদ্ধান্তহীন অবস্থায় ১৯ দিনের বেশী হ’লেও ‘ক্বছর’ করা যায়। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) তাবূক অভিযানের সময় সেখানে ২০ দিন যাবৎ ‘ক্বছর’ করেন। আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রাঃ) আযারবাইজান সফরে গেলে পুরা বরফের মৌসুমে সেখানে আটকে যান ও ছ’মাস যাবৎ ক্বছরের সাথে ছালাত আদায় করেন। অনুরূপভাবে হযরত আনাস (রাঃ) শাম বা সিরিয়া সফরে এসে দু’বছর সেখানে থাকেন ও ক্বছর করেন।
অতএব স্থায়ী মুসাফির যেমন জাহায, বিমান, ট্রেন, বাস ইত্যাদির চালক ও কর্মচারীগণ সফর অবস্থায় সর্বদা ছালাতে ক্বছর করতে পারেন এবং তারা দু’ওয়াক্তের ছালাত জমা ও ক্বছর করতে পারেন।

মোটকথা ভীতি ও সফর অবস্থায় ‘ক্বছর’ করা উত্তম। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) সফরে সর্বদা ক্বছর করতেন। হযরত ওমর, আলী, ইবনু মাসঊদ, ইবনু আববাস (রাঃ) প্রমুখ সফরে ক্বছর করাকেই অগ্রাধিকার দিতেন। হযরত ওছমান ও হযরত আয়েশা (রাঃ) প্রথম দিকে ক্বছর করতেন ও পরে পুরা পড়তেন। আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রাঃ) জামা‘আতে পুরা পড়তেন ও একাকী ক্বছর করতেন। কেননা আল্লাহ বলেন, ‘সফর অবস্থায় ছালাতে ‘ক্বছর’ করলে তোমাদের জন্য কোন গোনাহ নেই’ (নিসা ৪/ ১০১)।
২৫ আগস্ট,২০১৫/এমটিনিউজ২৪/রাসেল/এমআর



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


আল্লাহ যাদের রক্ষা করেন, তাদেরকে কেউ ক্ষতি করতে পারে না

আল্লাহ-যাদের-রক্ষা-করেন-তাদেরকে-কেউ-ক্ষতি-করতে-পারে-না

জীবনের সার্বিক সফলতার সর্বোত্তম দোয়া

জীবনের-সার্বিক-সফলতার-সর্বোত্তম-দোয়া

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরির প্রবেশপথে কোরআনের আয়াত!

হার্ভার্ড-বিশ্ববিদ্যালয়ের-লাইব্রেরির-প্রবেশপথে-কোরআনের-আয়াত- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


যেসব মেয়েদের সাথে সম্পর্কে জড়ানো উচিত নয়

যেসব-মেয়েদের-সাথে-সম্পর্কে-জড়ানো-উচিত-নয়

বিয়ের আসরে অসহায় পথশিশুদের নিজ হাতে খাওয়ালেন কনে!

বিয়ের-আসরে-অসহায়-পথশিশুদের-নিজ-হাতে-খাওয়ালেন-কনে-

মা হওয়া অসম্ভব, অতঃপর যা করলেন মুকেশ আম্বানীর স্ত্রী নীতা আম্বানী

মা-হওয়া-অসম্ভব-অতঃপর-যা-করলেন-মুকেশ-আম্বানীর-স্ত্রী-নীতা-আম্বানী এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


হযরত আলী (রা.) এর মাজার জিয়ারত করতে এসে আল্লাহর রহমতে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেল এই অন্ধ শিশু

সকালে খালি পেটে রসুন খাওয়ার উপকারিতা

অধিনায়ক হিসেবে এটিই আমার প্রথম শিরোপা : রাসেল

যেসব মেয়েদের সাথে সম্পর্কে জড়ানো উচিত নয়

বিচিত্র জগৎ


নিজের ছোট্ট সন্তানকে ওয়াশিংমেশিনে ঢোকালেন মা, অতঃপর কান্নার রোল!

নিজের-ছোট্ট-সন্তানকে-ওয়াশিংমেশিনে-ঢোকালেন-মা-অতঃপর-কান্নার-রোল-

বিয়ের দু’সপ্তাহ পর ইমাম জানলেন স্ত্রী পুরুষ হিজরা!

বিয়ের-দু’সপ্তাহ-পর-ইমাম-জানলেন-স্ত্রী-পুরুষ-হিজরা-

'স্বামী দাঁত মাজে না' তাই ডিভোর্স চাইলেন স্ত্রী

-স্বামী-দাঁত-মাজে-না--তাই-ডিভোর্স-চাইলেন-স্ত্রী বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ