ঘূর্ণিঝড়ের সময় রাসূল (সা.) যা করতে বলেছেন

১০:২৫:১৯ বুধবার, ২২ জানুয়ারী ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • নামাজ পড়তে মসজিদে যাওয়ার সময় পিকআপ চা’পায় স্কুলছাত্র নিহ'ত     • কঠিন ল'ড়াইয়ের পর ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ নারী দল     • সিরিয়ায় ভ'য়াব'হ বিমান হা'মলা, নিহ'ত ৫৪     • কঠিন সময় পার করছি, তবে ফিরবো আরো কঠিন হয়ে : সাকিব     • সোলাইমানির জানাজায় কোটি-কোটি জনতার উপস্থিতি মার্কিন ষড়'যন্ত্র ন'স্যাৎ করেছে: রুহানি     • পাকিস্তান সফরের জন্য দেশ ছাড়ল তামিম-সৌম্যরা     • ইরানের সঙ্গে ওমান : মধ্যপ্রাচ্যে নতুন সম্পর্কের রসায়ন     • সমস্যা সমাধানে একসঙ্গে কাজ করতে চায় চির প্রতিদ্ব'ন্দ্বী সৌদি আরব ও ইরান     • পাকিস্তানের নিরাপত্তা নয়, সিরিজ জয়ে চোখ বাংলাদেশের: মাহমুদউল্লাহ     • বাউল গানের বিশ্ব ঐতিহ্য যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয়: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

শুক্রবার, ০৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:১৯:২৫

ঘূর্ণিঝড়ের সময় রাসূল (সা.) যা করতে বলেছেন

ঘূর্ণিঝড়ের সময় রাসূল (সা.) যা করতে বলেছেন

ইসলাম ডেস্ক: ৪৩ বছর পর সবচেয়ে শক্তিশালী আঘাত বয়ে আনছে ফনি বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। অতিপ্রবল এ ঘূর্ণিঝড় আগামীকাল শুক্রবার বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। বাংলাদেশ অতিক্রম করার সময় এটির গতি হবে ঘণ্টায় ১৫০ থেকে ১৮০ কিলোমিটার। ধেয়ে আসা অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় ফনির কারণে হতে পারে জলোচ্ছ্বাসও। সমুদ্রবন্দরগুলোতে সাত নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

প্রাকৃতিক এ মহাবিপর্যয়ে ইতিমধ্যে দেশব্যাপী আতংক শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে সমুদ্র উপকূলে বসবাসকারীদের নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বলা হয়েছে। প্রাকৃতিক এমন দুর্যোগ-দুর্ঘটনা আল্লাহ তায়ালার ইচ্ছারই বহিঃপ্রকাশ।

পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তায়ালা বলেন, আকাশ ও পৃথিবী সৃষ্টিতে, তার নির্দেশে বায়ুর দিক পরিবর্তনে এবং তার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত মেঘমালাতে জ্ঞানবান জাতির জন্য নিদর্শন রয়েছে। (সুরা বাকারা, আয়াত: ১৬৪)

তবে মানুষের গুনাহ ও কৃতকর্মের কারণেই এ ধরনের বিপর্যয় ঘটে থাকে। সমাজে অন্যায়-অনাচার বেড়ে গেলেই প্রাকৃতিক দুর্যোগের বেশি আশঙ্কা থাকে। আল্লাহ তায়ালা বলেন, জল–স্থলে বিপর্যয় মানুষের কৃতকর্মের ফল। ( সুরা-৩০ রুম, আয়াত: ৪১)।

তাই বিভিন্ন হাদিসে রাসূল (সা.) প্রাকৃতিক দুর্যোগের অনেক কারণ উল্লেখ করেছেন। রাসূল (সা.) নিজেও উম্মতের ওপর এসব দুর্যোগের ব্যাপারে শঙ্কিত ছিলেন। এই উম্মতকে যেন প্রাকৃতিক দুর্যোগ দিয়ে একসঙ্গে ধ্বংস করা না হয় এ জন্য রাসূল (সা.) আল্লাহর কাছে দোয়া করেছেন।

প্রাকৃতিক বিপর্যয় দেখা দিলে রাসূল (সা.) বিচলিত হয়ে পড়তেন। আল্লাহর শাস্তির ভয় করতেন। বেশি বেশি তওবা-ইস্তেগফার করতেন এবং সাহাবাদের তা করার নির্দেশ দিতেন। ঝড়-তুফান শুরু হলে রাসূল (সা.) মসজিদে চলে যেতেন। নফল নামাজে দাঁড়িয়ে আল্লাহর দরবারে ক্ষমা প্রার্থনা করতেন।

এ জন্য ঘূর্ণিঝড় ফনির আগমনে আমাদেরও এ আমলগুলোর প্রতি যত্মবান হতে হবে। বিশেষত অতীতের সব গুনাহ ও ভুলের জন্য আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিতে হবে। পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় ও প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেতে রাসূল (সা.) কয়েকটি দোয়া শিখিয়েছেন।

জোরে বাতাশ প্রবাহিত হলে যে দোয়া পড়তে হবে ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺇِﻧِّﻲ ﺃَﺳْﺄَﻟُﻚَ ﺧَﻴْﺮَﻫَﺎ، ﻭَﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﻣِﻦْ ﺷَﺮِّﻫَﺎ উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা খাইরাহা, ওয়া আউযুবিকা মিন শাররিহা

অর্থ: হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট এর কল্যাণটাই কামনা করি। এবং আপনার নিকট এর অনিষ্ট থেকে আশ্রয় চাই। আবূ দাউদ ৪/৩২৬, নং ৫০৯৯; ইবন মাজাহ্ ২/১২২৮, নং ৩৭২৭।

মেঘের গর্জন হলে যে দোয়া পড়তে হবে- হজরত আব্দুল্লাহ ইবন যুবাইর (রা.) যখন মেঘের গর্জন শুনতেন তখন কথা বলা বন্ধ করে দিতেন এবং পবিত্র কোরআনের এই আয়াত তিলাওয়াত করতেন- سُبْحَانَ الَّذِي يُسَبِّحُ الرَّعْدُ بِحَمْدِهِ، والـمَلائِكَةُ مِنْ خِيْفَتِهِ
উচ্চারণ: সুবহানাল্লাজি ইউসাব্বিহুর রা`দু বিহামদিহি ওয়াল মালাইকাতু মিন খিফাতিহি অর্থ: পাক-পবিত্র সেই মহান সত্তা- তাঁর প্রশংসা পাঠ করে বজ্র এবং সব ফেরেশতা।

হজরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) বলেছেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মেঘের গর্জন শুনলে বা বিদ্যুতের চমক দেখলে সঙ্গে সঙ্গে এই দোয়া করতেন- اللَّهُمَّ لا تَقْتُلْنَا بِغَضَبِكَ ، وَلا تُهْلِكْنَا بِعَذَابِكَ ، وَعَافِنَا قَبْلَ ذَلِكَ
উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা লা- তাক্বতুলনা- বিগযাবিকা ওয়া লা-তুহলিকনা- বিআ’জা-বিকা, ওয়া আ’-ফিনা- ক্বাব্লা যা-লিকা।

অর্থ: হে আমাদের প্রভু! আমাদেরকে তোমার ক্রোধের কারণে মেরে ফেলো না আর তোমার আযাব দিয়ে আমাদের ধ্বংস করো না। বরং এর আগেই আমাদেরকে ক্ষমা ও নিরাপত্তার চাদরে আবৃত করে নাও। (তিরমিজি)

ঝড় বা বাতাশ থেকে বাঁচতে যে দোয়া পড়তে হবে- ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺇِﻧِّﻲ ﺃَﺳْﺄَﻟُﻚَ ﺧَﻴْﺮَﻫَﺎ، ﻭَﺧَﻴْﺮَ ﻣَﺎ ﻓِﻴﻬَﺎ، ﻭَﺧَﻴْﺮَ ﻣَﺎ ﺃُﺭْﺳِﻠَﺖْ ﺑِﻪِ، ﻭَﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﻣِﻦْ ﺷَﺮِّﻫَﺎ، ﻭَﺷَﺮِّ ﻣَﺎ ﻓِﻴﻬَﺎ، ﻭَﺷَﺮِّ ﻣَﺎ ﺃُﺭْﺳِﻠَﺖْ ﺑِﻪِ উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা মিন খাইরি হাজিহির রিহি ওয়া খাইরা মা ফিহা ওয়া খাইরা মা উরসিলাত বিহি, ওয়া আউযুবিকা মিন শাররিহা, ওয়া শাররি মা ফিহা ওয়া শাররি মা উরসিলাত বিহি’ অর্থ: হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট প্রার্থনা করি এর কল্যাণ, এর মধ্যকার কল্যাণ এবং যা এর সাথে প্রেরিত হয়েছে তার কল্যাণ। আর আমি আপনার আশ্রয় চাই এর অনিষ্ট থেকে, এর ভেতরে নিহিত অনিষ্ট থেকে এবং যা এর সঙ্গে প্রেরিত হয়েছে তার অনিষ্ট থেকে। (বুখারী, ৪/৭৬, ৩২০৬ ও ৪৮২৯)
আল্লাহ তায়ালা আমাদের সব গুনাহ ক্ষমা করে ঘূর্ণিঝড় ফনিসহ অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে নিরাপদ রাখুন। আমিন।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


আল্লাহ যাদের রক্ষা করেন, তাদেরকে কেউ ক্ষতি করতে পারে না

আল্লাহ-যাদের-রক্ষা-করেন-তাদেরকে-কেউ-ক্ষতি-করতে-পারে-না

জীবনের সার্বিক সফলতার সর্বোত্তম দোয়া

জীবনের-সার্বিক-সফলতার-সর্বোত্তম-দোয়া

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরির প্রবেশপথে কোরআনের আয়াত!

হার্ভার্ড-বিশ্ববিদ্যালয়ের-লাইব্রেরির-প্রবেশপথে-কোরআনের-আয়াত- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


মাত্র ৫ মিনিটে পেটের মেদ কমাতে যা করবেন

মাত্র-৫-মিনিটে-পেটের-মেদ-কমাতে-যা-করবেন

বিয়ের পর বেশিরভাগ মেয়েদের মোটা হওয়ার রহস্য উন্মোচন

বিয়ের-পর-বেশিরভাগ-মেয়েদের-মোটা-হওয়ার-রহস্য-উন্মোচন

ক্যানসারের ঠেকাতে এই সবজির ভূমিকা অত্যন্ত কার্যকরী

ক্যানসারের-ঠেকাতে-এই-সবজির-ভূমিকা-অত্যন্ত-কার্যকরী এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


বিয়ের পর বেশিরভাগ মেয়েদের মোটা হওয়ার রহস্য উন্মোচন

ক্যানসারের ঠেকাতে এই সবজির ভূমিকা অত্যন্ত কার্যকরী

সামুদ্রিক মাছ খেয়ে এক রাতেই যুবতী থেকে বৃদ্ধা!

ওয়ানডে বিশ্বকাপ এককভাবে আয়োজন করবে বাংলাদেশ!

বিচিত্র জগৎ


সামুদ্রিক মাছ খেয়ে এক রাতেই যুবতী থেকে বৃদ্ধা!

সামুদ্রিক-মাছ-খেয়ে-এক-রাতেই-যুবতী-থেকে-বৃদ্ধা-

নিজের ছোট্ট সন্তানকে ওয়াশিংমেশিনে ঢোকালেন মা, অতঃপর কান্নার রোল!

নিজের-ছোট্ট-সন্তানকে-ওয়াশিংমেশিনে-ঢোকালেন-মা-অতঃপর-কান্নার-রোল-

'স্বামী দাঁত মাজে না' তাই ডিভোর্স চাইলেন স্ত্রী

-স্বামী-দাঁত-মাজে-না--তাই-ডিভোর্স-চাইলেন-স্ত্রী বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ