ওবায়দুলের ফাঁসির রায়ে আদালত চত্বরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন রিশার মা

০৬:৫৯:৫৫ বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯


বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ০৬:৩১:৫১

ওবায়দুলের ফাঁসির রায়ে আদালত চত্বরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন রিশার মা

ওবায়দুলের ফাঁসির রায়ে আদালত চত্বরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন রিশার মা

ঢাকা: রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা হ'ত্যা মামলার রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি জানিয়েছেন নিহ'তের মা তানিয়া হোসেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে আসামি ওবায়দুলের মৃ'ত্যুদ'ণ্ডের রায় শোনার পর আদালত চত্বরে কান্নায় ভে'ঙে পড়েন তিনি।

তিনি বলেন, ‘রায়ে আমি খুশি। ফাঁ'সির রায় যেন দ্রুত কার্যকর করা হয়। আমার মতো যেন আর কোনো মায়ের কোল খালি না হয়।’

এদিকে রায় শোনার জন্য এদিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবুল হোসেন ও গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান আরেফুর রহমান টিটু। তারাও রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে তা দ্রুত কার্যকরের দাবি জানান।

এদিন আদালতে আরও উপস্থিত ছিল উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরাও। রায় শুনে তারা সন্তোষ প্রকাশ করে এবং রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি জানায়।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, পাঁচ-ছয় মাস আগে রিশা ও তার মা তানিয়া ইস্টার্ন মল্লিকা মার্কেটে বৈশাখী টেইলার্সে কাপড় সেলাই করাতে যান। এ সময় তার মা ওই দোকানের রসিদের রিসিভ কপিতে ফোন নম্বর দিয়ে আসেন। ওই টেইলার্সের কর্মচারী ওবায়দুল রিসিভ কপি থেকে ফোন নম্বর নিয়ে রিশাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে বিরক্ত করতো। রিশার মা এ বিষয়ে ওবায়দুলকে সত'র্ক করেন।

২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট রিশা ও তার বন্ধু মুনতারিফ রহমান রাফি পরীক্ষা শেষে কাকরাইল ওভারব্রিজ পার হওয়ার সময় ওবায়দুল রিশাকে আবারও প্রেমের প্রস্তাব দেয়। রিশা তা প্রত্যাখ্যান করলে ওবায়দুল তাকে ছু'রিকাঘা'ত করে।

পরে র'ক্তা'ক্ত অবস্থায় রিশাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮ আগস্ট মা'রা যায় রিশা।

ছু'রিকাঘা'তের ঘটনায় ২৪ আগস্ট রিশার মা তানিয়া হোসেন বাদী হয়ে রমনা থানায় একটি মামলা করেন। পরে মামলাটি হ'ত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়।

২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর ওবায়দুলকে একমাত্র আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রমনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলী হোসেন।

২০১৭ সালের ১৭ এপ্রিল ঢাকা মহানগর অষ্টম অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবুল কাশেম আসামি ওবায়দুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। মামলায় ২৬ সাক্ষীর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ২২ জনের সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


মানবজাতির প্রতি পবিত্র কোরআনের অমূল্য উপদেশ

মানবজাতির-প্রতি-পবিত্র-কোরআনের-অমূল্য-উপদেশ

ঘূর্ণিঝড়ের সময় রাসূল (সা.) যা করতে বলেছেন

ঘূর্ণিঝড়ের-সময়-রাসূল-সা-যা-করতে-বলেছেন

৬৫ কোটি টাকায় বিক্রি হলো কোরআন তেলাওয়াতের এই ছবি!

৬৫-কোটি-টাকায়-বিক্রি-হলো-কোরআন-তেলাওয়াতের-এই-ছবি- ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


পরীক্ষার চাপ কমাতে শিক্ষার্থীদের ‘কবরে শুয়ে থাকার’ পরামর্শ!

পরীক্ষার-চাপ-কমাতে-শিক্ষার্থীদের-‘কবরে-শুয়ে-থাকার’-পরামর্শ-

লিপস্টিক ব্যবহার করতে গিয়ে সচরাচর যে ভুলগুলো করে বসে নারীরা

লিপস্টিক-ব্যবহার-করতে-গিয়ে-সচরাচর-যে-ভুলগুলো-করে-বসে-নারীরা

খুব সহজে দ্রুত কোটি টাকার মালিক হতে চাইলে করুন এই চার ব্যবসা!

খুব-সহজে-দ্রুত-কোটি-টাকার-মালিক-হতে-চাইলে-করুন-এই-চার-ব্যবসা- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত শিশুটির পরিবারের সন্ধান মিলছে না

সুখবর পেলেন নিষিদ্ধ সাকিব

কী হয়েছে ওর, বুঝে আসছে না, দরকার হলে ব্রেক: পাপন

গাজা থেকে রকেট বৃষ্টি শুরু, আ'ত'ঙ্কে দিশেহারা ইসরাইল

পাঠকই লেখক


৩০ বছর পর দেখা দিলো ‘ইঁদুর-হরিণ’!

৩০-বছর-পর-দেখা-দিলো-‘ইঁদুর-হরিণ’-

এক কাঁকড়ার দাম ৩৯ লাখ টাকা!

এক-কাঁকড়ার-দাম-৩৯-লাখ-টাকা-

সন্তানের আকুল কান্না মৃত্যুর জগত থেকে ফিরিয়ে এনেছে এক মৃত মাকে!

সন্তানের-আকুল-কান্না-মৃত্যুর-জগত-থেকে-ফিরিয়ে-এনেছে-এক-মৃত-মাকে- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ