বাংলাদেশের যে মন্ত্রীর সম্বল ছিল টিনের ঘর, গায়ে থাকত ১৪টি সেলাই দেওয়া শাল!

০৭:৩৭:৪০ শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • দ্বিতীয় করোনা টেস্ট নিয়ে যা জানালেন মাশরাফী     • লকডাউন না মেনে বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি, অতঃপর করোনায় মৃত্যু     • দিল্লি দা'ঙ্গায় 'জয় শ্রীরাম' না বলায় ৯ মুসলিমকে হ'ত্যা     • বহু করোনা রোগীর জীবন বাঁ'চানো সেই ডাক্তারের মৃ'ত্যু করোনাতেই!     • করোনায় আক্রা'ন্ত পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী     • ডা. জাফরুল্লাহ'র প্রস্তাবে সম্মতি জানালেন শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. আব্দুল্লাহ     • অবশেষে শামীম ওসমানের হস্তক্ষেপে বৃদ্ধ দম্পতিকে ভর্তি নিল হাসপাতাল     • ডা. আসিফ মাহমুদ গাজীপুরের গর্ব, মেট্রিকে আইডিয়াল স্কুল (7th stand), নটরডেমিয়ান, ঢাবি থেকে মাস্টার্স ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট     • ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে আবারো দেখে এলেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক     • 'পাটকল শ্রমিকদের জন্য প্রধানমন্ত্রী চোখের পানি ফেলেছেন'

বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:২৩:৪৭

বাংলাদেশের যে মন্ত্রীর সম্বল ছিল টিনের ঘর, গায়ে থাকত ১৪টি সেলাই দেওয়া শাল!

বাংলাদেশের যে মন্ত্রীর সম্বল ছিল টিনের ঘর, গায়ে থাকত ১৪টি সেলাই দেওয়া শাল!

নিউজ ডেস্ক: পাঁচ-পাঁচবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন অ্যাডভোকেট ছায়েদুল হক। সর্বশেষ ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর আওয়ামী লীগ সরকারে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান এই নেতা। ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর মারা যাওয়া ছায়েদুল হকের জীবদ্দশায় সম্বল বলতে ছিল পৈতৃক সূত্রে পাওয়া দুটি টিনের ঘর। ১৪টি সেলাই দিয়ে ২০ বছর একটি শাল পরেছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ এই সহচর।

নিজ গ্রাম নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের পূর্বাভাগ গ্রামের উত্তরপাড়ায় রয়েছে পৈতৃক সূত্রে পাওয়া টিনের ঘর দুটি। দীর্ঘদিনের পুরোনো দুই ঘরের একটিতে থাকতেন মন্ত্রী আর অন্যটি ছিল তার বৈঠকখানা। গ্রামের সাধারণ মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে বসে কথা বলতেন বৈঠকখানায়। যদিও মন্ত্রীর ওই ঘরটি স্থানীয়দের কাছে ‘ডাক বাংলো’ হিসেবেই বেশি পরিচিত।

মন্ত্রী ছায়েদুল হকের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, পুরনো দুটি টিনের ঘরে শুধুমাত্র দুটি খাট ও কাঠের কিছু ফার্নিচার এবং কয়েকটি প্লাস্টিকের চেয়ার পড়ে আছে। বাড়িতে এলে ওই টিনের ঘরে পুরনো খাটেই ছায়েদুল হক ঘুমাতেন বলে জানিয়েছেন তার নিকট আত্মীয়রা। কোনও কিছুর প্রতি লোভ ছিল না তার।

ছায়েদুল হকের স্বজনরা বলেন, অর্থ-বিত্ত নিয়ে তার কোনও ভাবনা ছিল না। আমাদের শুধু বলতেন, একদিন সবকিছুর হিসাব দিতে হবে। তিনি কখনও অন্যায় কাজ করেননি। মন্ত্রী হয়েও সবসময় সাধারণ মানুষের মতো চলাফেরা করেছেন। গ্রামের মানুষদের তিনি বলতেন, আমি এমপি-মন্ত্রী না, আমি তোমাদের ছায়েদুল হক।

ছায়েদুল হকের বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক বানেশ্বর দেবনাথ বলেন, ৫১ বছর ধরে আমি ছায়েদুল হককে চিনি। আজ পর্যন্ত আমি তার কোনও দোষ খুঁজে পাইনি। তার মতো লোক এই জীবনে আর দেখব কি-না, জানি না।

ছায়েদুল হকের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহকর্মী ও নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাফি উদ্দিন বলেন, ছায়েদুল হকের মতো এমন সৎ নেতার মৃত্যু নেই। তিনি বেঁচে থাকবেন মানুষের হৃদয়ে।

নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের পূর্বাভাগ গ্রামের পশ্চিমপাড়াস্থ কল্লরপাড় পারিবারিক কবরস্থানে বাবা-মায়েরর কবরের মাঝখানে চিরনিদ্রায় শায়িত ছায়েদুল হক। হাওর বেষ্টিত এই উপজেলার সার্বিক উন্নয়নে জড়িয়ে আছে তার নাম। জেলা সদরের সঙ্গে নাসিরনগরের সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপন তার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের এক মাইলফলক। এখনও তার কয়েকশ কোটি টাকার উন্নয়নমূলক কাজ চলমান রয়েছে।

উল্লেখ্য, ছায়েদুল হক ১৯৪২ সালে নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের পূর্বভাগ গ্রামের উত্তপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। হাইকোর্ট ও সুপ্রিমকোর্টের খ্যাতনামা এ আইনজীবী ১৯৭৩, ১৯৯৬, ২০০১ ও ২০০৮ এবং ২০১৪ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০১ সালের নির্বাচনে চট্টগ্রাম বিভাগে আওয়ামী লীগের ফল বিপর্যয়ের মধ্যেও তিনি বিজয়ী হয়ে চমক দেখিয়েছিলেন।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


কোরআন ছাড়া এক পা এগোনো মানুষের জন্য মঙ্গলজনক নয়

কোরআন-ছাড়া-এক-পা-এগোনো-মানুষের-জন্য-মঙ্গলজনক-নয়

কাবা শরিফ চত্বরে সালাতুল কুসুফ আদায়

কাবা-শরিফ-চত্বরে-সালাতুল-কুসুফ-আদায়

সোনার প্রলেপের ডিজাইনে লিখিত ৫০০ বছরের পুরনো ‘তিমুরিদ কোরআন’, রং ও উজ্জ্বলতা এখনো অক্ষুণ্ণ

সোনার-প্রলেপের-ডিজাইনে-লিখিত-৫০০-বছরের-পুরনো-‘তিমুরিদ-কোরআন’-রং-ও-উজ্জ্বলতা-এখনো-অক্ষুণ্ণ ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ইরানের যেসব দর্শনীয় স্থান দেখে বিশ্বের পর্যটকেরা মুগ্ধ হন

ইরানের-যেসব-দর্শনীয়-স্থান-দেখে-বিশ্বের-পর্যটকেরা-মুগ্ধ-হন

জানেন কি, বাড়িতে করোনা নিয়ে আসতে পারে জুতাও! জেনে নিন বাঁচার উপায়

জানেন-কি-বাড়িতে-করোনা-নিয়ে-আসতে-পারে-জুতাও--জেনে-নিন-বাঁচার-উপায়

দুটি পাথরে ভাগ্য বদল, শ্রমিক থেকে এক দিনেই ৩০ কোটি টাকার মালিক!

দুটি-পাথরে-ভাগ্য-বদল-শ্রমিক-থেকে-এক-দিনেই-৩০-কোটি-টাকার-মালিক- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


যার ভয়ে আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ ছেড়ে পালিয়েছেন শশাঙ্ক মনোহর!

সেনা সরাতে এক চুলও রাজি নয় চীন!

করোনা রোগীদের জন্য অ্যাম্বুলেন্স দান করলেন সালাহ

আ'ত্মহ'ত্যার আগে শেষবারের মতো গুগলে সা'র্চ করে যা দেখেছিলেন সুশান্ত!

বিচিত্র জগৎ


নিজেকে নারী বলেই জানতেন অথচ তিরিশ বছর পর জানা গেল তারা দু’বোন আসলে পুরুষ!

নিজেকে-নারী-বলেই-জানতেন-অথচ-তিরিশ-বছর-পর-জানা-গেল-তারা-দু’বোন-আসলে-পুরুষ-

সন্তানদের মৃত্যু দেখে বেঁচে থাকার ইচ্ছেটুকুই হারিয়ে ফেলল এক মা হাঁস!

সন্তানদের-মৃত্যু-দেখে-বেঁচে-থাকার-ইচ্ছেটুকুই-হারিয়ে-ফেলল-এক-মা-হাঁস-

গুলশানের ফ্ল্যাটে ঢুকে খাবার দেখেই ৩ দিন কাটিয়ে দিল চোর, ফ্ল্যাটের মালিক দেখলেন যুক্তরাষ্ট্রে বসে - অতঃপর…

গুলশানের-ফ্ল্যাটে-ঢুকে-খাবার-দেখেই-৩-দিন-কাটিয়ে-দিল-চোর-ফ্ল্যাটের-মালিক-দেখলেন-যুক্তরাষ্ট্রে-বসে-অতঃপর… বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ