'যেসব বই পড়ে ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা কর্মজীবনে কাজে আসছে না'

০৩:৫০:১৭ শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • মসজিদে নামাজ পড়তে আসলেই উপহার পাচ্ছে শিশুরা     • হেগে হারলো ভারত, গুণতে হবে মোটা অংকের জরিমানাও     • যে কারণে আমেরিকা গেলেই ব্যাগভর্তি ময়লা কাপড় সঙ্গে নেন নেতানিয়াহু!     • জমজমের পানি দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করা হলো পবিত্র কাবা শরীফ     • ইসরায়েল ইস্যুতে এবার ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এক হাত নিলেন সৌদি প্রিন্স     • ৭ মাস যাবৎ যুবকের পেটে আস্ত মোবাইল ফোন, চিকিৎসকদের চোখ কপালে!     • ইসরায়েলি যুবক সিমন আর বাংলাদেশি তরুণী সাদিয়ার প্রতা'রণা ও বিশ্বাস ভ'ঙ্গের গল্প     • নির্বাচনে হারলেও ক্ষমতা ছাড়বেন না : জানিয়ে দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প     • গাভাস্কারের অ'শ্লী'ল মন্তব্যে 'লকডাউনে শুধু অনুষ্কার বলের অনুশীলন করেছেন কোহলি'      • চীনের সাংস্কৃতিক বিপ্লবের নামে গত ৩ বছরে হাজারো মসজিদ ধ্বং'স

শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২০, ১২:০০:৫৯

'যেসব বই পড়ে ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা কর্মজীবনে কাজে আসছে না'

'যেসব বই পড়ে ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা কর্মজীবনে কাজে আসছে না'

নিউজ ডেস্ক: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থায় অনেক অসঙ্গতি রয়েছে। যেসব পাঠ্যপুস্তক পড়ে অনার্স-মাস্টার্স ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা আসলে কর্ম ও ব্যক্তিজীবনে কাজে আসছে না। আমরা তাদের শুধু শিক্ষিত বেকার করে গড়ে তুলছি। তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের নতুনভাবে তৈরি করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা-২০২০ অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডা. দীপু মনি বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের নতুনভাবে তৈরি করা হবে। এর আলোকে শিক্ষাব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তনের কাজ শুরু করা হয়েছে। পরীক্ষা ও বিষয়ের বাড়তি চাপ কমানো হচ্ছে। পাঠদান পদ্ধতিতেও পরিবর্তন আনা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থায় অনেক অসঙ্গতি রয়েছে। সেসব চিহ্নিত করে যুগোপযোগী করা হচ্ছে। আমাদের ইন্ডাস্ট্রি ও একাডেমিক বিষয়ে অনেক অমিল রয়েছে। যেসব পাঠ্যপুস্তক পড়ে অনার্স-মাস্টার্স ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা আসলে কর্ম ও ব্যক্তিজীবনে কাজে আসছে না। আমরা তাদের শুধু শিক্ষিত বেকার করে গড়ে তুলছি। এ কারণে ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে সমন্বয় রেখে আমাদের একাডেমিক তৈরি করা হচ্ছে।

একসময় ডিজিটাল বাংলাদেশ বলা হলে তা নিয়ে অনেকে হাসিঠাট্টা করা হতো বলে জানান দা. দীপু মনি। তিনি বলেন, এখন তার আর কোনো সুযোগ নেই। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন দৃশ্যমান। প্রতিটি খাতই আজ ডিজিটালাইজড হয়ে উঠছে। বিশ্বের রোল মডেল হিসেবে অনেকের কাছে পরিচিতি লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থাকেও ডিজিটালাইজড করা হচ্ছে।

দীপু মনি বলেন, আমাদের দেশের জনসংখ্যার বড় একটি অংশ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করছে। তারা দেশের রেমিট্যান্স বাড়াচ্ছেন। তবে তাদের অনেকে অদক্ষ ও অনভিজ্ঞ বলে সঠিক মূল্যায়ন হচ্ছে না। তাদের অভিজ্ঞ করে বিদেশে পাঠাতে পারলে দেশে আরও বেশি রেমিট্যান্স বাড়ত এবং তাদের জীবনমান বেড়ে যেত। তিনি বলেন, এসব বিষয় নিয়ে আমাদের কাজ করতে হবে।

‘কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমাদের শিক্ষার্থীদের গতানুগতিক বিদ্যা শেখালেও তাদের মূল্যবোধ, মানবতাবোধ, সততা শেখাতে পারছে না। এ কারণে অনেকে শিক্ষিত হলেও তা সঠিক কাজে আসছে না বলে এখনও দুর্নীতি রোধ করা সম্ভব হয়নি। তাই আমাদের শিক্ষার্থীদের মূল্যবোধ ও মানবতাবোধ তৈরির লক্ষ্যে তার আলোকে পাঠ্যক্রম তৈরি করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীদের ওপর পরীক্ষার বাড়তি চাপ ও বাড়তি পাঠ্যবইয়ের চাপ কমানোর কাজ শুরু হয়েছে’ যোগ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহ, সঞ্চালক অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ খান প্রমুখ।
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থায় অনেক অসঙ্গতি রয়েছে। যেসব পাঠ্যপুস্তক পড়ে অনার্স-মাস্টার্স ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা আসলে কর্ম ও ব্যক্তিজীবনে কাজে আসছে না। আমরা তাদের শুধু শিক্ষিত বেকার করে গড়ে তুলছি। তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের নতুনভাবে তৈরি করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা-২০২০ অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডা. দীপু মনি বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের নতুনভাবে তৈরি করা হবে। এর আলোকে শিক্ষাব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তনের কাজ শুরু করা হয়েছে। পরীক্ষা ও বিষয়ের বাড়তি চাপ কমানো হচ্ছে। পাঠদান পদ্ধতিতেও পরিবর্তন আনা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থায় অনেক অসঙ্গতি রয়েছে। সেসব চিহ্নিত করে যুগোপযোগী করা হচ্ছে। আমাদের ইন্ডাস্ট্রি ও একাডেমিক বিষয়ে অনেক অমিল রয়েছে। যেসব পাঠ্যপুস্তক পড়ে অনার্স-মাস্টার্স ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা আসলে কর্ম ও ব্যক্তিজীবনে কাজে আসছে না। আমরা তাদের শুধু শিক্ষিত বেকার করে গড়ে তুলছি। এ কারণে ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে সমন্বয় রেখে আমাদের একাডেমিক তৈরি করা হচ্ছে।

একসময় ডিজিটাল বাংলাদেশ বলা হলে তা নিয়ে অনেকে হাসিঠাট্টা করা হতো বলে জানান দা. দীপু মনি। তিনি বলেন, এখন তার আর কোনো সুযোগ নেই। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন দৃশ্যমান। প্রতিটি খাতই আজ ডিজিটালাইজড হয়ে উঠছে। বিশ্বের রোল মডেল হিসেবে অনেকের কাছে পরিচিতি লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থাকেও ডিজিটালাইজড করা হচ্ছে।

দীপু মনি বলেন, আমাদের দেশের জনসংখ্যার বড় একটি অংশ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করছে। তারা দেশের রেমিট্যান্স বাড়াচ্ছেন। তবে তাদের অনেকে অদক্ষ ও অনভিজ্ঞ বলে সঠিক মূল্যায়ন হচ্ছে না। তাদের অভিজ্ঞ করে বিদেশে পাঠাতে পারলে দেশে আরও বেশি রেমিট্যান্স বাড়ত এবং তাদের জীবনমান বেড়ে যেত। তিনি বলেন, এসব বিষয় নিয়ে আমাদের কাজ করতে হবে।

‘কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমাদের শিক্ষার্থীদের গতানুগতিক বিদ্যা শেখালেও তাদের মূল্যবোধ, মানবতাবোধ, সততা শেখাতে পারছে না। এ কারণে অনেকে শিক্ষিত হলেও তা সঠিক কাজে আসছে না বলে এখনও দুর্নীতি রোধ করা সম্ভব হয়নি। তাই আমাদের শিক্ষার্থীদের মূল্যবোধ ও মানবতাবোধ তৈরির লক্ষ্যে তার আলোকে পাঠ্যক্রম তৈরি করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীদের ওপর পরীক্ষার বাড়তি চাপ ও বাড়তি পাঠ্যবইয়ের চাপ কমানোর কাজ শুরু হয়েছে’ যোগ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহ, সঞ্চালক অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ খান প্রমুখ।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


জমজমের পানি দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করা হলো পবিত্র কাবা শরীফ

জমজমের-পানি-দিয়ে-ধুয়ে-পরিষ্কার-করা-হলো-পবিত্র-কাবা-শরীফ

অবশেষে চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ, খুলে দেওয়া হবে রাসুল (সা.) এর রওজা মোবারক

অবশেষে-চালু-হচ্ছে-পবিত্র-ওমরাহ-খুলে-দেওয়া-হবে-রাসুল-সা-এর-রওজা-মোবারক

চাঁদ দেখা গেছে, আগামী ১৪ অক্টোবর আখেরি চাহার শোম্বা

চাঁদ-দেখা-গেছে-আগামী-১৪-অক্টোবর-আখেরি-চাহার-শোম্বা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ভাইরাল হওয়া সেই যুগলের ফটো অ্যালবামের ছবিগুলো

ভাইরাল-হওয়া-সেই-যুগলের-ফটো-অ্যালবামের-ছবিগুলো

ম্যাজিকের মতো স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায় রুই মাছ, কিন্তু কতটুকু খাবেন?

ম্যাজিকের-মতো-স্ট্রোকের-ঝুঁকি-কমায়-রুই-মাছ-কিন্তু-কতটুকু-খাবেন-

জানলে বিস্মিত হবেন, এটিই পৃথিবীর একমাত্র সমুদ্র যার কোনও তীর নেই!

জানলে-বিস্মিত-হবেন-এটিই-পৃথিবীর-একমাত্র-সমুদ্র-যার-কোনও-তীর-নেই- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


এবার চার দলের করপোরেট ক্রিকেট ও তিন দলের একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়ে গেছে, সবাই সতর্ক থাকুন: জাস্টিন ট্রুডো

সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী

দুই দেশের একটি মসজিদ!

বিচিত্র জগৎ


জেনে নিন, সাপ দেখলেই যে কারণে ঝগড়ায় জড়ায় বেজি

জেনে-নিন-সাপ-দেখলেই-যে-কারণে-ঝগড়ায়-জড়ায়-বেজি

১ লিটার দুধের মূল্য ৮ হাজার ৫০ টাকা!

১-লিটার-দুধের-মূল্য-৮-হাজার-৫০-টাকা-

ওজন লক্ষ কেজি, অস্ট্রেলিয়ায় দেখা মিললো বিশ্বের বৃহত্তম প্রাণী

ওজন-লক্ষ-কেজি-অস্ট্রেলিয়ায়-দেখা-মিললো-বিশ্বের-বৃহত্তম-প্রাণী বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ