০১:০০:৩২ সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

সর্বশেষ সংবাদ :

     • রাস্তায় অফিস করলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র     • ভারতকে রীতিমতো নাকানি-চুবানি খাইয়ে হারাল দক্ষিণ আফ্রিকা!     • বড় সুখবর! তবে কী এবারের আইপিএলে খেলতে যাচ্ছেন মুশফিক-তাসকিন?     • বিয়ে না করার কারণ কেঁেদ কেঁদে মায়ের বলা সেই কথাটি জানালেন জায়েদ খান     • ছাত্রলীগের এক নেত্রীকে চুলের মুঠি ধরে মারধরের অভিযোগ আরেক ছাত্রলীগ নেত্রীর!     • রাজনীতির মাঠে পরাজিত বিএনপি : ওবায়দুল কাদের     • স্বর্ণে লেখা বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ দুবাই এক্সপোতে      • মেয়ে দীঘির কাছে যা চাইলেন বাবা সুব্রত     • বাবা-ছেলে একসঙ্গে এক ম্যাচে খেলে দেখালেন এক অনন্য নজির      • সোমবার থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সব অফিসের ব্যাপারে যে নির্দেশ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করল সরকার

বৃহস্পতিবার, ০৬ জানুয়ারী, ২০২২, ০৩:২০:২৩

সরকার জনগণের সেবক; সেটা আমরা প্রমাণ করেছি: প্রধানমন্ত্রী

 সরকার জনগণের সেবক; সেটা আমরা প্রমাণ করেছি: প্রধানমন্ত্রী

দেশের মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও ভাগ্য পরিবর্তনে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন,‘আমাদের সশস্ত্র বাহিনীতে উন্নয়ন, প্রযুক্তি জ্ঞান বৃদ্ধি এবং বিশ্ব দরবারে যেন তারা মাথা উঁচু করে চলতে পারে সেইভাবে আওয়ামী লীগ সরকার পদক্ষেপ নেয় এবং বাস্তবায়ন শুরু করে। কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বেসরকারি খাতগুলো উন্মুক্ত করে দেই। সরকার জনগণের সেবক; সেটা আমরা প্রমাণ করেছি।’

আজ বৃহস্পতিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে রাজধানীর বিজয় সরণিতে অবস্থিত সামরিক জাদুঘর উদ্বোধনের পর তিনি এসব কথা বলেন।

জাদুঘরটি উদ্বোধন করে নিজেকে ধন্য মনে করেছেন উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন,‘এটি সশস্ত্র বাহিনীর জন্য মাইলফলক হয়ে থাকবে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং আমাদের তিন বাহিনী সম্পর্কে আমাদের তরুণ প্রজন্ম উদ্বুদ্ধ হবে। সম্যক জ্ঞান পাবে। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারীসহ সশস্ত্র বাহিনীর সাবেক ও বর্তমান সদস্যদের মধ্যে একটি প্রেরণা আসবে। তারা তৃপ্ত হবেন।’

সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তোলার পেছনে বঙ্গবন্ধুর অবদানের কথা স্মরণ করে সরকারপ্রধান বলেন,‘স্বাধীনতার পরে তিনি সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী গঠন করেন। তাদের প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট গড়ে তোলেন। সাড়ে তিন বছর সময়ের মধ্যে রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলা ও আর্থ সামাজিক উন্নয়নের জন্য তিনি কাজ করেছেন। যুদ্ধ ক্ষতবিক্ষত দেশকে তিনি শূন্য থেকে দাঁড়িয়ে স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গ্রাম পর্যায়ে উন্নয়ন ও তারা যাতে আত্মমর্যাদা নিয়ে বেঁচে থাকতে পারেন তার জন্য বঙ্গবন্ধু দ্বিতীয় বিপ্লবের কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্য সেটা তিনি সম্পন্ন করে যেতে পারেননি। পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নির্মমভাবে হত্যা করা হলো। একই সঙ্গে আমার মা ও ভাইসহ পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আপনজন হারিয়েছিলাম এটা সত্য কিন্তু বাংলাদেশ কী হারিয়েছিল? একের পর এক ক্যু হয়েছে। শত শত সেনা অফিসারকে জীবন দিতে হয়েছে। অনেক পরিবার এখনো তাদের খোঁজও পায়নি। পাশাপাশি রাজনৈতিক নেতাদের ওপর চলে অত্যাচার নির্যাতন। সেইসঙ্গে বাংলাদেশ যে আদর্শ নিয়ে স্বাধীন হয়েছিল তার থেকে বিচ্যুত হয়। বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা থেমে যায় যা কখনো হওয়ার কথা নয়।’

বারবার নির্বাচিত করার জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন,‘আমরা দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকার কারণে কেবল দেশের উন্নয়ন নয় বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত করতে সক্ষম হয়েছি। ইশতিহারের ঘোষণা অনুযায়ী, সুনির্দিষ্টভাবে কাজ করার কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।’

জাদুঘরের গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের যে ইতিহাস রয়েছে-স্বাধীনতার ইতিহাস, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং সেই সঙ্গে আমাদের সার্বভৌমত্ব রক্ষার প্রতীক সশস্ত্র বাহিনী-দেশের মানুষ যেন সে সম্পর্কে জানতে পারে, উপলব্ধি করতে পারে, আমাদের সামরিক বাহিনী অর্থাৎ সেনা, নৌ, বিমান বাহিনী কী কাজ করে, কিভাবে চলে বা অতীতে তারা কী করেছে সে বিষয়ে মানুষকে জানানো একান্তভাবে দরকার। বিশেষ করে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানা, একই সঙ্গে আমাদের ভবিষ্যৎ কী হতে যাচ্ছে-সে সম্পর্কে জানা দরকার।’

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আজকে যে সামরিক জাদুঘরটি আমরা দেখছি-এটি প্রথমে নির্মিত হয়েছিল খুব ক্ষুদ্র পরিসরে। বিজয় সরণির পাশের জায়গাটিতে এটি প্রস্তুত করা হয়। আমার খুব আকাঙ্খা ছিল-এটিকে খুব আকর্ষণীয় স্থান হিসেবে গড়ে তোলার। তারই পাশে আরেকটি জায়গায় আমি প্রথমবার যখন সরকারে আসি, প্লানেটোরিয়াম করে ফেলি।’

তিনি বলেন, ‘যে কোনো কাজ আমি প্রথমবার যখন করতে গেছি, প্রতিটি ব্যাপারেই কিন্তু পরবর্তী সরকার এসে আমার বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে। প্লানেটোরিয়াম যখন আমি করলাম এর জন্য আমার বিরুদ্ধে দুটো মামলা দেওয়া হয়েছিল। কেন দেওয়া হয়-আমি ঠিক জানি না। আমরা যখন প্লানেটোরিয়াম করেছি, তখনই সমস্ত ইউটিলিটি যেন সামরিক জাদুঘর এবং প্লানেটোরিয়াম-উভয়েই শেয়ার করতে পারে সে ব্যবস্থাও নিয়েছিলাম। আর সেই সঙ্গে সরকার প্রধান হিসেবে বিভিন্ন সময় বিদেশে যখন আমরা যাই বা কোনো সরকার প্রধান যখন আমাদের দেশে বেড়াতে আসে তখন যে উপহার দেয়-সেগুলো সংরক্ষণ করা এবং দৃষ্টিনন্দনভাবে রাখা ও মানুষের সামনে তুলে ধরার ব্যবস্থাও করি। আমাদের যে তোষাখানা জাদুঘর আছে বঙ্গভবনে, সেখানে স্টোর রুমের মতো জিনিসপত্রগুলো রাখা। কিন্তু সেগুলো মানুষের সামনে প্রদর্শন করবার ব্যবস্থা আমি নিয়েছি। এজন্য এই জায়গায় আমরা তোষাখানা জাদুঘরও নির্মাণ করি। এবং এটা সামরিক বাহিনীর হাতেই দিয়েছিলাম, একটা কমিটিও আমরা করে দেই।’



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


স্বর্ণে লেখা বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ দুবাই এক্সপোতে

স্বর্ণে-লেখা-বিশ্বের-সর্ববৃহৎ-পবিত্র-কুরআন-শরীফ-দুবাই-এক্সপোতে

যে তিন জিনিসকে ক্ষুদ্র ও সামান্য মনে করে অবহেলা করতে নিষেধ করেছেন মহানবী

যে-তিন-জিনিসকে-ক্ষুদ্র-ও-সামান্য-মনে-করে-অবহেলা-করতে-নিষেধ-করেছেন-মহানবী

বিভিন্ন দেশে কোরআন শরীফ উপহার দিলেন তুরস্কা

বিভিন্ন-দেশে-কোরআন-শরীফ-উপহার-দিলেন-তুরস্কা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


বিয়ের অনুষ্ঠানে ডিজে গানে নাচায় তরুণীকে হবু বরের থাপ্পড়, রেগে গিয়ে হবু বধূর কঠিন প্রতিশোধ

বিয়ের-অনুষ্ঠানে-ডিজে-গানে-নাচায়-তরুণীকে-হবু-বরের-থাপ্পড়-রেগে-গিয়ে-হবু-বধূর-কঠিন-প্রতিশোধ

রুপ ও সৌন্দর্যে মেয়ে উর্বশীকে হার মানায় মা মীরা রাউতেলা!

রুপ-ও-সৌন্দর্যে-মেয়ে-উর্বশীকে-হার-মানায়-মা-মীরা-রাউতেলা-

মেয়ের হবু জামাইকে ৩৬৫ পদে আপ্যায়ন শাশুড়ির (ভিডিওসহ)

মেয়ের-হবু-জামাইকে-৩৬৫-পদে-আপ্যায়ন-শাশুড়ির-ভিডিওসহ এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


শিক্ষার্থীদের সুখবর দিলেন শিক্ষামন্ত্রী

ইয়েমেনে সৌদির বিমান হামলার তীব্র নিন্দা জানালো জাতিসংঘ

রক্তচন্দনের কেন এতো দাম? কেন এতো চাহিদা? 'পুষ্পা'র সাফল্যে আলোচনার তুঙ্গে

এবার আইপিএলে সর্বোচ্চ ভিত্তিমূল্য পাচ্ছেন সাকিব-মোস্তাফিজ

বিচিত্র জগৎ


‘কৃত্রিম চাঁদ’ তৈরি করছে চীন, যা অমাবস্যাতেও আলোকিত করবে পৃথিবীকে!

‘কৃত্রিম-চাঁদ’-তৈরি-করছে-চীন-যা-অমাবস্যাতেও-আলোকিত-করবে-পৃথিবীকে-

বিস্ময়কর এই টিভির পর্দায় জিহ্বা লাগালেই পাওয়া যাবে খাবারের স্বাদ!

বিস্ময়কর-এই-টিভির-পর্দায়-জিহ্বা-লাগালেই-পাওয়া-যাবে-খাবারের-স্বাদ-

আড়াই বছরের শিশু চেয়ারম্যান প্রার্থী, ২০০ মোটরসাইকেল নিয়ে শোডাউন!

আড়াই-বছরের-শিশু-চেয়ারম্যান-প্রার্থী-২০০-মোটরসাইকেল-নিয়ে-শোডাউন- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ