শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ০৫:৫৪:৫৫

সবুজ মাঠে হঠাৎ বেগুনী ধান!

সবুজ মাঠে হঠাৎ বেগুনী ধান!

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার মির্জানগর এলাকার কৃষক মো. সাদেক মোল্লা। তিনি ২৮ শতাংশ জমিতে নতুন জাতের ‘বেগুনী ধান’ চাষ করেছেন। মূলত ধানের পাতা সবুজ হয়। কিন্তু এ ধানের পাতার রং বেগুনী। এ নিয়ে মানুষের মধ্যে কৌতূহল বাড়ছে। প্রতিদিন ধান ক্ষেত দেখতে আগ্রহী মানুষ ভিড় করছে। কৃষকদের মধ্যেও এ ধান চাষে আগ্রহ দেখা দিয়েছে।

রায়পুরা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বনি আমিন খান জানান, চায়নার একটি জাত বেগুনী ধান। চায়নার রাজ পরিবারের সদস্যরা এ ধানের ভাত খেত। ওই সময় রাজ পরিবার ছাড়া কেউ এ ধানের ভাত খেতে পারতেন না। পুষ্টিগুণ ও ধানের পাতার রং বেগুনী হওয়ায় মানুষের আগ্রহ বৃদ্ধি পাচ্ছে। উফশী ধানের তুলনায় এ ধানের ফলন কিছুটা কম হলেও বীজের চাহিদা বাড়ছে। কৃষক বেগুনী ধানের বীজ বিক্রি করে বেশ লাভবান হবে। এ বছর কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে কৃষক সাদেক মোল্লাসহ আরো দুজনকে বীজ ও সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা হয়েছে জানান তিনি।

সরেজমিনে দেখা যায়, চারপাশে সবুজ ধান ক্ষেত্র। মাঝখানের এক টুকরো জমিতে বেগুনী ধান। রোদ্রের প্রখরতায় বেগুনী রং আরো গাঢ় রং ধারণ করেছে। পাকা বেগুনী ধান কাটছেন কৃষকরা। নতুন জাতের ধানকাটা দেখতে লোকজন ভিড় করছে।

কৃষক মো. সাদেক মোল্লা জানান, প্রথম নতুন জাতের বেগুনী ধান চাষ করেছি। ২৮ শতাংশ জমিতে ২০ মণের অধিক ধান পাবো। এ ধানের বীজ সংগ্রহ করে কৃষকদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে চান তিনি। অনেক কৃষক এরই মধ্যে ধানের বীজ চেয়েছেন।

উপসহকারী কৃষি অফিসার (মির্জানগর ব্লক) শাহতাজ মাহমুদ জানান, সাধারণত ধানের পাতা সবুজ হয়। বেগুনী রং হওয়ায় সৌন্দর্যের পাশাপাশি বাজারে এ ধানের চাহিদা অনেক বেশি। এর চালও হালঙ্কা বেগুনী বলে জানান তিনি। 

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ, এমটিনিউজ২৪ টুইটার , এমটিনিউজ২৪ ফেসবুক এবং সাবস্ক্রাইব করুন এমটিনিউজ২৪ ইউটিউব চ্যানেলে