মায়ের কোলে চেপে পরীক্ষা কেন্দ্রে অদম্য সাথী

১১:৫০:৫২ সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • প্রধানমন্ত্রীর সঠিক নেতৃত্বে করোনা মোকাবেলা সম্ভব হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী     • আপেলের পর এবার কাশ্মীরে আঙুরেরও ব্যাপক ফলন     • তওবা করলে আকাশসম পাপও আল্লাহ ক্ষমা করেন     • গুগলে সার্চ করে 'যন্ত্র'ণাহী'ন মৃত্যুর উপায়' খুঁ'জেছিলেন সুশান্ত : বলছে মুম্বাই পুলিশ     • ২৫ ফেব্রুয়ারি বান্দ্রা থানায় জানিয়েছিলাম ছেলে বিপদে আছে : সুশান্তের বাবা     • কেন একের পর এক করোনা আক্রা'ন্ত হচ্ছেন নেতা-মন্ত্রীরা? যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা!     • অসুস্থ অবস্থায় সুশান্ত যখন শুয়ে থাকতেন, তখন পাশের ঘরে পার্টি করতেন রিয়া     • গাজায় আবারও বিমান হা'মলা চালিয়েছে ইসরাইল     • করোনায় আক্রা'ন্ত এমপি সালমাকে হেলিকপ্টারে রাজবাড়ী থেকে ঢাকায় আনা হল      • বাংলাদেশী যুবককে পি'টিয়ে হ'ত্যার পর লা'শ নদীতে ফে'লে দিলো বিএসএফ

রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯, ০৫:১০:৩১

মায়ের কোলে চেপে পরীক্ষা কেন্দ্রে অদম্য সাথী

মায়ের কোলে চেপে পরীক্ষা কেন্দ্রে অদম্য সাথী

বগুড়া থেকে : পা আছে, কিন্তু হেঁটে চলার শক্তি নেই। জন্ম থেকে শারীরিক প্রতিবন্ধী। হেঁটে চলার শক্তি না থাকায় পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে হয়েছে মায়ের কোলে। সহপাঠিদের সাথে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে সে। 

তাকে ঘিরেই ছিল কেন্দ্রের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দৃষ্টি। অদম্য এই শিক্ষার্থীর নাম সাথী খাতুন। সে উপজেলার ভুতবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষার্থী।

আজ রবিবার সকালে তাকে কোলে করে বগুড়ার ধুনট উপজেলার ভান্ডারবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ৫ নম্বর কক্ষে বেঞ্চে বসিয়ে দিয়ে আসেন তার মা রিনা খাতুন। পরীক্ষা শেষে আবার তাকে কোলে নিয়ে বাড়ি ফিরে যান তার মা।

উপজেলার ভুতবাড়ি গ্রামের শফিকুল ইসলাম একজন বর্গাচাষী। রিনা খাতুন গৃহিনী। এই দম্পত্তির ২০০৪ সালে জন্ম নেয় সাথী খাতুন। তিন ভাই বোনের মাঝে সাথী ছোট। জন্ম থেকেই শারীরিক প্রতিবন্ধী সাথী। শফিকুল ইসলাম ও রিনা দম্পত্তির এই কন্যা শিশু নিজের দু’পায়ে ভর করে দাঁড়াতে পারে না। 

শক্তি না থাকায় বাম হাতটি অচল। ক্ষুদে এই শিক্ষার্থী বড় স্বপ্ন নিয়ে প্রতিবন্ধকতা মাড়িয়ে লেখাপড়ার প্রতি ঝুঁকে পড়েছেন। বাড়ি থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরের বিদ্যালয়ে মায়ের কোলে চড়ে নিয়মিত যাতায়াত করছে সাথী।

উপজেলার ভুতবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুল ইসলাম বলেন, প্রতিবন্ধী হলেও মায়ের কোলে চেপে নিয়মিত বিদ্যালয়ে আসে সাথী। লেখাপড়ার প্রতি অদম্য আগ্রহ থাকায় বিশেষ সতর্কতার সাথে তাকে লেখাপড়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। পাঠদানের ক্ষেত্রে তাকে সব সময় সুদৃষ্টিতে রাখা হয়েছে।

রবিবার ইংরেজি বিষয়ের পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সাথী জানায়, মায়ের কোলে চড়ে এক সময় রাস্তায় বের হলে মানুষ বিদ্রুপের চোখে তাকিয়ে থাকতো। লেখাপড়া করার কারণে মানুষ এখন ভালবাসে। উচ্চ শিক্ষা নিয়ে সমাজের সকলের ভালোবাসায় বেঁচে থাকতে চাই। প্রকৃত শিক্ষা অর্জন করে ভবিষ্যতে চিকিৎসক হতে চাই।

সাথীর মা রিনা খাতুন বলেন, মেয়ে প্রতিবন্ধী হলেও মেধাবী শিক্ষার্থী। লেখাপড়ার প্রতি তার প্রবল আগ্রহের কারণে সব কষ্ট দূর হয়েছে। ভালো ফলাফল নিয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জন করতে পারলে বাবা-মায়ের স্বপ্ন পুরণ হবে। জন্ম থেকেই শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় অনেক চিকিৎসা করেও সাথীকে সুস্থ্য করা সম্ভব হয়নি।

উপজেলার ভান্ডারবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব মাবুবুর রহমান বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় মায়ের কোলে চেপে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসে সাথী খাতুন। পা থাকলেও হাঁটতে পারে না। প্রতিবন্ধী হিসেবে পরীক্ষায় তাকে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় দেওয়া হয়। কালেরকণ্ঠ



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


যে দুই কাজের কারণে বান্দার কোনো দোয়াই আল্লাহ তাআলা কবুল করেন না

যে-দুই-কাজের-কারণে-বান্দার-কোনো-দোয়াই-আল্লাহ-তাআলা-কবুল-করেন-না

অভাবীকে সাহায্য করলেই আল্লাহর সাহায্য মিলবে

অভাবীকে-সাহায্য-করলেই-আল্লাহর-সাহায্য-মিলবে

সূরা ফাতেহা সব রোগের মহাওষুধ

সূরা-ফাতেহা-সব-রোগের-মহাওষুধ ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


৩৩ বার ম্যাট্রিকে ফেল করেও হাল ছাড়েননি নুরউদ্দিন, অবশেষে লকডাউনে ভাগ্য খুললো

৩৩-বার-ম্যাট্রিকে-ফেল-করেও-হাল-ছাড়েননি-নুরউদ্দিন-অবশেষে-লকডাউনে-ভাগ্য-খুললো

করোনার মূল উপসর্গ নিয়ে গোড়াতেই বড় ভুল হয়ে গেছে: দাবি বিশেষজ্ঞদের

করোনার-মূল-উপসর্গ-নিয়ে-গোড়াতেই-বড়-ভুল-হয়ে-গেছে-দাবি-বিশেষজ্ঞদের

একটি পাখির বাসা বাঁ'চাতেই টানা ৩৫ দিন অন্ধকারে গ্রাম

একটি-পাখির-বাসা-বাঁ-চাতেই-টানা-৩৫-দিন-অন্ধকারে-গ্রাম এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


এবার চিত্রনায়ক রিয়াজ কোরবানি দেয়নি : কোরবানির অর্থ অসহায়দের বিলিয়ে দিয়েছেন

১৯ সেপ্টেম্বর থেকে আইপিএল শুরু, ফাইনাল ১০ নভেম্বর

ভারতের যেকোনো অ'পক'র্মের দাঁ'তভা'ঙা জবা'ব দেওয়া হবে: পাকিস্তান

ঈদের জামাতের জন্য ঐতিহাসিক স্টেডিয়ামটি খুলে দিল আয়ারল্যান্ড

বিচিত্র জগৎ


গত ২০ বছর ধরে হেলমেট পরে আছেন এই নারী!

গত-২০-বছর-ধরে-হেলমেট-পরে-আছেন-এই-নারী-

এই নারীর কাহিনি চমকে দেওয়ার মতো, রাস্তায় ছোলা বিক্রি করে কোটিপতি!

এই-নারীর-কাহিনি-চমকে-দেওয়ার-মতো-রাস্তায়-ছোলা-বিক্রি-করে-কোটিপতি-

পৃথিবীর যে রহস্যের কোনও সমাধানই করা গেল না আজ পর্যন্ত, যার ব্যাখ্যা বিজ্ঞানও দিতে পারেনি!

পৃথিবীর-যে-রহস্যের-কোনও-সমাধানই-করা-গেল-না-আজ-পর্যন্ত-যার-ব্যাখ্যা-বিজ্ঞানও-দিতে-পারেনি- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ