মহিষখোচা কলেজে আপত্তিকর অবস্থায় আটক

০৪:৫৯:৪২ রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • তুরস্কের শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী হিসেবে সম্মাননা পেলেন বাংলাদেশের রাশেদ     • প্রিয়া সাহার বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহ বলে মনে করেন না আইনমন্ত্রী     • কমলাপুর রেলস্টেশন পরিষ্কারে একদল তরুণ-তরুণী     • 'বাড্ডায় গণপি.টুনিতে নিহত রেনু ছেলেধরা ছিলেন না'     • প্রিয়ার ব্যাখ্যা শোনার আগে মামলা না করতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন : কাদের     • প্রিয়া সাহার বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহ বলে মনে করি না: আইনমন্ত্রী     • প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যারিস্টার সুমনের মামলার যে রায় দিল আদালত     • তাসকিন-বিজয়দের কী করতে হবে, শ্রীলঙ্কায় পৌঁছেছে বলে দিলেন তামিম     • ডোনাল্ড ট্র্রাম্প থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন মধ্যপ্রাচ্যের মিত্ররা     • ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার নালিশ; কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে যা বলছে হেফাজতে ইসলাম

শনিবার, ২৯ জুলাই, ২০১৭, ০৯:২৩:২৮

মহিষখোচা কলেজে আপত্তিকর অবস্থায় আটক

মহিষখোচা কলেজে আপত্তিকর অবস্থায় আটক

আসাদুজ্জামান সাজু, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: বহিরাগত বখাটেদের উৎপাতে অতিষ্ট লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থী, অভিভাবকরা। কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় দিন দিন বাড়ছে বহিরাগত বখাটেদের অত্যচার।

শনিবার দুপুরে আপত্তিকর অবস্থায় কলেজ কর্তৃপক্ষের হাতে আটক হন কলেজের ছাত্রী ও বহিরাগত এক বখাটে। রহস্যজনক কারনে কোন দন্ডÍ ছাড়াই ওই বখাটেকে ছেড়ে দেয়ায় অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ফুসে উঠেছে সাধারন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা , শনিবার দুপুরে বৃষ্টির সময় শিক্ষার্থীরা পাশের একটি নির্জন শ্রেনী কক্ষে কলেজের একাদশ শ্রেনীর এক ছাত্রীকে আদিতমারী উপজেলার ভাদাই সজিব বাজার এলাকার হযরত আলীর ছেলে বখাটে মোরশেদুলকে (১৯) অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকতে দেখতে পান। খবর পেয়ে অধ্যক্ষ শরওয়ার আলম তাদেরকে আপত্তিকর অবস্থা হাতে নাতে ধরে ফেলেন।

এ ঘটনায় কলেজের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা বখাটের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। শিক্ষার্থীদের সাথে দৃষ্ঠান্ত মুলক শাস্তির দাবি তুলেন অভিভাবকরাও। কিন্তু রহস্যজনক কারনে অধ্যক্ষ কোনরুপ বিচার না করেই বখাটে মোরশেদুলকে ছেড়ে দেন এবং অনৈতিক কাজে সহযোগিতা করার দায়ে ওই ছাত্রীকে বহিস্কার করার ঘোষনা দেন। তবে তারা আর এমন কাজ করবে না মর্মে স্থানীয় ইউপি সদস্য ফারুক মিয়া দায়িত্ব নিয়ে ওই ছাত্রীকে জিম্মায় নিলে বহিস্কারাদেশ থেকে মুক্তি পায় ওই ছাত্রী।

শিক্ষার্থীরা জানান, বিদ্যালয় ও কলেজের প্রধান ফটক থাকলেও তা নিয়ন্ত্রণ করা হয় না। ফলে বহিরাগত বখাটেরা খুব সহজেই কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে ছাত্রীদের উৎপাত করে চলে যায়। প্রায় প্রতিদিন এমন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেই চলেছে এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। এ থেকে পরিত্রানের আবেদন করেও কোন সুফল মেলে নি বলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দাবি। এমন অপ্রীতিকর ঘটনার কারনে উদ্বিগ্ন সাধারন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। ইতিপুর্বে ঘটে যাওয়া এরকম ঘটনার দৃষ্ঠান্ত মুলক বিচার হলে এমন ঘটনা ঘটত না বলেও মন্তব্য করেন তারা।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থীরা জানান, ছাত্রী উৎপাতকারী বখাটেরা অধ্যক্ষের দলীয় বা পরিচিতজন হওয়ায় কেউ তাদের বাঁধা দিতে সাহস করেন না। ইতিপুর্বে রাতে বনভোজনের নামেও কলেজের ভিতরে নর্তকী দিয়ে রাতভর ফুর্তি করেছেন ওই বখাটেরা। এ নিয়ে অভিযোগ দিয়েও কোন কাজ হয় নি। কলেজের পরিবেশ ফিরে পেতে তারা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক কলেজের একজন শিক্ষক জানান, কলেজের প্রধান ফটক নিয়ন্ত্রণ করে ক্যাম্পাসকে বখাটে মুক্ত করা জরুরী। বিগত দিনে যা হয়েছে তা লজ্বাজনক। আগামী দিনে যাতে এমন ঘটনা না ঘটে সেই ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।
ছাত্রীকে জিম্মা নেয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে মহিষখোচা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ফারুক মিয়া জানান, চরিত্র গঠনের কারখানা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এমন কাজ কখনই মেনে নেয়া যায় না। বখাটে যুবককে বিনা বিচারের ছেড়ে দিয়ে লাঞ্চিত ছাত্রীকে উল্টো বহিস্কারের হুমকী দেয়াটা অযৌক্তিক। তিনিও এর সুষ্ট বিচার দাবি করেন।

মহিষখোচা বহু মুখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ শরওয়ার আলম জানান, নির্জন কক্ষে বসে গল্প করার কারনে তাদেরকে শাসন গর্জন করে উভয়ের অভিভাবকের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এর বাহিরে তিনি কোন কথা বলতে রাজি হন নি।
এমটিনিউজ২৪ডটকম/এইচএস/কেএস



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


সৌদি বাদশাহর পক্ষ থেকে হজযাত্রীদের জন্য উপঢৌকনস্বরূপ ১০ লাখ সিম ও ফ্রি ইন্টারনেট

সৌদি-বাদশাহর-পক্ষ-থেকে-হজযাত্রীদের-জন্য-উপঢৌকনস্বরূপ-১০-লাখ-সিম-ও-ফ্রি-ইন্টারনেট

সূর্যগ্রহণ ও চন্দ্রগ্রহণের সময় মহানবী (সা.) যা করতেন

সূর্যগ্রহণ-ও-চন্দ্রগ্রহণের-সময়-মহানবী-সা-যা-করতেন

দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে ‘আল্লাহ’ লেখা কাগজ সংরক্ষণই করছেন এই বৃদ্ধ

দীর্ঘ-৫০-বছর-ধরে-‘আল্লাহ’-লেখা-কাগজ-সংরক্ষণই-করছেন-এই-বৃদ্ধ ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ট্রাকের ইঞ্জিনে পাখির বাসা, ডিম ফোটার অপেক্ষায় দেড় মাস ট্রাক চালাননি চালক

ট্রাকের-ইঞ্জিনে-পাখির-বাসা-ডিম-ফোটার-অপেক্ষায়-দেড়-মাস-ট্রাক-চালাননি-চালক

বন্যায় ডুবে গেছে জঙ্গল, লোকালয়ে ঢুকে ঘরের বিছানায় শুয়ে থাকল বাঘ

বন্যায়-ডুবে-গেছে-জঙ্গল-লোকালয়ে-ঢুকে-ঘরের-বিছানায়-শুয়ে-থাকল-বাঘ

একনাগাড়ে হাঁচি, ব্যবহার করুন ঘরোয়া এই টোটকা

একনাগাড়ে-হাঁচি-ব্যবহার-করুন-ঘরোয়া-এই-টোটকা এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করছেন ব্যারিস্টার সুমন

এমন দুঃসংবাদ শোনার পর একের পর এক অবসর নিয়ে নিচ্ছেন জিম্বাবুইয়ান ক্রিকেটাররা

আইসিসির নতুন নিয়মে দলের অধিনায়কদের জন্য সুখবর

১০ উইকেটে হেরেই সিরিজ শুরু করলো সাব্বির-ইমরুলরা

পাঠকই লেখক


হঠাৎ ঘুমিয়ে পড়ছে পুরো গ্রামের মানুষ, ঘুম ভাঙছে তিন-চার দিন পর!

হঠাৎ-ঘুমিয়ে-পড়ছে-পুরো-গ্রামের-মানুষ-ঘুম-ভাঙছে-তিন-চার-দিন-পর-

ঘটনাটি হাস্যকর এবং উদ্ভট হলেও, চাঁদে জমি বিক্রি করে যিনি কামাচ্ছেন হাজার হাজার ডলার

ঘটনাটি-হাস্যকর-এবং-উদ্ভট-হলেও-চাঁদে-জমি-বিক্রি-করে-যিনি-কামাচ্ছেন-হাজার-হাজার-ডলার

স্ত্রীর তালাকের নোটিশ পেয়ে খুশিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন এক স্বামী!

স্ত্রীর-তালাকের-নোটিশ-পেয়ে-খুশিতে-দুধ-দিয়ে-গোসল-করলেন-এক-স্বামী- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ