মঙ্গলবার, ০৬ অক্টোবর, ২০১৫, ১১:৪৮:০৯

সেই ভয়াবহ স্মৃতি ভুলে এভারেস্টে ম্যারাথন

সেই ভয়াবহ স্মৃতি ভুলে এভারেস্টে ম্যারাথন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কদিন আগেই বার বার ভূমিকম্পে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে নেপালে। কিন্তু ভূমিকম্পের স্মৃতি ভুলে পালিত হল এভারেস্ট ম্যারাথন উৎসব। নেপালি সেনাবাহিনীর সদস্য ভীম বাহাদুর গুরুং এই প্রতিযোগিতায় জয়ী হয়েছেন। এভারেস্ট ম্যারাথন পৃথিবীর সর্বোচ্চ এবং কঠিনতম ম্যারাথন দৌড়। যা এভারেস্ট বেস ক্যাম্প এলাকার দুর্গম পার্বত্য অঞ্চলে হয়ে থাকে। ২০০৩ সাল থেকে শুরু হওয়া এই ম্যারাথন দৌড় প্রতি বছরের ২৯ মে অনুষ্ঠিত হয়। ২৯ মে হল এভারেস্ট দিবস, যেদিন শেরপা তেনজিং নোরগে ও স্যার এডমন্ড হিলারি সর্বপ্রথম বিশ্বের এই সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গে আরোহণ করেছিলেন। তবে ভূমিকম্পের ফলে নির্দিষ্ট সময় থেকে পিছিয়ে এসে চলতিমাসে পালিত হল ম্যারাথন উৎসব।

২৫ এপ্রিল ও ১২ মে, পর পর দুটি ভয়াবহ ভূমিকম্পের ধাক্কায় লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় এভারেস্ট বেসক্যাম্প এলাকা। মারাত্মক তুষারধসে প্রাণ হারিয়েছিলেন বহু পর্বতারোহী ও শেরপা। পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার পর এভারেস্ট ম্যারাথনের সংগঠকরা স্থির করেন, এ বছরও দৌড় বাতিল করা হবে না। বরং নির্ধারিত সময়ের চেয়ে কিছুটা পিছিয়ে দিয়ে ৫ অক্টোবর ম্যারাথনের আয়োজন করা হয়।

এ বছরের ম্যারাথনে মোট ৫৪জন অংশ নিয়েছিলেন, তার মধ্যে ২৭ জনই বিদেশি নাগরিক। তবে সংগঠকরা জানান, ভারত, পাকিস্তান বা বাংলাদেশ থেকে কোনও প্রতিযোগী অংশ নেননি। ম্যারাথনে প্রথম ও দ্বিতীয় হয়েছেন যথাক্রমে ভীম বাহাদুর গুরুং ও সুরেন্দ্র বাসনেট। তারা দুজনেই নেপালের সেনাবাহিনীর সদস্য।
০৬ অক্টোবর, ২০১৫/এমটিনিউজ২৪/জহির/মো:জই/

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ