ভারতবর্ষ শাসন করা সেই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মালিক এখন ভারতীয় ব্যক্তি

০৯:৫৯:৫৩ শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • এবার রাশিয়ায় মুসলিম কিশোরকে প্রকাশ্যে গু'লি করে মা'রলো রুশ পুলিশ     • ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর ইসলামবিদ্বে'ষের বিরুদ্ধে ভারতে অভিনব প্রতিবাদ     • যেদিকে তাকিয়ে আছেন মোহাম্মদ আশরাফুল     • আইসিসি চেয়ারম্যান নির্বাচনে কাকে সমর্থন করবে ভারত? অবশেষে ইঙ্গিত মিলল!     • 'শুধু মেয়েরা নয়, ছেলেরাও হাফপ্যান্ট পরে জনসমক্ষে বেরতে পারবে না'     • কে তাদের শরীরে অত বীভৎস শক্তি দেয়, ধর্ম? : প্রশ্ন তসলিমার     • শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়েই বিপদে পড়েছে ফ্রান্স     • লকডাউনে কাজ হারিয়েছেন মা, চা বিক্রি করে বোনদের পড়াশোনার খরচ সামলাচ্ছে কিশোর     • এবার নিজ দেশের জনগণের চরম ক্ষোভের মুখে ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট!     • মানুষের মন থেকে পুলিশভীতি দূর করুন: রাষ্ট্রপতি

রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:২৭:০৭

ভারতবর্ষ শাসন করা সেই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মালিক এখন ভারতীয় ব্যক্তি

ভারতবর্ষ শাসন করা সেই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মালিক এখন ভারতীয় ব্যক্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি, ভারতীয় উপমহাদেশের মানুষের কাছে অত্যন্ত চেনা একটি নাম। বাণিজ্যের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রবেশ করে কয়েক শতাব্দী শা'সন ও শো'ষণের দ্বারা পুরো উপমহাদেশ ক'ব'জা করে রাখার ইতিহাসই এই নামটিকে এনে দিয়েছে চির'স্থা'য়ী পরিচিতি।

এটিকে বলা হয় পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে প্র'ভা'বশালী এবং প্রথম ক'রপোরে'শন কোম্পানি। শুরুতে এর নাম ছিল ইংলিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি (১৬০০-১৭০৮)। পরবর্তীতে এর নাম ব'দলে করা হয় অ'নারে'বল কোম্পানি অব মার্চেন্টস অব লন্ডন ট্রেডিং ইনটু দ্য ইস্ট ইন্ডিজ অথবা ইউনাইটেড কোম্পানি অব মার্চেন্টস অব ইংল্যান্ড ট্রেডিং টু দ্য ইস্ট ইন্ডিজ (১৭০৮-১৮৭৩)। তবে উপমহাদেশে সেটি ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি নামেই অধিক পরিচিত ছিল।

আগে ইউরোপের মানুষের কাছে ভারতীয় উপমহাদেশ 'ইস্ট ইন্ডিয়া' নামে পরিচিত ছিল। সেই সময় ভারতীয় উপমহাদেশ ছিল মশলা, কাপড় এবং দামি রত্নের জন্য বিখ্যাত এক স্থান। এসব উপকরণ ইউরোপে বেশ চড়া দামে বিক্রি হতো। কিন্তু সমুদ্রে শ'ক্তিশা'লী নৌবা'হি'নী না থাকার দরুণ ব্রিটিশরা ভারতীয় উপমহাদেশে আসতে ব্য'র্থ হয়।

সেই সময়ে স্পেন এবং পর্তুগাল ভারতীয় উপমহাদেশ থেকে মশলা ও কাপড় নিয়ে পূর্বের দূরবর্তী দেশ সমূহে বিক্রি করত। কিন্তু ব্রিটিশ বণিকরা উপমহাদেশে আসার জন্য ম'রি'য়া হয়ে ছিলেন। অবশেষে ১৫৮৮ সালে ব্রিটিশরা পথের দি'শা পায়। স্প্যানিশদের হা'রিয়ে তাদের নৌবহরের দ'খ'ল নিয়ে নেয় তারা। এই নৌ'বহর ব্রিটিশদের ভারতের আসার পথ তৈরি করে দেয় এবং সেই সাথে তাদের নৌ'শ'ক্তি বহুগুণে বেড়ে যায়।

১৬০০ সালের স্যার থমাস স্মাইথের নেতৃত্বে লন্ডনের একদল বণিক রাণী প্রথম এলিজাবেথের কাছে এক আর্জি নিয়ে হা'জির হন। তারা রাণীর কাছে পূর্ব এশিয়া, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং ভারতীয় উপমহাদেশে ব্যবসা করার জন্য রাণীর সম্মতি ও রাজসনদ প্রদানের জন্য অনুরোধ করেন। রাণী প্রথম এলিজাবেথ তাদের সম্মতি দেন। পরবর্তীতে ৭০ হাজার পাউন্ড পুঁজি নিয়ে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির যাত্রা শুরু হয়।

কোম্পানি থেকে শাসক : শুরুতে মুঘল সাম্রাজ্যে ইস্ট ইন্ডিয়া ছিল শুধুমাত্র একটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। কিন্তু অষ্টাদশ শতকে ব্রিটিশরা ভারতের রাজনীতিতে প্র'ভা'ব খা'টানো শুরু করে। রাণী এলিজাবেথ শুরুতেই কোম্পানিকে তাদের যেকোনও প্রয়োজনে সা'ম'রিক সহায়তার প্র'তিশ্রু'তি দিয়েছিলেন। এছাড়া মুঘল সাম্রাজ্যের শ'ক্তি কমে যাওয়ায় দিল্লি থেকে দূরবর্তী রাজ্যগুলোতে কেন্দ্রের শা'সন দু'র্ব'ল হয়ে পড়ে। 

আর এর সুবিধা নিয়ে ব্রিটিশরা ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে ব্যবসা জো'রদা'র করে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি। এদিকে ইউরোপের প্র'তিদ্ব'ন্দ্বী দেশগুলো ভারতে তাদের উপস্থিতি বাড়াতে শুরু করে। বিশেষ করে ব্রিটেনের জাতীয় শ'ত্রু ফ্রান্সের ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিকে ভাবিয়ে তোলে। ফলে তখন তারা ভারতের রাজনীতি দ'খলের পরি'ক'ল্পনা আঁ'কতে শুরু করে।

শুরুতে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি এক দ'ক্ষ সে'নাবা'হি'নী গড়ে তোলে। পাশাপাশি ভারতের উপকূলে তাদের অবস্থান ছিল শ'ক্তিশা'লী। এছাড়া যেকোনও প্রয়োজনে তাদের ডাকে ব্রিটিশ নৌ'বা'হি'নী সাড়া দেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল। সা'ম'রিক দিক দিয়ে এগিয়ে থাকার কারণে ভারতের বিভিন্ন যু'দ্ধে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ে পরিণত হয়।

১৭৫৭ সালের পলাশীর যু'দ্ধ এবং ১৭৬৪ সালের বক্সারের যু'দ্ধে জয়লাভের পর কোম্পানি বাংলার কর সংগ্রহের ক্ষ'মতালাভ করে। ভারতের রাজনীতির দ'খ'ল নেওয়ার জন্য বাংলা ছিল গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু পুরো ভারতে প্র'ভা'ব তৈরির জন্য বাংলাই কেবল যথেষ্ট ছিল না।

এ কারণে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি প্রথমে দক্ষিণের রাজ্যগুলোতে নিজেদের অবস্থান শ'ক্ত করে। এরপর পশ্চিম ভারতের মারাঠা এবং মহীশূরের রাজা টিপু সুলতানকে হা'রানোর পর পুরো ভারতই কার্যত তাদের অধীনে চলে যায়৷ মুঘল সম্রাটরা তখন পুতুল শা'সকে পরিণত হয়। ১৮১৮ সালের হিসেব অনুসারে ভারতের দুই-তৃতীয়াংশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির দ'খলে ছিল।

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বর্তমান অবস্থা : মূলত ১৮১৩ সালে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কাঠামোর ভে'ঙে পড়ে। কিন্তু পুরোপুরি বি'লী'ন হয়ে যায় ১৮৭৪ সালে। এর প্রায় ১৩৫ বছর পর ২০১০ সালের আগস্টে আবারো ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি সচল হয়েছে। তবে এক ভারতীয় ব্যবসায়ীর হাত ধ'রে। তার নাম সঞ্জীব মেহতা। মূলত পূর্বের ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সাথে এই কোম্পানির নাম ছাড়া আর কোনও কিছুতেই মিল নেই।

৪৮ বছর বয়সী ভারতীয় ব্যবসায়ী সঞ্জীব মেহতা ২০০৫ সালে স্বল্প মূল্যে ইস্ট কোম্পানির পেটেন্ট ক্রয় করেন। এর পাঁচ বছর তিনি ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিকে ভোগ্য পণ্যের ব্র্যান্ডে রূপান্তরিত করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। ইতোমধ্যে তিনি লন্ডনে বিলাসবহুল এক খাবারের দোকান চালু করেছেন। মাত্র ৩৫ জন কর্মীর সমন্বয়ে গড়ে ওঠা এ প্রতিষ্ঠানে মেহতার বিনিয়োগের পরিমাণ প্রায় ১২ মিলিয়ন পাউন্ড। সূত্র: আরব নিউজ, ডব্লিউআইওনিউজ, রোর মিডিয়া



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ফের মুখরিত হয়ে উঠেছে পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণ, এবার ওমরাহ করতে পারবেন বিদেশি মুসল্লিরা

ফের-মুখরিত-হয়ে-উঠেছে-পবিত্র-কাবা-প্রাঙ্গণ-এবার-ওমরাহ-করতে-পারবেন-বিদেশি-মুসল্লিরা

হজে শয়তানকে পাথর মারার স্তম্ভের নকশাকার বাংলাদেশের ইব্রাহীম

হজে-শয়তানকে-পাথর-মারার-স্তম্ভের-নকশাকার-বাংলাদেশের-ইব্রাহীম

উৎকৃষ্টতম আদর্শের কারণেই দ্রুত বিশ্বব্যাপী ইসলামের প্রচার ও জাগরণ ঘটেছে

উৎকৃষ্টতম-আদর্শের-কারণেই-দ্রুত-বিশ্বব্যাপী-ইসলামের-প্রচার-ও-জাগরণ-ঘটেছে ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


তেলাপিয়া মাছ খেলে তিনটি রোগ হতে পারে আপনার!

তেলাপিয়া-মাছ-খেলে-তিনটি-রোগ-হতে-পারে-আপনার-

ফকির দাওয়াত পেতে এক অভিনব পদক্ষেপ গ্রহণ!

ফকির-দাওয়াত-পেতে-এক-অভিনব-পদক্ষেপ-গ্রহণ-

গাছের তলায় বিনা পয়সায় বছরের পর বছর গরীবদের পড়িয়ে চলেছেন এই বৃদ্ধ

গাছের-তলায়-বিনা-পয়সায়-বছরের-পর-বছর-গরীবদের-পড়িয়ে-চলেছেন-এই-বৃদ্ধ এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


মহানবী (সা.)কে নিয়ে করা কটূক্তি শুনে আমার হৃদয় ভেঙে কান্না এসেছে: মিরাজ

টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটির নাম হবে 'বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ'

নিষেধাজ্ঞা মুক্ত হওয়ার সাথেই সাথেই নতুন এক সুখবর পেল সাকিব

আনন্দে আতশবাজি পোড়ালেন সাকিবপত্নী শিশির

বিচিত্র জগৎ


'৪৯ বছর বয়সেই সারা বিশ্বে ১৫০ শিশুর বাবা আমি!'

-৪৯-বছর-বয়সেই-সারা-বিশ্বে-১৫০-শিশুর-বাবা-আমি--

পৃথিবীতে ‘নরকের দরজা’, জ্বলছে ৫০ বছর ধরে!

পৃথিবীতে-‘নরকের-দরজা’-জ্বলছে-৫০-বছর-ধরে-

জেনে নিন, সাপ দেখলেই যে কারণে ঝগড়ায় জড়ায় বেজি

জেনে-নিন-সাপ-দেখলেই-যে-কারণে-ঝগড়ায়-জড়ায়-বেজি বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ