অং সান সু চিকে আটকের ঘটনায় খুশি নয় রোহিঙ্গারা

০৬:৩৫:১৯ বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১

সর্বশেষ সংবাদ :

     • দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা : এমপি গোপাল     • নিউজিল্যান্ডে বন্দীদশা থেকে মুক্তি পাচ্ছেন টাইগাররা     • আরো একটি রক্তাক্ত দিন দেখলো মিয়ানমারের জনতা     • ভণ্ড কবিরাজ দম্পতির প্রতারণার শিকার অর্ধশত নি:সন্তান নারী     • ভারতে টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরই মৃত্যু     • বয়সে বড় নারীকেই প্রেমিকা হিসেবে চায় পুরুষরা     • টিকাদানে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ : অস্ট্রেলীয় রাষ্ট্রদূত     • ভারতের মাদ্রাসায় হিন্দু ধর্মগ্রন্থ পড়ানোর উদ্যোগ বিজেপি সরকারের     • আমাদের বিশেষজ্ঞরা ঘটনা ঘটে গেলে বড় বড় পরামর্শ দেন : মেয়র তাপস     • ইশরাক হোসেন বাঘের বাচ্চা : মিনু

মঙ্গলবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ০৬:৫৪:১৭

অং সান সু চিকে আটকের ঘটনায় খুশি নয় রোহিঙ্গারা

অং সান সু চিকে আটকের ঘটনায় খুশি নয় রোহিঙ্গারা

তোফায়েল আহমদ, কক্সবাজার থেকে : মিয়ানমারের এনএলডি নেত্রী অং সান সু চিকে আটকের ঘটনায় রোহিঙ্গারা খুশি নয়। যদিওবা রাখাইনে ২০১৭ সালের সেনা নির্যাতনে দলে দলে রোহিঙ্গাদের বাস্তুচ্যুত করার কাজে অং সান সু চির সমর্থন ছিল। এ কারণে গত তিন বছর ধরেই রোহিঙ্গারা অং সান সু চিকে ধিক্কার দিয়ে আসছিলেন। 

তারপরেও রবিবার দিবাগত রাতের অন্ধকারে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপকে রোহিঙ্গারা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না। বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা বলছেন, মূলত ২০১৭ সালে যে সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ডাররা রোহিঙ্গা নির্যাতনে জড়িত তারাই এখন দেশটির পূর্ণ ক্ষমতা দখল করে নিয়েছে। তাই দেশে ফিরে যেতে ইচ্ছুক রোহিঙ্গাদের সামনে আবারো এক অনিশ্চিত ভবিষ্যত এসে হাজির হয়েছে। এমন এক অনিশ্চিত দশা থেকে রোহিঙ্গাদের মুক্তিইবা কখন মিলবে সেটাই তাদের ভাবিয়ে তুলেছে।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা নিয়ে টালমাটাল অবস্থা সম্পর্কে কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের ৩৪টি শিবিরে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের অনেকের সঙ্গে আলাপে এমন প্রতিক্রিয়া উঠে এসেছে। কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং শিবিরের রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ নূর এ বিষয়ে বলেন, মিয়ানমারে গত নভেম্বরের নির্বাচনে অং সান সু চির এনএলডি দল শতকরা ৮২ ভাগ সমর্থন নিয়ে গণতান্ত্রিক পন্থার দিকে হাঁটছিল। দেশটিতে গণতন্ত্র আসলে অং সান সু চি 'বিদেশি নাগরিক' বলে ২০০৮ সালের আইনটিরও অবসান ঘটবে। তাই সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখল।

রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ নূর বলেন, ২০১৭ সালে সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর যে বর্বর নির্যাতন চালিয়েছে তাতে তারা (রোহিঙ্গা) সহ সারা বিশ্ব অং সান সু চির ওপর ক্ষিপ্ত-এতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু একথাও ঠিক যে, মিয়ানমারে বাস্তবে অং সান সু চির কোনো ক্ষমতা কোনো সময়েই ছিল না। সেনাবাহিনী অং সান সু চিকে সামনে মূখপাত্র বানিয়ে সারা দুনিয়ার  কাছে তাকেই নিন্দিত করেছে কেবল। এমনকি সেনাবাহিনী সু চিকে দিয়ে রোহিঙ্গাদের 'বাঙালি' পর্যন্ত বলতেও বাধ্য করেছে।

মোহাম্মদ নুরের মতে সংসদে বর্তমানে শতকরা ২৫ ভাগ প্রতিনিধিত্ব রয়েছে সেনাবাহিনীর। কিন্তু এনএলডি নেত্রী অং সান সু চির দল পূর্ণ ক্ষমতা পেলে সেনাবাহিনীর সেই অংশীদারিত্ব বিলোপ হবার শংকায় ভুগছে সেনারা। তাই বিলম্ব না করেই মিয়ানমারের সেনা বাহিনীর এই ক্ষমতা দখল-বলেন রোহিঙ্গা নেতা নূর মোহাম্মদ।

মাষ্টার রুহুল আমিন নামের অপর একজন রোহিঙ্গা নেতা বলেন, 'অং সান সু চিকে সামনে দিয়ে সেনারা আমাদের নির্যাতনের মাধ্যমে দেশত্যাগে বাধ্য করায়। গত কয়েক বছরে মিয়ানমারের যত আকাম-কুকাম সবই সু চিকে দিয়ে জায়েজ করিয়েছে সেদেশের সেনারা। সেই সু চি যখন নির্বাচনের মাধ্যমে জয় লাভ করে তখনই বর্বর সেনারা গর্জে উঠে এখন বসিয়ে দিয়েছে তাকে।' রোহিঙ্গা নেতা মাষ্টার রুহুলের মতে, মিয়ানমার সেনাদের এমন কাজটি থেকে তাবৎ দুনিয়ার মানুষের শিক্ষা নেওয়া দরকার। 

তিনি বলেন, বর্বর সেনাদের তল্পিবাহকের পরিণতি এমনই হয়ে থাকে। এদিকে কক্সবাজারের কুতুপালং শিবির এলাকায় মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত চার শতাধিক রোহিঙ্গা স্বেচ্ছায় দেশে ফিরে যাবার যে প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল তা নিয়েও শংকার সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে জগদীশ নামের একজন হিন্দু রোহিঙ্গা গতকাল জানান, 'আমরাতো বরাবরই আমাদের দেশ মিয়ানমারে ফিরে যেতে অপেক্ষায় রয়েছি। দেশটিতে এখন যে অবস্থা হয়েছে তাতে আমাদের ফিরে যাওয়া কখন যে হবে তা বুঝতে পারছি না।'



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


সবাই করোনা ভ্যাকসিন নিন এবং নিরাপদে থাকুন: মিজানুর রহমান আজহারী

সবাই-করোনা-ভ্যাকসিন-নিন-এবং-নিরাপদে-থাকুন-মিজানুর-রহমান-আজহারী

জুমআর নামাজ চার শ্রেণির মানুষ ছাড়া প্রত্যেক মুসলমানের উপর ফরজ

জুমআর-নামাজ-চার-শ্রেণির-মানুষ-ছাড়া-প্রত্যেক-মুসলমানের-উপর-ফরজ

গান-বাদ্য ও আতশবাজির পরিবর্তে বিয়েতে কুরআন তেলাওয়াতের আয়োজন করে ব্যাপক প্রশংসিত বাবা

গান-বাদ্য-ও-আতশবাজির-পরিবর্তে-বিয়েতে-কুরআন-তেলাওয়াতের-আয়োজন-করে-ব্যাপক-প্রশংসিত-বাবা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


১২ তলা থেকে ছিটকে পড়া শিশুর প্রাণ বাঁচালেন ডেলিভারি বয়, রোমহর্ষক ভিডিও ভাইরাল!

১২-তলা-থেকে-ছিটকে-পড়া-শিশুর-প্রাণ-বাঁচালেন-ডেলিভারি-বয়-রোমহর্ষক-ভিডিও-ভাইরাল-

এই দুই যমজ বোনের জীবনে যা ঘটেছে তা বিশ্বে প্রথম

এই-দুই-যমজ-বোনের-জীবনে-যা-ঘটেছে-তা-বিশ্বে-প্রথম

মঙ্গল থেকে তথ্য আসা শুরু, এসেছে হালকা বাতাসের শব্দ

মঙ্গল-থেকে-তথ্য-আসা-শুরু-এসেছে-হালকা-বাতাসের-শব্দ এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


মারা গেলেন এক হাজারবার পবিত্র কুরআন শরিফ খতমকারী ৮৫ বছরের বৃদ্ধ

বিদেশিদের পায়ুপথে করোনা পরীক্ষা, চীনকে থামাতে বললো জাপান

রাতে ঘুম থেকে তুলে খাওয়ার রুমে ডেকে নিয়ে শিক্ষক তাকে যৌন নির্যাতন করেন

দফায় দফায় গুলাগুলি, দুই পক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষ

বিচিত্র জগৎ


সৌন্দর্য বজায় রাখতে প্রতিদিন কুকুরের মূত্রপান মার্কিন তরুণীর

সৌন্দর্য-বজায়-রাখতে-প্রতিদিন-কুকুরের-মূত্রপান-মার্কিন-তরুণীর

নিজেদের জঞ্জাল ও আবর্জনা সৌরজগতে ফেলছে ভিনগ্রহের প্রাণীরা!

নিজেদের-জঞ্জাল-ও-আবর্জনা-সৌরজগতে-ফেলছে-ভিনগ্রহের-প্রাণীরা-

পৃথিবীর গতি বাড়ছে, ২৪ ঘণ্টার আগেই শেষ হচ্ছে দিন!

পৃথিবীর-গতি-বাড়ছে-২৪-ঘণ্টার-আগেই-শেষ-হচ্ছে-দিন- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ