মঙ্গলবার, ১০ মে, ২০২২, ১১:৫৮:৩১

যে এক কঠিন রোগে আক্রান্ত চীনের প্রেসিডেন্ট!

যে এক কঠিন রোগে আক্রান্ত চীনের প্রেসিডেন্ট!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মস্তিষ্কের রোগ সেরেব্রাল অ্যানিউরিজম নামে এক কঠিন রোগে ভুগছেন চীনের প্রেসিডেন্ট ও ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির (সিসিপি) শীর্ষ নেতা শি জিনপিং। দেশটির একাধিক সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এক প্রতিবেদেনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

মস্তিষ্কের কোনো একটি ধমনির ফুলে ওঠা এবং এক পর্যায়ে তা ফেটে রক্তক্ষরণ হওয়াকেই সেরেব্রাল অ্যানিউরিজম বলে। এই অসুস্থতায় আক্রান্ত রোগীদের মস্তিষ্কের কোনো একটি ধমনির যে কোনো অংশে প্রথমে সুক্ষ্ম একটি দাগ বা স্পট পড়ে। তারপর ওই দাগ ও তার আশপাশের এলাকায় রক্ত জমে বেলুনের মতো ফুলে উঠতে থাকে ধমনির ওই অংশ।

এই ফোলা অব্যাহত থাকে এবং তার ফলে রোগীর মস্তিষ্কের কোষ বা স্নায়ুতে চাপ পড়ে; এবং এক সময় ধমনির ওই অংশ ফেটে গিয়ে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ শুরু হয়, এবং সেসময় তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা না নিলে অতি অল্প সময়ের মধ্যে রোগী মারা যান।

এটি বেশ গুরুতর মস্তিষ্কগত সমস্যা; কারণ ঠিক কোনো সময়ে ধমনির ফোলা অংশটি বিস্ফোরিত হবে, তা আগে থেকে বোঝার কোনো উপায় নেই।

চীনের সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, চিকিৎসকরা শি জিনপিংকে অস্ত্রপোচারের পরামর্শ দিয়েছিলেন, তবে জিনপিং অস্ত্রোপচারের পরিবর্তে চীনের ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন ওষুধের ওপর ভরসা রাখতেই আগ্রহী।

সংবাদমাধ্যমে জিনপিংয়ের শারীরিক অসুস্থতার ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু না বলা হলেও ধারণা করা হচ্ছে, দীর্ঘদিন ধরেই এই অসুস্থতা বয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। ২০১৯ সালের মার্চে ইতালি সফরে গিয়েছিলেন তিনি। সেসময় তার হাঁটাচলায় কিছুটা অস্বাভাকিতা লক্ষ্য করেছিলেন অনেকেই।

একাধিক প্রত্যক্ষ্যদর্শী জানিয়েছেন, ইতালি সফরের সময়ে কিছুটা খুঁড়িয়ে হাঁটতে দেখা গেছে চীনের প্রেসিডেন্টকে। তারপর ২০২০ সালের অক্টোবরে দেশটির শেনজেন শহরে এক জনসভায় বক্তব্য দেওয়ার সময়ও কথা বলতে সমস্যা হচ্ছিল তার; বক্তব্য ধীর হয়ে যাচ্ছিল এবং বেশ কাশছিলেন তিনি।

চলতি বছর শি জিনপিংয়ের অসুস্থতা আরও বেড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ, গত ফেব্রুয়ারি থেকে বিদেশি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করা বন্ধ রেখেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট।  

১৯৫৩ সালে বেইজিংয়ে জন্ম নেওয়া জিনপিং একাধারে চীনের প্রেসিডেন্ট, চীনা কমিউনিস্ট পার্টির মহাসচিব ও চীনের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যানের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং ১৯৪৯ সালের কমিউনিস্ট বিপ্লবের প্রধান নেতা মাও সে তুংয়ের পর তাকেই গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন অনেকে।

২০১২ সালে প্রথম চীনের প্রেসিডেন্টের পদে আসীন হন শি জিনপিং। বর্তমানে দেশের রাষ্ট্র ও শাসনতান্ত্রিক প্রধান হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদ চলছে তার।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ, এমটিনিউজ২৪ টুইটার , এমটিনিউজ২৪ ফেসবুক এবং সাবস্ক্রাইব করুন এমটিনিউজ২৪ ইউটিউব চ্যানেলে