সোমবার, ০৩ জানুয়ারী, ২০২২, ০৯:১৪:১৬

স্মৃতি থেকে গ্রামের ছবি এঁকে ৩৩ বছর পর মাকে খুঁজে পেলেন ছেলে!

স্মৃতি থেকে গ্রামের ছবি এঁকে ৩৩ বছর পর মাকে খুঁজে পেলেন ছেলে!

চীনের ইউনান প্রদেশে ৪ বছর বয়সে অপহৃত হওয়া এক ব্যক্তি তার স্মৃতি থেকে আঁকা গ্রামের বাড়ির একটি মানচিত্রের সাহায্যে ৩৩ বছর পর তার আসল মায়ের সঙ্গে পুনর্মিলিত হয়েছেন। লি জিংওয়েই-এর বয়স যখন ৪ বছর - তখন একটি শিশু অপহরণকারী চক্র তাকে ভুলিয়ে নিয়ে গিয়ে অন্য একটি পরিবারের কাছে বিক্রি করে দেয়।

লি-র বাড়ি ছিল দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় ঝাওতং শহরের কাছে। আর অপহরণকারীরা তাকে যে পরিবারটির কাছে বিক্রি করেছিল - তারা থাকতেন প্রায় ১,৮০০ কিলোমিটার দূরে। লি এখন দক্ষিণ চীনের গুয়াংডং প্রদেশে থাকেন। তিনি বেশ কিছুকাল ধরে চেষ্টা করছিলেন তার আসল পিতামাতাকে খুঁজে বের করার জন্য। তার পালক পিতামাতাকে জিজ্ঞেস করে এবং ডিএনএ তথ্যভাণ্ডার অনুসন্ধান করেও কিছুই না পেয়ে শেষ পর্যন্ত ইন্টারনেটের শরণাপন্ন হন তিনি।

গত ২৪ ডিসেম্বর তিনি স্মৃতি থেকে তার হারানো গ্রামের বাড়ি ও আশপাশের এলাকার একটি ম্যাপ আঁকেন। তারপর তা প্রকাশ করেন ডোউইন নামের ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপে। এরপর পুলিশ সেই মানচিত্রটি একটি ছোট গ্রামের সঙ্গে মেলাতে সক্ষম হয়। সেই গ্রামে এক নারীর সন্ধানও পাওয়া যায় - যার ছেলে হারিয়ে গিয়েছিল। এরপর ডিএনএ নমুনা মিলিয়ে নিশ্চিত করা হয় যে লি-ই হচ্ছেন সেই নারীর হারিয়ে যাওয়া ছেলে। এভাবেই ৩ দশকেরও বেশি সময় পর লি জিংওয়েই ও তার মায়ের পুনর্মিলন হয়।

তাদের পুনর্মিলনের একটি ভিডিও অনলাইনে বেরিয়েছে এবং তাতে দেখা যাচ্ছে লি তার মায়ের মুখ থেকে মাস্ক সরিয়ে তাকে দেখছেন, এবং তার পর তাকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়ছেন।

চীনা সমাজে পুত্র সন্তানকে অত্যন্ত মূল্যবান মনে করা হয়, এবং সে কারণে ছেলে শিশু অপহরণের ঘটনা খুব বিরল নয়। তাদের অনেককেই খুব অল্প বয়সে অপহরণ করে অন্য পরিবারের কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

লি জিংওয়েইর জীবনেও তাই ঘটেছিল। কিন্তু ৪ বছর বয়সে শেষবার দেখা সেই গ্রামের স্মৃতি তার মন থেকে পুরোপুরি মুছে যায়নি। অনলাইনে প্রকাশ করা ম্যাপটিতে তিনি এঁকেছেন তার গ্রামের পথ, বাড়িঘর, বাঁশঝাড়, একটা ছোট পুকুর, আর একটি ভবন - যা তার কাছে একটি স্কুল বলে মনে হয়েছিল।

‘এই হচ্ছে আমার বাড়ির চারপাশের এলাকার একটি মানচিত্র। আমি স্মৃতি থেকে এটা এঁকেছি’ - অনলাইনে প্রকাশিত ভিডিওতে ম্যাপটি দেখিয়ে বলেছিলেন লি জিংওয়েই। ‘আমি এক শিশু যে তার বাড়িটিকে খুঁজে বের করতে চাইছে। ১৯৮৯ সালে টাক মাথাওয়ালা একজন প্রতিবেশী আমাকে হেনান নিয়ে গিয়েছিল। তখন আমার বয়স ছিল ৪ বছর।’

অনলাইনে ভিডিওটি হাজার হাজার বার শেয়ার হয়। তার মায়ের সঙ্গে পুনর্মিলনের আগে লি তার ডোউইন প্রোফাইলে লেখেন, ‘৩৩ বছরের অপেক্ষা, অসংখ্য রাতের আকুলতা, আর একটি হাতে আঁকা ম্যাপের ১৩ দিন পর অবশেষে আমার আবেগের মুক্তির মুহূর্ত সমাগত। আমার পরিবারের সঙ্গে পুনর্মিলনে যারা সাহায্য করেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।’ সূত্র : বিবিসি বাংলা, সাউথ চাইনা মর্নিং পোস্ট

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ