প্রয়োজনে প্রবাসীদের জন্য রাজপথে নামব : এমপি নিক্সন

০৮:০৯:৪৩ রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • বড় চমক দিয়ে আফগানদের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণা করল বাংলাদেশ     • ভারতীয় অধিনায়ক কোহলিকে টপকে যাওয়ার সুযোগ মাহমুদউল্লাহর     • এমনকি কাউকে ভিডিও করতে আর ছবি তুলতেও নিষেধ করে দেন তামিম ইকবাল     • অনুশীলনে ফিরলেন তামিম ইকবাল     • সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের শরীরে ক্যানসার ধরা পড়েছে, কেমোথেরাপি শুরু     • পাতি নেতাদের দাপটে দেশে থাকা যাচ্ছে না: মির্জা ফখরুল     • বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলবেন না ধোনি!     • এবার মাদ'ক ব্যবসায়ী, পাচারকারীদের বাড়ি চিহ্নিতকরণ শুরু     • ‘ভূতের আড্ডায়’ অভিযান, বাতি জ্বালাতেই তরুণ-তরুণীর অপ্রীতিকর দৃশ্য!     • মাকে ভারতের জেলে রেখে দেশে ফিরলো দুই শিশু

শুক্রবার, ২৯ মার্চ, ২০১৯, ০৯:১৬:৪৬

প্রয়োজনে প্রবাসীদের জন্য রাজপথে নামব : এমপি নিক্সন

প্রয়োজনে প্রবাসীদের জন্য রাজপথে নামব : এমপি নিক্সন

বাইজিদ আল-হাসান , ওমান প্রতিনিধি : প্রবাসী বাংলাদেশিরা সব জায়গায় অবজ্ঞা নতুন কিছু নয়। কিন্তু কেনই বা এমনটা হয়? প্রবাসীরা বাংলাদেশের জন্য কিনা করে। দেশের মোট জাতীয় আয়ের প্রায় ১৫ শতাংশই প্রবাসীদের অবদান। দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে এদের সক্রিয় অবদান অস্বীকার করার উপায় নেই। প্রবাসীদের রেমিট্যান্স কমে গেলে বাংলাদেশে হাহাকার লেগে যায়। অর্থনীতিতে চরম নেতিবাচক অবস্থা সৃষ্টি হয়।

ফরিদপুর-৪ (ভাঙ্গা-সদরপুর-চরভদ্রাসন) আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন। মানুষের ভালোবাসা অর্জন করে আজ সবার প্রিয় হয়ে উঠেছেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন হয়েছে বলেও জানান নিক্সন চৌধুরী।

প্রবাসীদের সুবিধা-অসুবিধা এবং তাদের জন্য রাজপথে লড়াইয়ের কথা জানিয়েছেন নিক্সন চৌধুরী। দীর্ঘদিন থেকে প্রবাসীদের ভিআইপি আইডি কার্ড প্রদান ও বিমানবন্দরে হয়রানিসহ নানা সমস্যা নিরসনে কাজ করছেন এ তরুণ নেতা।

তিনি জাতীয় সংসদসহ টেলিভিশনে প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরেছেন ও নিরসনেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রবাসীদের নিয়ে করণীয় ও রাজপথে নামার বিষয়ে কথা হয় জাগো নিউজের ওমান প্রতিনিধি বাইজিদ আল-হাসানের সঙ্গে।

প্রবাসীদের সমস্যা নিয়ে নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘সরকারের কাছে আমি দাবি জানিয়েছি সব প্রবাসীকে ভিআইপি আইডি কার্ড করে দেয়ার জন্য। দেশের সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতে তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সেবা দেয়া উচিত বলে আমি মনে করি। বিমানবন্দরে হয়রানি অনেকটা কমেছে। এরপরও আমি কর্তৃপক্ষকে বলবো, ‘কোনো প্রবাসীকে যেন নিরাপত্তার নামে তল্লাশি না করা হয়।’

স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েও এলাকায় দু-দুইবার নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া এলাকার লোকজন আপনাকে খুব ভালোবাসে- কারণ জানতে চাইলে নিক্সন বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমার একটা দায়িত্ব রয়েছে। আমি যদি মানুষের সেবাই না করতে পারি, তাহলে আমার ক্ষমতা দেখানোর জন্য এমপি হয়ে কোনো লাভ নেই।’

‘ক্ষমতার জন্য এমপি হইনি, আমার এলাকার জনগণের সেবা করাই আমার মূল লক্ষ্য। জনগণের বিপদে-আপদে সবসময় পাশে থাকতে চাই।’

খুব অল্প সময়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন দেশে-বিদেশে, পাশাপাশি আপনার প্রতিদ্বন্দ্বীও রয়েছে অনেক ক্ষমতাধর ব্যক্তি। এত কিছুর পরও কোনো প্রটোকল ছাড়াই চলাফেরা করেন। হুমকি আসে কি?

নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘আমার প্রটোকল জনগণ, মৃত্যুর ভয়ে পুলিশের প্রটোকল দিয়ে কেউ বাঁচতে পারেনি। আর আমার যারা প্রতিদ্বন্দ্বী তারা সবাই আমার রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী, সুতরাং আমি যদি মানুষের কল্যাণে কাজ করতে না পারি, তাহলে বেঁচে থেকে লাভ কি? যতদিন বাঁচবো মানুষের জন্য কাজ করেই। যা হয় হবে।’

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে অনেক অভিযোগ শোনা যায়। কাঙ্খিত স্বাস্থ্যসেবা না পাওয়া, দালালদের দৌরাত্ম, হাসপাতালের অব্যবস্থাপনা ও নানা অনিয়ম এবং হাসপাতালের মূল গেটের পাশেই রয়েছে একটা ময়লা আবর্জনার স্তূপ রয়েছে। এ নিয়ে কি ভাবছেন?

‘ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সবসময় আমার নিজস্ব লোকজন থাকে। স্বাস্থ্যসেবা নিতে হাসপাতালে গিয়ে যেন কেউ হয়রানির শিকার না হয় সেগুলো দেখাশোনা করার জন্য।’

‘শুধু ফরিদপুর নয় চিকিৎসা করাতে ঢাকায়ও যদি আমার এলাকার কেউ আসে তাহলে আমি নিজের লোক দিয়ে তাদের সবধরনের সহযোগিতা করি। আর দালালদের বিরুদ্ধে আমরা প্রতিনিয়ত অভিযান চালাচ্ছি, কিছুদিন আগেও বেশকিছু দালাল গ্রেফতার করা হয়েছে।’

‘ময়লা আবর্জনার স্তূপের বিষয়টা আমি খেয়াল করিনি। তবে এটা অবশ্যই এখান থেকে সরানো উচিৎ বলে আমি মনে করি। আমি ডিসিকে অনুরোধ করবো এটা সরানোর জন্য। ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অত্যন্ত ভালো একজন মানুষ, সুতরাং তিনি কখনোই এমন অনিয়ম মেনে নেবে না। আর ফুটওভার ব্রিজ অবশ্যই দরকার, এই বিষয়টি আমি গুরুত্বের সঙ্গে দেখবো বলে আশ্বাস দেন।’

‘এ ছাড়া ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রবাসী কল্যাণ ডেক্স চালু করবো। প্রবাসীদের জন্য ট্রাভেল ট্যাক্স বন্ধ করার ব্যাপারে সংসদে তুলে ধরবো। প্রবাসীদের বিনা হয়রানিতে এবং দ্রুত সময়ে ভোটার আইডি দেয়ার বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছি।’

‘আমার এলাকা থেকে কোনো একজন মানুষ যেন অদক্ষ হয়ে প্রবাসে না যায়, সেইজন্য একটা স্কিল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করার ইচ্ছা আছে। যেখান থেকে একজন মানুষ কাজের দক্ষতা অর্জন করে বিদেশ গিয়ে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স পাঠাতে পারে।’

মনে রাখতে হবে দেশের অর্থনীতির যেসব খাত নিয়ে আমরা গর্ব করতে পারি, তার একটি হচ্ছে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স। দেশের প্রতি টান ও ভালোবাসা সবারই থাকে। কিন্তু প্রবাসীরা সেই টান-ভালোবাসা, পরিবার-পরিজনের মায়া ত্যাগ করে পাড়ি দেন বিদেশে।

একটু ভালো উপার্জনের আশায় তারা বছরের পর বছর বিদেশে পড়ে থাকেন। তাদের উপার্জনের ওপর নির্ভর করে দেশে থাকা পরিবারের ভরণপোষণ। শুধু তাই নয়, আমাদের আকাশচুম্বী চাওয়া-পাওয়ার অনেকটাই নির্ভর করে প্রবাসীদের ওপর ভরসা করে। তারা সাধ্যমতো হাসিমুখে তাদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে যান পরিবার ও দেশকে।
সূত্র: জাগো নিউজ



খেলাধুলার খবর »
খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


পবিত্র ইসলামের সুমহান আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বৌদ্ধ ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

পবিত্র-ইসলামের-সুমহান-আদর্শে-অনুপ্রাণিত-হয়ে-বৌদ্ধ-ধর্ম-ত্যাগ-করে-ইসলাম-ধর্ম-গ্রহণ

জুমআর দিনের যে ১টি আমলে হাজার হাজার বছরের নামাজ-রোজার সাওয়াব মেলে

জুমআর-দিনের-যে-১টি-আমলে-হাজার-হাজার-বছরের-নামাজ-রোজার-সাওয়াব-মেলে

নাম রাখার ব্যাপারে যে নির্দেশনা দিয়েছে ইসলাম

নাম-রাখার-ব্যাপারে-যে-নির্দেশনা-দিয়েছে-ইসলাম ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


অবাক ঘটনা মেহেরপুরে, বিয়ে করতে কনে গেলেন বরের বাড়ি!

অবাক-ঘটনা-মেহেরপুরে-বিয়ে-করতে-কনে-গেলেন-বরের-বাড়ি-

চিনে নিন এই ব্যক্তিকে, যিনি ১০০ স্ত্রীর স্বামী ও ৫০০ সন্তানের বাবা!

চিনে-নিন-এই-ব্যক্তিকে-যিনি-১০০-স্ত্রীর-স্বামী-ও-৫০০-সন্তানের-বাবা-

আপন মা নারাজ, পুত্রবধূকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শাশুড়ি

আপন-মা-নারাজ-পুত্রবধূকে-বাঁচাতে-নিজের-কিডনি-দিয়ে-দৃষ্টান্ত-স্থাপন-করলেন-শাশুড়ি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ম্যাচ জিতে এবার যাকে প্রশংসায় ভাসালেন সাকিব

ফাইনাল ম্যাচে ও থাকলে দলের জন্য ভালো হতো : মোসাদ্দেক

আমাদের মদিনার আদলে দেশ চালানোর সময় এসেছে: শহীদ আফ্রিদি

আফগান বাহিনীর বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশে পরিবর্তন

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ