যুবরাজকে দেখতে বাড়িতে এখন শত শত মানুষের ভিড়

০৩:১৮:২৫ মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • নেত্রকোনায় যেভাবে প্রাণে বেঁচে গেলেন ছেলেধরা সন্দেহে আটক পাগলি রুপালী!     • আমি সত্যিকার অর্থেই সাকিবকে নিয়ে কথা বলতে চাই না : তামিম     • নিজেদের মাঠেই বাংলাদেশের কাছে পাত্তাই পেল না ইংল্যান্ড     • দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক গ্রেফতার     • কুমিল্লায় শ্রেণিকক্ষে হাসতে হাসতে হঠাৎ অজ্ঞান ২৫ ছাত্রী, স্কুলে আত'ঙ্কের সৃষ্টি     • মা শিশু তুবাকে ছেড়ে চলে গেছেন, কিন্তু অবুঝ শিশু জানেনা মা কোথায়?     • প্রিয়া সাহা, আপনি দারুণ একটি ভুল করেছেন     • চাষের জমিতে ৬০ লাখ টাকার ‘হীরক খণ্ড’ কুড়িয়ে পেলেন কৃষক!     • বিপিএলে নতুন দলে মুশফিকুর রহিম     • আগামীকাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ

শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০১৯, ০৯:৫৩:১৪

যুবরাজকে দেখতে বাড়িতে এখন শত শত মানুষের ভিড়

যুবরাজকে দেখতে বাড়িতে এখন শত শত মানুষের ভিড়

ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহের দুর্গাপুর গ্রামে যুবরাজের বাড়িতে আসছে শত শত মানুষ। তার সঙ্গে সেলফিও তুলছেন অনেকে। অনেকে আবার যুবরাজের সঙ্গে তোলা ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছেন। এসব কারণে যুবরাজকে দেখতে ভিড় বেড়েই চলছে। দুর্গাপুরের এই যুবরাজ কোনো রাজপুত্র নয়, শাহ আলম মিয়ার একটি ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড়। শখ করে যার নাম রাখা হয়েছে যুবরাজ। এরই মধ্যে ব্যাপারীরা যুবরাজের দাম বলেছেন ১৮ লাখ টাকা। আর মালিক শাহ আলম চাচ্ছেন ২৫ লাখ টাকা। তবে কিছু কম হলেও তিনি বিক্রি করবেন।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. শাহ আলম মিয়ার পৈত্রিক বাড়ি মাদারিপুরের শিবচর উপজেলায়। প্রায় সাত বছর আগে এক বন্ধুর হাত ধরে এই গ্রামে চলে আসেন। বর্তমানে এখানে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন তিনি। স্কুল ও কলেজ জীবন শিবচরে কেটেছে তার। পরে অর্থ উপার্জন করতে বিদেশে যান। পাঁচ বছর সিঙ্গাপুরে থাকার পর দেশে ফিরে আসেন। এরপর বিদেশে ব্যবসা শুরু করেন। ব্যবসার প্রয়োজনে ৩৫টি দেশে ঘুরেছেন তিনি। পরে ঝিনাইদহে এসে গড়ে তোলেন আব্দুল্লাহ এগ্রো অ্যান্ড ডেইরি ফার্ম। প্রায় ৩৮ লাখ টাকা ব্যয় করে বাড়ির সঙ্গে এই ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেছেন তিনি। তিন বছর হলো এই খামারে গরু লালন-পালন করেন। বর্তমানে তিনি এই খামারেই সময় দেন। এগুলো লালন-পালন করে যা আয় করেন তা দিয়ে সংসার চালান তিনি।

শাহ আলম জানান, বর্তমানে তার খামারে সাতটি গরু আছে। সবগুলো গরুর আলাদা আলাদা নাম আছে। তিনি সবাইকে নাম ধরেই ডাকেন। আসন্ন ঈদুল আজহায় তিনি যে তিনটি গরু বিক্রি করবেন সেগুলোর নাম যুবরাজ, রবি ও সাহেব। বাকি চারটা গরু আগামী বছর বিক্রি করবেন।

তিনি আরও জানান, গরুগুলো তার খুব আদরের। তাদের সবকিছু নিজ হাতেই করেন তিনি। খাবার দেয়া, ময়লা পরিষ্কার, গোসল দেয়া সবই নিজে করেন। কিন্তু গরুগুলো অনেক বড় হওয়ায় সব কাজ করতে পারেন না। তাই তাকে সহযোগিতা করার জন্য তিনজন কর্মচারীও রেখেছেন। তাদের চিকিৎসা, তাপমাত্রা ঠিক রাখাসহ সার্বক্ষণিক সতর্ক থাকতে হয়। 

শাহ আলম জানান, তিন বছর হলো তিনি এই খামার করেছেন। যুবরাজকে তিনি খামার শুরুর সময় নিয়েছিলেন মাত্র ৬ মাস বয়স সময়ে। এখন তার বয়স ৩ বছর ৬ মাস। এই সময়ে পরিমিত খাবার আর যত্ন করে তিনি যুবরাজকে এই পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন।

তিনি বলেন, যুবরাজকে কিনতে ইতিমধ্যে ব্যাপারীরা আসছেন। তারা ১৮ লাখ টাকা পর্যন্ত মূল্য বলেছেন। আমি আরেকটু অপেক্ষা করছি। প্রয়োজনে হাটে তুলবো, ২৫ লাখ টাকা দাম চাইবো। এ ক্ষেত্রে কিছু কম হলেও বিক্রি করে দিবো। শাহ আলম জানান, যুবরাজের পেছনে এখন পর্যন্ত তার ৯ থেকে ১০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। এখন প্রতিদিন শত শত মানুষ তার এই গরু দেখতে আসে। এতে তার অনেক ঝামেলাও হচ্ছে, কিন্তু তারপরও তিনি খুশি।

ওই গ্রামের বাসিন্দা গোলাম মোস্তফা বলেন, শাহ আলম মিয়া গরুর সঙ্গে কথা বলেন। তিনি নাম ধরে ডাক দিলেই গরু বুঝতে পারে। মালিক যে নির্দেশ দেন সেটাই পালন করে। তিনি আরও বলেন, এই যুবরাজ আমাদের গ্রামটি অনেক এলাকার মানুষের কাছে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে। দূরদূরান্ত থেকে লোকজন আসছেন যুবরাজকে দেখতে।

ঝিনাইদহ শহর থেকে এসেছিলেন সাগর হোসেন। তিনি জানান, তাদের এলাকার অনেকে দেখে গিয়ে গল্প করছিলেন। এই গল্প শুনে তিনিও এসেছেন। গরুটি দেখে গরু মনে হয়নি, মনে হয়েছে এটি একটি হাতি।

এ বিষয়ে জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. হাফিজুর রহমান বলেন, গরুটির ওজন ৩৫ মণ বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঈদ আসতে এখনও কিছুদিন বাকি আছে। ঈদ আসতে আসতে গরুর ওজন আরও বেশি হবে।-জাগো নিউজ



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


ট্রাকের ইঞ্জিনে পাখির বাসা, ডিম ফোটার অপেক্ষায় দেড় মাস ট্রাক চালাননি চালক

ট্রাকের-ইঞ্জিনে-পাখির-বাসা-ডিম-ফোটার-অপেক্ষায়-দেড়-মাস-ট্রাক-চালাননি-চালক

বন্যায় ডুবে গেছে জঙ্গল, লোকালয়ে ঢুকে ঘরের বিছানায় শুয়ে থাকল বাঘ

বন্যায়-ডুবে-গেছে-জঙ্গল-লোকালয়ে-ঢুকে-ঘরের-বিছানায়-শুয়ে-থাকল-বাঘ

একনাগাড়ে হাঁচি, ব্যবহার করুন ঘরোয়া এই টোটকা

একনাগাড়ে-হাঁচি-ব্যবহার-করুন-ঘরোয়া-এই-টোটকা এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


প্রিয়া সাহাকে আর দেশে ঢুকতে দেয়া হবে না : ইসলামী আন্দোলন

এই একটি কারণেই সাকিবকে অধিনায়কত্ব দেওয়া হচ্ছে না

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে প্রিয়া সাহা যা বলেছেন, কমই বলেছেন : তসলিমা নাসরিন

অবশেষে ফাইনালের সেই 'বিতর্কিত' সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুললেন ধর্মসেনা!

পাঠকই লেখক


হঠাৎ ঘুমিয়ে পড়ছে পুরো গ্রামের মানুষ, ঘুম ভাঙছে তিন-চার দিন পর!

হঠাৎ-ঘুমিয়ে-পড়ছে-পুরো-গ্রামের-মানুষ-ঘুম-ভাঙছে-তিন-চার-দিন-পর-

ঘটনাটি হাস্যকর এবং উদ্ভট হলেও, চাঁদে জমি বিক্রি করে যিনি কামাচ্ছেন হাজার হাজার ডলার

ঘটনাটি-হাস্যকর-এবং-উদ্ভট-হলেও-চাঁদে-জমি-বিক্রি-করে-যিনি-কামাচ্ছেন-হাজার-হাজার-ডলার

স্ত্রীর তালাকের নোটিশ পেয়ে খুশিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন এক স্বামী!

স্ত্রীর-তালাকের-নোটিশ-পেয়ে-খুশিতে-দুধ-দিয়ে-গোসল-করলেন-এক-স্বামী- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ