অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এফিডেভিট করে বাবার সাথে সব সম্পর্ক ছিন্ন মেয়ের

০৫:৪৯:৫৭ রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • মেঘনায় জালে ধরা পড়ল ৫ মণ ওজনের পানপাতা মাছ     • দুনিয়া ও আখেরাতে সুখী হওয়ার জন্য আল্লাহর রাসুল (সা.) কে অনুসরণ করুন: মাহাথির     • দেখে নিন, বিপিএল থেকে কত টাকা পাচ্ছে আফ্রিদি      • বিপিএলে বিদেশী যে ১১ জন খেলোয়াড় থাকছেন এ প্লাস ক্যাটাগরিতে     • আবুধাবি মাতালেন শাকিব খান     • শ্বশুরবাড়িতে মিষ্টির পরিবর্তে পেঁয়াজ নিয়ে হাজির জামাই, মহাখুশি শ্বশুরবাড়ির লোকজন     • যেভাবে এতটা বদলে গেলেন সেই রানু মণ্ডল     • আসাদউদ্দিন ওয়েইসি ভারতের দ্বিতীয় জাকির নায়েক : বাবুল সুপ্রিয়     • ভারত সিরিজের সুবাদে বিপিএলে নাঈমের আকাশ ছোঁয়া মূল্য     • এবার ভারতের কড়া সমালোচনা করে যা বলল ইরান

সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯, ১০:৩৪:৫১

অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এফিডেভিট করে বাবার সাথে সব সম্পর্ক ছিন্ন মেয়ের

অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এফিডেভিট করে বাবার সাথে সব সম্পর্ক ছিন্ন মেয়ের

নওগাঁ থেকে : নওগাঁয় এফিডেভিট করে বাবার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন রজনী আক্তার (২১) নামে এক কলেজ ছাত্রী। তিনি বগুড়া জেলার আদমদীঘি উপজেলার ছাতনী মাতোপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম এবং মৃত. জুলেখা বানুর মেয়ে। 

রজনী সান্তাহার সরকারি কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। রবিবার (১৮ আগস্ট) নওগাঁ জজ কোর্টের আইনজীবী হারুন অর রশীদ এবং নোটারি পাবলিক সোলাইমান আলী চৌধুরী স্বাক্ষরিত ৩০০ টাকার দলিলে এফিডেভিটের মাধ্যমে বাবার সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন তিনি। 

এফিডেভিট সূত্রে জানা যায়, রজনী আক্তারের মা জুলেখা বানু গত ২০০৭ সালে মারা যান। তারা ৩ ভাই-বোন। তিনি সবার বড়। মা মারা যাওয়ার পর ছোট বোন জান্নাতুন তার চাচার কাছে পালিত হচ্ছে। ছোট ভাই বিজয় মুরগির ফিডের একটি দোকানে থাকে। 

আর বাবা জাহাঙ্গীর আলম নতুন করে বিয়ে করে সংসার করছেন। রজনী ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়াশোনা করা অবস্থায় তার বাবা লেখাপড়ার সব খরচ বন্ধ করে দেন। প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় পড়াশোনা করে এসএসতিতে জিপিএ-৫ পান। টিউশনি করে নিজের খরচ চালান। সেই সঙ্গে বাবাকে সহযোগিতা করেন। 

কিন্তু তার বাবার টাকার চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রবাসী ছেলেদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়তে চাপ প্রয়োগ করেন তাকে। এতে রাজি না হওয়ায় তার ওপর চলত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। এমন অবস্থায় ২০১৮ সালের ২৫ অক্টোবর নওগাঁ সদর উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের প্রবাসী সৈকত আলীর (৫৫) সঙ্গে দুদিন রজনীকে একটি ঘরে আটকে রাখেন তার বাবা। 

এরপর ২৭ অক্টোবর ওই বৃদ্ধের কাছ থেকে দু’দফায় ৭০ হাজার টাকা নিয়ে জোর করে তার সঙ্গে রজনীর বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর থেকে বাবা জাহাঙ্গীর আলম তার জামাইয়ের কাছে বিভিন্ন সময় টাকা দাবি করেন। এ নিয়ে স্বামী তাকে গালিগালাজ ও মারপিট করতেন। ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষাও দিতে দেননি। 

রজনীর স্বামী সৈকত আলী একাধিক বিয়ে করেছেন। তার ছেলে ও মেয়ে আছে। অপরদিকে, টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় একাধিক ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক আছে বলে মেয়ের সংসার ভেঙে দেয়ার হুমকিও দেন রজনীর বাবা। এমনকি গোপনে মেয়ের নগ্ন ছবি সংগ্রহ করে ব্ল্যাকমেইল করতে চান ওই লোভী বাবা। 

এসবের মধ্যেই গত বছরের ৯ নভেম্বর মালয়েশিয়া যান স্বামী সৈকত আলী। এরপর থেকে রজনী আক্তার তার নানার বাড়িতে মামাদের আশ্রয়ে রয়েছেন। প্রায় এক মাস হলো সৈকত আলী বাড়িতে এসেছেন এবং রজনী আক্তারকে নিতে চান। কিন্তু তিনি আর বৃদ্ধ স্বামীর সংসার করতে চান না। একই সঙ্গে বাবার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে সকল প্রকার সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন।

এ বিষয়ে রজনীর বাবা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার মেয়েকে কোনো প্রকার নির্যাতন করিনি। টাকা নিয়েও প্রবাসীর সঙ্গে বিয়ে দেয়া হয়নি। মেয়ে নিজে থেকেই বিয়ে করেছে। গত চার মাস ধরে মেয়ের সঙ্গে আমার কোনো যোগাযোগ নেই। এখন যদি এফিডেভিট করে আমার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে তাহলে আর কী করার। 

রজনী আক্তারের স্বামী সৈকত আলী বলেন, মেয়ের বাড়িতে ঘটক পাঠিয়ে প্রস্তাব দিয়ে বিয়ে করেছি। বিয়েতে ১ লাখ টাকা মোহরানা দেয়া হয়েছিল। আমি বিদেশ যাওয়ার পর চিকিৎসার নাম করে স্ত্রী রজনী আক্তার বাড়ি থেকে স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়। দেশে এসেছি প্রায় এক মাস হলো। স্ত্রীর সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নাই। এখন স্ত্রী যদি চায় তাকে গ্রহণে আমার কোনো আপত্তি নাই। তবে মেয়ের বাবা চিটার প্রকৃতির মানুষ বলেই জানি। বিডি প্রতিদিন



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


গরিবদের মাঝে সব অর্থ দান করে মাকে নিয়ে এক কামরার ঘরে থাকেন নানা পাটেকর!

গরিবদের-মাঝে-সব-অর্থ-দান-করে-মাকে-নিয়ে-এক-কামরার-ঘরে-থাকেন-নানা-পাটেকর-

একবেলার খাবার টাকা দিয়ে লটারি, স্ত্রী'র কথায় ৫ কোটির মালিক সুজেন!

একবেলার-খাবার-টাকা-দিয়ে-লটারি-স্ত্রী-র-কথায়-৫-কোটির-মালিক-সুজেন-

কচু শাক শুধু দৃষ্টিশক্তি বাড়ায় না, কমায় হৃদরোগ-ডায়াবেটিসের ঝুঁকিও

কচু-শাক-শুধু-দৃষ্টিশক্তি-বাড়ায়-না-কমায়-হৃদরোগ-ডায়াবেটিসের-ঝুঁকিও এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


মেসির দুর্দান্ত গোলেই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকে হারালো আর্জেন্টিনা

ভিয়েতনামকে ল'ণ্ডভ'ণ্ড করে বঙ্গোপসাগরের দিকে ছুটছে ঘূর্ণিঝড় নাকরি!

১১ জন ক্রিকেটারকে দল থেকে ছেঁটে ফেললো কলকাতা নাইট রাইডার্স

নারী শরীর নিয়ে যে কয়টি ভুল ধারণা থাকে পুরুষদের

পাঠকই লেখক


তিনটি সিদ্ধ ডিমের দাম ১৯০০ টাকা, বিল দেখেই চোখ কপালে!

তিনটি-সিদ্ধ-ডিমের-দাম-১৯০০-টাকা-বিল-দেখেই-চোখ-কপালে-

মাত্র ৯ বছর বয়সেই স্নাতক ডিগ্রি!

মাত্র-৯-বছর-বয়সেই-স্নাতক-ডিগ্রি-

৩০ বছর পর দেখা দিলো ‘ইঁদুর-হরিণ’!

৩০-বছর-পর-দেখা-দিলো-‘ইঁদুর-হরিণ’- পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ