হে মুসলিম! আল্লাহর রজ্জুকে আঁকড়ে ধরি

১২:০৩:৫৬ শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ভোটের আগেই তৃণমূল কংগ্রেসে তীব্র ভাঙন, বড় বিপর্যয়ের মুখে মমতা ব্যানার্জী!     • কারাগারে নারীর সঙ্গে দীর্ঘসময় আসামি, ডেপুটি জেলারসহ তিনজন প্রত্যাহার     • বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য নীতি নিয়ে রাশিয়া-ইরান বৈঠক     • ডোনাল্ড ট্রাম্পের পাশে দাঁড়িয়ে ছবিও তুললেন না স্ত্রী মেলানিয়া!     • বাংলাদেশের চিঠির জবাব দিয়েছে মিয়ানমার     • শেষ ওয়ানডের একাদশ নিয়ে যে ইঙ্গিত দিলেন তামিম ইকবাল     • যা হতে চেয়েছিলেন সানি লিওন     • পাকিস্তানকে টিকা উপহার দিচ্ছে তাদের বন্ধু দেশ চীন     • ভারতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, ২০ কিলোমিটার পর্যন্ত কম্পন অনুভূত     • এবার আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি দিল ইসরায়েল

শুক্রবার, ০৮ জানুয়ারী, ২০২১, ০৯:০৪:২৬

হে মুসলিম! আল্লাহর রজ্জুকে আঁকড়ে ধরি

হে মুসলিম! আল্লাহর রজ্জুকে আঁকড়ে ধরি

মাহমুদ আহমদ , ইসলামি গবেষক ও কলামিস্ট: পবিত্র কুরআনে আল্লাহ পাক ইরশাদ করেন, ‘আর তোমরা সবাই আল্লাহর রজ্জুকে দৃঢ়ভাবে আঁকড়ে ধর এবং পরস্পর বিভক্ত হয়ো না। আর তোমাদের প্রতি আল্লাহর সেই অনুগ্রহ স্মরণ কর যখন তোমরা পরস্পর শত্রু ছিলে; তখন তিনি তোমার হৃদয় প্রীতির বাঁধনে বেঁধে দিলেন এবং তোমরা তারই অপার অনুগ্রহে ভাই ভাই হয়ে গেলে। আর তোমরা এক অগ্নিকুণ্ডের কিনারায় ছিলে, তিনি তোমাদের তা থেকে রক্ষা করলেন। এভাবে আল্লাহ তোমাদের জন্য তার আয়াতসমূহ সুস্পষ্টভাবে বর্ণনা করেন যেন তোমরা হেদায়াত লাভ কর।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১০৩)

এ আয়াতে আল্লাহ তাআলা মানুষকে জীবন পরিচালনায় সব ধরনের মতভেদ, অনৈক্য আর পরস্পরের মাঝে বিভক্তি থেকে বিরত থেকে আল্লাহর রুজ্জু তথা পথে স্থির থাকার কথা বলেছেন। কিন্তু আমরা পবিত্র কুরআনের শিক্ষা এবং বিশ্বনবির আদর্শের ওপর আমল করছিনা বলেই এত অনৈক্য আর সমস্যা।

পবিত্র কুরআনের শিক্ষার ওপর আমল করলেই আমাদের মাঝে ঐক্য প্রতিষ্ঠিত থাকবে। জাতীয় ও ধর্মীয় সব ধরনের ঐক্য সুপ্রতিষ্ঠিত হবে। আর এ ঐক্য-ই আমাদের এক উম্মতে পরিণত হবার নিশ্চয়তা প্রদান করতে পারে। যার ফলে আমরা এক শক্তিশালী জাতিতে পরিণত হতে পারব।

মুসলিম উম্মাহকে পুনরায় এক শক্তিশালী জাতিতে পরিণত হতে হলে অবশ্যই আল্লাহর রজ্জুকে দৃঢ়ভাবে আঁকড়ে ধরতে হবে এবং বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পরিপূর্ণ অনুসরণ ও অনুকরণ করতে হবে। কেননা আল্লাহ তাআলার নির্দেশ দিয়েছেন-
‘তুমি বল, তোমরা যদি আল্লাহকে ভালোবাস তাহলে তোমরা আমার অনুসরণ কর। (এমনটি হলে) আল্লাহও তোমাদের ভালোবাসবেন।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ৩১)

এ নির্দেশ অনুসারেই বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য ছাড়া আল্লাহর ভালোবাসা লাভ হতে পারে না এবং মুসলিম জাতির শৃঙ্খলা ও ঐক্য বজায় থাকতে পারে না।

ইসলামের আবির্ভাবের আগে হিংস্র জন্তুর মত স্বভাব, নৈতিকতা বিবর্জিত এবং সব ধরনের ঘৃণ্য আচার-আচরণ এবং নির্লজ্জতা নিয়ে গৌরবকারী, দাম্ভিক ও বিদ্রোহী মনোভাব সম্পন্ন জাতি ছিল আরবরা।

সে যুগের সংস্কৃতিশীল ও শক্তিশালী দুটি বড় বড় সম্রাজ্য অর্থাৎ ইরান ও রোম তাদের সঙ্গে যোগাযোগ এবং তাদেরকে নিজেদের অধীনস্ত রাখাও পছন্দ করতো না।

যখন এই অসভ্য ও বর্বর জাতি বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের মতো পবিত্রকারী ও সম্মানিত রাসুলের আঁচল ধরে, তার আনুগত্যবরণ করে এবং আল্লাহর রজ্জুকে দৃঢ়ভাবে আঁকড়ে ধরে তখন তাদের জীবনাচার পাল্টে যায়। তারা অসুস্থ্য ও পাপচারযুক্ত সভ্যতা থেকে মানুষ এবং মানুষ হতে উন্নত স্বভাব-চরিত্রের অধিকারী মানুষে পরিণত হয়। তারা হয়ে ওঠে উত্তম স্বভাবে পরিপূর্ণ আল্লাহপ্রেমী মানুষ।

নিত্য মদের নেশায় মাতালরা প্রতিদিন পাঁচবার আল্লাহর দরবারে সেজদাকারী নামাজি বান্দায় পরিণত হয়। একে অপরের রক্তপিপাসুরা পরস্পর এমন ভাই ভাই হয়ে যায়, যার সামনে রক্ত সম্পর্কও তুচ্ছ মনে হয়। আর বিক্ষিপ্ত ও বিদ্রোহী জাতি এমনভাবে ঐক্যবদ্ধ হয় যেন শিশাগলিত প্রাচীর।

আল্লাহর রুজ্জু ধারণ করে, বিশ্বনবির আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে তারা আল্লাহর বাণী প্রচারেই নিজেদের জীবনকে উৎসর্গ করে। আর এ পথেই নিজেদের প্রাণ ও ধন-সম্পদ নির্দ্ধিধায় উৎসর্গ করে। আর এই উদ্দেশ্য সাধনের লক্ষ্যে উত্তাল সমুদ্রও তাদের পথে অন্তরায় সৃষ্টি করতে পারেনি এবং ভয়ানক মরুভূমিও তাদের উদ্যমে চির ধরাতে পারেনি।

এমনকি অল্প সময়ের মধ্যেই ইসলামের বিজয়ী পতাকা পৃথিবীর বুকে চিরস্থায়ী, শান্তি ও নিরাপত্তা এবং সত্য ও খাঁটি তৌহিদের শিক্ষা এবং জীবন প্রদায়িণী আল্লাহর প্রেমের বাণী প্রতিষ্ঠা লাভ করে। আলো ছড়িয়ে বিশ্বজগতকে প্রদীপ্ত করে

তাই আমাদেরকে উচিত, আল্লাহর রুজ্জুকে দৃঢ়ভাবে আঁকড়ে ধরা। কোনো ইস্যুতে বিচ্ছিন্ন না হয়ে ঐক্যবদ্ধ থাকা। বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শিক্ষার ওপর আমল করে জীবন পরিচালনা করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম বিশ্বকে পুনরায় ঐক্যবদ্ধ হবার তাওফিক দান করুন। আল্লাহর রুজ্জুকে দৃঢ়ভাবে আঁকড়ে ধরার তাওফিক দান করুন। আমিন।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


জাপানে গত এক দশকে মুসলিমদের সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণের বেশি

জাপানে-গত-এক-দশকে-মুসলিমদের-সংখ্যা-বেড়ে-দ্বিগুণের-বেশি

প্রখ্যাত ইসলাম প্রচারক শেখ আলী জাবের আর নেই

প্রখ্যাত-ইসলাম-প্রচারক-শেখ-আলী-জাবের-আর-নেই

মৃত্যুর আগ মুহূর্ত পর্যন্ত জামাতে নামাজ আদায় করতে চাই

মৃত্যুর-আগ-মুহূর্ত-পর্যন্ত-জামাতে-নামাজ-আদায়-করতে-চাই ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


জীবিকার খোঁজে খোলা আকাশের নিচে তিনবারের এমপি-প্রার্থী আছাদুল

জীবিকার-খোঁজে-খোলা-আকাশের-নিচে-তিনবারের-এমপি-প্রার্থী-আছাদুল

বাংলাদেশ থেকে মাত্র ১১৫ কি.মি দূরে ৫১০০ ফুট উপরে পাহাড় আর সবুজের সাম্রাজ্য

বাংলাদেশ-থেকে-মাত্র-১১৫-কি-মি-দূরে-৫১০০-ফুট-উপরে-পাহাড়-আর-সবুজের-সাম্রাজ্য

জঙ্গল থেকে বেরিয়ে রাস্তায় মানুষের সঙ্গে খেলছে চিতাবাঘ! (ভিডিওসহ)

জঙ্গল-থেকে-বেরিয়ে-রাস্তায়-মানুষের-সঙ্গে-খেলছে-চিতাবাঘ--ভিডিওসহ এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


ফেব্রুয়ারির মধ্যেই ক্রিকেটারদের জন্য করোনাভাইরাসের টিকা

তামিমের নেতৃত্ব নিয়ে যা বললেন সাকিব

ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডে রোনালদো

অভিষেকেই ১২৭ রানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি ১৯ বছর বয়সী আফগান ক্রিকেটারের

বিচিত্র জগৎ


সৌন্দর্য বজায় রাখতে প্রতিদিন কুকুরের মূত্রপান মার্কিন তরুণীর

সৌন্দর্য-বজায়-রাখতে-প্রতিদিন-কুকুরের-মূত্রপান-মার্কিন-তরুণীর

নিজেদের জঞ্জাল ও আবর্জনা সৌরজগতে ফেলছে ভিনগ্রহের প্রাণীরা!

নিজেদের-জঞ্জাল-ও-আবর্জনা-সৌরজগতে-ফেলছে-ভিনগ্রহের-প্রাণীরা-

পৃথিবীর গতি বাড়ছে, ২৪ ঘণ্টার আগেই শেষ হচ্ছে দিন!

পৃথিবীর-গতি-বাড়ছে-২৪-ঘণ্টার-আগেই-শেষ-হচ্ছে-দিন- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ