মনে হলো জান্নাতটা কল্পনার চোখে ভাসছে! কতই না বিস্ময়কর আল্লাহর নিজের বলা জান্নাতের বিবরণ!

০৯:২৫:০৭ সোমবার, ১৪ জুন ২০২১

সর্বশেষ সংবাদ :

     • 'ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে কিছু না করতে পারলেও অন্তত দোয়া করুন'     • প্রথম বাংলাদেশী কারী, যিনি কাতারের রেডিওতে কোরআন তিলাওয়াত করার সুযোগ পেলেন     • যাদু দেখালেন নেইমার, উদ্বোধনী ম্যাচে ৩-০ গোলে ব্রাজিলের জয়লাভ     • পাকিস্তানের উপহার আম ফিরিয়ে দিল চীন-যুক্তরাষ্ট্রসহ সাত দেশ     • ইসরায়েলে নেতানিয়াহুর ১২ বছরের শাসনের অবসান     • ধর্ষণ চেষ্টাকারীর নাম জানালেন পরীমনি     • কে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করেছে? জবাবে যা বললেন পরীমনি     • ভিডিও ভাইরাল, ঘোড়ার সঙ্গে ক্রিকেটারের দৌড় প্রতিযোগিতা!     • এসএসসি-এইচএসসিতে অটোপাসের ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর     • পরীক্ষা-ক্লাসের দাবিতে আমরণ অনশনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

বুধবার, ০২ জুন, ২০২১, ০৮:৩৯:৩২

মনে হলো জান্নাতটা কল্পনার চোখে ভাসছে! কতই না বিস্ময়কর আল্লাহর নিজের বলা জান্নাতের বিবরণ!

মনে হলো জান্নাতটা কল্পনার চোখে ভাসছে! কতই না বিস্ময়কর আল্লাহর নিজের বলা জান্নাতের বিবরণ!

"শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।
শপথ তাদের যারা সারিবদ্ধ হয়ে দাঁড়ানো,
অতঃপর ধমকিয়ে ভীতি প্রদর্শনকারীদের,
অতঃপর মুখস্থ আবৃত্তিকারীদের-
নিশ্চয় তোমাদের মাবুদ এক।

তিনি আসমান সমূহ, যমীনও এতদুভয়ের মধ্যবর্তী সবকিছুর পালনকর্তা এবং পালনকর্তা উদয়াচলসমূহের।
নিশ্চয় আমি নিকটবর্তী আকাশকে তারকারাজির দ্বারা সুশোভিত করেছি।
এবং তাকে সংরক্ষিত করেছি প্রত্যেক অবাধ্য শয়তান থেকে।
ওরা উর্ধ্ব জগতের কোন কিছু শ্রবণ করতে পারে না এবং চার দিক থেকে তাদের প্রতি উল্কা নিক্ষেপ করা হয়।

ওদেরকে বিতাড়নের উদ্দেশে। ওদের জন্যে রয়েছে বিরামহীন শাস্তি।
তবে কেউ ছোঁ মেরে কিছু শুনে ফেললে জ্বলন্ত উল্কাপিন্ড তার পশ্চাদ্ধাবন করে।
আপনি তাদেরকে জিজ্ঞেস করুন, তাদেরকে সৃষ্টি করা কঠিনতর, না আমি অন্য যা সৃষ্টি করেছি? আমিই তাদেরকে সৃষ্টি করেছি এঁটেল মাটি থেকে।

বরং আপনি বিস্ময় বোধ করেন আর তারা বিদ্রুপ করে।
যখন তাদেরকে বোঝানো হয়, তখন তারা বোঝে না।
তারা যখন কোন নিদর্শন দেখে তখন বিদ্রূপ করে।
এবং বলে, কিছুই নয়, এযে স্পষ্ট যাদু।
আমরা যখন মরে যাব, এবং মাটি ও হাড়ে পরিণত হয়ে যাব, তখনও কি আমরা পুনরুত্থিত হব?

আমাদের পিতৃপুরুষগণও কি?
বলুন, হ্যাঁ এবং তোমরা হবে লাঞ্ছিত।
বস্তুতঃ সে উত্থান হবে একটি বিকট শব্দ মাত্র-যখন তারা প্রত্যক্ষ করতে থাকবে।
এবং বলবে, দুর্ভাগ্য আমাদের! এটাই তো প্রতিফল দিবস।
বলা হবে, এটাই ফয়সালার দিন, যাকে তোমরা মিথ্যা বলতে।

একত্রিত কর গোনাহগারদেরকে, তাদের দোসরদেরকে এবং যাদের এবাদত তারা করত।
আল্লাহ ব্যতীত। অতঃপর তাদেরকে পরিচালিত কর জাহান্নামের পথে,
এবং তাদেরকে থামাও, তারা জিজ্ঞাসিত হবে;
তোমাদের কি হল যে, তোমরা একে অপরের সাহায্য করছ না?
বরং তারা আজকের দিনে আত্নসমর্পণকারী।
তারা একে অপরের দিকে মুখ করে পরস্পরকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে।
বলবে, তোমরা তো আমাদের কাছে ডান দিক থেকে আসতে।
তারা বলবে, বরং তোমরা তো বিশ্বাসীই ছিলে না।

এবং তোমাদের উপর আমাদের কোন কতৃত্ব ছিল না, বরং তোমরাই ছিলে সীমালংঘনকারী সম্প্রদায়।
আমাদের বিপক্ষে আমাদের পালনকর্তার উক্তিই সত্য হয়েছে। আমাদেরকে অবশই স্বাদ আস্বাদন করতে হবে।
আমরা তোমাদেরকে পথভ্রষ্ট করেছিলাম। কারণ আমরা নিজেরাই পথভ্রষ্ট ছিলাম।
তারা সবাই সেদিন শান্তিতে শরীক হবে।
অপরাধীদের সাথে আমি এমনি ব্যবহার করে থাকি।

তাদের যখন বলা হত, আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য েনই, তখন তারা ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করত।
এবং বলত, আমরা কি এক উম্মাদ কবির কথায় আমাদের উপাস্যদেরকে পরিত্যাগ করব।
না, তিনি সত্যসহ আগমন করেছেন এবং রসূলগণের সত্যতা স্বীকার করেছেন।
তোমরা অবশ্যই বেদনাদায়ক শাস্তি আস্বাদন করবে।
তোমরা যা করতে, তারই প্রতিফল পাবে।

তবে তারা নয়, যারা আল্লাহর বাছাই করা বান্দা।
তাদের জন্যে রয়েছে নির্ধারিত রুযি।
ফল-মূল এবং তারা সম্মানিত।
নেয়ামতের উদ্যানসমূহ।

মুখোমুখি হয়ে আসনে আসীন।
তাদেরকে ঘুরে ফিরে পরিবেশন করা হবে স্বচ্ছ পানপাত্র।
সুশুভ্র, যা পানকারীদের জন্যে সুস্বাদু।
তাতে মাথা ব্যথার উপাদান নেই এবং তারা তা পান করে মাতালও হবে না।
তাদের কাছে থাকবে নত, আয়তলোচনা তরুণীগণ।
যেন তারা সুরক্ষিত ডিম।

অতঃপর তারা একে অপরের দিকে মুখ করে জিজ্ঞাসাবাদ করবে।
তাদের একজন বলবে, আমার এক সঙ্গী ছিল।
সে বলত, তুমি কি বিশ্বাস কর যে,
আমরা যখন মরে যাব এবং মাটি ও হাড়ে পরিণত হব, তখনও কি আমরা প্রতিফল প্রাপ্ত হব?
আল্লাহ বলবেন, তোমরা কি তাকে উকি দিয়ে দেখতে চাও?

অপর সে উকি দিয়ে দেখবে এবং তাকে জাহান্নামের মাঝখানে দেখতে পাবে।
সে বলবে, আল্লাহর কসম, তুমি তো আমাকে প্রায় ধ্বংসই করে দিয়েছিলে।
আমার পালনকর্তার অনুগ্রহ না হলে আমিও যে গ্রেফতারকৃতদের সাথেই উপস্থিত হতাম।
এখন আমাদের আর মৃত্যু হবে না।
আমাদের প্রথম মৃত্যু ছাড়া এবং আমরা শাস্তি প্রাপ্তও হব না।
নিশ্চয় এই মহা সাফল্য।

এমন সাফল্যের জন্যে পরিশ্রমীদের পরিশ্রম করা উচিত।
এই কি উত্তম আপ্যায়ন, না যাক্কুম বৃক্ষ?
আমি যালেমদের জন্যে একে বিপদ করেছি।
এটি একটি বৃক্ষ, যা উদগত হয় জাহান্নামের মূলে।
এর গুচ্ছ শয়তানের মস্তকের মত।

কাফেররা একে ভক্ষণ করবে এবং এর দ্বারা উদর পূর্ণ করবে।
তদুপরি তাদেরকে দেয়া হবে। ফুটন্ত পানির মিশ্রণ,
অতঃপর তাদের প্রত্যাবর্তন হবে জাহান্নামের দিকে।
তারা তাদের পূর্বপুরুষদেরকে পেয়েছিল বিপথগামী।

অতঃপর তারা তদের পদাংক অনুসরণে তৎপর ছিল।
তাদের পূর্বেও অগ্রবর্তীদের অধিকাংশ বিপথগামী হয়েছিল।
আমি তাদের মধ্যে ভীতি প্রদর্শনকারী প্রেরণ করেছিলাম।
অতএব লক্ষ্য করুন, যাদেরকে ভীতিপ্রদর্শণ করা হয়েছিল, তাদের পরিণতি কি হয়েছে।
তবে আল্লাহর বাছাই করা বান্দাদের কথা ভিন্ন।

আর নূহ আমাকে ডেকেছিল। আর কি চমৎকারভাবে আমি তার ডাকে সাড়া দিয়েছিলাম।
আমি তাকে ও তার পরিবারবর্গকে এক মহাসংকট থেকে রক্ষা করেছিলাম।
এবং তার বংশধরদেরকেই আমি অবশিষ্ট রেখেছিলাম।
আমি তার জন্যে পরবর্তীদের মধ্যে এ বিষয় রেখে দিয়েছি যে,
বিশ্ববাসীর মধ্যে নূহের প্রতি শান্তি বর্ষিত হোক।

আমি এভাবেই সৎকর্ম পরায়নদেরকে পুরস্কৃত করে থাকি।
সে ছিল আমার ঈমানদার বান্দাদের অন্যতম।
অতঃপর আমি অপরাপর সবাইকে নিমজ্জত করেছিলাম।
আর নূহ পন্থীদেরই একজন ছিল ইব্রাহীম।"
[সূরা আস-সাফফাত ১-৮৩]



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


হাজার বছরের পুরনো পবিত্র কোরআনের ১৭টি প্রাচীন কপি সংগ্রহ

হাজার-বছরের-পুরনো-পবিত্র-কোরআনের-১৭টি-প্রাচীন-কপি-সংগ্রহ

রেডিও শুনে শুনে পবিত্র কোরাআনের হাফেজ হলেন মরু রাখাল

রেডিও-শুনে-শুনে-পবিত্র-কোরাআনের-হাফেজ-হলেন-মরু-রাখাল

স্বর্ণের পাতায় লেখা পবিত্র কোরআন, মূল্য এক কোটি ১৫ লাখ টাকা

স্বর্ণের-পাতায়-লেখা-পবিত্র-কোরআন-মূল্য-এক-কোটি-১৫-লাখ-টাকা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


দুই কারণে জাপানীরা সবচেয়ে বেশি দিন বাঁচে! তাদের এই দীর্ঘায়ুর রহস্য জানলে চমকে যাবেন!

দুই-কারণে-জাপানীরা-সবচেয়ে-বেশি-দিন-বাঁচে--তাদের-এই-দীর্ঘায়ুর-রহস্য-জানলে-চমকে-যাবেন-

বাসায় আগুন লাগলে প্রথম যে কাজটি করবেন! তাড়াহুড়ায় অনেকেই যে ভুল কাজটি করেন

বাসায়-আগুন-লাগলে-প্রথম-যে-কাজটি-করবেন--তাড়াহুড়ায়-অনেকেই-যে-ভুল-কাজটি-করেন

নামকরা সংস্থার চাকরি ছেড়ে গরুর খামারি, বছরে আয় ৪৪ কোটি

নামকরা-সংস্থার-চাকরি-ছেড়ে-গরুর-খামারি-বছরে-আয়-৪৪-কোটি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


বেইজ্জতি চরমে পৌঁছে গেছে, ভয়ে ফোন ধরছি না: পাপন

সাকিবের স্টাম্প ভাঙ্গা নিয়ে আসিফ নজরুলের ফেসবুক স্ট্যাটাস ভাইরাল

এটা সাকিবের বিরুদ্ধে একটা ষড়যন্ত্র, যা কি না দীর্ঘসময় ধরে চলে আসছে: শিশির

তিমির পেটে গিয়েও জীবিত বেরিয়ে এলেন মাইকেল প্যাকার্ড!

বিচিত্র জগৎ


কাজ করিয়ে পুরো টাকা না দেওয়ায় মালিকের ৬ কোটির বাড়ি গুঁড়িয়ে দিলেন মিস্ত্রি!

কাজ-করিয়ে-পুরো-টাকা-না-দেওয়ায়-মালিকের-৬-কোটির-বাড়ি-গুঁড়িয়ে-দিলেন-মিস্ত্রি-

গোটা পরিবারের সামনে ২৮ জন স্ত্রীকে সাক্ষী রেখে ৩৭তম বিয়ে করলেন এই ব্যক্তি!

গোটা-পরিবারের-সামনে-২৮-জন-স্ত্রীকে-সাক্ষী-রেখে-৩৭তম-বিয়ে-করলেন-এই-ব্যক্তি-

একই সাথে ১০ সন্তানের জন্ম দিয়ে গিনেস রেকর্ড!

একই-সাথে-১০-সন্তানের-জন্ম-দিয়ে-গিনেস-রেকর্ড- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ